যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 12:38pm

|   লন্ডন - 06:38am

|   নিউইয়র্ক - 01:38am

  সর্বশেষ :

  গভীর শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় উত্তর আমেরিকায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন   মিলানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত   ভারতীয় সেনাপ্রধানের মুসলিমবিরোধী বক্তব্যে তোলপাড়   পেরুতে দ্বিতল বাস খাদে পড়ে নিহত ৪৪   বিনোদনে ৬৪০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে সৌদি আরব   খালেদা জিয়ার অর্থদণ্ড স্থগিত, জামিন শুনানি রোববার   স্কুলে হামলা ঠেকাতে শিক্ষকদের অস্ত্র দেওয়ার প্রস্তাব ট্রাম্পের   বাংলাদেশে দুর্নীতির মাত্রা অধিক ও উদ্বেগজনক : টিআইবি   বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা করার দাবি   আজ বিশ্ব স্কাউট দিবস   নিউইয়র্কে কুষ্টিয়া জেলা সমিতির পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন   রোমে প্রথম প্রহরে একুশ উদযাপন   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে সিডনীতে বইমেলা   বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করার ষড়যন্ত্র চলছে : নিউইয়র্কে প্রবাসী নাগরিক সমাজের মুক্ত আলোচনা   ফ্রান্স আওয়ামীযুবলীগের সভা অনুষ্ঠিত

মূল পাতা   >>   বিনোদন

সিডনীতে প্রেম পুরানের ২য় ও ৩য় প্রদর্শনী ১০ ফেব্রুয়ারি

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-২৪ ১২:০৮:২২

নিউজ ডেস্ক: আসছে ১০ই ফেব্রুয়ারি শনিবার ওয়ালী পার্কের Horizon Theatre এ ২য় ও ৩য় প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে কবিতা বিকেল প্রযোজিত বাচিকনাট্য প্রেম-পুরাণ। নাটকটির প্রযোজনা ভাবনার মূলকথা হচ্ছে সুন্দর বন। কোন এক পুরাণ কালে মালঞ্চের জলে ভাসতে ভাসতে সত্যিই কি কালীর চরে এসে উঠেছিল শ্বেতহরিণী বা জামাল খাঁ? নাকি এ কেবলি কবির কল্পণা? কালীর চর সত্য। তাকে ঘিরে আজও বহমান মালঞ্চ। বন কেড়ে নেবার চেষ্টা আর তার বিরুদ্ধে যুদ্ধও চিরকালের। বাদাবনের মানুষ এক সময় বাঘের থাবার ভয়ে বনদেবীর স্মরণ নিত। আজ নেয় শিল্পায়নের ভয়ে। গরানের শ্বাসমূলে ধুঁকছে বাদাবনের প্রান। তবু কমতে কমতে বুড়োর মাথার চুলের মতন অবশিষ্ট যে টুকুন বন আজও টিকে আছে। সেইখানে কোন গাছের গায়ে আজও যদি কান পাতে কেউ; যদি কেউ গোল পাতার ঝোঁপের ফাঁকে রাখে সন্ধানী চোখ - বনদেবী আর জামাল পীরকে দেখতে পায় তারা!

জনশ্রুতি এই যে, যেখানেই বাদাবনের উপর হামলে পড়েছে বেণিয়ার লোভ, সেখানেই প্রতিরোধ গড়তে দেখা গেছে জামাল আর শ্বেতহরিণীকে। প্রেম, নরনারীর কামনারও অধিক হয়ে উঠে জড়িয়ে নিয়েছে দুই বাংলার বাদাবন। বাদাবনের মানুষের বিশ্বাস, লোভের বাঘ তাদের ঘাড়ে লাফিয়ে পড়ার আগেই তারা আবার একদিন আসিবেন এই বাংলায়।

আমাদেরও খুব বিশ্বাস করতে ইচ্ছে করে - লড়াই হবে। বাঁচার লড়াই। চলবে বহুকাল। লড়াই ছড়িয়ে পড়বে জল থেকে জঙ্গলে, পাহাড় থেকে সমতলে। এ লড়াইয়ে জিতবে কারা? কবিতা বিকেলের এই প্রশ্নের নামই - ‘প্রেম-পুরাণ’। এই প্রযোজনার পোষ্টার, মঞ্চ সজ্জ্বা, প্রতিটি সংলাপ উপকূল বাংলার নোনা মাটির প্রতি কবিতা বিকেল’র ঋণ স্বীকার মাত্র।যারা লড়ছেন:
ওয়াসিফ আহমেদ শুভ (দশরথ কেওট, সূত্রধর ৭)
যোবাইদা আখতার রত্না (কুশলা, সূত্রধর ২)

কাজী সুলতানা শিমি (শ্বেতহরিণী)
শাকিল আরমান চৌধুরী (জামাল খাঁ, সূত্রধর ৪)
সাবিরা রহমান রীমা (সূত্রধর ৫)
মুনা মুসতফা (সূত্রধর ৮)
আফসানা রুচি (মালতি, সূত্রধর ৩)
জ্যোতি বিশ্বাস (সূত্রধর ৬) রাজন নন্দী (সূত্রধর ১) আলোক ও মঞ্চ ব্যবস্থাপনা: শীর্ষেন্দু নন্দী। আবহ সংগীত : তামিমা শাহরীন, শান্তনু কর ও জ্যোতি বিশ্বাস।রচনা ও নির্মাণ: রাজন নন্দী।


এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি 

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১০৬৫ বার

আপনার মন্তব্য