যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 07:59am

|   লন্ডন - 01:59am

|   নিউইয়র্ক - 08:59pm

  সর্বশেষ :

  ইরানের হামলায় আহত ১১ মার্কিন সেনা   ইভিএমেও জাল ভোট দেওয়া সম্ভব: ইসি রফিকুল   সৌদি আরব থেকে ফিরলেন আরও ১০৯ বাংলাদেশি   সুইডেনে হিজাব পরেই অমুসলিমদের প্রতিবাদ   ভোটের তারিখ পরিবর্তনে সরকারের কোনো আপত্তি নেই: কাদের   ৩১ বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত পাঠাল যুক্তরাষ্ট্র   পোশাক খাতকে ছাড়িয়ে যাবে আইটির আয় : জয়   সোলাইমানি হত্যার দায়ে ট্রাম্পের প্রাণদণ্ড হওয়া উচিত : মার্কিন সাংবাদিক   বিমানের সিটের হাতলে ২৪ কেজি সোনা   বিশ্বের সবচেয়ে বড় বরফ উৎসব   মোদির পিতার নাগরিকত্ব সনদ চাইলেন অনুরাগ কেশপ   সোলাইমানি হত্যার পর ইসরাইলে প্রথম রকেট হামলা   মিরপুর সড়কে গার্মেন্ট কর্মীরা, যানচলাচল বন্ধ   ২৪ বছর পর দেশে ফিরে সড়কে প্রাণ গেল আমেরিকা প্রবাসীর   এবার বলিউডে অভিনয় করবেন ব্রিটিশ অভিনেতা কিরণ রায়

মূল পাতা   >>   প্রবাসী কমিউনিটি

লেবাননে নৃশংসভাবে বাংলাদেশি নারী খুন

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১২-০১ ১১:২৬:১৬

নিউজ ডেস্ক: লেবাননে নৃশংসভাবে বাংলাদেশি এক নারী কর্মীকে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। ওই নারী কর্মীর লাশ পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় উদ্ধার করেছে লেবানন পুলিশ। তার একটি হাত ও একটি পা বিছিন্ন অবস্থায় ছিল।

গতকাল শনিবার লেবাননের স্থানীয় সময় রাত ৮টায় রাজধানী বৈরুতের আশরাফিয়ের হোটেল ডিও সংলগ্ন এলাকা থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই নারী কর্মীর নাম মিনু বেগম। তার বাড়ি ঢাকার আশুলিয়ায়। দেশে তার এলাকায় পায়েল নামে পরিচিত ছিলেন তিনি।

স্থানীয় বাংলাদেশিরা জানান, জামসেদ মিয়া ওরফে ফারুক নামের এক বাংলাদেশির সঙ্গে পায়েল গত তিন মাস ধরে একসঙ্গে বসবাস করে আসছিলেন। গত তিনদিন ধরে রুমের দরজা বন্ধ থাকায় রুম থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল। পাশে থাকা অন্য বাংলাদেশিদের সন্দেহ হলে তারা বাসার মালিককে খবর দেয়। পরে বাসার মালিক রুমের দরজা খুলে বিছানার নিচে পলিথিনে মোড়ানো মিনু বেগমের মরদেহ দেখতে পায়।

খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ এসে পায়েলের মরদেহ তাদের হেফাজতে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থলের আশপাশে খুঁজেও পায়েলের বিছিন্ন পা ও হাতটি পাননি পুলিশ।

অন্যদিকে পায়েলের সঙ্গী ফারুক পলাতক রয়েছেন। তার খোঁজে নানা জায়গায় অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। ফারুকের বাড়ি কুমিল্লা জেলার সুরজনগর গ্রামে।

এদিকে এ ধরনের হত্যাকাণ্ডে পুরো আশারাফিয়ে এলাকায় বাংলাদেশিদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ফারুককে গ্রেপ্তার করতে পারলে এই হত্যার মূল রহস্য বের করা সম্ভব হবে বলে স্থানীয় বাংলাদেশিরা জানিয়েছেন।

বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, পুলিশ ও প্রতিবেশী বাংলাদেশিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৩২৪ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর