যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 02:30am

|   লন্ডন - 09:30pm

|   নিউইয়র্ক - 04:30pm

  সর্বশেষ :

  আলোচনায় চেয়ে মোদিকে ইমরানের চিঠি   অন্তর্জ্বালা থেকে মনগড়া ও ভুতুড়ে কথা বলেছেন সিনহা : কাদের   ফিলিপাইনে ভূমিধস, ১২ জনের মৃত্যু   বিশ্বে প্রতি ৫ সেকেন্ডে ১ শিশু মারা যায়   ঢাকায় পুলিশের লাঠিপেটায় বাম জোটের ঘেরাও কর্মসূচি পণ্ড   বাংলাদেশে বছরে একলাখ লোক ক্যান্সারে মারা যায়   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৪১০ কোটি টাকা সহায়তা   অনুপস্থিতিতেই বিচার চলবে খালেদা জিয়ার   বাংলা প্রেসক্লাব ইতালির সংবর্ধনায় সুন্দর সমাজ গঠনে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান   ১৭তম নজরুল সম্মেলনে আজীবন সম্মাননা পেলেন ইকবাল বাহার চৌধুরী   ভারতে এবার বিক্রি হবে গোবর, গো-মূত্রের সাবান   নাজিব রাজাক গ্রেপ্তার   মুক্তি পেলেন নওয়াজ শরিফ   দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে ইয়েমেনের ৫২ লাখ শিশু   কওমির দাওরায়ে হাদিস সনদকে মাস্টার্সের সমমান প্রদান

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-১১ ১৫:১৩:৩৮

নিউজ ডেস্ক: মোদীর মন্ত্রিসভার গুরত্বপূর্ণ মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ। অভিযুক্ত বিজেপি নেতা তথা রেল প্রতিমন্ত্রী রাজেন গোহান। নগাঁও থানার পুলিশ স্টেশনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগে সরাসরি মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪১৭, ৩৭৬ এবং ৫০৬ ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্তে নেমেছে নগাঁও থানার পুলিশ কর্মকর্তারা।

জানা গিয়েছে, মধ্য আসামে নগাঁও জেলার বাসিন্দা ওই মহিলা। অন্যদিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি অডিও টেপও ভাইরাল হয়েছে। ৬৮ বছর বয়সী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোহানের বিরুদ্ধে ২ অগষ্ট নগাঁও থানায় ধর্ষণের অভিযোগ করেন ২৬ বছর বয়সী এক মহিলা৷ পুলিশের কাছে অভিযোগে ওই মহিলা জানিয়েছেন, একাধিক বার তাকে ধর্ষণ করেন গোহান। নগাঁওয়ের পুলিশ সুপার শঙ্করব্রত রায়মেধি জানান, ওই মহিলার বক্তব্য রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে ডাকা হতে পারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে।

১৯৯১ সাল থেকে বিজেপির সাথে যুক্ত রাজেন গোহান। চারবারের সাংসদ তিনি। ২০১৬ সালের ৫ জুলাই তাকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্য করা হয়। দেওয়া হয় রেল প্রতিমন্ত্রীর পদ। এ দিকে গোটা বিষয়টি নিয়ে রাজেন গোহানের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোন বন্ধ। মন্ত্রীর স্ত্রী রীতা গোহান এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। বিষয়টি সামনে আসার পরই কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতির প্রধান অখিল গগৈও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি করেছেন। জানান, অভিযোগ গুরুতর৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে তার অবিলম্বে ইস্তফা দেওয়া উচিত।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৬১০ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত