যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৭ ইং

|   ঢাকা - 08:30pm

|   লন্ডন - 02:30pm

|   নিউইয়র্ক - 09:30am

  সর্বশেষ :

  ইতালিতে বাংলাদেশ সমাজ কল্যাণ সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন   ধর্ম অবমাননা নিয়ে রংপুরে সহিংসতা, আদালতে টিটু রায়ের স্বীকারোক্তি   টিকাতেই নিরাময় হবে ক্যান্সার   মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা ‘জাতিগত বৈষম্যের’ শিকার : অ্যামনেস্টি   ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র জালিয়াতি, আটক ৮   নাইজেরিয়ায় মসজিদে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৫০   রোহিঙ্গাদের ফেরাতে চলতি সপ্তাহে সমঝোতার আশা সু চি’র   জানুয়ারি থেকে সব বাহিনীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিশেষ ভাতা: প্রধানমন্ত্রী   আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডসে সেরা হলেন যারা   পদত্যাগ নয়, জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন মুগাবে   কেন সৌদি আরব এমন করছে?   মরক্কোয় ত্রাণ নেওয়ার সময় পদদলিত হয়ে নিহত ১৫   ৭ মার্চকে ঐতিহাসিক দিবস ঘোষণা চেয়ে হাইকোর্টে রিট   শাহজালালের মাজারের কুপের পানিকে জমজমের পানি বলে প্রতারণা : তদন্তের নির্দেশ আদালতের   এলপিজি আমদানির জাহাজ কিনলো বেক্সিমকো পেট্রোলিয়াম

>>  বিনোদন এর সকল সংবাদ

আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডসে সেরা হলেন যারা

আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস (এএমএ) দেওয়া হয় শুধুই ভক্তদের ভোটে। এবারের আসরে রাজত্ব করলেন মার্কিন গায়ক ব্রুনো মার্স। বর্ষসেরা সংগীতশিল্পীসহ সর্বাধিক সাতটি পুরস্কার গেছে ৩২ বছর বয়সী এই তারকার ঘরে।

রবিবার রাতে (বাংলাদেশ সময় সোমবার সকাল) যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসের মাইক্রোসফট থিয়েটারে বসেছিল ৪৫তম এএমএ’র জমকালো আসর। ব্রুনো মার্স তার ‘২৪কে ম্যাজিক’ অ্যালবাম ও “দ্যাট’স হোয়াট আই লাইক” গানের সুবাদেই জিতেছেন বেশিরভাগ পুরস্কার।

তবে অনুষ্ঠানে ছিলেন না ব্রুনো। ছিলেন না প্রিয় ল্যাটিন গায়িকার স্বীকৃতি পাওয়া শাকিরাও। লাতিন গানের

বিস্তারিত খবর

কে এই ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ মানসি চিল্লার?

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-১৯ ০৯:২১:৫১

সারাবিশ্বকে তাক লাগিয়ে ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের মেয়ে মানসি চিল্লার হয়েছেন মিস ওয়ার্ল্ড-২০১৭। গতকাল শনিবার চীনের সানাইয়া সিটিতে অনুষ্ঠিত গ্র্যান্ড ফিনাল থেকে এই ঘোষণা আসে। এরপর বিশ্ববাসীর নজর এখন ২০ বছর বয়সী মানসির দিকে। জানার ইচ্ছা, কে এই ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ মানসি চিল্লার? ভারতীয় গণমাধ্যমের বরাতে জানা গেছে, মানসির আগাগোড়া পরিচয়।

ভারতীয় সংবাদপত্রের খবরে বলা হয়েছে, ১৯৯৭ সালের ১৪ মে হরিয়ানায় এক চিকিৎসক পরিবারে জন্ম মিস ওয়ার্ল্ড মানসি চিল্লার। তার বাবা-মা দু’জনেই পেশায় চিকিৎসক। বাবা মিত্রবসু চিল্লার ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের একজন বিজ্ঞানী। আর মা নীলম চিল্লার ইনস্টিটিউট অব হিউম্যান বিহেভিয়র অ্যান্ড অ্যালাইড সায়েন্সের সহকারী অধ্যাপক।

বাবা-মাকে দেখে ছোট থেকেই মানসির ইচ্ছা ছিল বড় হয়ে চিকিৎসক হবেন। তখন থেকেই পড়ার বইয়ে মুখ গুজে থাকতেন এই মেয়ে। আর বাকি পাঁচটা মেয়ের মতো পড়াশোনাটাই ছিল তার ধ্যান-জ্ঞান। একসময় মানসির পরিবার হরিয়ানা থেকে চলে আসে উত্তর দিল্লিতে। তখন মানসি ভর্তি হন দিল্লির সেন্ট থমাস স্কুলে। দ্বাদশ শ্রেণিতে খুব ভালো ফলাফল করে সোনিপাতের ভগতফুল সিংহ সরকারি কলেজ ও হাসপাতালে (মহিলা) ডাক্তারি পড়তে ভর্তি হন।

পড়াশোনার পাশাপাশি বিখ্যাত নৃত্যশিল্পী রাজা রেড্ডি, রাধা রেড্ডি এবং কৌশল্যা রেড্ডির কাছে মানসির তালিম চলছিল কুচিপুরি নৃত্যশৈলীরও। এমনকী ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামার ছাত্রী তিনি। পড়াশোনা, পরিবার, বন্ধুবান্ধব, নাচ আর নাটক এই নিয়ে জীবনটা একই খাতে বইছিল মানসির।

তবে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় একবার অংশ নেয়ার একটা সুপ্ত বাসনা ছিল তার মনের মধ্যে। সে কথাটা মা-বাবাকে একদিন বলেও ফেলেন। মেয়েকে উৎসাহ দিতে কোনো কার্পণ্য করেননি তার বাবা-মা। সে সময় চণ্ডীগড়ে ছিলেন মানসি। একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হওয়ার খবর পান। আর দেরি করেননি। নাম লেখাম করে ফেলেন সেই প্রতিযোগিতায়।

সেই থেকে জীবনটাকে এক্কেবারে অন্যভাবে দেখা। তখন থেকেই বিশ্বের সেরা সুন্দরীর মঞ্চে সেরার তকমা আদায় করার জন্য শুরু কঠিন অধ্যবসায়। যে সময় আর পাঁচটা ছাত্রী ঘুমতে যেতেন, সে সময় কঠিন অনুশীলনে ব্যস্ত থাকতেন ভারতের নতুন বিশ্ব সুন্দরী। একটা বছর ঠিকমতো পড়াশোনাটাও করে উঠতে পারেননি সে জন্য।

এসব কিছু অবশ্য বৃথা যায়নি। জয়ের শেষ হাসিটা হেসেছেন মানসি। ২০১৭ সালের ২৫ জুন হরিয়ানার হয়ে প্রতিনিধিত্ব করে জিতে নিয়েছিলেন ‘মিস ইন্ডিয়ার’ খেতাব। এবার বিশ্ব সুন্দরীর মুকুট জিতে নিলেন মানসি।

উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে প্রথমবার ভারতীয় হিসেবে ‘মিস ওয়ার্ল্ডে’র মুকুট জয় করেন ঐশ্বরিয়া রাই। এরপর ডায়ানা হেডেন ১৯৯৭ সালে দ্বিতীয়বারের মতো ভারত থেকে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। পরে যুক্তা মুখী ১৯৯৯ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ খেতাব পান। পরের বছর অর্থাৎ ২০০০ সালে আবার ভারত থেকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ বিজয়ী হয়েছিলেন। এর ১৭ বছর পর আবারও ভারতের মানসি চিল্লার হলেন মিস ওয়ার্ল্ড।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইরাক ও ইসরায়েল সুন্দরী একসঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-১৭ ২৩:৫৩:০১

মিস ইউনিভার্স ২০১৭ প্রতিযোগিতার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিযোগীরা জড়ো হচ্ছেন আমেরিকার লাস ভেগাস শহরে। সেখানে প্রতিযোগীরা যে ছবি তোলায় ব্যস্ত সময় কাটাবেন তাতে অবাক হবার কিছু নেই।

কিন্তু ইরাক থেকে আসা প্রতিযোগী, মিস ইরাক, সারা ইডান ইসরায়েলী প্রতিযোগী অ্যাডার গ্যান্ডেলস্ম্যানের সঙ্গে সেলফি তুলে সেটা যখন সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেছিলেন তখন তিনি বুঝতে পারেন নি এই সেলফি নিয়ে কীধরনের মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হবে।

মিস ইসরায়েল অ্যাডার গ্যান্ডেলস্ম্যানও একইধরনের সেলফি পোস্ট করেছেন তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এবং লাইক পেয়েছেন প্রায় তিন হাজার। ছবির সঙ্গে তিনি লিখেছেন মিস ইরাক দারুণ মেয়ে।

মিস গ্যান্ডেলস্ম্যান তার ফেসবুক পাতায় অন্যান্য প্রতিযোগীদের সঙ্গে অনেক ছবি পোস্ট করেছিলেন, তবে এই সেলফিটি মানুষের হৃদয় ছুঁয়েছে অনেক বেশি।

মিস ইডান বড় হয়েছেন ইরাকে এবং সঙ্গীত নিয়ে এখন পড়াশোনা করছেন আমেরিকায়। তার ফেসবুক পাতায় তিনি লিখেছেন ৪৫ বছরের মধ্যে তিনিই প্রথম ইরাকী যিনি আন্তর্জাতিক সুন্দরী প্রতিযোগিতায় তার দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন এবং এর জন্য তিনি খুবই গর্বিত।

তবে ইরাক এবং ইসরায়েলের মধ্যে যেহেতু কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই তাই কেউ কেউ মন্তব্য করেছেন তাদের ''এই সেলফি সকলের রুচিসম্মত নয়।'' সাব্রিনা বেনুই ইউটিউবে তাদের সেলফিটি পোস্ট করে এই মন্তব্য করেছেন।

আরব বিশ্বে ইসরায়েলের বৈরী আচরণের বিরুদ্ধে যারা তারা এই সেলফি নিয়ে ক্ষুব্ধ মন্তব্য করেছেন।

আমেরিকা থেকে আসাদ আবুখালিল নামে একজন অধ্যাপক টুইট বার্তায় লিখেছেন ''ইরাক সুন্দরী মনের খুশিতে দখলদার ও নিমর্মতা সুন্দরীর পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তুলছেন!''

তবে ইরাকী আন্দোলনকর্মী @Alaa টুইট করেছেন: '' একজন ইসরায়েলীর সঙ্গে একজন আরব মুসলমানের ছবি তোলার মানে মানবতা ও শান্তির ইস্যুতে ইসরায়েলী পররাষ্ট্রনীতির প্রতি সহমত পোষণ করা নয়।"

এসব সমালোচনার জবাবে মিস ইডান ইনস্টাগ্রামে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন মিস ইসরায়েল তার সঙ্গে ছবি তোলার জন্য তাকে ডেকেছিলেন এবং বলেছিলেন তাদের দুই দেশের মানুষের মধ্যে শান্তি আসুক এটাই তিনি প্রত্যাশা করেন।

''তিনি জিজ্ঞেস করেছিলেন আমরা একসঙ্গে ছবি তুলতে চাই কীনা। আমি বলেছিলাম শান্তির বার্তা তুলে ধরতে আমি আগ্রহী। ওই ছবির উদ্দেশ্য ছিল বিশ্ব শান্তির জন্য আশার একটা বর্হিপ্রকাশ।''

''ফিলিস্তিনি অধিকারের জন্য যারা সংগ্রাম করছেন আমার এই ছবি যদি তাদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে থাকে, আমি তাদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। ওই ছবি আর ওই পোস্ট কারোর মনে আঘাত দেবার উদ্দেশ্য করা হয়নি। এটা ছিল শান্তির আহ্বান জানাতে এবং সঙ্কট সমাধানের জন্য একটা আশার বার্তা ছড়িয়ে দিতে।''

এদিকে, ইসরায়েলে প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র ছবিটির প্রশংসা করেছেন এবং বলেছেন ''এলাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠার বার্তা তুলে ধরার জন্য ছবিটি দারুণ।''

টাইমস অফ ইসরায়েল পত্রিকা এই ছবি সম্পর্কে মন্তব্য করেছে ''বিভক্ত মধ্যপ্রাচ্যে এধরনের সহাবস্থানের ছবি খুবই ব্যতিক্রমী'' এবং সুগ্রিম নিউজ নামে আরেকটি পত্রিকা প্রশ্ন তুলেছে ''মিস ইরাকের সুন্দরী খেতাব কেড়ে নেওয়া উচিত কিনা।"


 এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

শাহরুখ খানের ২০ অজানা তথ্য

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-১২ ১০:০১:২৯

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) ৫২ বছরে পা দিয়েছেন। বলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেতা সম্পর্ক জানতে তার ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই। শাহরুখ খানের ব্যক্তিগত এবং পারিবারিক তথ্য জানার জন্য গভীর আগ্রহ থাকে তাদের।

শাহরুখ খান নিজেও বিভিন্ন সময় ভক্তদের কৌতূহল মেটাতে নানা তথ্য তুলে ধরেছেন।

চলুন জেনে নেই শাহরুখ খান সম্পর্কে ২০টি তথ্য-

১. তাজ মুহম্মদ খান আর লতিফ ফাতিমার পরিবারে ১৯৬৫ সালের ২ নভেম্বর জন্ম হয় শাহরুখের। পাঁচ বছর বয়স পর্যন্ত তিনি নানীর সঙ্গে প্রথমে ম্যাঙ্গালোর আর তারপরে ব্যাঙ্গালোরে থাকতেন। নানী তাঁর দেখাশোনা করতেন। শাহরুখের নানা ম্যাঙ্গালোর বন্দরের মুখ্য প্রকৌশলী ছিলেন।

২. শাহরুখের বাবা পাকিস্তানের পেশোয়ারের মানুষ, মা ভারতের হায়দ্রাবাদের আর দাদি কাশ্মীরের।

৩. বাড়িতে শাহরুখের বাবা 'হিন্দকো' ভাষায় কথা বলতেন। এই ভাষা পাকিস্তানে ব্যবহৃত পাঞ্জাবী কথ্য ভাষা।

৪. পাকিস্তানের পেশোয়ারের সঙ্গে শাহরুখের যোগাযোগ নিয়মিত ছিল। ১৯৭৮-৭৯ সালে তিনি গিয়েছিলেন বাবার ফেলে আসা শহরে। সে প্রথমবার শাহরুখ বাবার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। ভারতে শুধু তাঁর মায়ের দিকের আত্মীয় স্বজন ছিলেন, বাবার গোটা পরিবারই পেশোয়ারে থাকতেন।

৫. একটু বড় হওয়ার পরে শাহরুখের পরিবার দিল্লিতে চলে আসেন। সেন্ট কলাম্বাস স্কুলে পড়াশোনা করেছেন তিনি। খেলাধুলোয় খুব আগ্রহী ছিলেন শাহরুখ।

৬. স্কুলে পড়ার সময়ে শাহরুখ হিন্দিতে খুব একটা দক্ষ ছিলেন না। তবে একবার হিন্দি পরীক্ষায় দশে দশ পেয়েছিলেন তিনি, পুরষ্কার হিসাবে তার মা সিনেমা দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন।

৭. দিল্লির হংসরাজ কলেজ থেকে অর্থনীতিতে বি এ পাশ করেন আর জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়াতে মাস কমিউনিকেশন নিয়ে এম এ পড়তে ভর্তি হন। তবে সেটা আর শেষ করা হয় নি তাঁর।

৮. শাহরুখ খানের স্ত্রী গৌরীর বাবা একজন সেনা কর্মকর্তা ছিলেন। স্কুলে পড়ার সময় গৌরীর সাথে প্রথম চেনা পরিচিতি হয় শাহরুখের। একটা পার্টিতে দুজনের মধ্যে বেশ অনেকক্ষণ গল্প চলে। তখন থেকেই শুরু হয় শাহরুখ-গৌরীর প্রেম পর্ব।

৯. সেই তারিখটাও মনে আছে শাহরুখের - দিনটা ছিল ১৯৮৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসের নয় তারিখে। সেই দিনই শাহরুখ ড্রাইভিং লাইসেন্সও পেয়েছিলেন।

১০. গৌরী আর শাহরুখের বিয়ে হয় ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর।

১১. শাহরুখের যখন ১৫ বছর বয়স, তখনই তার বাবা মারা যান ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে। পেশায় উকিলও ছিলেন আবার স্বাধীনতা সংগ্রামেও অংশ নিয়েছিলেন শাহরুখের বাবা তাজ মুহম্মদ খান। অল্প বয়সে একবার জেলও খেটেছেন, পরে মৌলানা আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে ভোটেও দাঁড়িয়েছিলেন তাজ মুহম্মদ খান।

১২. শাহরুখ খানের প্রথম রোজগার ছিল ৫০ টাকা। গায়ক পঙ্কজ উদাসের একটা কন্সার্টে কাজ করে সেই টাকা পেয়েছিলেন। প্রথম রোজগারের টাকা দিয়ে ট্রেনের টিকিট কেটে শাহরুখ আগ্রা গিয়েছিলেন ।

১৩. তবে শাহরুখের প্রথম টেলি-সিরিয়াল শুরু হয় ১৯৮৯ সালে। কর্নেল কাপুরের পরিচালনায় 'ফৌজি' নামের সেই ধারাবাহিক খুবই জনপ্রিয় হয়েছিল। সেখানেই প্রথমবার ভারতের দর্শক দেখলেন পরের কয়েক বছরে স্টার থেকে সুপার স্টার হয়ে ওঠা শাহরুখ খানকে।

১৪. ছোট থেকেই শাহরুখ খানের ইচ্ছা ছিল সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার। কলকাতার 'আর্মি স্কুল'-এ ভর্তিও হয়েছিলেন শাহরুখ, কিন্তু ছেলেকে ছাড়তে রাজি হন নি তাঁর মা ।

১৫. ১৯৮৯-৯০ সালে রেণুকা সাহানের সঙ্গে 'সার্কাস' সিরিয়ালে কাজ করতে শুরু করেন শাহরুখ। সেই সময়ে তাঁর মা গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। মাকে ধারাবাহিকটার একটা পর্ব দেখানোর জন্য বিশেষ অনুমিত নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাঁর মা তখন এতটাই অসুস্থ, যে ছেলেকে চিনতেও পারেন নি। ১৯৯১ সালের এপ্রিল মাসে মৃত্যু হয় শাহরুখ খানের মায়ের।

১৬. মায়ের মৃত্যুর শোক থেকে দূরে সরে যেতে এক বছরের জন্য শাহরুখ দিল্লি থেকে মুম্বাই গিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর ফেরা আর হয়নি আর।

১৭. সে বছরই প্রথম চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন শাহরুখ খান। সেটি ছিল হেমা মালিনী অভিনীত 'দিল আসনা হ্যায়'। নায়ক হিসাবে শাহরুখকে প্রথম দেখা গেল পরে বছর ২৫ জুন ১৯৯২তে 'দিওয়ানা'য়।

১৮. কঠোর পরিশ্রম করতে পারেন শাহরুখ। মাত্র চার পাঁচ ঘণ্টা ঘুমান তিনি। তাঁর প্রিয় উক্তি হলো, 'ঘুমানো মানে জীবন নষ্ট করা'।

১৯. স্ত্রী সন্তান ছাড়া শাহরুখের সঙ্গে তাঁর বাড়িতে থাকেন বড় বোন লালারুখ।

২০. শাহরুখ খানের টুইটার একাউন্টে প্রায় তিন কোটি ফলোয়ার রয়েছে।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বলিউডে কাজ করতে গেলে নগ্ন হতে হয় : শ্রুতি

 প্রকাশিত: ২০১৭-১০-১১ ১৩:১৯:৩২

শ্রুতি হাসান! বলিউড ও দক্ষিণের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তবে জনপ্রিয়তার পাশাপাশি বিতর্কিতও বটে। খোলামেলা পোশাক ও ঠোটঁ কাটা স্বভাবের জন্য প্রায় সময়ই খবরের শিরোনাম হন এ অভিনেত্রী। আর এবারো নতুন বিতর্কের জন্মদিলেন শ্রুতি।

তিনি বলেন, ‘বলিউডে নগ্ন হতে হয়। পর্দার সামনেও হতে পারে। আবার প্রযোজকদের সামনেও হতে পারে।’

বলিউডে কাজ করতে গেলে নগ্ন হতে হয়। সেটা পর্দায় হোক আর পর্দার আড়ালে হোক। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে তিনি এমন মন্তব্য করেছেন। আর তার এই বক্তব্যে হৈ চৈ পড়ে গেছে গোটা বলিউডে।

সাক্ষাৎকারে তিনি আরো বলেন, ‘বলিউড একটি মায়াবি জায়গা। এখানে হাজার হাজার মেয়ে কাজ করার স্বপ্ন দেখে। আর নতুন মেয়েদের জন্য ফাঁদ পেতে থাকে কয়েকট অশুভ মহল। আমি নিজে বেশ কয়েকবার কুপ্রস্তাবের শিকার হয়েছি। আরও কয়েকজন অভিনেত্রীর কাছেও তাদের গল্প শুনেছি। সব মিলিয়ে আমার মনে হয়েছে বলিউডে নগ্ন হতে হয়। পর্দার সামনেও হতে পারে। আবার প্রযোজকদের সামনেও হতে পারে। কিন্তু আমাকে যখন প্রস্তাব করা হয়েছিলো আমি না করেছিলাম। দরকার হলে চরিত্রের প্রয়োজনে পর্দার সামনে নগ্ন হবো, কিন্তু পর্দার আড়ালে অনৈতিক কিছু করবো না। এটা আমার নীতিবোধ। আমার বাবা কমল হাসান আমাকে নীতির শিক্ষা সব সময় দিয়েছেন। সুতরাং সেই নীতি থেকে আমি বের হইনি, হবো না।’


এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ক্যাটরিনা এবার হলিউডে পাড়ি দিচ্ছেন?

 প্রকাশিত: ২০১৭-১০-০৫ ১২:৫৫:৫৯

প্রিয়ঙ্কা চোপড়া, দীপিকা পাড়ুকোনের পর ক্যাটরিনা কাইফও কি হলিউডে পা রাখছেন? বলিউডের পাশাপাশি হলিউডেও অভিনয় ক্যারিয়ার গড়ায় মন দিচ্ছেন ক্যাট, মুম্বাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে চলছে এমন কানা-ঘুঁষা।

ইন্ডিয়া টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, ক্যাটরিনা সম্প্রতি লস এঞ্জেলসে গিয়েছিলেন। ছুটি কাটানোই নায়িকার প্রধান উদ্দেশ্য বলে মনে করেছিলেন অনেকে। কিন্তু ছুটির পাশাপাশি কাজও প্রাধান্য পেয়েছিল বলে খবর। শোনা যাচ্ছে, ফক্স স্টুডিওর কর্তা ব্যক্তিদের সঙ্গে নাকি এক দফা মিটিংও সেরে ফেলেছেন নায়িকা।

তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেন নি ক্যাটরিনা।

শুধু প্রিয়ঙ্কা বা দীপিকা নন, আলি ফজল, নার্গিস ফকরির মতো বলি তারকারা ইতিমধ্যেই মার্কিন ছবিতে কাজ করেছেন। ক্যাটরিনাও সেই পথে হাঁটলে বলিউড টু হলিউড পাড়ি দেওয়া তারকাদের তালিকাটা আরেকটু লম্বা হবে।


এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

এমএমএস ৩-এর অফার ফিরিয়ে দিলেন সানি লিওন!

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-২৪ ০১:৪১:৫৩

একতা কপূরের সঙ্গে স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবারের বিবাদের কারণে একতা কপূরের রাগিনী এমএমএস ৩ ছবিতে কাজ করতে অস্বীকার করেছেন সানি লিওন। বলিউডে এমনই খবর। একতার ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর, তিনি সানির সঙ্গে ঝামেলা মিটিয়ে নিতে আগ্রহী। কিন্তু সানি কোনওভাবেই একতার সঙ্গে কাজ করতে চাইছেন না।

রাগিনী এমএমএস ২ ছবিতে ‘বেবি ডল’ গানের সঙ্গে নেচে চলচ্চিত্রপ্রেমীদের নজরে পড়েন সানি লিওন। কিন্তু সেই ছবির প্রচারের সময়ই একতার সঙ্গে ঝামেলায় জড়ান সানি। পরবর্তীকালে ড্যানিয়েলের সঙ্গেও ঝামেলা হয় একতার। এই ঘটনার পর থেকেই একতার সঙ্গে বিশেষ কথাবার্তা বলেন না সানি। তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, একতার সঙ্গে কাজ করতে চান না।

বালাজি টেলিফিল্মস লিমিটেডের সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি বলেছেন, ‘সানি প্রথমে রাগিনী এমএমএস ৩-এ কাজ করতে অস্বীকার করেন। এরপর একতা তাঁকে অন্তত একটি আইটেম সংয়ে নাচার অনুরোধ জানান। কিন্তু তাতেও রাজি হননি সানি। শেষে একটি ক্যামিও রোলের প্রস্তাব দেওয়া হয় সানিকে। কিন্তু সানি এখনও পর্যন্ত এই প্রস্তাবে সাড়া দেননি।’

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ধোনির সঙ্গে প্রেমের প্রশ্ন নাকচ করলেন রাই লক্ষ্মী

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১৯ ০৪:০৮:৫৪

গল্পটা অনেক পুরোনো। ২০০৮ সালের কথা। সেই সময় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল চেন্নাই এক্সপ্রেসের প্রতিনিধি ছিলেন দক্ষিণী অভিনেত্রী রাই লক্ষ্মী। অন্যদিকে দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। পরবর্তীতে তাদের মধ্যে গড়ে ওঠে বন্ধুত্ব। তাদেরকে নিয়ে প্রেমের গুঞ্জনও ওঠে। কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যে তাদের ব্রেকআপের খবরও চাউর হয়। বর্তমানে সাক্ষীকে নিয়ে সুখেই কাটছে ধোনির সংসার। এ দম্পতির ঘরে রয়েছে একটি কন্যা সন্তান। আর সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত রাই লক্ষ্মী। 

তবে সম্প্রতি এই পুরোনো গল্পটাই নতুন করে আলোচনায় এসেছে। খুব শিগগির মুক্তি পাবে রাই লক্ষ্মীর পরবর্তী সিনেমা জুলি-টু। সিনেমার পোস্টার থেকে ট্রেইলার সবখানেই এ অভিনেত্রীর খোলামেলা দৃশ্যসহ নানা কারণেই বেশ আলোচনায় তিনি। আলোচনায় আসছে তার ব্যক্তিগত নানা বিষয়। এরই সাথে ধোনির সঙ্গে তার প্রেমের বিষয়টিও উঠে এসেছে আলোচনায়।

বর্তমানে জুলি-টু সিনেমার প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত রাই লক্ষ্মী। সম্প্রতি এমনই এক প্রচারণা অনুষ্ঠানে ধোনির সঙ্গে তার প্রেমের বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করা হয় এ অভিনেত্রীকে। জবাবে পাল্টা প্রশ্ন করে তিনি বলেন, ‘তিনি কে?’

এরপর এ অভিনেত্রী বলেন, ‘এই বিষয়টির এখন ইতি টানা প্রয়োজন। এটি অনেক আগের ঘটনা, তিনি এখন সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন, তার বাচ্চা রয়েছে। জীবনে কিছু বিষয় ঠিকঠাক হয় না, কিন্তু এরপরও আপনাকে এগিয়ে যেতে হয়। মানুষ খুব সহজেই চিন্তা করে নিয়েছিল যে, আমি তাকে বিয়ে করতে যাচ্ছি। কিন্তু এটি একদমই সত্যি নয়। এই গুঞ্জনের কারণে আমরা ভীষণ বিব্রত হয়েছিলাম এবং এ বিষয়ে আমি মিডিয়ায় কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। কিন্তু এখন এ বিষয়ে বলছি। বিস্তারিত কিছু বলতে চাই না কারণ তাকে আমি অনেক সম্মান করি।’

২০০৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত জুলি সিনেমার সিক্যুয়েল জুলি-টু। প্রথম সিনেমাটিতে অভিনয় করেছিলেন নেহা ধুপিয়া। এবার থাকছেন রাই লক্ষ্মী। জুলি-টু সিনেমাটি পরিচালনা করছেন দীপক শিবদাসানি। এতে রাই লক্ষ্মী ছাড়াও রয়েছেন-রতি অগ্নিহোত্রী, সাহিল সালাথিয়া, আদিত্য শ্রীবাস্তব, রবি কৃষান এবং পঙ্কজ ত্রিপাঠি। চলতি বছর ৬ অক্টোবর মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

আজ সালমান শাহর জন্মদিন

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১৯ ০৪:০৬:০৬

বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয়তম নায়ক সালমান শাহ’র জন্মদিন মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর)। ১৯৭১ সালের আজকের দিনে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৩ সালে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত 'কেয়ামত থেকে কেয়ামত' ছবির মাধ্যমে অভিষেকের পর ‘জনপ্রিয়তা’ আর ‘সালমান’ যেন সমার্থক হয়ে গিয়েছিল। দ্রুতই তিনি হয়ে উঠেছিলেন বাংলাদেশের সিনেমা জগতের এক নম্বর নায়ক।

সালমান শাহর মতো এমন দীর্ঘস্থায়ী জনপ্রিয়তা খুব কম চলচ্চিত্র তারকারাই অর্জন করতে পেরেছেন। কিন্তু ক্যারিয়ারের মাত্র চার বছরের মাথায় চিরতরে বিদায় নিয়েছিলেন এই জনপ্রিয় নায়ক। সালমান আত্মহত্যা করেছিলেন নাকি খুন হয়েছিলেন এ প্রশ্নের উত্তর এখনো খোঁজেন ভক্তরা।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ ফ্ল্যাটে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল তার লাশ। বিষয়টিকে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করলেও সালমান শাহ’র ভক্তরা সেটা মেনে নেননি। বিভিন্ন সময় অনেকেই দাবি করেছেন সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে। এই বিয়োগান্তক ঘটনাটি এখনও পর্যন্ত ‘আনসলভড মিস্ট্রি’ হিসেবেই আছে।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বাউল সম্রাট আব্দুল করিমের মৃত্যুবার্ষিকী

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১৩ ১৪:৫৫:২৩

শাহ আব্দুল করিম। জন্ম সুনামগঞ্জের কালনী নদীর তীরে। বাংলা বাউলগানের জগতে একজন কিংবদন্তি শিল্পী। ২০০৯ সালের আজকের এই দিনে (১২ সেপ্টেম্বর) তিনি প্রয়াত হন।

দরিদ্র ও জীবন সংগ্রামের মাঝে বড় হওয়া শাহ আব্দুল করিমের সঙ্গীত সাধনার শুরু ছেলেবেলা থেকেই। তার প্রেরণা তার স্ত্রী। যাকে তিনি আদর করে ‘সরলা’ নামে ডাকতেন। তার জন্ম ১৯১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জের দিরাই থানার ধলআশ্রম গ্রামে । বাবার নাম ইব্রাহীম আলী ও মায়ের নাম নাইওরজান।

১৯৫৭ সাল থেকে শাহ আব্দুল করিম তার জন্মগ্রামের পাশের উজানধল গ্রামে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। সুনামগঞ্জের কালনী নদীর তীরে বেড়ে ওঠা শাহ আব্দুল করিমের গান ভাটি অঞ্চলে খুবই জনপ্রিয় ।প্রায় দেড় হাজার গানের স্রষ্টা তিনি।

ভাটি অঞ্চলের মানুষের জীবনের সুখ প্রেম-ভালোবাসার পাশাপাশি তার গান কথা বলে সকল অন্যায়, অবিচার, কুসংস্কার আর সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে। তিনি তার গানের অনুপ্রেরণা পেয়েছেন প্রখ্যাত বাউলসম্রাট ফকির লালন শাহ, পাঞ্জু শাহ এবং দুদ্দু শাহ এর দর্শন থেকে।

দরিদ্রতার কারণে ছেলেবেলায় কৃষিকাজ করতেন। কিন্তু গান সৃষ্টি থেকে বিরত থাকেননি কখনো। তিনি বাউলগানের দীক্ষা লাভ করেন সাধক রশীদ উদ্দীন, শাহ ইব্রাহীম মাস্তান বকশ এর কাছ থেকে। তিনি শরিয়তি, মারফতি, দেহতত্ত্ব, গণসংগীতসহ বাউল গান এবং গানের অন্যান্য শাখার চর্চাও করেছেন।

স্বশিক্ষিত বাউল শাহ আব্দুল করিমের ১০টি গান বাংলা একাডেমির উদ্যোগে ইংরেজিতে অনূদিত হয়েছে। কিশোর বয়স থেকে গান লিখলেও কয়েক বছর আগেও এসব গান শুধুমাত্র ভাটি অঞ্চলের মানুষের কাছেই জনপ্রিয় ছিল। তার মৃত্যুর কয়েক বছর আগে বেশ কয়েকজন মূল ধারার শিল্পী বাউল শাহ আব্দুল করিমের গানগুলো নতুন করে গেয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করলে তিনি দেশব্যাপী পরিচিতি লাভ করেন।

বাউলসাধক শাহ আব্দুল জীবনের একটি বড় অংশ লড়াই করেছেন চরম দরিদ্রতার সঙ্গে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন সময় তার সাহায্যার্থে এগিয়ে এলেও তা তিনি কখনোই গ্রহণ করেননি।

শাহ আব্দুল করিমের জনপ্রিয় কিছু গান হলো- ‘বন্দে মায়া লাগাইছে, পিরিতি শিখাইছে’, ‘আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম’, ‘গাড়ি চলে না’, ‘রঙ এর দুনিয়া তরে চায় না’, ‘ ঝিলঝিল ঝিলঝিল করেরে ময়ুরপংখী নাও’,  ‘মানুষ হয়ে তালাশ করলে’,  ‘আমি বাংলা মায়ের ছেলে’  ‘আমি কূলহারা কলঙ্কিনী’,  ‘কেমনে ভুলিবো আমি বাঁচি না তারে ছাড়া’,  ‘কোন মেস্তরি নাও বানাইছে’, ‘কেন পিরিতি বাড়াইলারে বন্ধু’,  ‘বসন্ত বাতাসে সইগো’,   ‘আইলায় না আইলায় নারে বন্ধু’,  ‘সখী কুঞ্জ সাজাও গো’ ইত্যাদি।

এ ছাড়া এই পর্যন্ত শাহ আব্দুল করিমের সাতটি গানের বই প্রকাশিত হয়েছে। সেগুলো হলো-আফতাব সঙ্গীত (১৯৪৮),  গণসঙ্গীত (১৯৫৭), কালনীর ঢেউ (১৯৮১), ধলমেলা (১৯৯০), ভাটির চিঠি (১৯৯৮), কালনীর কূলে (২০০১) ও শাহ আব্দুল করিম রচনাসমগ্র (২০০৯)।

মৃত্যুর কিছুদিন আগে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে তার রচনাসমগ্র (অমনিবাস)-এর মোড়ক উন্মোচিত হয়েছে। এ ছাড়াও সুমনকুমার দাশ সম্পাদিত শাহ আব্দুল করিম স্মারকগ্রন্থ (অন্বেষা প্রকাশন) তার মৃত্যুর পর প্রকাশিত হয়।

এর আগে-পরে শাহ আব্দুল করিমকে নিয়ে সুমনকুমার দাশের ‘বাংলা মায়ের ছেলে : শাহ আব্দুল করিম জীবনী’ (অন্বেষা প্রকাশন), ‘সাক্ষাৎকথায় শাহ আব্দুল করিম’ (অন্বেষা প্রকাশন), ‘শাহ আব্দুল করিম’ (অন্বেষা প্রকাশন), ‘বাউলসম্রাট শাহ আব্দুল করিম’ (উৎস প্রকাশন), ‘গণগীতিকার শাহ আব্দুল করিম’ (উৎস প্রকাশন) প্রকাশিত হয়। সর্বশেষ ২০১৬ সালে প্রথমা থেকে প্রকাশিত হয় সুমনকুমার দশের ‘শাহ আব্দুল করিম : জীবন ও গান’ বইটি। এ বইটি ইতোমধ্যেই একটি প্রামাণ্য জীবনী হিসেবে বোদ্ধামহলে স্বীকৃতি আদায় করে নিয়েছে।

শাহ আব্দুল করিম ২০০১ সালে একুশে পদক লাভ করেন। পেয়েছেন কথা সাহিত্যিক আবদুর রউফ চৌধুরী পদক, রাগীব-রাবেয়া সাহিত্য পুরস্কার,  লেবাক এ্যাওয়ার্ড, মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার আজীবন সম্মাননা, সিটিসেল-চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস আজীবন সম্মাননা, বাংলাদেশ জাতিসংঘ সমিতি সম্মাননা,  খান বাহাদুর এহিয়া পদক, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা, হাতিল এ্যাওয়ার্ড ও এনসিসি ব্যাংক এনএ সম্মাননা।

এ ছাড়া শাকুর মজিদ তাকে নিয়ে নির্মাণ করেছেন ‘ভাটির পুরুষ’ নামে একটি প্রামাণ্য চিত্র। সুবচন নাট্য সংসদ তাকে নিয়ে শাকুর মজিদের লেখা মহাজনের নাও নাটকের ৮৮টি প্রদর্শনী করেছে।
শাহ আব্দুল করিমকে আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বলিউডে অভিনয় করতে যাচ্ছেন জাকিয়া বারী মম

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১৩ ০২:৫২:১৩

হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করতে যাচ্ছেন জাকিয়া বারী মম। এরই ধারাবাহিকতায় পরিচালক ফয়সাল সাইফের পরিচালনায় ছবিটিতে অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে শুরু হচ্ছে বলিউডে মম’র যাত্রা। বলিউডেও আরো ভালো কিছু করতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন মম।

গত ৯ সেপ্টেম্বর ভারতের মুম্বাইয়ে নাম প্রকাশ না হওয়া ছবিটিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

সিনেমাটি পরিচালনা করছেন ফয়সাল সাইফ। শুটিং শুরু হবে চলতি বছরের ডিসেম্বরে।

এ প্রসঙ্গে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকাকে মম বলেন, ‘পরিচালক ফয়সাল সাইফের পরিচালনায় ছবিটিতে অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে শুরু হচ্ছে বলিউডে আমার যাত্রা। দেশের পর্দায় অভিনয় করে দর্শকদের মন যেভাবে জয় করেছি, আশা করি বলিউডেও আরো ভালো কিছু করতে পারব। ছবির নাম ও সহশিল্পীদের নাম এখনো প্রকাশ করা হয়নি। তবে শুটিংয়ের আগে তাদের নাম ও ছবির নাম ঘোষণা করবেন পরিচালক।’

প্রয়াত নির্মাতা ঋতুপর্ণ ঘোষের গল্প অবলম্বনে সাজানো হয়েছে সিনেমাটির গল্প।

পরিচালক ফয়সাল সাইফ বলেন, ‘নারীকেন্দ্রিক আমার নতুন এই ছবিতে বাংলাদেশের জাকিয়া বারী মমকে নিচ্ছি। ডার্ক থ্রিলার ধাঁচের গল্পটিতে বলতে গেলে মূল চরিত্র মমই। কারণ তাকে ঘিরেই ছবির মূল কাহিনী সাজানো হয়েছে।’

এক দশক আগে সুন্দরী প্রতিযোগিতার মাধ্যমে অভিনয়ে আসেন মম। প্রথম সিনেমা ‘দারুচিনি দ্বীপ’-এ অভিনয় করে পান জাতীয় পুরস্কার। মুক্তি পাওয়া অন্য দুটি ছবি হলো ‘প্রেম করবো তোমার সাথে’ ও ‘ছুঁয়ে দিলে মন’। নির্মাণাধীন রয়েছে ‘স্বপ্নবাড়ি’ ও ‘আলতা বানু’। এছাড়া অসংখ্য জনপ্রিয় নাটকে দেখা গেছে মমকে।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

মিসরের এল গোনা চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের ‘ডুব’

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১২ ০২:১১:৪৯

আলোচিত ‘ডুব’ ছবিটি মিসরের এল গোনা চলচ্চিত্র উৎসব প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত হয়েছে। সেখানে বাংলাদেশের মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর এই ছবিটি প্রতিযোগিতা করবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ছবির সঙ্গে।

এর মধ্যে আছে বার্লিন ফেস্টিভ্যালে সেরা পরিচালকের পুরস্কার জেতা আকি কারুসমাকির ছবি ‘আদার সাইড অব হোপ’, ভেনিসে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জেতা ছবি ‘ইনসাল্ট’, লোকার্নো জয়ী ‘স্ক্যারি মাদার’, ট্রাইবেকা জয়ী ‘সন অব সোফিয়া’।

দক্ষিণ এশিয়ার ছবি হিসেবে ‘ডুব’ই একমাত্র প্রতিনিধিত্ব করবে ওই প্রতিযোগিতায়। পাশাপাশি ভারতের অনুরাগ কাশ্যপ পরিচালিত ‘মোক্কাবাজ’ ও প্রতিযোগিতার বাইরে প্রদর্শিত হবে।

‘ডুব’ ছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেতা ইরফান খান, কলকাতার পার্নো মিত্র, নুসরাত ইমরোজ তিশা ও রোকেয়া প্রাচী প্রমুখ। জাজ মাল্টিমিডিয়ার পাশাপাশি ইরফান খান ফিল্মস ও কলকাতার এসকে মুভিজও ডুব নির্মাণে টাকা লগ্নি করেছে।

‘ডুব’ ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে আগামী ২৭ অক্টোবর। শুধু বাংলাদেশে নয়, একইসঙ্গে ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও সিঙ্গাপুরে ছবিটির মুক্তির বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। ছবিটি নন্দিত লেখক হুমায়ূন আহমেদের পরিবারের অনুমতি ছাড়াই তার জীবনী নিয়ে বানানো হয়েছে দাবি করে এর মুক্তিতে আপত্তি জানিয়েছিলেন হুমায়ূনপত্নী মেহের আফরোজ শাওন। তার আপত্তির মুখে ছবিটিকে কোনো রকম মুক্তি না দিতে আদেশ দেয় তথ্য মন্ত্রণালয়। এরপর তথ্য মন্ত্রণালয় ও সেন্সরবোর্ড বিভিন্ন রকম যাচাই-বাছাই শেষে বেশ কিছু দৃশ্য কর্তন করে গত ৮ আগস্ট ছবিটিকে সেন্সর ছাড়পত্র দেয়।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

রোহিঙ্গাদের প্রতি পপি-অপুর সমবেদনা

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১০ ১৪:৪৩:২৬

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে বর্বোরিচত নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন দেশের চলচ্চিত্রের অন্যতম দুই জনপ্রিয় নায়িকা পপি ও অপু বিশ্বাস।

রোহিঙ্গাদের প্রতি সমবেদনা জানাতে গিয়ে নিজের জন্মদিনে কেক কাটার আনন্দ পরিহার করেছেন পপি। অন্যদিকে, নিজের ফেসবুক পেজে রোহিঙ্গাদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে এক আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন পপি। যেখানে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে দেশের ‘উপর মহল’র মানুষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অপু বিশ্বাস।

রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) ছিল চিত্রনায়িকা পপির জন্মদিন। কিন্তু তিনি জন্মদিনের কেক কাটেন নি। এ বিষয়ে দুপুরে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে পপি বলেছেন, ‘রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে সবাই যখন উদ্বিগ্ন, তখন নিজের জন্মদিন উদ্যাপনের কথা ভাবা যায়? এমন একটা সময় কীভাবে জন্মদিন পালন করি? আমি খুবই মর্মাহত। তাই এমন ঘটনায় আমি জন্মদিন পালন করব না এবং কেকও কাটব না।’

এদিকে, একই দিন সন্ধ্যায় নিজের ফেসবুক পেজে আবেগঘন সেই স্ট্যাটাসে অপু লিখেছেন, ‘আমার খুব বেশি ফেসবুকে আসা হয়না। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে ফেসবুকে আসলে রোহিঙ্গা বিষয়ক ছবি গুলো দেখলে শরীর শিউরে উঠে। আমি রক্ত সহ্য করতে পারিনা, তার উপর এসব বিবৎস ছবি গুলো দেখে ভয়ে ফেসবুক থেকে লগআউট করি। গতকাল ফেসবুকে লগিন করতে একটা ছবিটা দেখতে পাই। ছবিটার উপর আমার চোখ আটকে যায়। এদের জায়গায় নিজেকে কল্পনা করি। আমারও একটা সন্তান আছে। বাংলাদেশে জন্ম না হয়ে যদি আমার জন্মটা রাখাইন রাজ্যেও হতে পারতো। আমিও তখন এই পরিস্থিতিতে পরতে পারতাম। না আর ভাবতে পারছিনা, অনুভব করলাম চোখের কোনে গরম তপ্ত জল গড়িয়ে পড়ছে। নিজের সন্তানকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরলাম.. আরো বেশি শক্ত করে। মানুষ কী করে এত অমানবিক হতে পারে? কী করে নির্দয় হয়। উফ! ভাবতে পারছিনা। খোদা তুমি রহম করো।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমি একজন ছোটখাটো মানুষ, আমি খুব বেশি গুছিয়ে লিখতেও পারিনা। দেশের উপরের মহলের প্রতি অনুরোধ করছি তাদের পাশে আরো বেশি করে দাঁড়ান। তাদের প্রতি আরো বেশি সদয় হোন। সারা বিশ্ব দেখুক আমরা কতটা শান্তি প্রিয় মানুষ। পরিশেষে মানবতার জয় হোক।’

প্রসঙ্গত, কয়েক দশক ধরে মিয়ানমারে চলমান জাতিগত নিপীড়নের মুখে পালিয়ে আসা পাঁচ লাখের বেশি মানুষ বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়ে আছে।এর মধ্যে গত ২৪ অগাস্ট রাখাইনে পুলিশ পোস্ট ও সেনা ক্যাম্পে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির হামলার পর সীমান্তে নতুন করে রোহিঙ্গাদের ঢল নেমেছে। এ দফায় ইতোমধ্যে প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে বলে জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের ধারণা।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

চলচ্চিত্রকে বিদায় জানালেন মিশা সওদাগর

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-১০ ১৪:৪২:৪৫

পর্দার আড়ালে চলে যাচ্ছেন জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা সওদাগর। তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আর অভিনয় করবেন না। এই তথ্য নিশ্চিত করে মিশা বলেন, আমি অনেক ভেবেচিন্তে কথাগুলো বলছি, অভিনয় ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। চলচ্চিত্রে অনেক দিন তো হলো, এবার নিজের জন্য একটু সময় দিতে চাই। সিনেমার পেছনেই তো সময় শেষ করলাম।

১৯৮৬ সাল থেকে মিশা সওদাগর চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। এফডিসি আয়োজিত নতুন মুখ কার্যক্রমে নির্বাচিত হন তিনি। ছটকু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ ছবিতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেন ১৯৯০ সালে। এরপর ‘অমরসঙ্গী’ ছবিতেও তিনি নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেন, কিন্তু দুটোর একটিতেও সাফল্য পাননি।

পরবর্তীতে বিভিন্ন পরিচালক তাকে খল চরিত্রে অভিনয়ের পরামর্শ দেন এবং তমিজ উদ্দিন রিজভীর ‘আশা ভালোবাসা’ ছবিতে ভিলেন চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। সেখান থেকেই তার সাফল্য শুরু।
এরপর প্রায় ৯০০ ছবিতে অভিনয় করেছেন এ খলনায়ক।

মিশা বলেন, আমি টাকার জন্য বাঁচতে চাই না, নিজের জন্য বাঁচতে চাই। একই ধরনের চরিত্র, প্রায় একই ধরনের সংলাপ। যদি আমার বয়স আর সময় বুঝে কেউ তেমন কোনো চরিত্র নিয়ে আসে, আর তা যদি খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়, তাহলে তেমন কাজ হয়তো মাঝে মাঝে করব। কিন্তু পেশা হিসেবে আর নয়। হাতে থাকা ছবিগুলোর কাজ এই বছরই শেষ করবেন বলে জানান মিশা। তিনি বলেন, কারো সঙ্গে আমার কোনো বৈরিতা (শত্রুতা) নেই। এ সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত। আমি চলচ্চিত্র ছাড়ার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি সেটি একেবারেই চূড়ান্ত।

অভিনয় ছাড়লেও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সঙ্গে থাকবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। বলেছেন, আমি চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি। সংগঠনে পর্যাপ্ত সময় দেব। চলচ্চিত্রের গুণগত পরিবর্তনের জন্য কাজ করব।

মিশা যৌথ প্রযোজনায় ছবি বানানোর ঘোর বিরোধী। গত ২৬ জানুয়ারি শিল্পী সমিতির নির্বাচন ঘিরে ‘নীতিগতভাবে আমরা এক, চলচ্চিত্র শিল্পীদের মিলনমেলা ও মতবিনিময়’ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, এখন যৌথ প্রযোজনার নামে যা হচ্ছে তা আমাদের চলচ্চিত্রের জন্য মঙ্গলজনক নয়। এটা চলচ্চিত্রের কফিনে পেরেক ঠুকে দেওয়ার মতোই। যৌথ প্রযোজনার যে নিয়ম তা এখন কেউই মানছে না।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে ঘোর আপত্তি প্রিয়াংকার

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৯-০৯ ১৪:৩৬:৫৬

ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে ঘোর আপত্তি তুলেছেন সাবেক বলিউড বিশ্ব সুন্দরী প্রিয়াংকা চোপড়া। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে টিভিতে প্রচারিত বিভিন্ন ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনের প্রতি তার আপত্তির কথা জানান নায়িকা। সাক্ষাৎকারে তিনি এসব বিজ্ঞাপনের কঠোর সমালোচনাও করেন।

তিনি বলেন, ‘এই ধরনের বিজ্ঞাপনগুলি গায়ের রং নিয়ে বৈষম্য আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে। সাধারণ মানুষ এখন সেলিব্রিটিদের অনুসরণ করতে চায়। গায়ের রং নিয়েও সবাই এখন বেশ সচেতন। যার ফলে ফর্সা, সুন্দরী হওয়ার ইঁদুর দৌড়ে তরণীদের মধ্যে মানসিক অবসাদ দিন দিন বেড়েই চলছে।’

প্রিয়াংকা আরও বলেন,  টিনএজে তিনিও একবার ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন করেছিলেন। যার জন্য এখন তিনি অনুতপ্ত। প্রত্যেক মানুষেরই তার নিজের সৌন্দর্য নিয়েই খুশি থাকা উচিত। তাতে আত্মবিশ্বাস অনেক বাড়ে।’

টিভিতে সবচেয়ে বেশি টিআরপি ওঠে যেকোনো ফেয়ারনেস ক্রিম বা ফেয়ারনেস জেলের বিজ্ঞাপনে। এসব বিজ্ঞাপনে যখন ফলাও করে প্রচার করা হয় যে ওমুক নায়িকার তরতাজা ত্বকের রহস্যের পিছনে আছে ওমুক বিশেষ ক্রিমের অবদান, তখনই হুড়মুড়িয়ে বেড়ে যায় সেই ক্রিমের বিক্রি। ফর্সা, সুন্দর ত্বকের জন্য মরিয়া এখন আট থেকে আশি বয়সের নারী-পুরুষ সবাই। তবে যে যতই আপত্তি তুলুক তাতে কি ক্রিম কোম্পানিসহ সর্বসাধারনের টনক নড়বে?

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

প্রস্তুত হচ্ছেন শাহরুখ কন্যা সুহানা

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২৮ ১৫:১৬:১৯

বলিউড কিং শাহরুখ খান। দীর্ঘ ২৫ বছরের অভিনয় ক্যারিয়ারে দর্শকদের উপহার দিয়েছেন অনেক জনপ্রিয় সিনেমা। বাবার পথ ধরে তার মেয়ে সুহানা রুপালি জগতে পা রাখছেন এ গুঞ্জন অনেকদিন ধরেই উড়ছে।

বলিউডে আসার প্রস্তুতি নাকি শুরু করেছেন সুহানা। করন জোহরের তত্ত্বাবধায়নেই নাকি প্রস্তুত হচ্ছেন শাহরুখ কন্যা। সূত্রের বরাত দিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম।

সূত্রের দেওয়া তথ্যমতে, সম্প্রতি তিনি (সুহানা) করন জোহরের অফিসে এসেছিলেন এবং তার সঙ্গে পেশাদার হেয়ার স্টাইলিশ এবং মেকআপ পারসন ছিল। একজন শীর্ষ স্টাইলিস্ট তার স্টাইল করেছেন এবং প্রসিদ্ধ একজন ফটোগ্রাফার তার ফটোশুট করেছেন।

বলিউডের তারকা সন্তানদের সিনেমার পর্দায় নিয়ে আসতে নির্মাতা করন জোহরের জুড়ি নেই। শাহরুখের পরিবারের সঙ্গে তার সম্পর্কটাও ভালো। এছাড়া শাহরুখ সবসময়ই বলে আসছেন অভিনেত্রী হওয়ার ইচ্ছে রয়েছে তার মেয়ে সুহানার। বেশ কিছুদিন আগে স্কুলের থিয়েটারে সুহানার অভিনয়ের একটি ক্লিপ ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছিল।

এছাড়া কয়েকদিন আগে ল্যাকমে ফ্যাশন উইকে হাজির হয়েছিলেন সুহানা। সেখানে ক্যামেরার সামনে বেশ আত্মবিশ্বাসী ছিলেন তিনি। তবে খুব শিগগির করন সুহানাকে নিয়ে সিনেমা করবেন কিনা সে বিষয়টি এখনো নিশ্চিত নয়।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

‘এবং শাকিব খান’এ বুবলি

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২৭ ০৮:৫০:১১

শাকিব খান-বুবলি জুটির দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে ইতোমধ্যে। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে আরো দুটি। জনপ্রিয় এ জুটি এবার আরটিভির পর্দায় হাজির হচ্ছেন।

‘এবং শাকিব খান’ শিরোনামের ঈদুল আজহার বিশেষ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে থাকছেন শাকিব ও বুবলি। অনুষ্ঠানে শাকিব খান অভিনয় জীবনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও খোলামেলা কথা বলেছেন। অন্যদিকে বুবলি জানালেন তার চলচ্চিত্র ভাবনা ও আগামীর পরিকল্পনা।

মারিয়া নূরের উপস্থাপনা ও সোহেল রানা বিদ্যুতের প্রযোজনায় ‘এবং শাকিব খান’ প্রচার হবে ঈদের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিন বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইউটিউবে আসিফ-কর্ণিয়ার রোমান্স

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২৬ ০৫:৩৯:১০

আসিফ আকবর ও কর্ণিয়া প্রেমে পড়েছেন। যা প্রকাশ হচ্ছে বিচিত্র সব আচরণ ও টানা ফোনালাপে। তেমনটাই দেখছেন দর্শক-শ্রোতা দুদিন ধরে। দুই তারকার নতুন মিউজিক ভিডিও’র কথা বলছি, যাতে তাদের দেখা যাচ্ছে রোমান্টিক অবতারে।

নতুন গানটির শিরোনাম ‘কী করে তোকে বোঝাই’। এতে আসিফের সঙ্গে প্রথমবারের মতো কণ্ঠ দিয়েছেন ‘পাওয়ার ভয়েস’-খ্যাত কর্ণিয়া।

ভিডিও নির্দেশনা দিয়েছেন চিত্র নির্মাতা সৈকত নাসির। তাই পাওয়াও গেল সিনেমার ঢং।

এ নিয়ে আসিফ বলছিলেন, ‘সিনেমার নায়ক-নায়িকার ঢঙে আমাদের দুজনকে শট দিতে হয়েছে। শুটিংয়ে পোশাক ছিল আমার জন্য একেবারেই নতুন। প্রতিদিন পাঁচবার করে পোশাক পরিবর্তন করে শট দিতে হয়েছে।’

সপ্তাহ কয়েক আগে টানা তিনদিন কক্সবাজারের বিভিন্ন লোকেশনে ‘কী করে তোকে বোঝাই’-এর শুটিং হয়। লোকেশন ও আসিফ-কর্ণিয়ার রসায়ন মিলে শ্রোতারা ভালোই উপভোগ করছেন গানটি। বৃহস্পতিবার ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ইউটিউবে প্রকাশ হয়ে ভিডিওটি। ইতোমধ্যে দেখা হয়েছে ২ লাখের বেশিবার।

গানটি লিখেছেন মেহেদী হাসান, সুর করেছেন নাজির মাহমুদ আর সংগীতে ছিলেন মুশফিক লিটু।

এদিকে সম্প্রতি ‘সাদা আর লাল’ শিরোনামের আরেকটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করেছেন আসিফ। এতে তার সঙ্গে পারফর্ম করেছেন চিত্রনায়িকা পপি। এ গানটিও শ্রোতারা পছন্দ করেছেন।

লিংক :
https://www.youtube.com/watch?v=d1zItGxekHc&index=1&list=PLPL1g4yzY3R4Sqh5RK2_qqzbs65T6hPs1

বিস্তারিত খবর

আবারও বিয়ের পিঁড়িতে এষা দেওল!

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২৩ ১৪:৩৮:৪৮

কদিন পরই জন্ম নেবে এষা দেওলের বাচ্চা। বিয়েও করেছেন পাঁচ বছর হল। বাচ্চার আগমন উপলক্ষে সবধরনের প্রস্তুতিও ইতিমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু নতুন খবর হল আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন এষা! তাও আবার তার 'গোদ ভরাই' এর (বেবি শাওয়ার) দিনে!

ভাবছেন পাত্র কে? এখানেইতো কাহিনির টুইস্ট! পাত্র আসলে  তারই বর ভারত তাখতানি। ভারত তাখতানি জাতীতে সিন্ধি। আর সিন্ধি রীতিতে গর্ভবতী স্ত্রীকে আরেকবার বিয়ে করতে হয় স্বামীকে। তবে সাত পাকে নয়। এবেলায় তিন পাকে বাধা পড়বেন এই জুটি। বিয়ের অনুষ্ঠানটি হবে ঐতিহ্যবাহী সিন্ধি রীতিতেই। যেখানে 'গোদ ভরাই' এর দিনে বাবা মা আবার বিয়ে করে কিন্তু তিন পাকে। দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠ একজন বলেছেন, ‘হ্যাঁ এষা দেওয়ালের গোধ ভারাই এ মাসের ২৭ তারিখ হবে। এটা খুবই ছোট একটি অনুষ্ঠান হবে। যেখানে এষা এবং ভারত আবারও একে অপরের বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন। কিন্তু সাত পাকে নয় তিন পাকে বাধা পড়বেন তারা। এটা ঐতিহ্যবাহী সিন্ধি রীতি। দেওয়াল এবং তাখতানি পরিবারের সবাই উন্মুখ হয়ে আছে এই শুভ দিনটির জন্য।’

এষা এবং তার স্বামী ২০১২ সালে বিয়ে করেন। তারা স্কুলের বন্ধুও ছিলেন পরে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেলেও ২০১১ সালে হেমা মালিনীর পরিচালনায় ‘টেল মি ও খোদা’ ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে দুজনের আবার দেখা হয়। এরপর তারা দুজন দুজনের প্রেমে পড়েন।

সম্প্রতি গ্রিসে দুই জন মাতৃত্বকালীন ফটোশ্যুটও করে এসেছেন। যেখানে এই অভিনেত্রী ফুল দিয়ে নকশা করা গাউন পরে তার বেবি বাম্প (গর্ভাবস্থা) দেখিয়েছেন। নীতা লুলার এর ডিজাইনে এষা ইতিমধ্যে তার বেবি শাওয়ার রুমের থিম এবং নিজের জন্য পোশাক নির্বাচন করে ফেলেছেন।

এষা বলিউডের অভিনেত্রী ও অভিনেতা হেমা মালিনী এবং ধর্মেন্দ্রর প্রথম সন্তান। নিজেও একজন অভিনেত্রী। ধুম, না তুম জানো না হাম, ক্যায়া দিল নে কাহা তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবি।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত নায়করাজ

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২৩ ১৪:৩৪:১৭

রাজধানীর বনানীরবুদ্ধিজীবী কবরস্থানেবাংলাদেশের চলচ্চিত্রের উজ্জ্বল নক্ষত্র কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাকের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

বুধবার (২৩ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টায় তার দাফন সম্পন্ন হয়।

যদিও গতকাল মঙ্গলবার বাদ আসর জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে তার দাফন হওয়ার কথা ছিল। নায়কের মেজ ছেলে রওশন হোসেন বাপ্পি না পৌছানোয় মঙ্গলবার দাফন স্থগিত করা হয়েছিল।

নায়করাজের মরদেহ দাফনের সময় তার বড় ছেলে বাপ্পা রাজ, পরিবারবর্গ ও অভিনয় জগতের অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

রাজ্জাকের মরদেহ ঢাকার গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের হিমঘর থেকে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে এফডিসিতে আনা হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় তার প্রথম জানাজা। নায়করাজ রাজ্জাককে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে বিএফডিসিতে উপস্থিত হয়েছিলেন চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব গাজী মাজহারুল আনোয়ার, আলমগীর, সুচন্দা, ববিতা, চম্পা, ফেরদৌসসহ অনেকে।

প্রিয় কর্মস্থল বিএফডিসিতে শেষ শ্রদ্ধা ও জানাজা শেষে মঙ্গলবার দুপুর ১২টা ২৩ মিনিটে রাজ্জাকের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌঁছে। সেখানে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের পক্ষ থেকে তার প্রতি সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শহীদ মিনারে রাজ্জাকের মরদেহে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে মন্ত্রী হাসানুল হক ইনুসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে রাজ্জাকের মরদেহ নেওয়া হয় গুলশান আজাদ মসজিদে। সেখানে জানাজার পর বুধবার সকালে বনানী কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

কিংবদন্তি অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাক গত সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ সর্বস্তরে শোকের ছায়া নেমে আসে।

এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি রাজ্জাক আর নেই

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২১ ১৪:৩৮:৫৭

চলে গেলেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাক। সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ১৩মিনিটে তিনি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তিনি বেশ কিছুদিন ধরে নিউমোনিয়াসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন।

চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার ও ইউনাইটেড হাসপাতালের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস কর্মকর্তা সাজ্জাদুর রহমান শুভ বিষয়টি রাইজিংবিডিকে নিশ্চিত করেছেন।

সাজ্জাদুর রহমান জানান, নায়ক রাজ্জাককে আজ বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে তার পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সে সময় তার পালস পাওয়া যাচ্ছিল না। চিকিৎসকেরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছিলেন। সন্ধ্যা ৬টা ১৩ মিনিটে আমরা নিশ্চিত হই তিনি আর নেই।

নায়করাজ রাজ্জাকের প্রকৃত নাম আব্দুর রাজ্জাক। তিনি ১৯৪২ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে কলকাতার টালিগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। ছোটবেলা থেকেই রাজ্জাক অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন। ১৯৬৪ সালে তিনি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে চলে আসেন। তখন রাজ্জাক তৎকালীন পাকিস্তান টেলিভিশনে ‘ঘরোয়া’ নামের ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করে দর্শকদের কাছে জনপ্রিয় হন।

এরপর নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে তিনি পরিচালক আব্দুল জব্বার খানের সহযোগিতায় ইকবাল ফিল্মসে কাজ করার সুযোগ পান। পরে পরিচালক কামাল আহমেদের সহকারী হিসেবে ‘উজালা’ ছবিতে কাজ করেন। সালাউদ্দিন প্রোডাকশন্সের ‘তেরো নাম্বার ফেকু ওস্তাগার লেন’ চলচ্চিত্রে ছোট একটি চরিত্রে অভিনয় করে সবার কাছে নিজ মেধার পরিচয় দেন রাজ্জাক। পরবর্তীতে ‌’কার বউ’, ‘ডাক বাবু’, ‘আখেরী স্টেশন’সহ কয়েকটি ছবিতে ছোট ছোট চরিত্রে অভিনয় করে তিনি।

১৯৬৫ সালে প্রয়াত জহির রায়হান তাঁকে প্রথম ‘বেহুলা’ চলচ্চিত্রে নায়ক হিসেবে কাস্ট করেন। এতে তাঁর বিপরীতে নায়িকা হিসেবে ছিলেন সুচন্দা। এরপর আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি রাজ্জাককে। তাঁর অভিনীত ছবিগুলো বেশ দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করে। দর্শকের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে তিনি নায়করাজ হিসেবে পরিচিতি পান।

তার অভিনীত জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘নীল আকাশের নীচে’, ‘ময়নামতি’, ‘মধু মিলন’, ‘পীচ ঢালা পথ’,  ‘যে আগুনে পুড়ি’, ‘জীবন থেকে নেয়া’, ‘কী যে করি’, ‘ আলোর মিছিল’, ‘অনন্ত প্রেম’, ‘বাদী থেকে বেগম’, ‘আগুন নিয়ে খেলা’, ‘এতটুকু আশা’, ‘নাচের পুতুল’, ‘অশ্রু দিয়ে লেখা’, ‘অবুঝ মন’, ‘গুন্ডা’, ‘রংবাজ’, ‘আগুন’, ‘অশিক্ষিত’, ‘মাটির ঘর’, ‘ছুটির ঘণ্টা’, ‘বেঈমান’, ‘মহানগর’, ‘চন্দ্রনাথ’, ‘অভিযান’, ‘অনুরাগ’, ‘রাজা সাহেব’, ‘গাঁয়ের ছেলে’, ‘বেঈমান’, ‘আনারকলি’, ‘কালো গোলাপ’, ‘বদনাম’, ‘শুভদা’, ‘রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’, ‘ঘর সংসার’, ‘যোগাযোগ’, ‘বড় ভাল লোক ছিল’, ‘বাবা কেন চাকর’ ইত্যাদি।

রাজ্জাক প্রায় ৩০০টি বাংলা ও উর্দু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। নায়করাজ শুধু নায়ক হিসেবেই নয়, অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজক ও পরিচালক হিসেবেও চলচ্চিত্র অঙ্গনে সফল ছিলেন রাজ্জাক। তার প্রযোজনা সংস্থার নাম রাজলক্ষী প্রোডাকশন। পরিচালনা করেছেন প্রায় ১৬টি চলচ্চিত্র। সর্বশেষ তিনি ‘আয়না কাহিনী’ ছবিটি নির্মাণ করেছেন। চলচ্চিত্রের বাইরে জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করেছেন নায়করাজ রাজ্জাক।

নায়ক রাজ্জাক প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন ‘কি যে করি’ ছবিতে অভিনয় করে। এরপর আরও চারবার তিনি জাতীয় সম্মাননা পান। ২০১১ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয় তাঁকে। এছাড়া বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস) পুরস্কার পেয়েছেন বেশ কয়েকবার।

রাজ্জাক পাঁচ সন্তানের জনক। তারা হলেন- রেজাউল করিম ওরফে বাপ্পারাজ, নাসরিন পাশা শম্পা, রওশন হোসাইন বাপ্পি, আফরিন আলম ময়না ও খালিদ হোসাইন ওরফে সম্রাট। এদের মধ্যে বাপ্পারাজ ও সম্রাট বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করে চলচ্চিত্রে নাম লিখিয়েছেন।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

‘আসুন প্যানিক না করে, কাজ করি’

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-২০ ০২:৪৮:১৭

বন্যায় আক্রান্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন টিভি অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজি তিশা। নিজের ফেসবুক পাতা এক স্ট্যাটাসে তিশা লিখেন, ‘বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ দিকে যাচ্ছে, এটা আমরা সবাই দেখতে পাচ্ছি। এই মুহুর্তে দরকার সবাই মিলে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা।’

সবাইকে একসাথে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিশা বলেন, ‘ত্রান, স্বেচ্ছাসেবা যে যেটা দিয়ে পারি একসাথে কাজ করি সবাই চলেন। আমাদের টিম ত্রাণ নিয়ে কাজ করছে এমন সংগঠনের সাথে কোঅরডিনেশন করে কাজ করছে।’

তিশা আরো বলেন, ‘আসুন প্যানিক না করে, কাজ করি। আর প্রার্থনা করি উজানে যেনো বৃষ্টি কমে।’

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ছাড়পত্র পেল ‘ইনোসেন্ট লাভ’

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-১৭ ১৩:৪০:৫২

ঢাকাই চলচ্চিত্রের নজরকাড়া গ্ল্যামারকন্যা পরীমনি অভিনীত সিনেমা ‘ইনোসেন্ট লাভ’। যুগল নির্মাতা অপূর্ব-রানা পরিচালিত এ সিনেমায় পরীর বিপরীতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক জেফ। সিনেমাটি শুটিং শেষ করা হয়েছে অনেক আগেই। সম্প্রতি এ সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডে জমা দেয়া হয়। গতকাল ১৬ আগস্ট সিনেমাটি বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র পায় বলে জানান এর নির্মাতা রানা।

এ প্রসঙ্গে রানা বলেন, ‘সিনেমাটির শুটিং অনেক আগেই শেষ করা হয়েছে। মাঝে চলচ্চিত্রের অবস্থা ভালো ছিলনা বলে সেন্সরে জমা দেয়া হয়নি। সিনেমাটি সেন্সর বোর্ড দেখে খুব প্রশংসা করেছে। এ সিনেমায় পরীমনি ও জেফ দারুণ অভিনয় করেছেন। আশা করছি দর্শকদের ভালো লাগবে।’

২০১৪ সালের শুরুর দিকে রাজধানীর উত্তরায় মহরতের মাধ্যমে শুরু হয়েছিল এ সিনেমার শুটিং। এতে মোট পাঁচটি গান রয়েছে। এর মধ্যে একটি আইটেম গানও রয়েছে। জাবেদ আহমেদ কিসলু ও রুমী সেনের কম্পোজিশনে গানগুলোতে কণ্ঠ দিয়েছেন এস আই টুটুল, পড়শী, রাজিব, মুন, লিজা, তানজিন রুমা ও রুপম।

জাহিন চলচ্চিত্রের ব্যানারে সিনেমাটিতে পরী-জেফ ছাড়া আরো অভিনয় করেছেন-সোহেল রানা, সুচরিতা, মিজু আহমেদ, সুব্রত, আমির সিরাজী ও কাবিলা।

পরীমনি বর্তমানে সিলেটে ‘নদীর বুকে চাঁদ’ সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এছাড়া সম্প্রতি প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে চাইনিজ একটি সিনেমায় নাম লিখিয়েছেন তিনি।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ফের সালমানের সঙ্গে ডেইজি

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-১৫ ১৭:২৬:৫০

বলিউডের জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজি রেস। শোনা যাচ্ছে, এর পরবর্তী সিক্যুয়েল অর্থাৎ রেস-থ্রি সিনেমায় অভিনয় করবেন সালমান খান। এতে সালমানের সঙ্গে ডেইজি শাহকেও দেখা যাবে। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে এমনটাই জানানো হয়েছে।

একটি সূত্রের দেয়া তথ্যমতে, রেস-থ্রি সিনেমায় তিনটি নারী চরিত্র থাকছে। এর মধ্যে একটি চরিত্রে ডেইজি শাহকে নিয়েছেন সালমান খান ও প্রযোজক রমেশ তাওরানি। সিনেমায় আরো দুজন প্রথম সারির নায়িকাকে নেয়া হবে।

সবকিছু ঠিক থাকলে এটি হবে সালমান খানের সঙ্গে ডেইজি শাহর দ্বিতীয় সিনেমা। এর আগে ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত জয় হো সিনেমায় সালমানের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন ডেইজি।

বর্তমানে টাইগার জিন্দা হ্যায় সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন সালমান খান। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন ক্যাটরিনা কাইফ। সিনেমাটি পরিচালনা করছেন আলী আব্বাস জাফর। চলতি বছর ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।


এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সানি লিওনের নতুন আইটেম গান

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-১৪ ১৫:০৫:৪২

নতুন একটি ছবিতে আইটেম গানে নেচেছেন বলিউড তারকা সানি লিওন। ওমাং কুমার পরিচালিত ‘ভূমি’ ছবিতে একটা আইটেম ড্যান্সে থাকছে সানি লিওন।

গত ১২ আগস্ট শনিবার তার আইটেম গান ‘ট্রিপি ট্রিপি’র ফার্স্ট লুক প্রকাশ পায়। সানি তার টুইটারে ‘ভূমি’র আইটেম গানের ছবি শেয়ার করেন। প্রিয়া সারাইয়ার কথায় সচিন-জিগরের সুরে ‘ট্রিপি ট্রিপি’তে নেচেছেন সানি।

ছবিটিতে অভিনয় করেছেন সঞ্জয় দত্ত। দীর্ঘ বিরতির পর আবার বলিউড পর্দায় ফিরছেন এই অভিনেতা। সব কিছু ঠিক থাকলে ২২ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে ‘ভূমি’ সিনেমাটি।

এলএবাংলাটাইমস/ই/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত