যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 07:02pm

|   লন্ডন - 01:02pm

|   নিউইয়র্ক - 09:02am

ব্রেকিং নিউজ >>   ইরাকে ফেরি ডুবে নিহত ৭১

  সর্বশেষ :

  ‘আবরার ফুটওভার ব্রিজ’ নির্মাণ কাজ শুরু   হোটেল কক্ষে গোপন ক্যামেরা বসিয়ে ১৬০০ অতিথির অন্তরঙ্গ মুহূর্ত   ইরাকে ফেরি ডুবে নিহত ৭১   নিউ জিল্যান্ডে অ্যাসাল্ট রাইফেল নিষিদ্ধ হচ্ছে   জুমার আজান সম্প্রচার করবে নিউজিল্যান্ডের রেডিও-টিভি   যুক্তরাজ্যে এক রাতে ৫ মসজিদে হামলা   সফল বাইপাস সার্জারির পর ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের উন্নতি   বিয়ে করছেন তিন টাইগার ক্রিকেটার   বিএনপি সরকারবিরোধী উস্কানি দিচ্ছে : হানিফ   পদ্মা সেতুতে বসছে নবম স্প্যান বৃহস্পতিবার   ২৮ তারিখ পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্থগিত   আগামী শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের নারীদেরকে স্কার্ফ পরার আহ্বান   সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশি নিহত   পুলিশ হেফাজতে জামায়াত কর্মীর মৃত্যু, উত্তাল কাশ্মীর   এবার চাকসু নির্বাচনের সিদ্ধান্ত

>>  স্বদেশ এর সকল সংবাদ

‘আবরার ফুটওভার ব্রিজ’ নির্মাণ কাজ শুরু

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর ‘আবরার ফুটওভার ব্রিজ’ নির্মাণ কাজ শুরু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। বাসচাপায় নিহত বিইউপির শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরীর (২০) স্মরণে রাজধানীর প্রগতি সরণির সড়কে আজ বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) এ কাজ শুরু হয়।

এর আগে, বুধবার ফুটওভার ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সু-প্রভাত পরিবহনের বাসের চাপায় আবরার ঘটনাস্থল থেকে মাত্র কয়েক গজ দূরেই নির্মাণ করা হচ্ছে এ ফুটওভার ব্রিজ। সেখানে ওভারব্রিজের পাইলিংয়ের কাজ চলছে।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের সময় মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন,

বিস্তারিত খবর

সফল বাইপাস সার্জারির পর ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের উন্নতি

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-২১ ১৩:৫০:২৪

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ভালো আছেন। সফল বাইপাস সার্জারি শেষে তিনি এখন আইসিইউতে রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিঙ্গাপুরে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা সমন্বয়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক এবং নিওরোলজিস্ট প্রফেসর ডা. আবু নাসার রিজভী এ তথ্য জানান।

ডা. রিজভী জানান, কাদেরের স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে। এ ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝি তাকে কেবিনে স্থানান্তরে আশাবাদী চিকিৎসকরা।

উল্লেখ্য, বুধবার মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে কার্ডিও থোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামির নেতৃত্বে কাদেরের বাইপাস সার্জারি সম্পন্ন হয়।

এ সময় হাসপাতাল লবিতে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য আসলামুল হক, সেতু বিভাগের সিনিয়র সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম, সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা আলাউদ্দীন নাসিম, কাদেরের ছোটভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মীর্জা, জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতাল ঢাকার সহকারী অধ্যাপক ডা. আশরাফুল হক সিয়াম, ঢাকাস্থ নোয়াখালী জেলা সমিতির সভাপতি মো. শাহাবুদ্দীন, আওয়ামী লীগের দফতর উপকমিটির সদস্য ইস্কান্দার মীর্জা শামীম, সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের ওয়েলফেয়ার অফিসার মো. আল আমিন হোসেনসহ কাদেরের পরিবারের সদস্য ও সিঙ্গাপুরের বাংলাদেশ কমিউনিটি নেতারা।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বিএনপি সরকারবিরোধী উস্কানি দিচ্ছে : হানিফ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-২১ ১৩:৪৭:৫৮

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ছোটখাট ইস্যুতে বিএনপি উস্কানি দিচ্ছে। সড়ক দুর্ঘটনায় ছাত্র আন্দোলনে বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে উস্কানি দিচ্ছে। এসব উস্কানি দিয়ে বিএনপি রাজনৈতিকভাবে আরো দেউলিয়াত্বের প্রমাণ দিচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়ায় নিজ তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, মির্জা ফখরুলের যদি ন্যূনতম লজ্জাবোধ থাকতো তাহলে এতিমের টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগে নেত্রীর দন্ডিত হওয়ার কারণে দল থেকে বহু আগেই পদত্যাগ অথবা দুর্নীতির কারণে দল থেকে দুর্নীতিবাজ খালেদা জিয়াকে তাদের অপসারণ করা উচিৎ ছিল।

এ সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাইজাল আলী খানসহ দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

পদ্মা সেতুতে বসছে নবম স্প্যান বৃহস্পতিবার

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-২০ ১৭:৪১:২২

পদ্মা সেতুতে যুক্ত হচ্ছে আরও একটি স্প্যান।  আগামীকাল বৃহস্পতিবার সেতুর নবম স্প্যান বসতে যাচ্ছে।

সবকিছু ঠিক থাকলে সকাল ১১টার মধ্যে বসে যাবে পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান ও জাজিরা প্রান্তের ৮ম স্প্যান।  এই স্প্যান বসলে সেতুর জাজিরা অংশে দৃশ্যমান হবে ১২০০ মিটার। আর মাওয়া প্রান্তে দৃশ্যমান রয়েছে আরও ১৫০ মিটার।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় মাওয়ার কুমারভোগের বিশেষায়িত ওর্য়াকশপ থেকে ‘৬ডি’ নম্বর স্প্যানটি নিয়ে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় ভাসমান জাহাজ। এটি জাজিরা প্রান্তের ৩৫ ও ৩৪ নম্বর খুঁটিতে বসানো হবে।

সেতুর দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন, খুঁটি দুটি সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে। ইতোমধ্যে লিফটিং ফ্রেমটি ৩৫ নম্বর খুঁটির ওপর ঝুলানো হয়েছে। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্ত থেকে ৩৬শ’ মেট্রিকটন ওজন ক্ষমতার ভাসমান জাহাজ তিয়ান-ই নতুন এই স্প্যানটি নিয়ে জাজিরা প্রান্তের ৩৫-৩৪ নম্বর খুঁটির কাছে পৌঁছেছে।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

২৮ তারিখ পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্থগিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-২০ ১৭:৩৯:৫২

চলতি মাসের ২৮ তারিখ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিকেলে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের সাথে বৈঠক শেষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান বিইউপির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী তাওহিদুজ্জামান।

এর আগে বেলা দুটায় মেয়র আতিকুলের সাথে বৈঠকে বসে বিইউপির ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, বিইউপি উপাচার্য মেজর জেনারেল এমদাদ উল বারীসহ পরিবহনসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন প্রগতি সরণি এলাকায় সু-প্রভাত (ঢাকা-মেট্রো-ব-১১-৪১৩৫) বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহত হন। পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা আট দফা দাবি ঘোষণা করেন। বুধবার (২০ মার্চ) সকাল থেকেও রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্তে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন চালিয়ে যান।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

এবার চাকসু নির্বাচনের সিদ্ধান্ত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-২০ ১৭:৩২:১১

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (চাকসু) নির্বাচনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তাই চাকসু’র আগের নীতিমালা যুগোপযোগী করার জন্য কমিটিও গঠন করবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বুধবার সন্ধায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, চাকসু নির্বাচন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। চাকসুর নীতিমালাগুলো অনেক পুরোনো। সময়পোযোগী নীতিমালা প্রণয়নের জন্য আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) একটি কমিটি গঠন করা হবে।

উল্লেখ, দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি বুধবার

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৯ ১৪:৪৮:৩৭

আজ বুধবার সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি করা হবে। সিঙ্গাপুরের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের ডা. কোহ সিয়াম সুন ফিলিপের নেতৃত্বে মেডিকেল বোর্ডের সিনিয়র সদস্য কার্ডিওথোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামি এই সার্জারি করবেন।
মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা সমন্বয়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক ও নিওরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী এ তথ্য জানান।
উল্লেখ্য, গত ৩ মার্চ ভোরে হৃদরোগে আক্রান্ত হন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দ্রুত তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপরের দিন ৪ মার্চ ভারতের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠি এসে তাকে দ্রুত সিঙ্গাপুর নেয়ার পরামর্শ দেন। ওইদিনই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে প্রথমে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে সম্প্রতি ওবায়দুল কাদেরকে কেবিনে নেয়া হয়। মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের ডা. কোহ সিয়াম সুন ফিলিপের নেতৃত্বে একটি মেডিকেল বোর্ড ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা দিচ্ছে।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

অছাত্র হয়েও বুয়েটের হলে শ্যালকের রুমে থাকতাম, সাবই ডাকত দুলাভাই: রাষ্ট্রপতি

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৯ ১৪:৪৭:৩১

অছাত্র হয়েও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) একটি হলে থাকতেন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

তিনি বলেছেন, বুয়েটের ছাত্র না হওয়ায় হলের ডাইনিংয়ে খেতে পারতাম না। পাশেই হাসিনা হোটেলে মাত্র পাঁচ-ছয় আনা হলেই পেট ভরে খাওয়া যেত।

মঙ্গলবার বুয়েটের ১১তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

১৯৬৪ সালে বুয়েটের হলে থাকার স্মৃতিচারণ করে এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ছাত্র আমি ভালো ছিলাম না। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হই নাই। আমি ইন্টারমিডিয়েটে যুক্তিবিদ্যায় রেফার্ড পাইছিলাম। তখন সারা দেশের রেফার্ড বিষয়ের পরীক্ষাগুলো ঢাকা কলেজে নেয়া হতো।

তিনি বলেন, রেফার্ড পরীক্ষা দিতে ঢাকায় এসে বুয়েটের শেরেবাংলা হোস্টেলে স্ত্রীর ছোট ভাইয়ের (শালার) রুমে উঠি। এক-দেড় মাস হলে থাকার সুবাদে সবাই জেনে যায় আমি একজনের দুলাভাই লাগি। তারা আমারে দুলাভাই ডাকে আর আমি পাইকারিভাবে শালা ডাকতাম।

রাষ্ট্রপতি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র না হওয়ায় হলের ডাইনিংয়ে খেতে পারতাম না। পাশেই হাসিনা হোটেলে মাত্র পাঁচ-ছয় আনা হলেই পেট ভরে খাওয়া যেত। আবার একটু পায়ে হেঁটে মেডিকেলের সামনে পপুলার হোটেলে গেলে চার আনা খেলেই পেট ভরতো।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ওই সময় বুয়েটে কোনো নারী শিক্ষার্থী ছিল না। বর্তমানে প্রায় ৩০ ভাগ শিক্ষার্থী ছাত্রী। দেশের মেয়েরা এগিয়ে যাচ্ছে এটাই তার প্রমাণ।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

রাজধানীতে বেপরোয়া বাস পিষে মারল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে, ৮ দফা দাবিতে আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৯ ১৪:৩৪:১৪

রাজধানীর প্রগতি সরণিতে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাস পিষে মারল আবরার আহমেদ চৌধুরী নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে।
সোমবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) ওই ছাত্রকে চাপা দেয় সুপ্রভাত পরিবহনের ওই বেপরোয়া বাসটি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, একই পরিবহনের অপর একটি বাসকে ওভারটেক করার জন্য বেপরোয়া গতিতে বাসটি চালাচ্ছিলেন চালক। দুর্ঘটনার পর নিহত ছাত্রের সহপাঠীরা বাসটি আটক করে। এ সময় চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।
এদিকে ছাত্র নিহত হওয়ার ঘটনায় কুড়িল বিশ্বরোডের নর্দা এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। বিভিন্ন দাবিতে বিকেল পর্যন্ত আন্দোলন করে আজ পর্যন্ত তা স্থগিত করে শিক্ষার্থীরা। আজ সকালে ফের রাস্তায় নামার ঘোষণা দিয়েছে তারা।
এদিকে বিকেল ৪টার দিকে বনানী কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। বিইউপির ছাত্র আবরার মালিবাগে নিজ বাসায় থাকতেন।
এর আগে বেলা দেড়টার দিকে মিরপুর সেনানিবাসের মধ্যে বিইউপি এডিবি গ্রেড গ্রাউন্ড মাঠে তার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ২৫, এডিবি গ্রেড মসজিদের ইমাম মাওলানা তাজুল ইসলাম এতে ইমামতি করেন।
এ সময় আবরার আহমেদের বাবা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আরিফ আহমেদ চৌধুরী, বিইউপির ভিসি মেজর জেনারেল মো. এমদাদ-উল বারী, ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম, আবরার আহমেদের সহপাঠী, বন্ধু-বান্ধব, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও আত্মীয়-স্বজন জানাজায় অংশ নেন।
পরে দাফনের জন্য আবরারের মরদেহ বনানী কবরস্থানের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়।
আবরার নিহতের ঘটনায় রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক গেট এলাকায় রাস্তা অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের অবরোধে বিমানবন্দর থেকে বাড্ডা হয়ে রামপুরা-গুলিস্তান রুটের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
পরিস্থিতি সামাল দিতে ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তিনি শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করেন এবং আগামী তিন মাসের মধ্যে ঘটনাস্থলে একটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের আশ্বাস দেন। কিন্তু শিক্ষার্থীরা সেই আশ্বাস উপেক্ষা করে সন্ধ্যা পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করেন।
সু-প্রভাত বাসের চাপায় নিহত বিইউপির ছাত্র আবরার ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ দাবিতে চলা আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন।
বেলা ১১টার দিকে প্রগতি সরণির রোডের নর্দায় দুর্ঘটনাস্থলে মেয়র এলে বিইউপির অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী তাৎক্ষণিক লিখিতভাবে ১২ দফা দাবি পেশ করেন। মেয়র ঘটনাস্থল থেকে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান শিক্ষার্থীদের। ১২ দফা দাবির মধ্যে অন্যতম হচ্ছে-
১. ১০ দিনের মধ্যে সু-প্রভাত বাসের চালক, হেলপার ও মালিকের ফাঁসি।
২. সু-প্রভাত ও জাবালে নূরসহ যেসব বাস আজ এবং এর আগে দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে সেসব বাসের রুট পারমিট বাতিল।
৩. বাসচালক ও হেলপারের ডোপ টেস্ট করতে হবে।
৪. বাসসহ গণপরিবহনের চালক ও হেলপারের আইডি কার্ড ভিজিবল করা।
৫. বসুন্ধরা আবাসিক/যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে জেব্রা ক্রসিংসহ নিহত আবরারের নামে ফুটওভার ব্রিজ করতে হবে দুই মাসের মধ্যে।
পরবর্তীতে গুছিয়ে আট দফা দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবিগুলো হলো-
১. পরিবহন সেক্টরকে রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত করতে হবে এবং প্রতি মাসে বাসচালকের লাইসেন্সসহ সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চেক করতে হবে।
২. আটক চালক ও সম্পৃক্ত সকলকে দ্রুত সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ শাস্তির আওতায় আনতে হবে।
৩. আজ থেকে ফিটনেস বিহীন বাস ও লাইসেন্স বিহীন চালককে দ্রুত সময়ে অপসারণ করতে হবে।
৪. ঝুঁকিপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় সকল স্থানে আন্ডারপাস, স্পিড ব্রেকার এবং ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করতে হবে।
৫. চলমান আইনের পরিবর্তন করে সড়ক হত্যার সাথে জড়িত সকলকে সর্বোচ্চ শাস্তির আওতায় আনতে হবে।
৬. দায়িত্ব অবহেলাকারী প্রশাসন ও ট্রাফিক পুলিশকে স্থায়ী অপসারণ করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
৭. প্রতিযোগিতামূলক গাড়ি চলাচল বন্ধ করে নির্দিষ্ট স্থানে বাসস্টপ এবং যাত্রীছাউনি করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং
৮. ছাত্রদের হাফ পাস (অর্ধেক ভাড়া) অথবা আলাদা বাস সার্ভিস চালু করতে হবে।
গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-অপারেশন) আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন, ঘাতক সুপ্রভাত বাস ঢাকা-মেট্রো-ব-১১-৪১৩৫ চালককে আটক করা হয়েছে। চালকের নাম সিরাজুল ইসলাম (২৯)। তার ড্রাইভিং লাইসেন্স, গাড়ির কাগজপত্র ঠিক আছে কিনা যাচাই-বাছাই চলছে। এ ঘটনায় হেলপার পলাতক রয়েছে।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সড়কে প্রাণ ঝরছেই, সাত জেলায় ১০ জনের মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৯ ১৪:৩১:৪৯

দেশের সাত জেলায় মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত সড়ক দুর্ঘটনায় সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী-সন্তানসহ ১০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে সকাল সাড়ে ৭টায় রাজধানী ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা গেটের সামনে বাসচাপায় আবরার আহমেদ চৌধুরী নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। তিনি সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আরিফ আহমেদ চৌধুরীর বড় ছেলে।
অন্যদিকে বেলা ২টায় সিলেটের বিছানাকান্দি থেকে জাফলং যাওয়ার পথে ট্রাকচাপায় সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট সোজা আহমদের স্ত্রী ইলোরা পারভীন ও তার ছেলে সাজিদ মিয়া নিহত হন।

এছাড়া গাইবান্ধার ধাপেরহাট এলাকায় দুই নারীসহ তিনজন, নাটোরের সিংড়া উপজেলায় এক যুবক এবং চুয়াডাঙ্গায় এক কিশোর, জামালপুরে স্কুলছাত্র, যশোরের শার্শায় এক যুবক নিহত হয়েছেন।

রাজধানী : সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর বসুন্ধরা গেট এলাকায় সু-প্রভাত বাসের চাপায় আবরার আহমেদ চৌধুরী নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী। আবরার মালিবাগে মা-বাবার সঙ্গে নিজ বাসায় থাকতেন।

এ ঘটনার পর নিহতের সহপাঠীরা সকাল থেকে ওই এলাকার সড়ক অবরোধ করেন। এতে বসুন্ধরা গেট এলাকা থেকে রামপুরা পর্যন্ত তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তিনি শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করেন এবং আগামী তিন মাসের মধ্যে ঘটনাস্থলে একটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের আশ্বাস দেন।

এরপর বিকেল ৪টার দিকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয় আবরার আহমেদকে। এর আগে বেলা দেড়টার দিকে মিরপুর সেনানিবাসের মধ্যে বিইউপি এডিবি গ্রেড গ্রাউন্ড মাঠে তার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ২৫, এডিবি গ্রেড মসজিদের ইমাম মাওলানা তাজুল ইসলাম এতে ইমামতি করেন। এ সময় আবরার আহমেদের বাবা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আরিফ আহমেদ চৌধুরী, বিইউপির ভিসি মেজর জেনারেল মো. এমদাদ-উল বারী, ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম, আবরার আহমেদের সহপাঠী, বন্ধু-বান্ধব, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও আত্মীয়-স্বজন জানাজায় অংশ নেন।
সিলেট : বেলা ২টার দিকে বিছানাকান্দি থেকে জাফলং যাওয়ার পথে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট সোজা আহমদের স্ত্রী ইলোরা পারভীন (৩৮) ও তার ছেলে সাজিদ মিয়া (৬)। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। দুপুরে তাদের বহনকারী সিএনজিচালিত অটোরিকশা সালুটিকর-গোয়াইনঘাট সড়কের সতিগ্রাম এলাকায় পৌঁছালে একটি ট্রাক চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মা-ছেলে নিহত হন।

আহতরা হলেন- সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট সোজা আহমদের পরিবারের সঙ্গে আসা জনৈক আবদুর রশিদের ছেলে মাহিন ও সজিব। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেটের গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মো. আবদুল জলিল বলেন, গোয়াইনঘাটের সতিগ্রামের মোড়ে সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী ও ছেলেকে বহনকারী সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দেয় ট্রাক। তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দুইজন আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে গোয়াইনঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

গাইবান্ধা : মঙ্গলবার সকালে রংপর-বগুড়া মহাসড়কের ধাপেরহাট এলাকার ফাইভ স্টার মোড়ে যাত্রীবাহী বাসে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও সাতজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার প্রথম ডাঙ্গা গ্রামের আনছের আলীর স্ত্রী ছামছুন্নাহার বেগম (৩৩), ধরলা সাথী গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের স্ত্রী ঝর্ণা বেগম (৩২) ও সিংহসিংলী গ্রামের জয়নাল মিয়ার ছেলে বাসের সুপার ভাইজার রেজাউল করিম (৩৪)।

পুলিশ জানায়, রংপর-বগুড়া মহাসড়কে জাকির পরিবহনের বাসটি ঠাকুরগাঁওয়ের উদ্দেশ্যে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসে। বাসটি ধাপেরহাট এলাকায় ফাইভ স্টার মোড়ে পোঁছালে বগুড়া থেকে ছেড়ে আসা একটি কাভার্ডভ্যান বাসটিকে সাইড দিতে গিয়ে পেছনের দিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের তিন যাত্রী নিহত হন। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

নাটোর : সকাল ৮টার দিকে সিংড়া উপজেলার শেরকোলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মাসুদ রানা (২৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত মাসুদ রানা বগুড়ার শিবগঞ্জের রফিকুল ইসলামের ছেলে।

ঝলমলিয়া হাইওয়ে থানা পুলিশের ইনচার্জ এসআই মোজাম্মল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মাসুদ রানা ট্রাকযোগে বগুড়া থেকে নাটোরের দিকে যাচ্ছিলেন। পথে শেরকোল এলাকায় তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে নামেন। পরে চলন্ত ওই ট্রাকে ওঠার সময় পা পিছলে পড়ে গিয়ে ট্রাকের চাকার নিচে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

চুয়াডাঙ্গা : বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের হাতিকাটা এলাকায় কৃষি বিভাগের হর্টিকালচার সেন্টারের একটি সরকারি পিকআপের ধাক্কায় রাজু আহমেদ (১৭) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছেন। দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। রাজু আহমেদ হাতিকাটা গ্রামের ডাবলু হোসেনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, হর্টিকালচার সেন্টারের একটি পিকআপ (ঢাকা মেট্রো-ঠ-১৩-০৩৪৫) মেহেরপুর থেকে চুয়াডাঙ্গার দিকে আসার পথে হাতিকাটা নামক এলাকায় পৌছায়। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা বাইসাইকেল চালক রাজুকে ধাক্কা দিলে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। এরপর এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

জামালপুর : দুপুরে জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পুল্লাকান্দি ব্রিজের পূর্বপাশে সিএনজিচালিত অটোরিকশা-মোটরসাইেকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ওয়াজ করুনী মামুন নামে দশম (১৬) শ্রেণির এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে।

নিহত ওয়াজ করুনী মামুন উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের পূর্ব সর্দারপাড়া গ্রামের ডা. আব্দুস সামাদের ছেলে। সে আজিজা কিন্ডার গার্টেনের দশম শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ জানায়, দেওয়ানগঞ্জের দিকে আসা সিএনজিচালিত অটোরিকশাটির সঙ্গে একটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংর্ঘষ হয়। এতে রাস্তায় ছিটকে পড়েন মামুন। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মামুন মারা যায়। দেওয়ানগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আশরাফুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বেনাপোল (যশোর) : দুপুর ১২টার দিকে শার্শা উপজেলার নাভারণ-সাতক্ষীরা সড়কের বাগুড়ী এলাকায় ট্রাকের চাপায় লিটন আনছারী (৩২) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। তিনি আনছারী বাগআঁচড়া বাগুড়ী গ্রামের সিদ্দিক আনছারীর বড় ছেলে।

পুলিশ জানায়, লিটন আনছারী বাগআঁচড়া বেলতলা বাজারে যাচ্ছিল। বাগুড়ী মুড়ির মিল স্থানে যশোরগামী মুরগির বাচ্চাবাহী ট্রাকটি (ঢাকা-মেট্রো-ট-১৫-১৭৪৯) একটি রিকশা অতিক্রমের সময় রাস্তার ডানে চাপ দেয়। এ সময় মোটরসাইকেলটি রাস্তার খাদে পড়ে গেলে লিটন রাস্তার ওপর পড়ে যায়। মুহূর্তের মধ্যে ট্রাকটি লিটনের মাথার ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার।

এ ঘটনায় নাভারণ-সাতক্ষীরা সড়কে কিছু সময় যান চলাচল বন্ধ ছিল। খবর পেয়ে বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক সুকদেব কুমার রায়ের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

রাঙামাটিতে নির্বাচনকর্মীদের উপর গুলিবর্ষণ: নিহত ৭

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৮ ১৩:৫৫:০৪

রাঙামাটির সীমান্তবর্তী বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেকের কংলাক থেকে নির্বাচন শেষে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সাতজন নিহত হয়েছেন।

সোমবার সন্ধ্যার দিকে ৯ কিলো এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সহকারী প্রিজাইডিং শিক্ষক মো. আমির হোসেন(৪০), ভিডিপি মো. আল আমিন(১৭), ভিডিপি ইউনিয়ন লিডার বিলকিস(৪০), ভিডিপি দলনেতা মিহির কান্তি দত্ত(৪০), ভিডিপি জাহানারা বেগম, পথচারী মন্টু চাকমা (২৭) ও আবু তৈয়ব(৪০)।

বাঘাইছড়ি-দিঘিনালা সড়কের ৯ কিলো এলাকায় নির্বাচন কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের বহনকারী চাঁদের গাড়িগুলোর উপর হামলা হয়। এতে নির্বাচনী কর্মকর্তাসহ ছয় জন নিহত হন। 

পরে রাত পৌনে ১১টার দিকে চট্টগ্রামের হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও একজনের মৃত্যুর খবর জানান রাঙামাটির জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ।

পুলিশ ও স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হামলায় সাতজন নিহত হওয়ার পাশাপাশি চারজন পুলিশসহ আরও ১০-১২ গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। নিহত ও আহতরা সবাই নির্বাচনের দায়িত্বে ছিলেন

পুলিশ জানায়, উপজেলার কংলাক, মাচালং ও বাঘাইহাট কেন্দ্র থেকে নির্বাচন কর্মকর্তা ও নিরাপত্তা কর্মকর্তারা ভোটগ্রহণ শেষে উপজেলা সদরে আসার পথে ৯ কিলো এলাকায় পৌছলে সন্ত্রাসীরা গুলি চালালে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পাশের পাহাড় থেকে তাদের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি করা হয়। আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে বাঘাইছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পুলিশ আরও জানায়, কেন্দ্র থেকে আসার পথে একটি চাঁদের গাড়িতে প্রায় ২৫ জন নির্বাচনী কর্মকর্তা ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ছিলেন।

এদিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. ছুফি উল্লাহ জানান, ঘটনার পরপরই গুলিবিদ্ধদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ চার পুলিশ সদস্যসহ আহত আরও ৭/৮ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সেনাবাহিনীর সহায়তায় হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

অসুস্থতার কারণে আদালতে খালেদা জিয়াকে হাজির করেনি কারা কর্তৃপক্ষ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৮ ০৪:২৯:০৪

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াসহ অপর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আজ সোমবার দিন ধার্য ছিল। তবে অসুস্থতার কারণে মামলার অন্যতম আসামি খালেদা জিয়াকে আজ আদালতে হাজির করা হয়নি।

খালেদা জিয়াকে হাজির না করে কেরাণীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের সহকারী সার্জন ড. মাহমুদুল হাসান স্বাক্ষরিত কাস্টডিতে বলা হয়- ‘শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণে আজ খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজি করা হয়নি।’

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি মোশাররফ হোসেন কাজল শুনানিতে বলেন, আজ অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ধার্য রয়েছে। তিনি জেলখানায় আছেন। জেল কর্তৃপক্ষ তাকে হাজির করেনি। তার অনুপস্থিতিতে অভিযোগ গঠন শুনানি হতে পারে।

অপরদিকে খালেদার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেন, খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে অসুস্থ। এ কারণে তাকে আদালতে হাজির করেনি কারা কর্তৃপক্ষ। তার অনুপস্থিতিতে অভিযোগ গঠনের শুনানি হতে পারে না। তাছাড়া আমরা মামলার প্রয়োজনীয় কাগজ এখনও পাইনি। তাই আমাদের সময় দেয়া হোক।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে পুরান ঢাকার আলিয়া মাদরাসা মাঠে অবস্থিত ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ সৈয়দ দিলজার হোসেনের আদালত আগামী ১৭ এপ্রিল অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেন। এর আগে ২৭ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে খালেদা জিয়াকে আলিয়া মাদরাসা মাঠ আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে ১টা ৫ মিনিটে তাকে আবারও কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় বিচারক সময় আবেদন মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ১৮ মার্চ পরবর্তী দিন ধার্য করেছিলেন।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী চারদলীয় জোট সরকারের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা করেন। মামলার পরদিন খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয় জরুরি ক্ষমতা আইনে। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুদকের দায়ের করা দুই মামলায় ১০ ও ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। আপিলে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড বেড়ে ১০ বছর এবং জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিশেষ আদালতে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হন তিনি। গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার পর থেকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে অবস্থিত ঢাকা সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি আছেন খালেদা জিয়া।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- বিএনপি দলীয় সাবেক মন্ত্রী এম শামছুল ইসলাম, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, প্রয়াত মন্ত্রী কর্নেল (অব.) আকবর হোসেনের স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক সদস্য এ কে রশিদ উদ্দিন আহমেদ, গ্লোবাল অ্যাগ্রোট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাটকো) পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, গ্যাটকোর পরিচালক সৈয়দ তানভির আহমেদ ও সৈয়দ গালিব আহমেদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান এএসএম শাহাদত হোসেন, বন্দরের সাবেক পরিচালক (পরিবহন) এ এম সানোয়ার হোসেন ও বন্দরের সাবেক সদস্য লুৎফুল কবীর।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

‘মুজিব কোট’ পরে এসেছিল শিশুরা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৮ ০৪:২৩:৫৩

জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় বঙ্গবন্ধুৃর শততম জন্মদিন পালনে মুজিব কোট পরে এসেছিল শিশুরা। ছবি: সংগৃহীত

গতকাল (রোববার) শততম জন্মদিন গেল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের। দেশব্যাপী উদযাপিত হল দিনটি।

রোববার পালিত হলো শিশু দিবসও। স্বাধীনতার মহান স্থপতিকে স্মরণ করতে জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় জমায়েত হয়েছিল কোমলমতি শিশুরা।

প্রত্যেকের গায়ে পরা ছিল বঙ্গবন্ধুর প্রিয় পোশাক ‘মুজিব কোট’ । যেন সবাই ভবিষ্যতের ‘বঙ্গবন্ধু’। তাদের কণ্ঠে উচ্চারিত হলো ৭ মার্চের সেই অবিনাশী ভাষণ।

এভাবে জাতির পিতার শততম জন্মদিনকে আরও রঙিন করে তুলল শিশুরা।

এ বর্ণিল অনুষ্ঠান উদযাপনের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করল সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘মুক্তির গান’। ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের পথে বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে অনুষ্ঠিত হয় এ আয়োজন।

শুরুতেই জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা। এর পর বঙ্গবন্ধুর সাতই মার্চের ভাষণ ‘সেই অবিনাশী উচ্চারণ’ প্রতিযোগিতা শীর্ষ ৫০ শিশুর ভাষণের ভিডিও কোলাজ প্রদর্শিত হয় বড় পর্দায়।

এরপর সাংস্কৃতিক সংগঠন বাতিঘরের শিশুশিল্পীদের পরিবেশনায় নৃত্য-গীতিনাট্য ‘কখন আসবে কবি’ উপস্থাপিত হয়।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পর্ব শেষে ছিল সংক্ষিপ্তত আলোচনা পর্ব। যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হৃদয়ে যা ধারণ করতেন, সেটিই তিনি বলেছিলেন ৭ মার্চের ভাষণে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিশুরা বঙ্গবন্ধুর ভাষণকে হৃদয়ে যেভাবে ধারণ করেছে তা দেখে আমি অভিভূত। এই শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। যাদের জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।’

বক্তব্য শেষে শুরু হয় পুরস্কার প্রদান পর্ব। অতিথিরা ‘সেই অবিনাশী উচ্চারণ’ প্রতিযোগিতায় সেরা ৭ প্রতিযোগিকে পুরস্কৃত করেন।

পাশাপাশি সেরা তিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। ময়মনসিংহের নান্দাইলের দরিল্লা-গয়েশপুর আ. হামিদ জুনিয়র হাই স্কুল, ঢাকার বশির উদ্দিন আদর্শ স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং মোহাম্মদাবাদ ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসাকে পুরস্কৃত করা হয়।

পুরস্কার পর্ব শেষে জাদুশিল্পী লিটন পরিবেশন করেন জাদু। সন্ধ্যা নামলে শিশুদের মনরঞ্জনের উদ্দেশে আতশবাজির ঝলকানির দেখা মেলে মানিক মিয়া এভিনিউয়ের আকাশে।

সবশেষে ব্যান্ড দলের পরিবেশনায় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

লাশ আনতে প্রতি পরিবারের একজন নিউজিল্যান্ডে যেতে পারবেন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৭ ১৩:৫১:৫৫

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে হামলায় নিহত বাংলাদেশিদের লাশ হস্তান্তরের জন্য পরিবারের একজন সদস্যকে সেখানে নেবে নিউজিল্যান্ড সরকার।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, ওই হামলায় মোট চারজন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির কাছ থেকে তথ্য পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ড. আবদুস সামাদ ও হোসনে আরা আহমেদের পরিচয় নিউজিল্যান্ডের পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

যারা বাংলাদেশ থেকে যাবেন, তারা স্বজনের লাশ নিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন। ময়নাতদন্ত ও পরিচয় শনাক্ত করার কাজ শেষে রোববারই লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর শুরু হবে বলে জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অ’ডুর্ন।

শাহরিয়ার বলেন, নিহত ড. আব্দুস সামাদের পরিবার তাকে নিউজিল্যান্ডে কবর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নিহতের বড় ছেলে বাংলাদেশ থেকে সেখানে যাবে। তবে নিহত হোসনে আরাকে নিউজিল্যান্ডে কবর দেওয়া হবে নাকি লাশ দেশে ফিরিয়ে আনা হবে সে বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

গত শুক্রবার জুমার নামাজের প্রস্তুতির সময় ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে বর্ণবাদী এক সন্ত্রাসীর নৃশংস হামলায় অন্তত ৫০ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হন।

ওই হামলার সময় আল নুর নামের মসজিদটিতে নামাজ পড়তে গিয়ে অল্পের জন্য বেঁচে ফেরেন সফররত বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

আবারও ডাকসুর পুনর্নির্বাচন চাইলেন ভিপি নুর

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৭ ১৩:৪৭:০৬

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবির) শিক্ষার্থীরা পুনর্নির্বাচন চান, আমি তাদের দাবির সঙ্গে একমত। ভিপির দায়িত্ব নেইনি, একসাথে যারা আন্দোলন করছি তাদের সঙ্গে কথা বলেই দায়িত্ব নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব, যে দায়িত্ব নেব কিনা। বললেন ডাকসুর নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর।

আজ রোববার (১৭ মার্চ) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা বলেন তিনি।

নুর বলেন, শুরু থেকেই আমার অবস্থান স্পষ্ট ছিল। সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একমত পোষণ করে আমিও পুনর্নির্বাচন চাই। ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ডাকসুর নির্বাচন ঢাবির ইতিহাস ঐতিহ্যে কালিমা লেপন করেছে। ভিপি প্রার্থী হয়ে আমি নিজেও হামলার শিকার হয়েছি। শিক্ষকরাই অনিয়মের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

এদিকে পাঁচ দফা দাবিতে আগামীকাল সোমবার (১৮ মার্চ) ক্লাস বর্জন ও উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে নির্বাচন বর্জনকারী প্যানেলগুলো। আলাদা সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তারা।

দাবিগুলো হলো- ডাকসু নির্বাচন বাতিল, পুনঃতফসিল দেয়া, উপাচার্যের পদত্যাগ, মামলা প্রত্যাহার ও হামলাকারীদের বিচার।

নুর বলেন, পুনর্নির্বাচনের বিষয়ে ৫টি প্যানেল এক সাথেই আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

নুরুল হক নুর বলেন, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ব্যক্তি। তার প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থেকে আমি গণভবনে গিয়েছি। সেটি আমার সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেই গণভবনে গিয়েছি।

তিনি বলেন, ডাকসু নির্বাচনটা ঢাবির বিষয়, সরকারের নয়। নির্বাচিত হিসেবে আমাদের ডাকা হয়েছিল। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে নির্বাচনের অনিয়ম নিয়ে বলেছি, এছাড়া আবাসন সমস্যাসহ ঢাবির সব সমস্যা নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইতালিতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রবাসীর মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৭ ১৩:৩৭:৫৭

বাংলাদেশ সমিতি সিসিলির সাবেক সভাপতি,পালেরমো আওয়ামিলীগের উপদেষ্টা, পালেরমো বাঙ্গালি কমিউনিটির  প্রিয়মুখ, শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলা নিবাসী মুহিতুর রহমান চৌধুরী  শনিবার রাত আনুমানিক দশ ঘটিকার নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাসায় ফেরার পথে পালেরমোর অন্যতম প্রধান সড়ক  ভিয়া রোমা'য়  এক মর্মান্তিক  দুর্ঘটনায় ইন্তেকাল করেন।( ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন )
ইতালীয়ান পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে ধারণা করা হচ্ছে রাস্তা পার হবার সময় দ্রুতগতির  একটি গাড়ীচাপায়  ঘটনাস্থলেই তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। দুর্ঘটনার ভয়াবহতার অনুমান করে গাড়ি চালক না থেমেই   ঘঠনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে ।পুলিশ সড়কের আশেপাশের সিসি ক্যামেরার  ভিডিও ফুটেজ ও দুর্ঘটনার সময় উপস্থিত পথচারীদের তথ্যের ভিত্তিতে এই গাড়ির সন্ধান করছে।   

প্রবাসী মুহিতুর রহমান চৌধুরীর এই মর্মান্তিক মৃত্যুতে পালেরমোর বাঙ্গালি কমিউনিটিতে নেমে আসে শোকের ছায়া। মৃত্যকালে তিনি  স্ত্রী,এক ছেলে,এক মেয়ে সহ  রেখে গেছেন আরও অসংখ্য গুনগ্রাহী।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি নিহতের সংখ্যা ৮ হতে পারে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৭ ১৩:৩৪:৫৬

বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে পেরেছি বাংলাদেশি নিহতের সংখ্যা ৪ থেকে বেড়ে ৮ হয়েছে। তবে মৃতের সংখ্যা বাড়ার বিষয়টি আমাদের মিশন এখনও নিশ্চিত করেনি। বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ স্টাডি ট্রাস্ট আয়োজিত ‘আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বঙ্গবন্ধু শীর্ষক’ এক সেমিনারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সুখবর হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের সদস্যা ভালোমতো দেশে ফিরে এসেছেন। আর খারাপ খবর হচ্ছে মৃত্যের সংখ্যা বাড়তে পারে।

এরপর তিনি বলেন, আমরা জানতে পেরেছি নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি নাগরিকদের নিহতের সংখ্যা বেড়েছে। সেখানে মৃতের সংখ্যা ৪ থেকে বেড়ে ৮ জন হতে পারে। তবে ঠিক কতজন বাংলাদেশি মৃত্যুবরণ করেছেন, সেটা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ক্রাইস্টচার্চে হামলার ঘটনার পর হাইকমিশনের সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ের কোনও ঘাটতি নেই। ক্রাইস্টচার্চ হামলার পরিপ্রেক্ষিতে কালচার অব পিস বা ‘শান্তির জন্য সংস্কৃতি’- শীর্ষক কর্মসূচি আমরা বাস্তবায়ন করবো।

তিনি আরও বলেন, আমাদের মিশন এরইমধ্যে সেখানে কাজ শুরু করেছে। কোনও নিহতের পরিবার যদি তাদের স্বজনদের মরদেহ দেশে আনতে চায়, তাহলে তাদের খরচ সরকার বহন করবে। এ জন্য সরকার কাজ শুরু করে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার জুমার দিনে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালান ব্রেন্টন ট্যারেন্ট নামে এক অস্ট্রেলীয়। এতে এ পর্যন্ত ৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। হামলায় আহত হয়েছেন প্রায় অর্ধশত মানুষ।

এ সন্ত্রাসী হামলায় এখনও পর্যন্ত ৪ বাংলাদেশির নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। তারা হচ্ছেন- স্থানীয় লিঙ্কন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. আবদুস সামাদ, সিলেটের ফরিদ আহমেদের স্ত্রী হোসনে আরা আহমেদ, চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ থানার মোজাম্মেল হক এবং নারয়ণগঞ্জের ওমর ফারুক।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিন আজ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৭ ০৪:০২:৪৭

আজ ১৭ মার্চ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস। ১৯২০ সালের এই দিনে ফরিদপুর জেলার তৎকালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধের এই মহানায়ক। শৈশবে ‘খোকা’ নামে পরিচিত সেই শিশুটি পরবর্তী সময়ে হয়ে ওঠেন নির্যাতিত-নিপীড়িত মানুষের মুক্তির অনন্য দিশারি। গভীর রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, আত্মত্যাগ ও জনগণের প্রতি অসামান্য মমত্ববোধের কারণেই পরিণত বয়সে হয়ে ওঠেন এক অবিসংবাদিত নেতা।

যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আজ দিবসটি উদযাপন করা হবে। আজ সরকারি ছুটি। এ উপলক্ষে সরকারি ও বেসরকারিপর্যায়ে ঢাকা ও টুঙ্গিপাড়াসহ সারা দেশে বিস্তারিত কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় চিরনিদ্রায় শায়িত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ নানা কর্মসূচিতে অংশ নেবেন। এ ছাড়া দিবসটিতে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

১৯২০ সালের এই দিনে বৃহত্তর ফরিদপুর জেলার তৎকালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়ার সম্ভ্রান্ত শেখ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন শেখ মুজিবুর রহমান। তার বাবার নাম শেখ লুৎফর রহমান ও মাতার নাম সায়েরা খাতুন। পিতা-মাতার চার কন্যা এবং দুই পুত্রের সংসারে তিনি ছিলেন তৃতীয়।

আজীবন সংগ্রামী বঙ্গবন্ধুর যখন জন্ম হয় তখন ছিল ব্রিটিশ রাজত্বের শেষ অধ্যায়। গ্রামের স্কুলে তার লেখাপড়ার হাতেখড়ি। ১৯২৭ সালে শেখ মুজিব গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা শুরু করেন। কিশোর বয়সেই সক্রিয় রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন তিনি। গোপালগঞ্জ মিশন স্কুলে অষ্টম শ্রেণীতে অধ্যয়নকালে তৎকালীন ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে যোগদানের কারণে বঙ্গবন্ধু প্রথমবারের মতো কারাবরণ করেন। এরপর থেকে শুরু হয় তার বিপ্লবী জীবন। গোপালগঞ্জ মিশন স্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পাস করার পর তিনি কলকাতার ইসলামিয়া কলেজে (বর্তমান নাম মাওলানা আজাদ কলেজ) ভর্তি হন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত এই কলেজটি তখন বেশ নামকরা ছিল। এই কলেজ থেকে সক্রিয়ভাবে তিনি ছাত্র রাজনীতি শুরু করেন। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের বছর এ কলেজ থেকে বিএ ডিগ্রি লাভ করেন। সহকর্মীদের নিয়ে ১৯৪৮ সালে গঠন করেন ছাত্রলীগ। পাকিস্তান-ভারত পৃথক হয়ে যাওয়ার পর শেখ মুজিব পূর্ব পাকিস্তানে ফিরে এসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে ভর্তি হন। ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠা করেন পূর্ব-পাকিস্তান মুসলিম ছাত্রলীগ।
১৯৩৮ সালে ১৮ বছর বয়সে বঙ্গবন্ধুর সাথে বেগম ফজিলাতুন্নেসার বিয়ে হয়। এই দম্পতির ঘরে দুই কন্যা এবং তিন পুত্রের জন্ম হয়। কন্যারা হলেনÑ শেখ হাসিনা এবং শেখ রেহানা। আর পুত্ররা হলেনÑ শেখ কামাল, শেখ জামাল এবং শেখ রাসেল।

বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী ছিলেন। কালের পরিক্রমায় কখনো ভাষার জন্য, কখনো স্বাধিকারের জন্য চলতে থাকে তার আন্দোলন। এসবের আড়ালে গড়ে উঠে স্বাধীনতার আন্দোলন। ৬৬’র ছয় দফা আন্দোলন, ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান পেরিয়ে ’৭০ সালের নির্বাচনে নেতৃত্ব দিয়ে তিনি বাঙালির অবিসংবাদিত নেতায় পরিণত হন। ১৯৭১’র ৭ই মার্চ তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ বঙ্গবন্ধুর এই ঐতিহাসিক আহ্বানে সাড়া দিয়ে সেদিন গোটা বাঙালি জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। ৭১’র ২৫ মার্চ কালো রাতে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী ‘অপারেশন সার্চ লাইট’ নামে নিরস্ত্র বাঙালির ওপর আক্রমণ শুরু করলে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধু তার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের বাসভবন থেকে ওয়্যারলেসের মাধ্যমে স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। এ ঘোষণার পর বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে পাকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কারাগারে আটক রেখে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী তার বিচার শুরু করে। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশনা মোতাবেক ৯ মাসের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে বীর বাঙালি ৭১’র ১৬ ডিসেম্বর বিজয় ছিনিয়ে নেয়। জন্ম হয় স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের। ৭২’র ১০ জানুয়ারি বিশ্ব নেতৃবৃন্দের চাপে পাকিস্তানের শাসকগোষ্ঠী বঙ্গবন্ধুকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়। পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তিলাভ করে তিনি স্বদেশে ফিরে আসেন। দেশে ফিরেই তিনি যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠনে মনোনিবেশ করেন। কিন্তু সেই সুযোগ বেশি দিন পাননি তিনি। ১৯৭৫ সালে জাতির অর্থনৈতিক মুক্তি তথা একটি শোষণমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে তিনি জাতীয় কর্মসূচি ঘোষণা করেন। এর কিছুদিনের মধ্যেই ৭৫’র ১৫ আগস্ট কালোরাতে ঘাতকদের তপ্ত বুলেটে সপরিবারে নিহত হন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

আপনার মাঝে আমার মাকে খুঁজে পাই: প্রধানমন্ত্রীকে নুর

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৬ ১২:৫৯:১০

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর বিজয়ী অন্যান্য নেতৃবৃন্দের পরিচয় পর্ব শেষ হয়েছে। শনিবার বিকেলে গণভবনে এই পরিচয় পর্ব শুরু হয়।

এ সময় ভিপি নুরুল হক নুর প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আমি আমার মাকে হারিয়েছি। আপনার (প্রধানমন্ত্রী) মাঝে আমি আমার মায়ের প্রতিচ্ছবি খুঁজে পাই। তখন প্রধানমন্ত্রী তাকে পাশে বসান। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর পা ছুঁয়ে সালাম করেন নুর।

গণভবনে উপস্থিত একাধিক সূত্র বিষয়টি সাংবাদিকদের কাছে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় সংসদকে কার্যকর করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতা চান নবনির্বাচিত ভিপি নূর। এ সময় তিনি ঢাবির আবাসন সঙ্কট দূর করার দাবিও জানান।

এর আগে বিকেল তিনটার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যান ডাকসুর নবনির্বাচিত নেতারা। এ সময় ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর ও ছাত্রলীগ থেকে নির্বাচিত নেতাদের পৃথক গাড়িতে গণভবনে যেতে দেখা যায়।

নুর ও স্বতন্ত্র নেতারা ছাড়া ছাত্রলীগ প্যানেল থেকে নির্বাচিত নেতারাও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩টি বাসে গণভবনে গেছেন। ঢাবি ক্যাম্পাস থেকে দুপুর ২টায় রওয়ানা দেওয়া ছাত্রলীগ প্যানেল থেকে নির্বাচিত নেতারা দুপুর সোয়া ৩টার দিকে গণভবনে পৌঁছান। প্রায় একই সময়ে পৌঁছায় স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচিত নেতাদের গাড়ি দুটিও।

ডাকসুর ভিপি, জিএস, এজিএসসহ মোট নেতা ২৫ জন। এছাড়া হল সংসদের ১৩টি পদে ঢাবির হলগুলো থেকে এবার নির্বাচিত হয়েছেন ২৩৪ জন। সব মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে গণভবনে গেছেন ডাকসুর ২৫৯ জন নেতা।

বিস্তারিত খবর

সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে আ.লীগের সভাপতি, সম্পাদক বিএনপির

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৫ ০৭:২৩:৪৪

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০১৮-১৯ সেশনের নির্বাচনে সভাপতি পদে এ এম আমিন উদ্দিনসহ ছয়টি পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেল থেকে বিজয়ী হয়েছে।

আর সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ আটটি পদে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল বিজয়ী হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে নির্বাচন পরিচলনা কমিটির প্রধান এ ওয়াই মশিউজ্জামান এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

সভাপতি পদে এ এম আমিন উদ্দিন তিন হাজার ২২৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের এ জে মোহাম্মদ আলী পেয়েছেন দুই হাজার ৪৪৩ ভোট।

সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন পেয়েছেন তিন হাজার ৫৬ ভোট। এ নিয়ে টানা সাতবার সম্পাদক পদে বিজয়ী হলেন তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত আব্দুর নূর দুলাল পেয়েছেন দুই হাজার ৬৪৯ ভোট।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত নীল প্যানেল থেকে অন্য পদে বিজয়ীরা হলেন, সহসভাপতি পদে অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন,সহ সম্পাদক পদে কাজী শামসুল হাসান শুভ, সদস্য পদে শামীম সরদার, আফিফা আফরোজ রানী ও চঞ্চল কুমার বিশ্বাস।

বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল থেকে বিজয়ীরা হলেন, সহসভাপতি পদে অ্যাডভোকেট আব্দুল বাতেন, সহসম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট শরীফ ইউ আহমেদ, ট্রেজারার পদে অ্যাডভোকেট ইমাম হোসেন, সদস্য পদে অ্যাডভোকেট কাজী আক্তার হোসেন, ওসমান চৌধুরী, রাশিদা আলিম ঐশী ও সৈয়দা শাহীন আরা লাইলী।

এর আগে উৎসবমুখর পরিবেশে ১৩ ও ১৪ মার্চ ভোটগ্রহণ করা হয়। দুদিনব্যাপী নির্বাচনে মোট সাত হাজার ৮২৫ জন ভোটারের মধ্যে ছয় হাজার ১৩৫ জন আইনজীবী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

কোকা-কোলার বোতলে বিকৃত শব্দ কেন জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৪ ১৫:১৫:২১

কোমল পানীয় কোকা-কোলার বোতলের লেবেলে জটিল, চরম, মাথা নষ্ট, এমন বিকৃত শব্দ কেন ব্যবহার করা হচ্ছে তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এমন বিজ্ঞাপন প্রচার করায় কোকো-কোলার বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না তাও জানতে চেয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এস আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল দেন।

তথ্যসচিব, শিল্পসচিব, সংস্কৃতিসচিব, আইনসচিব, শিক্ষাসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক, পুলিশের মহাপরিদর্শক ও ইন্টারন্যাশনাল বেভারেজেস প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ ১০ বিবাদীকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. মনিরুজ্জামান। আর কোকা-কোলার পক্ষে ছিলেন তানজীব উল আলম। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী এরশাদুল আলম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম সাইফুল আলম।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি কোমল পানীয় কোকা-কোলার বোতলের লেবেলে জটিল, চরম, মাথা নষ্ট, বাবু, ঢিলা, ফাঁপর, জান, গুটি, গাব, আগুন, কড়া, অস্থির, পার্ট, প্যারা, ব্যাপক, যা-তা—এমন শব্দের ব্যবহার নিয়ে আপত্তি জানিয়ে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. মনিরুজ্জামান। যার ওপর শুনানি নিয়ে আজ আদালত রুল দেন।

রিট আবেদনকারী আইনজীবী মনিরুজ্জামানের বলেন, কোকা-কোলার বোতলের লেবেল জটিল, চরম, মাথা নষ্টসহ নানা শব্দ ব্যবহার করে বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে। এটি আপত্তিজনক। কেননা, একটি শিশু দোকানে গিয়ে বলছে ‘আমাকে একটা প্যারা দেন’, কেউ বলছে ‘একটা মাথা নষ্ট দেন’। এতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে।

এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ডাকসুর নির্বাচিতদের ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৪ ১৪:৫৮:৪৬

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদের নির্বাচিতরা আগামীকাল শনিবার সাক্ষাৎ করছেন।

প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে ওইদিন বিকেল ৪টায় গণভবনে এই সাক্ষাৎ ও শুভেচ্ছা বিনিময় হবে।

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূর সাংবাদিকদের জানান, প্রধানমন্ত্রী ডাকসু ও হল সংসদে বিজয়ীদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তিনি সবার প্রধানমন্ত্রী। আমাদের সবার দায়িত্ব সেখানে যাওয়া।

তিনি বলেন, ‘আমি এবং আমার প্যানেল থেকে ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক পদে জয়ী আখতার হোসেন প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে গণভবনে যাবেন।’

এর আগে মঙ্গলবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত এবং সংগঠনের সাবেক ও বর্তমান শীর্ষনেতারা সাক্ষাৎ করেন।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ও হল সংসদ নির্বাচন হয়। এতে কেন্দ্রীয় সংসদের ভিপি পদে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা নুরুল হক নূর এবং সমোজসেবা পদে আখতার হোসেন বিজয়ী হন।

এ ছাড়া জিএস পদে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী, এজিএস পদে সাদ্দাম হোসেনসহ বাকি ২৩টি পদেই সংগঠনটির নেতারা বিজয়ী হন।

এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা এনজিওর ৬ মাসের হোটেল বিল ১৫০ কোটি টাকা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৩ ১৫:২০:৫৮

‘আপনারা শুনলে অবাক হবেন, গত সেপ্টেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত তারা হোটেল বিল দিয়েছে ১৫০ কোটি টাকার ওপর, ফ্ল্যাট বাড়ি ভাড়া দিয়েছে আট কোটি টাকারও বেশি। বিদেশ থেকে যে টাকা আনে সেটা ভুক্তভোগী অর্থাৎ রোহিঙ্গাদের জন্য ২৫ শতাংশও খরচ হয় না। ৭৫ ভাগই খরচ হয় এগুলো দেখাশোনা করার জন্য, ওনাদের জন্য। এটা খুবই দুঃখজনক। এটা আরও খতিয়ে দেখার জন্য আমরা গোয়েন্দা সংস্থাকে বলেছি। অভিযোগের যথার্থতা নিরূপণের জন্য তাদের অনুরোধ করা হয়েছে।’

রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা এনজিওগুলো সম্পর্কে এভাবেই বললেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, অনেক এনজিও অসৎ উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করছে। বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রিসভা কমিটির প্রথম সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ওখানে কিছু এনজিও আছে, ধারণা করা হচ্ছে, আমাদের গোয়েন্দা রিপোর্টেও সেগুলো লক্ষ্য করছি, অনেক এনজিও অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করে।’

খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করা এনজিওদের সংখ্যা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, এটা চিহ্নিত করার জন্য গোয়েন্দা সংস্থাকে বলা হয়েছে। তদন্ত করে তাদের নামসহ দেয়ার জন্য গোয়েন্দা বিভাগকে নির্দেশনা দিয়েছি।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা যেন মিয়ানমার থেকে আর না আসতে পারে, সে জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলা হয়েছে। ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের সরিয়ে নেওয়ার কাজ চলছে। বর্তমান আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি আগের চেয়ে ভালো বলেও তিনি জানান।

মন্ত্রী আরো বলেন, ভাসানচর এলাকাটি বসবাসের উপযুক্ত করা হয়েছে। রোহিঙ্গাদের কোথায় রাখা হবে, সেটা বাংলাদেশের সিদ্ধান্তের বিষয়। বিদেশিরা তাদের মানবিক দিকগুলো দেখবে। আমাদের বিষয়ে নাক গলানোর তাদের দরকার নেই।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বাংলাদেশেও বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ বিমানে নিষেধাজ্ঞা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৩ ১৫:১৫:০৪

লায়ন এয়ার ও ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের দুটি নতুন বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের কোনো এয়ারলাইন্সগুলোকে ওই মডেলের উড়োজাহাজ কেনা বা লিজ নেয়ার অনুমতি দেয়া হবে না জানিয়েছে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

পাঁচ মাসের মধ্যে বোয়িংয়ের তৈরি দুটি ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে উদ্বেগের মধ্যে বেবিচক সতর্কতামূলক ভাবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বোয়িংয়ের সর্বাধুনিক ওই উড়োজাহাজ এ মুহূর্তে বাংলাদেশের কোনো বিমান পরিবহন সংস্থার বহরে না থাকলেও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স সম্প্রতি ভাড়ায় একটি ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ এনে ফ্লাইট পরিচালনা করার জন্য চুক্তি করেছে।

বেবিচকের পরিচালক চৌধুরী এম জিয়াউল কবির বুধবার গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘পরবর্তী ঘোষণার আগ পর্যন্ত বাংলাদেশে বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ মডেলের কোনো এয়ারক্রাফট আনা যাবে না।’

জানা গেছে, বিশ্বের সর্বাধুনিক এয়ারক্রাফট হিসেবে আগামী বছর বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ যুক্ত হওয়ার কথা ছিল দেশের শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি একটি এয়ারলাইনসের বহরে। যুক্তরাষ্ট্রের উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং ও নেদারল্যান্ডসভিত্তিক আন্তর্জাতিক এয়ারক্রাফট লিজিং কোম্পানি এয়ারক্যাপ মিলে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স সরবরাহ করার কথা থাকলেও এখন আর সেটি হচ্ছে না।

খুব অল্প সময়ের ব্যবধানে দুই দুর্ঘটনার পর ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। ক’দিন ধরে একের পর এক বিভিন্ন এয়ারলাইনস বহরে থাকা ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ সিরিজের উড়োজাহাজ গ্রাউন্ডেড করেছে।

অসংখ্য এয়ারলাইনস বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স সিরিজের দেয়া অর্ডার বাতিল করতে শুরু করেছে।

মার্কিন কোম্পানি বোয়িংয়ের সফল ৭৩৭ সিরিজের সর্বশেষ মডেলটি হচ্ছে ম্যাক্স। বাণিজ্যিকভাবে এ উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট চালানো শুরু হয় ২০১৭ সালে।

দুই বছর পর না হতেই প্রথমবারের মত বড় ধরনের দুর্ঘটনায় পড়ে এই উড়োজাহাজ। গত ২৯ অক্টোবর জাকার্তার কাছে জাভা সাগরে লায়ন এয়ারের একটি বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ বিধ্বস্ত হলে ১৮৯ আরোহীর সবাই নিহত হন।

এর পাঁচ মাসের মাথায় রোববার ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৫৭ জন আরোহীর সবাই নিহত হলে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ তৈরি হয়।

দুই দুর্ঘটনার কারণ একই কি না- তা এখনও জানা যায়নি। তবে দুটি উড়োজাহাজই ছিল নতুন, আর সেগুলো বিধ্বস্ত হয় উড্ডয়নের অল্প সময়ের মধ্যে।

এই পরিস্থিতিতে চীন, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য, ভারতসহ অধিকাংশ দেশ এবং অধিকাংশ এয়ারলাইন্স বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ না ওড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

শিক্ষার্থীরা বললে দায়িত্ব নেব: নূর

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৩ ০৯:৩০:২৮

আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সব পদে নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন সদ্য নির্বাচিত সহ সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরু।

এসময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা যেটা চান সেটাই হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তারা সকল পদে পুনরায় নির্বাচন চেয়েছেন, আমিও সেটাই চাই। আর তারা যদি দায়িত্ব নিতে বলেন, আমি নেব। এটি দু’একদিন গেলেই পরিষ্কার হয়ে যাবে।’

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মুহসীন হলের সামনে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

নুরুল হক বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যে প্রক্রিয়ায় যাচ্ছিলেন, আমাদের কাছে মনে হয়েছিলো তারা সাজানো ছকে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন। আমরা বলেছিলাম, এই প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছ নির্বাচন সম্ভব নয়। তারপরও আমরা নির্বাচনে এসেছিলাম। সাজানো ছকে নির্বাচনের ব্যাপারটি এখন আমরা তুলে ধরতে পেরেছি।’

তিনি বলেন, ‘রোকেয়া হলে আলাদা একটি রুমে কিছু ব্যালট অরক্ষিতভাবে রাখা হয়েছিলো। আমরা দেখতে গেলেও তা দেখানো হয়নি। বরং আমাদেরকে মারার জন্য হলের প্রাধ্যক্ষ ছাত্রলীগকে ফোন দিয়েছেন। তখন তাদের ‘লেডি মাস্তান’ বাহিনী আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। ছেলে হলে প্রথমবর্ষের ছাত্রদের জোর করে লাইনে দাড় করিয়ে রেখেছে। এ ধরণের অনিয়ম আমরা দেখেছি।’

নির্বাচনের দিন অধিকাংশ প্যানেল এই ‘তামাশার’ নির্বাচন বর্জন করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এত কারচুপির পরও আমাকে এবং আখতারকে হারাতে পারেনি। সাধারণ শিক্ষার্থীরা পুনঃনির্বাচন দাবি করে তিনদিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে। তাদের প্রতি সংহতি জানিয়ে আমিও চাই, এই প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন বাতিল করে ৩১ মার্চের মধ্যে সব পদে পুনরায় ডাকসু নির্বাচন দিতে হবে। যারা কারচুপির সঙ্গে জড়িত ছিলো তাদের বহিষ্কার করে অন্যদের নিয়োগ দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হবে।’

নুরুল হক বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কি সিদ্ধান্ত নেয় সেটা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তাদের পরিষ্কার বক্তব্য আগে আমাদের জানতে হবে। যেসব মামলা হয়েছে সেগুলো প্রত্যাহার করতে হবে ও শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নিতে হবে। প্রশাসন এটা ভেবে দেখবে বলেছে।’

তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের চাওয়া-পাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে, তারা যদি বলে আমি শপথ নেব। তারা যদি বলে শপথ না নিতে, আমি নেব না। আমি কখনো আমার অবস্থান থেকে সরে আসিনি। তারা যেটা বলে, সেটা হবে। এটা আরেকটু সময় গেলে বোঝা যাবে।’

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত