যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ০৪ অগাস্ট, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 05:12am

|   লন্ডন - 12:12am

|   নিউইয়র্ক - 07:12pm

  সর্বশেষ :

  করোনাভাইরাস: সংক্রমণের নতুন ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র   ডিজেলের ফেলে দেয়া কালিই ঘটায় অ্যাপল ফায়ার   মাস্ক নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড ম্যানহাটন বিচে   যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিতীয়ধাপের বেকারভাতা সর্বোচ্চ ১২০০ ডলার   বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, হতাহত শতাধিক   মৃতের সংখ্যা কমলেও অর্থনীতি শিগগিরই চাঙ্গা হচ্ছে না ক্যালিফোর্নিয়ায়   স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করে পানশালায় পুলিশ অফিসারের পার্টি   দেশে বন্যায় এখন পর্যন্ত ১৪৫ জনের মৃত্যু   চীনা ভ্যাকসিন পরীক্ষায় সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশে ট্রায়াল   পুরো কাশ্মীরকে অন্তর্ভুক্ত করে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করল পাকিস্তান   বেভারলি ক্রেস্টে বন্দুক হামলায় নিহত ১, আহত ২   ৩০ বিলিয়ন ডলারে স্প্রিন্ট এবং টি মোবাইল একীভূত   ক্যালিফোর্নিয়ায় করোনা সংক্রমণ হ্রাসেও উদ্বেগ কমছে না   লস এঞ্জেলেসে দু সপ্তাহের মধ্যে খোলছে স্কুল   যুক্তরাষ্ট্রে চীনের সব সফটওয়্যার নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প

মূল পাতা   >>   প্রবাসী কমিউনিটি

লেবাননে নৃশংসভাবে বাংলাদেশি নারী খুন

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১২-০১ ১১:২৬:১৬

নিউজ ডেস্ক: লেবাননে নৃশংসভাবে বাংলাদেশি এক নারী কর্মীকে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। ওই নারী কর্মীর লাশ পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় উদ্ধার করেছে লেবানন পুলিশ। তার একটি হাত ও একটি পা বিছিন্ন অবস্থায় ছিল।

গতকাল শনিবার লেবাননের স্থানীয় সময় রাত ৮টায় রাজধানী বৈরুতের আশরাফিয়ের হোটেল ডিও সংলগ্ন এলাকা থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই নারী কর্মীর নাম মিনু বেগম। তার বাড়ি ঢাকার আশুলিয়ায়। দেশে তার এলাকায় পায়েল নামে পরিচিত ছিলেন তিনি।

স্থানীয় বাংলাদেশিরা জানান, জামসেদ মিয়া ওরফে ফারুক নামের এক বাংলাদেশির সঙ্গে পায়েল গত তিন মাস ধরে একসঙ্গে বসবাস করে আসছিলেন। গত তিনদিন ধরে রুমের দরজা বন্ধ থাকায় রুম থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল। পাশে থাকা অন্য বাংলাদেশিদের সন্দেহ হলে তারা বাসার মালিককে খবর দেয়। পরে বাসার মালিক রুমের দরজা খুলে বিছানার নিচে পলিথিনে মোড়ানো মিনু বেগমের মরদেহ দেখতে পায়।

খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ এসে পায়েলের মরদেহ তাদের হেফাজতে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থলের আশপাশে খুঁজেও পায়েলের বিছিন্ন পা ও হাতটি পাননি পুলিশ।

অন্যদিকে পায়েলের সঙ্গী ফারুক পলাতক রয়েছেন। তার খোঁজে নানা জায়গায় অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। ফারুকের বাড়ি কুমিল্লা জেলার সুরজনগর গ্রামে।

এদিকে এ ধরনের হত্যাকাণ্ডে পুরো আশারাফিয়ে এলাকায় বাংলাদেশিদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ফারুককে গ্রেপ্তার করতে পারলে এই হত্যার মূল রহস্য বের করা সম্ভব হবে বলে স্থানীয় বাংলাদেশিরা জানিয়েছেন।

বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, পুলিশ ও প্রতিবেশী বাংলাদেশিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৪৪৮ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর