যুক্তরাষ্ট্রে আজ রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 05:39am

|   লন্ডন - 11:39pm

|   নিউইয়র্ক - 06:39pm

  সর্বশেষ :

  আলোচনায় ইলিয়াস আলীর ছেলে ব্যারিস্টার আবরার   ড. কামালের কাছে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন রেজা কিবরিয়া   ভিডিও কনফারেন্সে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক, আ.লীগের অভিযোগ   দেশ ছাড়ছেন ভেনেজুয়েলার সুন্দরীরা   জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ফ্রান্সজুড়ে বিক্ষোভ, নিহত ১   খাশোগি হত্যার পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই: ট্রাম্প   ‘একজনের কারণে তিস্তা চুক্তি হলো না’   চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালাস চেয়ে খালেদা জিয়ার আপিল   জামিন পেলেন মির্জা আব্বাস দম্পত্তি   আ.লীগের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত, শরিকদের জন্য ৬৫-৭০টি আসন   আসছে ‘বেগম খালেদা জিয়া: হার লাইফ, হার স্টোরি’   ভারতের বিখ্যাত লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানি মন্ত্রীর!   কানাডায় ‘দেবী’   আসছে নির্বাচন: ফের সিএমএইচে ভর্তি এরশাদ   রবিবার থেকে বাংলাদেশে নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত মিলার

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

ব্রেক্সিট নিয়ে টেরিজা মে’র সঙ্গে মতবিরোধ, ২ মন্ত্রীর পদত্যাগ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৭-০৯ ০১:৫৭:৪১

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে ‘মতবিরোধের’ কারণে পদত্যাগ করেছেন ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী ডেভিড ডেভিস ও তার দপ্তরের উপমন্ত্রী স্টিভেন বেকার। ব্রেক্সিট পরিকল্পনা মন্ত্রিসভার থেরেসা অনুমোদন পাওয়ার মাত্র দুই দিনের মাথায় আজ  রোববার পদত্যাগ করলেন তারা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ে দর কষাকষির দায়িত্ব দিয়ে ডেভিড ডেভিসকে ২০১৬ সালে মন্ত্রিসভায় আনেন টেরিজা মে।

পদত্যাগপত্রে ডেভিস লিখেছেন, প্রধানমন্ত্রী মে যে নীতি আর কৌশল নিয়ে অগ্রসর হচ্ছেন তাতে যুক্তরাজ্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়তে পারবে বলে তার মনে হচ্ছে না।

জবাবে থেরেসা মে লিখেছেন, শুক্রবার মন্ত্রিসভার সম্মতি পাওয়া প্রস্তাবকে যে ভাষায় ডেভিস বর্ণনা করেছেন, তার সঙ্গে তিনি একমত নন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ডেভিস সরে যাওয়ায় তিনি দুঃখ পেয়েছেন। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে আসার জন্য যে দায়িত্ব তিনি এতদিন পালন করেছেন, সেজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাতে চান।

ব্রেক্সিট কী?
২০১৬ সালের গণভোটে যুক্তরাজ্যের জনগণ ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দেয়। এই বিচ্ছেদকেই বলা হচ্ছে ব্রেক্সিট, যা ২০১৯ সালের মার্চের মধ্যে শেষ করতে দুই পক্ষের মধ্যে দর কষাকষি চলছে।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৪২৭ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সাম্প্রতিক খবর