যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ২০ মে, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 05:29am

|   লন্ডন - 12:29am

|   নিউইয়র্ক - 07:29pm

  সর্বশেষ :

  নারী সহকর্মীদের ধর্ষণ করতে তালিকা তৈরি যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর নাবিকদের   ভাড়া করা নেতৃত্বে চলছে বিএনপি : হাছান মাহমুদ   খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছি : খন্দকার মাহবুব   কৃষক বাঁচাতে চাল আমদানি বন্ধ করতে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ   রোজা রেখে দায়িত্ব পালনের সময় ঢাকায় ট্র্যাফিক কনস্টেবলের মৃত্যু   হামলার জেরে ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মী বহিষ্কার   পাকিস্তানিদের ভিসা দেয়া বন্ধ করেছে বাংলাদেশ   সততার বিরল দৃষ্টান্ত: সেতুর কাজ শেষ করেও ৭০০ কোটি টাকা ফেরত দিলো কোম্পানি   হন্ডুরাসে ব্যক্তিগত বিমান বিধ্বস্তে নিহত পাঁচ   মন্ত্রিসভায় দপ্তর পুনর্বণ্টন   যুক্তরাষ্ট্র-ইরান যুদ্ধাতঙ্ক, জরুরি বৈঠক ডেকেছেন সৌদি বাদশাহ   রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে হরিলুট: তদন্ত কমিটি গঠন   ইউরোপেও যাচ্ছে সাতক্ষীরার আম   ২৫ টাকার ইনজেকশন ১৫০০ টাকায় বিক্রি   চলমান মামলা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা যাবে : আইনমন্ত্রী

>>  বহিঃ বিশ্ব এর সকল সংবাদ

নারী সহকর্মীদের ধর্ষণ করতে তালিকা তৈরি যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর নাবিকদের

যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর একটি সাবমেরিনের নাবিকেরা তাদের ৩২ নারী ক্রু সহকর্মীকে নিয়ে একটি ‘ধর্ষণ তালিকা’ তৈরি করেছিল।

সোমবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম ডেইলি মেইল জানায়, দেশটির সেনাবাহিনী সম্পর্কিত ওয়েবসাইট মিলিটারি.কমে প্রকাশিত একটি তদন্ত প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে।

একটি ওহিও-ক্লাস ক্রুজ মিসাইল সাবমেরিন ইএসএস ফ্লোরিডার গোল্ড ক্রুর কিছু নাবিক এই ‘ধর্ষণ তালিকা’ শেয়ার করে বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।

এই ৭৪ পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তালিকাটি গোল্ড ক্রুর পুরুষদের মাঝে বিতরণ করা হয়। এই তালিকার

বিস্তারিত খবর

পাকিস্তানিদের ভিসা দেয়া বন্ধ করেছে বাংলাদেশ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-২০ ১৬:৫৫:১৭

পাকিস্তানের নাগরিকদেরকে ভিসা দেয়া বন্ধ করেছে বাংলাদেশ। এতে দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

সোমবার পাকিস্তানে বাংলাদেশ হাই কমিশন পাকিস্তানিদেরকে ভিসা দেয়া বন্ধ করে দেয় বলে জানিয়েছে পাকিস্তানি গণমাধ্যম দুনিয়া নিউজ এবং ভারতীয় গণমাধ্যম ডব্লিউআইওএন।

বাংলাদেশের এক কূটনীতিকের ভিসা নবায়ন না করায় ইসলামাবাদে বাংলাদেশ হাই কমিশনের ভিসা সেকশনটি গত সোমবার থেকে বন্ধ আছে বলেও উল্লেখ করেছে পাকিস্তানি গণমাধ্যমটি।

গণমাধ্যমটি জানায়, এক বছরের বেশি সময় ধরে বাংলাদেশ পাকিস্তানের নতুন হাই কমিশনের নিয়োগ গ্রহণ প্রত্যাখ্যান করায় এই বাংলাদেশি কূটনীতিকের ভিসা নবায়ন বিলম্বিত হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমটি জানায়, পাকিস্তানের নাগরিকদেরকে গত সাতদিন ধরে ভিসা দেয়া হচ্ছে না। এই ঘটনায় বাংলাদেশ পাকিস্তানের এবং পাকিস্তান বাংলাদেশের শীর্ষ কূটনীতিককে তলব করেছে।

বিস্তারিত খবর

হন্ডুরাসে ব্যক্তিগত বিমান বিধ্বস্তে নিহত পাঁচ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৯ ১৬:৪৪:০৪

হন্ডুরাসে ব্যক্তিগত একটি বিমান বিধ্বস্তে চার পর্যটক এবং পাইলট নিহত হয়েছেন। বিমানটি সাগরে বিধ্বস্ত হয়। নিহত পর্যটকরা কোন দেশের এ সম্পর্কে দেশটির বিভিন্ন কর্মকর্তা ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিয়েছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, হন্ডুরাসের রোয়াতান দ্বীপ থেকে উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। রোয়াতান আটলান্টিক মহাসাগরের একটি জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত।

নিহতদের সম্পর্কে হন্ডুরাসের আর্মড ফোর্সেসের মুখপাত্র হোসে ডমিঙ্গো মেজা বলেন, নিহত চারজন পর্যটক যুক্তরাষ্ট্রের। কিন্তু পাইলটের পরিচয় সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এর আগে দেশটির জরুরি সেবা জানায়, নিহত চার পর্যটক কানাডার হলেও পাইলটকে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি।
স্থানীয় কর্তৃপক্ষ অবশ্য বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার কোনও কারণ জানায়নি। তবে তারা জানিয়েছে, এটা রোয়াতান থেকে ৪৯ মাইল দূরে ত্রুজিলোতে যাচ্ছিল। ত্রুজিলোও একটি পর্যটন কেন্দ্র যেখানে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ইউরোপ থেকে প্রচুর পর্যটক যায়।

বিস্তারিত খবর

যুক্তরাষ্ট্র-ইরান যুদ্ধাতঙ্ক, জরুরি বৈঠক ডেকেছেন সৌদি বাদশাহ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৯ ১৬:৪০:৪৬

যুক্তরাষ্ট্রের সাথে ইরানের যুদ্ধ লেগে যাওয়ার সম্ভাবনায় পুরো মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এজন্য সৌদি বাদশাহ সালমান ৩০শে মে মক্কায় এক জরুরি বৈঠকে বসতে আরব লীগ এবং উপসাগরীয় দেশগুলোর জোট জিসিসি সদস্যদের আমন্ত্রণ পাঠিয়েছেন। খবর বিবিসি বাংলার।

সৌদি বার্তা সংস্থা এসপিএ সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে সমুদ্রসীমায় (সৌদি) বাণিজ্যিক জাহাজে হামলা এবং সৌদি আরবের মধ্যে দুটো তেল ক্ষেত্রে হুথি বিদ্রোহীদের হামলার প্রেক্ষিতে এই জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে।

গত সপ্তাহের শেষের দিকে উপসাগরে দুটি সৌদি তেলের ট্যাংকারে হামলা চালানো হয়। এছাড়া সৌদি দুটো তেলের স্থাপনায় ড্রোন হামলার পর অপরিশোধিত তেলের গুরুত্বপূর্ণ একটি পাইপলাইন বন্ধ করে দিতে হয়েছে।

এসপিএ আরও জানিয়েছে, শনিবার রাতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও মধ্যপ্রাচ্যের আঞ্চলিক নিরাপত্তা নিয়ে সৌদি যুবরাজ এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে কথা বলেছেন।

অবশ্য সৌদি আরব কোনও যুদ্ধ চায় না বলে জানিয়েছে। এ সম্পর্কে সৌদি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আদিল আল জুবেইর রিয়াদে আজ (রোববার) এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সৌদি আরব এ অঞ্চলে কোনও যুদ্ধ চায় না। যুদ্ধ যেন না হয় তার সব চেষ্টাই সৌদি আরব করবে। তবে অন্য পক্ষ যুদ্ধ শুরু করলে সৌদি আরব তার নিরাপত্তা এবং স্বার্থ রক্ষায় কড়া জবাব দেবে।

বিস্তারিত খবর

ভারতে ফের ক্ষমতায় আসছেন মোদি

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৯ ১৬:৩৪:২৯

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের সাত ধাপের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে আজ। ফলাফল ঘোষণা করা হবে ২৩ মে। তার আগেই কয়েকটি জরিপে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে, আবারও ক্ষমতায় আসছেন নরেন্দ্র মোদি।

রিপাবলিক সি-ভোটার ও টাইমস নাও-ভিএমআর প্রকাশিত জরিপ বলছে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করবে। টাইমস নাও-ভিএমআর জরিপ এনডিএ জোটের ৩০০ এরও বেশি আসন এবং কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোটের ১৩২টি আসন পাওয়ার কথা বলেছে।

রিপাবলিক সি-ভোটার বলছে, এনডিএ পাবে ২৮৭ আসন এবং ইউপিএ পাবে ১২৮টি আসন। এবিপি নিয়েলসন নামের জরিপও মোদির জয় দেখছে। তারা পূর্বাভাস দিয়েছে, এনডিএ ২৬৭টি আসনে বিজয়ী হবে। আর কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট ইউপিএ পাবে ১২৭টি আসন।

নিউজ নেশনের জরিপ বলছে, এনডিএ ২৮০-২৯০টি আসন পাবে এবং ইউপিএ পাবে ১১৮-১২৬ আসন। নিউজ ১৮-আইপিএসওএস জরিপ অনুযায়ী, এনডিএ ৩৩৬ আসনে বিজয়ী হবে এবং ইউপিএ পাবে ৮২টি আসন।

এদিকে বিভিন্ন জরিপের ফলাফল গড় করে অন্য একটি জরিপ প্রকাশ করেছে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি। তারা এটাকে বলছে, পোল অব পোলস। এই জরিপ অনুযায়ীও নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করবে এনডিএ জোট।

বিস্তারিত খবর

ইসরাইল থেকে সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৮ ১৬:৪১:১১

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন শনিবার জানিয়েছে, ইসরায়েলের ভূখণ্ড থেকে জঙ্গিগোষ্ঠীদের নিক্ষেপ করা ক্ষেপণাস্ত্র এবং ড্রোনের জবাব দেয়া হয়েছে রাশিয়ার পরিচালিত সিরিয়ার মেইমিম বিমানঘাঁটি থেকে। এতে এক ব্যক্তি নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে বলেও জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম।

সিরিয়ার রাষ্ট্র পরিচালিত সংবাদসংস্থা সানা জানিয়েছে, বিমানঘাঁটিটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘‘অধিকৃত অঞ্চল (ইসরায়েল) থেকে ছোড়া উজ্জ্বল বস্তু প্রতিরোধ করেছে।''

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কেও বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে যা ইসরায়েলের দিক থেকে এসেছে বলে জানিয়েছে সিরিয়ার গণমাধ্যম।

ব্রিটেনভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস-এর প্রধান রামি আব্দেল রহমান জানিয়েছেন, জারামানার কাছে এবং দামেস্কের দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।

নিজস্ব সূত্রের বরাতে রেহমান জানিয়েছেন যে, ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্রের লক্ষ্য ছিল কেসা অঞ্চলে অবস্থিত ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডস এবং লেবাননের হিজবুল্লাহর ঘাঁটি এবং অস্ত্রের গুদাম রয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে সিরিয়ার বিভিন্ন স্থানে কয়েকশতবার বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। সেসব হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল দেশটির শত্রু হিসেবে বিবেচিত ইরান এবং হিজবুল্লাহর বিভিন্ন স্থাপনা।

তবে, ইসরায়েল দুশমন বিবেচনা করলেও সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের ঘনিষ্ঠ মিত্র হিসেবে বিবেচিত এই দুই শক্তি সিরিয়ায় ২০১১ সালে আসাদবিরোধী আন্দোলন শুরুর পর থেকেই সেখানে সক্রিয় অবস্থান নিয়েছে।

ইসরায়েলের উদ্বেগ হচ্ছে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধের মাঝে ইরান সম্ভবত হিজবুল্লাহকে এমন সব অস্ত্র এবং দক্ষতা সরবরাহ করছে যা ভবিষ্যতে ইসরায়েলে বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হতে পারে।

সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের এই ঘটনা এমন এক সময়ে ঘটলো যখন ইরান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার উত্তেজনার পারদ ক্রমশ তুঙ্গে উঠছে। ইতোমধ্যে পারস্য উপসাগরে একটি বিমানবাহী রণতরী পাঠিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ডয়েচে ভেলে।

বিস্তারিত খবর

ইরানের কল পেতে টেলিফোন নিয়ে অপেক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৮ ১৬:০৪:০২

ইরানের কাছ থেকে ফোনকলের আশায় টেলিফোন সেট সামনে নিয়ে বসে আছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু ইরানের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না।

শুক্রবার এমনটিই জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের এক সিনিয়র কর্মকর্তা। খবর ওয়াশিংটন পোস্ট ও রয়টার্সের।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তেহরানের সঙ্গে সরাসরি কথা বলার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।আর এ কারণে তাদেরকে আমাদের নম্বরও দেয়া হয়েছে।

আমরা তাদের ফোনকলের অপেক্ষায় টেলিফোন সেটের সামনে অপেক্ষা করছি। কিন্তু ইরানের পক্ষ থেকে এখনও কোনো বার্তা পাওয়া যায়নি, বলেন তিনি।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অসততার অভিযোগ তুলে ইরানি সামরিক বাহিনীর এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, তেহরানের কাঁধে বন্দুক রেখে আলোচনার টেবিলে বসার আহ্বান জানিয়েছে ওয়াশিংটন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রকাশ্যে বলেছেন, ২০১৫ সালের পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে আসার পর ইরানের লাগাম টেনে ধরতে তিনি কূটনৈতিক রুট খুঁজছেন। একদিকে পারস্য উপসাগরে তিনি নৌ ও বিমান শক্তির উপস্থিতি জোরদার করেছেন, অন্যদিকে ইরানি তেল রফতানি বন্ধের সর্বাত্মক উপায়ে চেষ্টা করেছেন।

তবে মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক শক্তি বৃদ্ধিকে ভয় প্রদর্শনের জন্য একধরনের মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধের অংশ বলে আখ্যা দিয়েছে তেহরান।

চলতি সপ্তাহে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনেই বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরেকটি পরমাণু আলোচনার জন্য বসবে না ইরান। এ ধরনের আলোচনাকে বিষাক্ত হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন তিনি।

ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর রাজনৈতিক উপ-কমান্ডার রাসুল সানাই রেড বলেন, আমাদের ওপর চাপ প্রয়োগ ও নিষেধাজ্ঞার পর আলোচনায় বসার প্রস্তাব হচ্ছে কাঁধে বন্দুক রেখে বন্ধুত্বের জন্য ডাক দেয়া।

সানাই রেড বলেন, মার্কিন নেতাদের আচরণ হচ্ছে রাজনৈতিক খেলার মতো। যার মধ্যে হুমকি ও চাপ রয়েছে। আবার তারা শান্তিপূর্ণ প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তুলতে আলোচনার ইচ্ছাও পোষণ করেন।

বিস্তারিত খবর

আফগানিস্তানে ন্যাটোর বিমান হামলায় ১৭ পুলিশ নিহত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৮ ১৫:৫৮:৩৩

আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশে মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো বাহিনীর বিমান হামলায় ১৭ আফগান পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১৪জন।

হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আফগানিস্তানের প্রাদেশিক কাউন্সিলের প্রধান আতাউল্লাহ। তিনি জানান, হেলমান্দ-কান্দাহার মহাসড়কের নাহার সিরাজ এলাকায় ন্যাটো বাহিনী এ হামলা চালায়।

তিনি জানান, দক্ষিণাঞ্চলীয় ওই প্রদেশটিতে তালেবানের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ চলাকালে ভুল করে পুলিশের ওপর বিমান হামলা হয়। এতে ১৭ জন পুলিশ নিহত ও ১৪ জন আহত হন।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা এবং হেলমান্দ প্রদেশের গভর্নর মোহাম্মদ ইয়াসিন জানিয়েছেন, বিমান হামলার বিষয়ে তদন্ত চলছে।

এক বিবৃতিতে এ হামলার জন্য মার্কিন বাহিনীকে দায়ী করেছে তালেবান।
এর আগেও মার্কিন বিমান হামলায় অনেক সরকারি কর্মকর্তা ও পুলিশ এবং বেমামরিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

বিস্তারিত খবর

চীনে ‘ট্রাম্প টয়লেট ব্রাশ’ কেনার হিড়িক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৭ ১৬:৩২:২৯

ওয়াশিংটনের সঙ্গে বাণিজ্য যুদ্ধে চীনের মানুষ বেইজিংকে সমর্থন দিচ্ছেন। আর এরই অংশ হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ‘ডোনাল্ড ট্রাম্পের’ নামে টয়লেট ব্রাশ দিয়ে তাদের বাথরুম পরিষ্কার করছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেইল অনলাইন বৃহস্পতিবার জানায়, চীনের ক্রেতারা তাদের সরকারকে সমর্থন জানাতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের মতো দেখতে টয়লেট ব্রাশ কিনছে দেদারসে।

চীনের এক ব্লগার কৌতূক করে বলেছেন, ‘ট্রাম্প খুব কাজে লাগতে পারে।’

খবরে বলা হয়, সেখানে বিভিন্ন দিজাইনের টয়লেট ব্রাশ পাওয়া যাচ্ছে। এগুলোর দাম প্রায় ২০ ইউয়েন (দুই পাউন্ড)।

চীনের কেনাকাটার ওয়েবসাইট টাওবাওতে এগুলো এখন ভীষণ জনপ্রিয়।

এ রকম একটি টয়লেট ব্রাশ বানানো হয়েছে নিল স্যুট লাল টাই পরিহিত ট্রাম্পের আদলে- মাথায় প্রচুর পরিমাণে কমলা চুলও আছে।

টাওবাওতে এখন এ রকম ব্রাশগুলোই ট্রেন্ডিং আইটেম বা সবচেয়ে বেশি আলোচিত পণ্য।

এক দোকানদার জানান, এই ব্রাশের ‘৩৬০ ডিগ্রি’ পরিষ্কার করা ক্ষমতা রয়েছে এবং এটা সব কোণায় কোণায় গিয়ে কমোড পরিষ্কার করতে পারে।

টাওবাওতে আরেকজন ক্রেতা এই ব্রাশগুলোর সঙ্গে ট্রাম্পের ছবি ছাপানো টয়লেট পেপার ফ্রি দিচ্ছেন বলে জানায় ডেইলি মেইল।

বেইজিং ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে ‘জনতার যুদ্ধ’ ঘোষণার পরপরই এই পণ্যগুলোর বিক্রি দারুণভাবে বেড়ে গেছে। ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে চীনের মানুষকে একসঙ্গে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে সরকার।

তবে ট্রাম্প ব্রাশ বিক্রি করা প্রথম দেশ চীন নয়। ‘কমান্ডার ইন ক্র্যাপ’ নামে এ ধরনের ব্রাশ এর আগে নিউজিল্যান্ডে প্রথম দেখা গিয়েছিল গত নভেম্বরে।

ট্রাম্পের প্রশাসন চীন থেকে আমদানিকৃত বিভিন্ন পণ্যের ওপর নতুন করে ব্যাপক হারে শুল্ক আরোপ করায় সম্প্রতি দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যযুদ্ধ শুরু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত শুল্কের জবাবে চীনও মার্কিন পণ্য আমদানিতে পাল্টা শুল্ক বসিয়েছে।

বিস্তারিত খবর

ফারাক্কা বাঁধ ভেঙে দিতে জোরালো দাবি উঠল ভারতেও

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৭ ১৬:২৯:০১

‘ফারাক্কা লং মার্চ দিবস’ প্রতি বছর বাংলাদেশে পালিত হয় ১৬ মে। তেতাল্লিশ বছর আগে ওই দিন ভারতে নির্মিত ফারাক্কা বাঁধের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে লং মার্চে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী।

তখন থেকেই বাংলাদেশে এই দিনটি ‘ফারাক্কা লং মার্চ দিবস’ হিসেবে পালিত হয়ে আসছে, যদিও বিগত পাঁচ দশকে ফারাক্কা নিয়ে ভারতের অনড় অবস্থানে বিশেষ পরিবর্তন হয়নি।

কিন্তু অতি সম্প্রতি ভারতেও ফারাক্কার বিরুদ্ধে জনমত জোরালো হচ্ছে, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার তো ফারাক্কা ব্যারাজ ভেঙে ফেলারও প্রস্তাব করেছেন। খবব: বিবিসি

মেধা পাটকরের মতো অ্যাক্টিভিস্ট ও অনেক বিশেষজ্ঞও বিবিসিকে বলছেন, ভারতেও ফারাক্কা এখন সুবিধার চেয়ে অসুবিধাই বেশি ঘটাচ্ছে - কাজেই এটি অবিলম্বে ‘ডিকমিশন’ করা দরকার।

বস্তুত সাতের দশকের মাঝামাঝি ভারত যখন গঙ্গার বুকে ফারাক্কা ব্যারাজ চালু করেছিল, তার পর থেকে বিতর্ক কখনওই এই প্রকল্পটির পিছু ছাড়েনি।

ফারাক্কা থেকে মাত্র বিশ কিলোমিটার দূরে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে যেমন এই ব্যারাজের মারাত্মক বিরূপ প্রভাব পড়েছে - তেমনি ভারতেও কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে ফারাক্কা নানা ধরনের বিপদ ডেকে এনেছে।

বিহারের গাঙ্গেয় অববাহিকায় প্রতি বছরের ভয়াবহ বন্যার জন্য ফারাক্কাকেই দায়ী করে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার তো এই বাঁধটাই তুলে দিতে বলেছিলেন।

ভারতে নামী সংরক্ষণ অ্যাক্টিভিস্ট ও নর্মদা বাঁচাও আন্দোলনের নেত্রী মেধা পাটকর বিবিসি বাংলাকে বলছিলেন, একটা বাঁধের প্রভাব যদি খুব ধ্বংসাত্মক হয়, ফারাক্কাতে যেটা হয়েছে, তাহলে সেটা ডিকমিশন করার অসংখ্য নজির কিন্তু দুনিয়াতে আছে।

‘আমেরিকাতেও শতাধিক ড্যাম ভেঙে দিয়ে নদীর স্বাভাবিক প্রবাহ ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

‘নীতিশ কুমার ফারাক্কা ভাঙার প্রস্তাব দিলেও সে ব্যাপারে বিশেষ কিছু করেননি, সত্যিকারের সোশ্যালিস্ট রাজনীতিতে বিশ্বাস করলে তারও এতদিনে গঙ্গার স্বাভাবিক প্রবাহ ফিরিয়ে দেওয়া উচিত ছিল।’

সাউথ এশিয়া নেটওয়ার্ক অন ড্যামস, রিভার্স অ্যান্ড পিপলের কর্ণধার ও নদী-বিশেষজ্ঞ হিমাংশু ঠক্করও জানাচ্ছেন, একটা বাঁধ ডিকমিশন করার আগে কয়েকটা জিনিস খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নিতে হয় - দেখতে হয় লাভ-ক্ষতির পাল্লাটা কোন দিকে ভারী।

‘ফারাক্কার ক্ষেত্রে সেই স্টাডিটা এখনও শুরু করা হয়নি। কিন্তু একটা জিনিস স্পষ্ট - ফারাক্কার মূল উদ্দেশ্য যেটা ছিল সেই কলকাতা বন্দরকে কিন্তু আজও বাঁচানো যায়নি।’

‘কলকাতা বন্দর টিকিয়ে রাখতে আজ যে পরিমাণ ড্রেজিং করতে হয়, ফারাক্কা চালু হওয়ার আগেও ততটা করতে হত না। এটাকে একটা প্রতীক ধরলে ফারাক্কা তো ভেঙে ফেলাই উচিত’, বলছেন হিমাংশু ঠক্কর।

ঠক্কর আরও জানাচ্ছেন, ফারাক্কায় গঙ্গার ওপর রেল ও সড়ক-সেতু এখনকার মতো রেখে দিয়েই ব্যারাজটা সরিয়ে দেওয়া সম্ভব - ইউরোপ আমেরিকাতে তা অনেক জায়গাতেই হয়েছে।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও বিশেষজ্ঞ সুমনা ব্যানার্জিও বলছিলেন, ফারাক্কার জন্য গঙ্গায় এত বেশি পলি জমছে যে তাতে দুপারের জমি ভাঙছে, জনপদ প্লাবিত হচ্ছে।

তার কথায়, ‘প্রতি বছরই আমরা ফিল্ড ট্রিপে সেখানে যাই। পাঁচ-ছয় বছর আগে যখন মালদার পঞ্চানন্দপুরের ভাঙন খতিয়ে দেখতে যাই, তখন দেখেছিলাম ফারাক্কার বুকে মাঝগঙ্গাতেও কিন্তু বক দাঁড়িয়ে আছে।’

‘এই ছবিটাই বলে দেয় গঙ্গাতে কী পরিমাণ সিল্টেশন জমছে বা সেডিমেন্টেশন হচ্ছে। আর সেই সিল্টেশন ঠেকানোর ক্ষমতা যদি ফারাক্কার না-থাকে, তাহলে তো গোটা ব্যারাজটাই অর্থহীন হয়ে দাঁড়ায়, তাই না?

‘আমরা ফারাক্কাকে এই অবস্থাতেই ফেলে রেখেছি যেখানে এত বিপুল পরিমাণ সেডিমেন্টেশন হচ্ছে যে নদীর চ্যানেলটার আর জল ধরে রাখার ক্ষমতা নেই - আর সেটা দুপারে উপছে পড়ছে।’

‘স্থানীয় একজন গ্রামবাসী সুন্দর উপমা টেনে বলেছিলেন, সাপের মুখটা জোরে ধরে রাখলে সাপটা যেমন ছটফট করে, নদীটাও এখানে সেভাবে ছটফট করছে। আর সাপের মুখটা ধরে রাখা হচ্ছে এই ফারাক্কা ব্যারাজ!

মেধা পাটকরেরও কোনও সংশয় নেই, ভারতের জন্যও ফারাক্কা এখন যত না উপযোগী - তার চেয়ে অনেক বেশি ধ্বংস ডেকে আনছে।

তিনি পরিষ্কার জানাচ্ছেন, ‘না ভাটিতে, না উজানে - ফারাক্কার প্রভাব কোথাওই সুখকর হয়নি। বলা হয়েছিল ফারাক্কা বন্যা রুখতে পারবে, অথচ দেখা গেছে বন্যা আর খরার চক্র ঘুরেফিরে এসেছে।’

‘ফারাক্কার অভিজ্ঞতা আমাদের এটাই শিখিয়েছে যে বড় নদীর বুকে পানি নিয়ে খেলতে নেই।’

‘তুমি বরং সেই পানিটাকে ক্যাচমেন্টে আটকাতে পারো, বড় নদীতে মেশার আগেই সেই পানিটা কাজে লাগিয়ে নিতে পারো।’

প্রায় অর্ধশতাব্দীর পুরনো ফারাক্কা ব্যারাজ যে ভারতের আর বিশেষ কোনও কাজে আসছে না- বরং নানা ধরনের পরিবেশগত বিপদ ডেকে আনছে বিশেষজ্ঞরা অনেকেই তা খোলাখুলি বলছেন।

তবে ফারাক্কা ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিতে হবে রাজনৈতিক স্তরেই, বছর তিনেক আগে নীতীশ কুমারের প্রকাশ্য দাবির পরেও সে কাজে কিন্তু খুব একটা অগ্রগতি হয়নি।

বিস্তারিত খবর

আমাজনের টয়লেট-জুতোয় দেবতা-গান্ধীর ছবি, ভারতীয়দের ক্ষোভ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৭ ১৬:২১:৫৯

যুক্তরাষ্ট্রের ই-কমার্স কোম্পানি আমাজন হিন্দুদের দেবতা শিবের ছবি সংবলিত টয়লেট এবং দেশটির জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর ছবি সংবলিত স্যান্ডেল বিক্রি করছে।

বিষয়টি লক্ষ্য করার পর বৃহস্পতিবার উপমহাদেশটির গ্রাহকেরা ভারতীয় টুইটারে #বয়কটআমাজন ট্রেন্ড চালু করে এতে নিজেদের ক্ষোভ জানাতে শুরু করে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার শীর্ষস্থানীয় সংবাদ সংস্থা স্পুটনিক।

এই বিষয়ে আমাজনের একটি বিবৃতির বরাত দিয়ে যুক্তরাজ্যের সংবাদ সংস্থা রয়টার্সে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক কোম্পানিটি বাজার থেকে এসব বিতর্কিত পণ্য তুলে নেবে বলে জানিয়েছে।

বিবৃতিটিতে বলা হয়েছে, সব বিক্রেতাকে অবশ্যই আমাদের বিক্রয় নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। যারা এই নির্দেশনা অনুসরণ করবে না, তাদের অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলা হবে। তাদের বিরুদ্ধে অন্যান্য পদক্ষেপও নেয়া হবে।

একজন টুইটারে লিখেছেন, সারা বিশ্বের কাছে প্রশ্ন, মুসলিমরা আল্লাহর ও খ্রিস্টানরা লর্ড জিসাসের ছবি কি তাদের বাথরুমে বা টয়লেটে রাখে? আরেকজন আরবি লিপি ও ক্রসচিহ্ন সংবলিত টয়লেটের ছবি টুইট করে।

হিন্দুদের আবেগ নিয়ে খেলা করার দায়ে অভিযুক্ত করা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানিটিকে। তবে ভারতীয় গণমাধ্যম এবিপিলাইভে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, এসব পণ্য ভারতে বিক্রি করা হচ্ছিল না।

বয়কট আমাজন হ্যাসট্যাগ লিখে ১২ হাজারের বেশিবার টুইট করা হয়েছে। আমাজনের বিক্রেতাদেরকে এসব পণ্য বিক্রি বন্ধ এবং কোম্পানিটির মোবাইল অ্যাপলিকেশন আনস্টল করতে আহ্বান জানিয়েছে গণমাধ্যমটি।

বিস্তারিত খবর

পুলওয়ামায় বন্দুকযুদ্ধে সেনাসদস্যসহ নিহত ৩

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৬ ১৫:৫৬:৫৫

জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সেনাসদস্য ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে তিনজন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে একজন সেনাসদস্য ও দুজন সন্ত্রাসী রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকালে পুলওয়ামার ডালিপোরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর এলাকায় জারি করা হয়েছে কারফিউ। খবর জি নিউজের।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থলে সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে-এমন খবরে গভীর রাতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় সেনাবাহিনী ও স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপ।

তল্লাশি চালানোর সময় সন্ত্রাসীরা নিরাপত্তারক্ষীদের লক্ষ করে গুলি ছুড়লে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। এতে দুই সন্ত্রাসীর মৃত্যু হয়। তবে তারা কোন সংগঠনের তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

এ সময় এক সেনাসদস্য নিহত ও দুজন আহত হয়েছেন। আহত সেনাসদস্যদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

বিস্তারিত খবর

শ্রীলঙ্কায় মুসলিমবিরোধী সহিংসতা দমনে সর্বোচ্চ শক্তি প্রয়োগের নির্দেশ পুলিশপ্রধানের

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৬ ১৫:৫৩:৪১

শ্রীলঙ্কায় মুসলিমবিরোধী সহিংসতা দমনে সর্বোচ্চ শক্তি প্রয়োগ করতে দেশটির কর্মকর্তাদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন লঙ্কান পুলিশপ্রধান চন্দনা বিক্রমরত্নে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব কথা জানায় যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম বিবিসি। এতে বলা হয়, টেলিভিশনে প্রচারিত এক ভাষণে এই নির্দেশ দেন তিনি।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রেমেসিংহে জনগণকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, সাম্প্রতিক পরিস্থিতি গত মাসের হামলার তদন্ত বিঘ্নিত করছে।

গত ২১ এপ্রিল ইস্টার সানডে উদযাপনের দিন দেশটির তিনটি চার্চ, চারটি হোটেল এবং একটি চিড়িয়াখানায় বোমা হামলায় ২৫৩ জন নিহত হন।

হামলার তিনদিন পর দায় স্বীকার করে ইসলামিক স্টেট (আইএস)। এরপর দেশটিতে মুসলিমবিরোধী সহিংসতার পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে থাকে।

দেশটির মসজিদগুলো এবং মুসলিমদের দোকানগুলোতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এসব সহিংসতার ঘটনায় এক মুসলিম নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার প্রকাশিত বিবিসির প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, দেশব্যাপী জারি করা রাত্রিকালীন কারফিউ আংশিকভাবে তুলে নেয়া হলেও নর্থ-ওয়েস্টার্ন প্রদেশের কারফিউ বহাল থাকবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বেশ কয়েকটি শহরের উচ্ছৃঙ্খল জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ ফাঁকা গুলি এবং টিয়ার গ্যাস ছোড়ে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যমটিতে।

বিস্তারিত খবর

ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ উসকে দিচ্ছে সৌদি মিডিয়া

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৬ ১৫:৫২:০১

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ উসকে দিচ্ছে সৌদি আরবের গণমাধ্যম। বৃহস্পতিবার আরব নিউজের সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে, শাস্তি থেকে রেহাই পেতে পারে না ইরান।

সৌদির রাজধানী রিয়াদ থেকে প্রকাশিত পত্রিকাটি জানায়, মঙ্গলবার দুটি তেল পাম্পে সশস্ত্র ড্রোন হামলা ও তার দুদিন আগে আরব আমিরাত উপকূলে তেল ট্যাংকারে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্য দিয়ে ইরান ও দেশটির ছায়াবাহিনী মারাত্মক উত্তেজনা ছড়িয়েছে। এ ব্যাপারে একটি আন্তর্জাতিক তদন্ত হওয়া উচিত।

আরব নিউজ বলছে, কেবল সৌদি আরবেই না, পুরো অঞ্চল কিংবা বিশ্বের জন্য ইরানের হুমকির বিষয়ে বিশ্ব নেতাদের বারবার সতর্ক করে আসছে রিয়াদ। ২০১৬ সালের শেষের দিকে মার্কিন নৌবাহিনীতে তিনবারের হামলার আগে ইরান-সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীদের হুমকির বিষয়ে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বুঝতে পারেননি।

‌‘বিশ্ব অর্থনীতিকে পর্যুদস্ত করে দিতেই সাম্প্রতিক তেল ট্যাংকার ও পাম্পিং স্টেশনে হামলা চালানো হয়েছে। এজন্যই বিশ্ব অর্থনীতির প্রাণশক্তি তেলসরবরাহে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।’

সৌদি পত্রিকাটি বলছে, বিশ্ব অর্থনীতিকে অস্থিতিশীল করে দিতে কিংবা নতুন করে যাতে ভীতিপ্রদর্শন করতে না পারে, সেজন্য ইরানকে ছাড় দেয়া যাবে না।

এর আগে ২০০৮ সালে প্রয়াত সৌদি বাদশাহ আবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজ ‘সাপের মাথা কেটে ফেলতে’ যুক্তরাষ্ট্রকে অনুরোধ করেছিলেন। মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের নানা তৎপরতার কথা উল্লেখ করে তিনি এ দাবি করেন।

এর এক দশক পর সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমান ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনেইকে মধ্যপ্রাচ্যের নতুন হিটলার হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

সৌদি পত্রিকাটি আরও জানায়, আমরা বর্তমানে ২০১৯ সালে রয়েছি। কিন্তু অত্র অঞ্চলে তার ধ্বংসাত্মক তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। কখনো সেটা সরাসরি নিজেই আবার কখনো-বা তার সশস্ত্র ছায়া বাহিনীর মাধ্যমে এ ধ্বংসযজ্ঞ চালায় ইরান।

‘কাজেই সৌদি যুবরাজ এক্ষেত্রে সঠিক কথাই বলেছেন যে প্রশমিতকরণ শব্দটি ইরানের ক্ষেত্রে খাটবে না, যেভাবে হিটলারের বেলায়ও তা কাজে লাগেনি।’

রিয়াদ থেকে প্রকাশিত পত্রিকাটির সম্পাদকীয় বলছে, আরব নিউজের দৃষ্টিতে সেক্ষেত্রে যৌক্তিক পদক্ষেপ হতে পারে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র নজির স্থাপন করছে এবং সেটা কার্যকরও হয়েছে। যেমন, যখন বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট আসাদ সাইরেন গ্যাস ব্যবহার করছিলেন, তখন সিরিয়ায় আক্রমণ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

‘আমাদের যুক্তি হচ্ছে, নিষেধাজ্ঞা ইরানকে সঠিক বার্তা দিচ্ছে না। তাদের কঠোর আঘাত হানা উচিত। তাদের দেখানো উচিত এখনকার পরিস্থিতি একেবারে ভিন্ন। আমরা সুনির্দিষ্ট শান্তিমূলক প্রতিক্রিয়া চাচ্ছি, যাতে ইরান বুঝতে পারে যে তাদের প্রতিটি পদক্ষেপের পরিণাম ভোগ করতে হবে।’

আরব নিউজ জানায়, কাজেই এখন সময় এসেছে, কেবল ইরানের পরমাণু কর্মসূচির লাগাম টানাই নয়, বিশ্বের স্বার্থে তারা মধ্যপ্রাচ্যে তাদের সন্ত্রাসী নেটওয়ার্ককে সহায়তা না করে, তা নিশ্চিত করা।

এদিকে সৌদি তেল পাম্পে হামলা চালাতে হুতি বিদ্রোহীদের ইরান নির্দেশ দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সৌদি আরবের প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্রিন্স খালিদ বিন সালমান।

ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীরা। বৃহস্পতিবার এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, সম্প্রসারণবাদী এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে হুতিদের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে ইরান।

বাদশাহ সালমানপুত্র আরও বলেন, ইরানের নির্দেশে হুতি বিদ্রোহীরা এই সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে।

মঙ্গলবার সৌদি আরবের দুটি তেলপাম্পে হামলা চালানোর দাবি করেছে তারা। যদিও সৌদির দাবি, এতে তাদের তেল উত্তোলন ও রফতানি বাধাগ্রস্ত হয়নি।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়ের বলেন, ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর অবিচ্ছেদ্য অংশ হচ্ছে হুতি বিদ্রোহীরা। বিপ্লবী গার্ডের নির্দেশই মেনে চলে তারা। কাজেই সৌদি স্থাপনায় হামলা চালাতে ইরান নির্দেশ দিয়েছে, তা প্রমাণের জন্য এটাই যথেষ্ট।

বিস্তারিত খবর

অস্ট্রিয়ায় স্কুলে মুসলমানদের হিজাব নিষিদ্ধ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৬ ১৫:৩৭:৫৭

প্রাথমিক স্কুলে মুসলমান মেয়েরা যাতে হিজাব বা অন্য কোনো মাথার কাপড় ব্যবহার করতে না পারে সেই লক্ষ্যে একটি আইন পাস করেছে অস্ট্রিয়া সরকার৷ তবে ইহুদিদের টুপি এবং শিখদের পাগড়ি এই আইনের আওতায় রাখা হয়নি ।

অস্ট্রিয়ার সংসদ প্রাথমিক স্কুলে মুসলমানদের হিজাব বা মাথার কাপড় নিষিদ্ধ করে এক আইন পাস করেছে৷ তবে এই আইনকে বৈষম্যমূলক হিসেবে বিবেচনা করে দেশটির সাংবিধানিক আদালতে সেটিকে চ্যালেঞ্জ করা হতে পারে৷

সংসদে বিলটির পক্ষে ভোট দেন দেশটির ক্ষমতাসীন মধ্য ডানপন্থি দল পিপল'স পার্টি এবং উগ্র ডানপন্থি ফ্রিডম পার্টির সদস্যরা৷ তবে, সংসদে বিরোধী দলের প্রায় সব সদস্য বিলটির বিপক্ষে ভোট দিয়েছিলেন৷

আইনটির লক্ষ্য শুধু মুসলমানরা নয় – এমন ধারণা দিতে সেটিতে লেখা হয়েছে, ‘‘যে-কোনো আদর্শগত বা ধর্মীয় প্রভাবান্বিত পোশাক, যা মাথা ঢেকে রাখার লক্ষ্যে ব্যবহার করা হয়’’ তা নিষিদ্ধ৷

অ্যামেরিকার খেলাধুলা বিষয়ক বিখ্যাত ম্যাগাজিন ‘স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড’৷ বিকিনিতে নারীকে উপস্থাপনের জন্য যাদের বেশ খ্যাতি রয়েছে৷ ১৯৫৪ সালে প্রথম প্রকাশিত এই ম্যাগাজিনটির বর্তমান গ্রাহক সংখ্যা ত্রিশ লাখের মতো৷ তাদের এবারের বার্ষিক সুইমস্যুট সংখ্যা বের হচ্ছে ৮ মে৷

তবে বুধবার রাতে সরকারের তরফ থেকে এটাও জানানো হয়েছে যে, শিখদের পাগড়ি বা ইহুদিদের টুপি এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে না, কেননা আইনটিতে এমন মাথার কাপড়ের কথা বলা হয়েছে, যেটি সব চুল বা মাথার অধিকাংশ অংশ ঢেকে রাখে৷ এছাড়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কারণে, কিংবা বৃষ্টি ও তুষারপাত থেকে বাঁচতে মাথা ঢেকে রাখতে কোনো বাধা নেই৷

প্রসঙ্গত, নিয়মিত ধর্মচর্চাকারী মুসলমান মেয়েরা সাধারণত বয়ঃসন্ধিকাল থেকে হিজাব বা হেডস্কার্ফ ব্যবহার করতে শুরু করে৷ এবং ক্ষমতাসীন দলের আইনপ্রণেতারা ইতোমধ্যে স্বীকার করেছেন যে, নতুন আইনটি মূলত মুসলমান মেয়েদের জন্যই প্রণয়ন করা হয়েছে৷

পিপল'স পার্টির আইনপ্রণেতা ব়্যুডল্ফ টাশনার ‘‘মেয়েদেরকে নতি স্বীকার করা থেকে মুক্ত করতে’’ এই আইন প্রণয়ন করা হয়েছে৷ আর ফ্রিডম পার্টির শিক্ষা বিষয়ক মুখপাত্র ভেন্ডিল্যান ম্যোলৎসার মনে করেন, এই আইনের মাধ্যমে রাজনৈতিক ইসলামের বিরুদ্ধে একটি বার্তা দেয়া হয়েছে এবং সমাজের মূলধারায় সবাইকে সম্পৃক্ত করাকে উৎসাহিত করা হয়েছে৷

তবে সাবেক সামাজিক গণতন্ত্রী দলের শিক্ষামন্ত্রী সোনিয়া হামার্স্মিড্থ সরকারের বিরুদ্ধে ইন্টিগ্রেশন বা শিক্ষাবিষয়ক প্রকৃত সমস্যা সমাধানের বদলে সংবাদ শিরোনামে যাওয়ার চেষ্টার অভিযোগ এনেছেন৷

উল্লেখ্য, অস্ট্রিয়ার আনুষ্ঠানিক মুসলিম কমিউনিটি অর্গানাইজেশন নতুন আইনটিকে ‘ধ্বংসাত্মক’ এবং শুধুমাত্র ‘মুসলমানদের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক’ আখ্যা দিয়ে সেটির বিরুদ্ধে আইনি লড়াই পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে৷

বিস্তারিত খবর

শিশুর ‘ঘুষ’ ফিরিয়ে দিলেন জাসিন্ডা আরডার্ন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৫ ১৬:১৮:৩১

ড্রাগন নিয়ে গবেষণা করার অনুরোধ করে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্নকে ‘ঘুষ’ দিয়েছিল ১১ বছর বয়সী এক শিশু। তবে, প্রধানমন্ত্রী তা প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি।

ভিক্টোরিয়া নামের ঐ শিশুটি ড্রাগনদের প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করতে চায় বলে সরকারকে ড্রাগন বিষয়ে গবেষণার অনুরোধ করে।

প্রধানমন্ত্রীকে পাঠানো চিঠির সাথে ঐ শিশু নিউজিল্যান্ডের ৫ ডলারও (৩.২ মার্কিন ডলার বা ২.৫ পাউন্ড) অন্তর্ভূক্ত করেছে যেটিকে আপাতদৃষ্টিতে ঘুষ হিসেবেই ধরে নেওয়া হচ্ছে।

চিঠির জবাবে প্রধানমন্ত্রী ফিরতি আরেক চিঠিতে ঐ শিশুকে জানান যে তার প্রশাসন ‘এ মুহূর্তে ড্রাগনদের বিষয়ে কোনো গবেষণা চালাচ্ছে না।’

তিনি চিঠিতে আরো লেখেন, ‘পুনশ্চ আমি তবুও ড্রাগনদের দিকে নজর রাখবো। তারা কি স্যুট পরে?'

প্রধানমন্ত্রীর জবাব হিসেবে পাঠানো চিঠিটি সামাজিক মাধ্যমের সাইট রেডিট-এ প্রকাশিত হলে খবরটি আলোচনায় আসে।

রেডিট-এর একজন ব্যবহারকারী এক পোস্টে দাবি করেন যে তার ছোট বোন 'জাসিন্ডাকে ঘুষ দেয়ার' চেষ্টা করেছিলেন।

রেডিট ব্যবহারকারী অ্যাকাউন্টটি থেকে পোস্ট করা হয় যে তার ছোট বোন 'সরকারের কাছে জানতে চেয়েছেন যে তারা ড্রাগন সম্পর্কে কী জানে এবং তাদের কাছে কোন ড্রাগন আছে কিনা। থাকলে সে ড্রাগনের প্রশিক্ষক হতে পারে।'

প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে বিবিসিকে নিশ্চিত করা হয় যে ঐ চিঠির জবাব আরডার্ন আসলেই দিয়েছিলেন।

তার কাছে চিঠি লেখার জন্য আরডার্ন ভিক্টোরিয়াকে ধন্যবাদও জানিয়েছিলেন।

চিঠিতে তিনি লেখেন, 'যেহেতু আমরা ড্রাগন নিয়ে কোনো গবেষণা করছি না, তাই তোমার ঘুষের টাকাটাও ফেরত পাঠাচ্ছি।'

এর আগেও ছোট শিশুদের চিঠির জবাব দিয়ে চিঠি লিখেছেন আরডার্ন।

মার্চ মাসে আট বছর বয়সী এক শিশুর চিঠি জবাব দিয়েছিলেন আরডার্ন - যেটি পরবর্তীতে টুইটারে প্রকাশিত হলে মানুষের নজরে আসে।

বিস্তারিত খবর

একটি শর্তে ভারতে ফিরবেন জাকির নায়েক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৫ ১৬:১৪:১৩

ভারতীয় ইসলামি প্রচারক জাকির নায়েক বলেছেন, যদি ভারতের সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে নিশ্চয়তা দেয়া হয় যে ডা. জাকির নায়েক এলে তিনি দোষী সাব্যস্ত না হওয়া পর্যন্ত তাকে গ্রেপ্তার করা হবে না, তবে আমি ভারতে ফিরবো।

ভারতীয় ম্যাগাজিন দ্য উইককে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে একটি প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। মালয়েশিয়ার পুত্রজায়ায় তার বাসভবনে এই সাক্ষাৎকার নেন নম্রতা বিজি অহুজা। এটি প্রকাশিত হয় শনিবার (১১ মে ২০১৯)।

এসময় জাকির নায়েক বলেন, আমি মালয়েশিয়াতে যেকোনো সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তৈরি আছি। শুধু ভারতের সরকারি আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ) কেন, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও আসতে পারেন।

তিনি বলেন, তাদের কাছে আমার ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর আছে। আমি আমার মোবাইল নম্বর পাল্টাইনি। এছাড়া তাদের কাছে আমার হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর আছে। তাদের কাছে আমার সবকিছুই আছে। তারা চাইলেই আমাকে কল করতে পারে।

এই ভারতীয় ইসলামি প্রচারক বলেন, তারা আমাকে কী প্রশ্ন করবে, যখন সব উত্তরই তাদের জানা? আসলে তারা চায় আমি সেখানে যাই এবং আমাকে গ্রেপ্তার করবে। আর আমার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল না করলে আমি জামিনও পাবো না।

তিনি বলেন, আমি লুকিয়ে আছি বলে যেসব তথ্য প্রচার করা হচ্ছে, সেগুলো মিথ্যা। যখন কেউ লুকিয়ে থাকে, তখন সে কোথায় আছে তা প্রকাশ করে না। যদি আমি সন্ত্রাসবাদী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতাম, তবে মালয়েশিয়া কী আমাকে এখানে থাকতে অনুমতি দিতো?

বিস্তারিত খবর

সৌদির ২ তেল উত্তোলন কেন্দ্রে ড্রোন হামলা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৪ ১৩:৪৫:৪০

দুটি তেল উত্তোলন কেন্দ্রে সশস্ত্র ড্রোন দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করেছে সৌদি আরব। মঙ্গলবার দেশটির জ্বালানি মন্ত্রী খালিদ আল -ফালিহ এ দাবি করেছেন।

সৌদি আরব এমন সময় এ দাবি করলো যখন দুদিন আগে দেশটি জানিয়েছিল, সংযুক্ত আরব আমিরাত উপকূলে তাদের দুটি তেলবাহি ট্যাংকারে হামলা চালানো হয়েছে। তবে কারা এই হামলা চালিয়েছে তা জানা যায়নি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রাজধানী রিয়াদ থেকে ২০০ মাইলের বেশি পশ্চিমে তেল উত্তোলন কেন্দ্র দুটি অবস্থিত। এ ঘটনার পর অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেল প্রতি ১ দশমিক ৩৮ শতাংশ বেড়ে ৭১ দশমিক ২০ ডলারে বিক্রি হয়েছে।

জ্বালানি মন্ত্রী খালিদ জানিয়েছেন, হামলার কারনে একটি কেন্দ্রে আগুন ধরে গিয়েছিল। পরে তা নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। অপর কেন্দ্রটিতে অল্পমাত্রার ক্ষতি হয়েছে। তবে এই কারনে তেল উৎপাদন বা রপ্তানিতে কোনো সমস্যা হয়নি।

তিনি বলেছেন, ‘এই হামলাগুলো এটাই প্রমাণ করছে ইরানের মদদপুষ্ট ইয়েমেনের হুতি মিলিশিয়াসহ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে মোকাবেলা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

এর আগে হুতি নিয়ন্ত্রিত মাসিরাহ টেলিভিশন চ্যানেল জানিয়েছিল, ‘ইয়েমেনে অব্যাহত আগ্রাসন ও অবরোধের’ জবাবে সৌদি আরবের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।

বিস্তারিত খবর

মধ্যপ্রাচ্যে যাচ্ছে ১ লাখ ২০ হাজার মার্কিন সৈন্য, আবার যুদ্ধের দামামা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৪ ১৩:৩৬:৩৭

তাহলে কি শিগগিরই নতুন যুদ্ধের অভিজ্ঞতা পাবে মধ্যপ্রাচ্যবাসী। অবস্থা দেখে সেরকমটাই মনে হচ্ছে। ইরানের সাথে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই হোয়াইট হাউস মধ্যপ্রাচ্যে ১ লাখ ২০ হাজার মার্কিন সৈন্য মোতায়েনের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে।

ইরাক যুদ্ধের কথা মাথায় রেখে ইরানের সম্ভাব্য হামলার জবাব দিতেই এত সংখ্যক সৈন্য মোতায়েন করা হচ্ছে বলে খবর দিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল।

নিউইয়র্ক টাইমস খবর দিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শীর্ষ নিরাপত্তা বৈঠকে দেশটির ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শানাহান এই পরিকল্পনা তুলে ধরেন।

সেখানে একাধিক পরিকল্পনা উপস্থাপন করা হয়। যার মধ্যে এক মাসের মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যে ১ লাখ ২০ হাজার সৈন্য মোতায়েনের কথা রয়েছে। ২০০৩ সাল থেকে ইরাকে মোতায়েন সৈন্যদের তুলে নিয়ে নতুন করে গালফ অঞ্চলে মোতায়েন করা হবে।

তবে এই পরিকল্পনাকে এখনই ইরানের বিরুদ্ধে স্থল আক্রমণের সম্ভাবনা বলছে না নিউইয়র্ক টাইমস। পত্রিকাটির মতে, স্থল হামলার জন্য আরও সৈন্য লাগবে।

গতকাল সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হুঁশিয়ারি দেন, মার্কিন স্বার্থে আঘাত লাগলে ইরানকে ‘ভয়াবহ দুর্দশা’ ভোগ করতে হবে।

হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমরা অপেক্ষা করছি, ইরান কি করে। যদি তারা কিছু করেই বসে, তা হবে খুবই বাজে ভুল।’

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে করা পশ্চিমা দেশগুলোর পরমাণু চুক্তি থেকে ট্রাম্প বেরিয়ে যান। একই সঙ্গে তিনি দেশটির ওপর নতুন করে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করেন। এরপর থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তেহরানের সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে।

ট্রাম্প চান, তেহরান তাদের অস্ত্রের লাগাম টেনে ধরুক। এ লক্ষ্য নিয়েই সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র গালফ অঞ্চলে বি-৫২ বোমারু বিমান পাঠিয়েছে। এরপরই ইরান এটিকে ‘মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ’ দাবি করে ওয়াশিংটনকে সাবধান করে দিয়েছে।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র হাজারো যুদ্ধজাহাজ প্রস্তুত করলেও, তা ধ্বংসে ইরানের একটি ক্ষেপণাস্ত্রই যথেষ্ট।

নিউইয়র্ক টাইমস বলছে, বৃহস্পতিবারের ওই বৈঠকে ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন, সিআইএ পরিচালক গিনা হ্যাসপেল, জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক ড্যান কোটস এবং চেয়ারম্যান অব দ্য জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ জেনারেল জোসেপ ডানফোর্ড উপস্থিত ছিলেন।

গত রোববার সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুরাইরাহ বন্দরে সৌদি আরবের তেলবাহী জাহাজে ইরান হামলা করেছে বলে অভিযোগ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। যদিও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বন্দরের ওপর দিয়ে ফরাসী ও মার্কিন যুদ্ধবিমান উড়ে যাওয়ার পরপরই বড় ধরনের বিস্ফোরণ হয়।

ওই বিস্ফোরণে প্রত্যেকটি জাহাজের ৫ থেকে ১০ ফিট গর্ত তৈরি হয়। সৌদি আরব দাবি করেছে, তেলের জাহাজে হামলা স্যাবোটাজ।

ওই হামলায় সৌদি আরবের দুটি তেলের ট্যাংকার, নরওয়ের পতাকাবাহী জাহাজ, সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহর ট্যাংকার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

হামলার দিনেই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, ‘ইরান মধ্যপ্রাচ্যের প্রধান অস্থিতিশীল শক্তি।’ এ হামলাকে ব্রিটেন গালফ অঞ্চলে যুদ্ধ শুরুর সতর্কা হিসেবে বর্ণনা করেছে।

বিস্তারিত খবর

ভূমধ্যসাগরে নিহত ২৭ বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৩ ১৭:৩০:০৯

ভূমধ্যসাগরে লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে তিউনিসিয়ার উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকাডুবিতে নিহত ২৭ বাংলাদেশির পরিচয় পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি তাদের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। নিহতরা হলেন, নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার জয়াগ গ্রামের নাসির, ঢাকার টঙ্গীর কামরান, সিলেটের জিল্লুর রহমান, কিশোরগঞ্জ জেলার জালাল উদ্দিন, সুনামগঞ্জের মাহবুব, মাদারীপুর জেলার সজিব, সিলেট বিয়ানীবাজারের রফিক ও রিপন, শরীয়তপুরের পারভেজ, কামরুন আহমেদ মারুফ, মৌলভীবাজার কুলাউড়ার শামিম, কিশোরগঞ্জ জেলার আল-আমিন, ফেঞ্চুগঞ্জ সিলেটের লিমন আহমেদ, আব্দুল আজিজ ও আহমেদ, সিলেট দক্ষিণ সুরমার জিল্লুর, বাইল্যাহার মৌলভীবাজারের ফাহা, সিলেট ফেঞ্চুগঞ্জের আয়াত, হাউড়তোলা সিলেটের আমাজল, সিলেটের কাসিম আহমেদ, সিলেট বিশ্বনাথের খোকন, রুবেল, সিলেটের মনির, বিশ্বনাথ সিলেটের বেলাল, সুনামগঞ্জের মাহবুব, নাদিম, সিলেট গোলাপগঞ্জের মারুফ প্রমুখ।

নৌকাডুবি থেকে বেঁচে যাওয়া শিশির বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিকে ফোনে জানান, বেঁচে যাওয়া ৬ জনের বাড়ি শরিয়তপুর জেলার নরিয়া থানার চারুগা গ্রামে। তারা হলেন, রাজিব, উত্তম, পারভেজ, রনি, সুমন ও জুম্মান।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পারিবারিক যোগাযোগ পুনঃস্থাপন বিভাগের দায়িত্বরত পরিচালক ইমাম জাফর শিকার বলেন, তিউনিসিয়া রেড ক্রিসেন্টে প্রাদেশিক প্রধান ডা. মাঙ্গি সিলাম এর মাধ্যমে জীবিত ৪ বাংলাদেশি নাগরিকের সঙ্গে ফোনালাপের মাধ্যমে পাওয়া তথ্য মতে ২৭ জন বাংলাদেশির পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বিস্তারিত খবর

আমিরাতে সৌদির তেলবাহী জাহাজে হামলা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৩ ১৭:২৮:২৪

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরা বন্দরে সৌদি আরবের দুটি তেলবাহী জাহাজে ‘ধ্বংসাত্মক হামলা’ হয়েছে বলে স্বীকার করা হয়েছে। রোববার ভোরের দিকে ওই হামলার পর আমিরাতের কিছু গণমাধ্যমে খবর আসার পর তাৎক্ষণিকভাবে হামলার খবরকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেয় আমিরাত।

একদিন পর সোমবার সৌদি আরবের জ্বালানিবিষয়ক মন্ত্রী বলেছেন, আমিরাতের ফুজাইরা বন্দরে সৌদি আরবের দু’টি তেলবাহী জাহাজ শত্রুর হামলার শিকার হয়েছে।

দেশটির জ্বালানিবিষয়ক মন্ত্রী খালিদ আল ফালিহ’র বরাত দিয়ে সৌদির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সৌদি প্রেস অ্যাজেন্সি (এসপিএ) বলছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরা বন্দরের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে সৌদি আরবের দু’টি তেলবাহী জাহাজে শত্রুরা হামলা করেছে। আরব উপসাগরের পথে যাওয়ার সময় ওই হামলা হয়।

রোববার এক বিবৃতিতে আরব আমিরাত ওই হামলার খবরকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করলেও পরে জানায়, ফুজাইরাহ বন্দরের কাছে চারটি বাণিজ্যিক জাহাজে শত্রুর হামলা হয়েছে। বিশ্বে জ্বালানি তেল পরিবহনে অন্যতম বৃহৎ একটি অঞ্চল হলো হরমুজ প্রণালীর কাছে অবস্থিত আমিরাতের এই বন্দর।

বিশ্বের তেল ও গ্যাসবাহী জাহাজ চলাচলের ব্যস্ততম এই প্রণালী উপসাগরীয় দেশগুলো এবং ইরানকে পৃথক করেছে। অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা ও এই অঞ্চলে মার্কিন সেনাবাহিনীর উপস্থিতি নিয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে তেহরানের বাকযুদ্ধ যখন চরমে চলছে, ঠিক সেই সময় হরমুজ প্রণালীর কাছে সৌদির তেলবাহী জাহাজে হামলার ঘটনা ঘটলো।

তবে হামলার ধরন এবং এর পেছনে কারা জড়িত থাকতে পারে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কোনো তথ্য দেয়নি আমিরাত। স্থানীয় প্রশাসন বলছে, হামলায় কোনো প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি এবং ফুজাইরা বন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে।

মন্ত্রী খালিদ আল ফালিহ এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘ফুজাইরা বন্দরে অপরিশোধিত তেল নেয়ার সময় সৌদির দু’টি তেলবাহী জাহাজে হামলা হয়েছে। জাহাজ দু’টি যুক্তরাষ্ট্রে সৌদির রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানি সৌদি আরামকোর গ্রাহকদের তেল সরবরাহ করার জন্য যাত্রা শুরু করেছিল।’

সৌদি প্রেস অ্যাজেন্সি বলছে, হামলায় কোনো ধরনের প্রাণহানি কিংবা সাগরে তেল ছড়িয়ে পড়েনি। তবে জাহাজ দু’টির কাঠামোতে উল্লেখযোগ্য ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে, আমিরাতের বন্দরে সৌদির তেলবাহী জাহাজে হামলার ঘটনাকে উদ্বেগজনক এবং ভীতিকর বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র। এ ঘটনায় তদন্ত শুরুর আহ্বান জানেয়ছেন তিনি।

বিস্তারিত খবর

ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে হামলার তদন্ত শুরু

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৩ ১৭:২৬:৪০

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় আজ সোমবার থেকে তদন্ত শুরু করতে যাচ্ছে দেশটি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

নিউজিল্যান্ডের রয়াল কমিশন পরিচালিত এ তদন্তে মসজিদে হামলা চালানো বন্দুকধারী সন্ত্রাসীর কার্যকলাপ, হামলায় অনলাইন সামাজিক যোগাযগ মাধ্যমের ব্যবহার, হামলাকারীর সঙ্গে আন্তর্জাতিক পরিসরের বিভিন্ন সংযোগ ও প্রাধান্যের পাশাপাশি সন্ত্রাস মোকাবেলায় কোনো ধরনের খামতি ছিল কিনা এসব বিষয় খতিয়ে দেখা হবে।

তদন্তের ব্যাপারে এক বিবৃতিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন বলেন, ‘আর কখনও যাতে এরকম হামলার ঘটনা না ঘটে তা নিশ্চিত করতে এ তদন্তের ফলাফল কাজে আসবে।’

রয়াল কমিশন নিজেদের ওয়েবসাইটে জানায়, তদন্ত কমিটি চলতি বছরের আগস্ট মাস পর্যন্ত ক্রাইস্টচার্চ হামলা বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করবে। ডিসেম্বরের ১০ তারিখে তারা সরকারের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবে।

এদিকে এ তদন্তের ব্যাপারে বিস্তারিত জানার ব্যাপারে আগ্রহ জানিয়েছে দেশটির মুসিলম সম্প্রদায়।

ওয়েলিংটনভিত্তিক কমিউনিটি অ্যাডভোকেট গুলেদ মায়ার বলেন, ‘আমাদের মুসলিম কম্যুনিটির অনেকেই শুনানির প্রক্রিয়া সম্বন্ধে কোনো তথ্যই পাননি। ফলে অনেকেই এটা থেকে খুবই বিচ্ছিন্ন বোধ করছেন।’

‘মূলত আমরা চাই যে, আমাদের কথা উপেক্ষা না করে শোনা হোক। আশা করি, মুসলিম কমিউনিটির সদস্যদের সরাসরি তথ্য পৌঁছানোর ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে’, বলেন গুলেদ। এ ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে রয়াল কমিশনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে এরই মাঝে আগামী বুধবারে ফ্রান্সে অনলাইনে সহিংসতা নিরসনে বৈশ্বিকভাবে করণীয় নির্ধারণ বিষয়ে এক বৈঠকে যোগ দিতে যাচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো ও জেসিন্ডার আয়োজনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিশ্ব নেতাদের পাশাপাশি ফেসবুক, গুগল, টুইটারসহ অনলাইন সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা এতে যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

গত ১৫ মার্চ অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারেন্ট নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে হামলা চালিয়ে ৫১ জনকে হত্যা করেন। ব্রেন্টন সে সময় অনলাইনে সরাসরি ওই হামলার ভিডিও সম্প্রচার করেন।

বিস্তারিত খবর

যুক্তরাষ্ট্রের ৫ হাজারের বেশি পণ্যে চীনের শুল্ক আরোপ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১৩ ১৭:২৬:০৯

চলমান বাণিজ্য যুদ্ধের জেরে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি করা ৫ হাজারের বেশি পণ্যর ওপর অন্তত ৬০ বিলিয়ন ডলারের শুল্ক আরোপ করতে যাচ্ছে চীন।

সোমবার চীনের অর্থমন্ত্রী বলেন, আগামী ১ জুন থেকে এই শুল্ক কার্যকর হবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীন থেকে আমেরিকায় রপ্তানি করা প্রতিটি পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপের হুমকি দেওয়ার পর বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা এল।

চায়নিজ গ্লোবাল টাইমসের পক্ষ থেকে বলা হয়, বেইজিং এর পক্ষ থেকে শুধু মার্কিন নতুন বোয়িং প্লেন অর্ডার বাতিল এবং কৃষি পণ্য বয়কট করা হয়েছে।

সোমবার সকালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, চীন যদি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সমঝোতা না করে তাহলে তাদের খুব কঠিন মাসুল দিতে হবে। তার ওই ঘোষণা আসার আগে শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে চায়না দ্রব্যর ওপর প্রায় ২০০ বিলিয়ন ডলার শুল্ক আরোপের করা হয়।

এদিকে সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে একাধিক টুইট করেন। সোমবার করা এক টুইটে তিনি লিখেন, চীন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে দীর্ঘ দিন ধরে অনেক সুবিধা নিয়ে আসছেন।

চীনের একটি দৈনিক জানায়, বাণিজ্যিক মতপার্থক্য নিয়ে আমেরিকার সঙ্গে আলোচনার জন্য চীনের দরজা সব সময় খোলা রয়েছে। তবে নিজের বাণিজ্যিক নীতির সঙ্গে চীন যেমন আপোষ করবে না তেমনি নিজের অগ্রাধিকারের বিষয়গুলোতে ছাড় দিতেও রাজি নয় বেইজিং।

এর আগে শুক্রবার চীনের উপ প্রধানমন্ত্রী লিউ হি একই ধরনের মন্তব্য করে জানিয়েছিলেন, চীন ও আমেরিকার মধ্যে সহযোগিতা হচ্ছে শ্রেষ্ঠ পন্থা, তবে নিজের মৌলিক নীতির প্রশ্নে আপোষ করবে না বেইজিং।

চীন ও আমেরিকা তাদের কয়েক মাসব্যাপী চলা বাণিজ্য মতবিরোধ নিয়ে কোনো চুক্তিতে উপনীত হতে ব্যর্থ হওয়ার পর বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হলো।

বিস্তারিত খবর

মা আমাদের সব শক্তির উৎস: এরদোয়ান

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১২ ১৭:০৩:০৯

বিশ্বে রোববার মা দিবস পালন করা হচ্ছে। দিনটিতে সোশ্যাল মিডিয়া সয়লাব মাকে ঘিরে সবার স্মৃতিচারণে।

এই তালিকায় শামিল হয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোয়ান। তার দেশেও এদিন মা দিবস পালিত হয়েছে।

তুরস্কের আনাদুলু এজেন্সি খবর দিয়েছে, মা দিবসে জাতির উদ্দেশে এক আবেগী বার্তা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

এরদোয়ানের বার্তায় মা আসলে কি, সমাজ, রাষ্ট্র ও ব্যক্তি জীবনে তার অবদান কি তা সাবলীলভাবে ফুটে উঠেছে।

এরদোয়ান বলেন, ‘মা হলো দরদ, ক্ষমা ও আত্মতাগের মহান প্রতীক।’

বার্তায় তিনি সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় মায়ের অবদানের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘মা আমাদের ভালবাসা, শ্রদ্ধা, সংহতি এবং সহ্যের শিক্ষা দেন। তিনিই আমাদের সব শক্তির উৎস, খুশির আঁধার। মায়ের কারণেই দেশে শান্তি বিরাজ করে।’

‘মায়ের পায়ের নিচে জান্নাত’— প্রবাদটি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘পৃথিবীতে একমাত্র মায়েরাই পারেন সন্তানের শক্তি জোগাতে। তারা সন্তানের প্রথম শিক্ষক এবং পারেন জান্নাতের নিরাপত্তা দিতে।’

বিস্তারিত খবর

ভূমধ্যসাগরে ৩০-৩৫ বাংলাদেশি মারা যাওয়ার আশঙ্কা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১২ ১৬:৫৩:১৮

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে ইতালি যাওয়ার পথে নৌযানডুবির ঘটনায় ৩০ থেকে ৩৫জন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন বলে আশংকা করা হচ্ছে।

আজ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘প্রাপ্ত তথ্য মতে, ডুবে যাওয়া নৌযানটির ৭৫ অবৈধ অভিবাসীর মধ্যে ৫১জন বাংলাদেশি ছিলো। এ পর্যন্ত ১৪ জন বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিরা এখনো নিখোঁজ রয়েছেন। এ থেকে আমাদের আশংকা আমাদের ৩০ থেকে ৩৫ জন নাগরিক নিহত হয়েছেন।’

আবদুল মোমেন ত্রিপোলির বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ইতোমধ্যে কয়েকজন মিশর কর্মকর্তাকে তিউনিসিয়ায় ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে উল্লেখ করে বলেন, ‘এখন পর্যন্ত ঠিক কয়জন মারা গেছেন, তা বলা সম্ভব নয়। আমরা যা জানতে পেরেছি তা হলো, উদ্ধার অভিযান এখনো চলছে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, লিবিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এখন তিউনিসিয়ায় রেড ক্রিসেন্টের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছে।
বাংলাদেশ যুদ্ধ-বিধ্বস্ত লিবিয়ায় কোনো শ্রমিক পাঠাচ্ছে না উল্লেখ করে মোমেন বলেন, ‘এসব বাংলাদেশি নাগরিক সম্ভবত মানব-পাচারকারীদের সহায়তায় মধ্যপ্রাচ্যের কোনো দেশ থেকে লিবিয়ায় ঢুকেছে।’

মন্ত্রী বলেন, অনেক দিন আগ থেকে এ ধরনের মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে আসছে। ‘এটা কিভাবে বন্ধ করা যায় আমি জানি না।’

অবৈধ অভিবাসনের অভিপ্রায় নিয়ে যাতে বাংলাদেশের কোনো নাগরিক দেশের সীমান্ত অতিক্রম করতে না পারে সেজন্য সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয় ও অভিবাসন পুলিশকে নিয়ে সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়ার ওপর জোর দেন।

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত