যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 02:31am

|   লন্ডন - 09:31pm

|   নিউইয়র্ক - 04:31pm

  সর্বশেষ :

  আলোচনায় চেয়ে মোদিকে ইমরানের চিঠি   অন্তর্জ্বালা থেকে মনগড়া ও ভুতুড়ে কথা বলেছেন সিনহা : কাদের   ফিলিপাইনে ভূমিধস, ১২ জনের মৃত্যু   বিশ্বে প্রতি ৫ সেকেন্ডে ১ শিশু মারা যায়   ঢাকায় পুলিশের লাঠিপেটায় বাম জোটের ঘেরাও কর্মসূচি পণ্ড   বাংলাদেশে বছরে একলাখ লোক ক্যান্সারে মারা যায়   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৪১০ কোটি টাকা সহায়তা   অনুপস্থিতিতেই বিচার চলবে খালেদা জিয়ার   বাংলা প্রেসক্লাব ইতালির সংবর্ধনায় সুন্দর সমাজ গঠনে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান   ১৭তম নজরুল সম্মেলনে আজীবন সম্মাননা পেলেন ইকবাল বাহার চৌধুরী   ভারতে এবার বিক্রি হবে গোবর, গো-মূত্রের সাবান   নাজিব রাজাক গ্রেপ্তার   মুক্তি পেলেন নওয়াজ শরিফ   দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে ইয়েমেনের ৫২ লাখ শিশু   কওমির দাওরায়ে হাদিস সনদকে মাস্টার্সের সমমান প্রদান

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

এবার ট্রাম্পের পুত্রবধূর বিরুদ্ধে অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-১৭ ১৬:০৮:৩৬

নিউজ ডেস্ক: হোয়াইট হাউজের প্রাক্তন কর্মী ওমারোসা ম্যানিগাল্ট নিউম্যান এবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পুত্রবধূ লারা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অনৈতিক অর্থ প্রদানের প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ করেছেন। বৃহস্পতিবার তিনি এ সংক্রান্ত একটি নতুন অডিও রেকর্ড প্রকাশ করেছেন।

ওমারোসা দাবি করেছেন, হোয়াইট হাউজ থেকে বরখাস্তের পর তাকে টেলিফোনে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা শিবিরে যোগ দেওয়ার বিনিময়ে মাসে ১৫ হাজার ডলার দেওয়ার প্রস্তাব করেছিলেন। বিনিময়ে তাকে চাকরিচ্যুতির ব্যাপারে চুপ থাকতে বলেছিলেন লরা।

ওমারোসা জানান, হোয়াইট হাউজের চিফ অব স্টাফ জন কেলি যেদিন তাকে বরখাস্ত করেন তার পরের দিনই লরা ট্রাম্প তাকে ফোন দেন। এর আগের দিন নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেওয়া স সাক্ষাৎকারে ট্রাম্পের সঙ্গে কাজ করা বেশ জটিল বলে ম্যানিগ্যাল্ট যে মন্তব্য করেছিলেন আলাপচারিতার প্রথমে সে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন লরা।

জবাবে ওমারোসা বলেন, হোয়াইট হাউজে তিনি ছিলেন একমাত্র আফ্রিকান-আমেরিকান নারী। তিনি এমন কিছু দেখেছেন যা তাকে অস্বস্তিতে ফেলেছে এবং ‘আমি যে নিগুঢ় গল্প জানি তা বিশ্ব শুনতে চায়।’

জবাবে লরা ট্রাম্প বলেন, ‘মনে হচ্ছে সুনিশ্চিতভাবে তুমি এমন কিছু পেয়েছ যা প্রকাশ করতে চাচ্ছ।’

এরপরই ম্যানিগাল্টকে ট্রাম্পের ২০২০ সালের নির্বাচনী শিবিরে চাকরির জন্য প্রস্তাব দেন লরা। এসময় তাকে মাসে ১৫ হাজার ডলার করে দেওয়ার প্রস্তাব দেন।

সাক্ষাৎকারে ওমারোসা ম্যানিগাল্টের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তিনি একে অনৈতিক অর্থ প্রদানের চেষ্টা হিসেবে দেখছেন কিনা। জবাবে ওমারোসা বলেন, ‘অবশ্যই’।

লরা যে বিনিময়ে মুখ বন্ধ রাখতে বলেছে তা উল্লেখ করে ওমারোসা বলেন, ‘তিনি এটা একেবারেই স্পষ্ট করেছেন যে, আমি যদি নির্বাচনী শিবিরে যোগ দেই তাহলে আমাকে চুপ থাকতে হবে। আমি একে আমার নিরবতা কেনার চেষ্টা হিসেবে দেখছি।’

গত বছর ডিসেম্বরে অযোগ্যতা ও দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার অভিযোগে ওমারোসাকে হোয়াইট হাউসের গণসম্পর্ক কর্মকর্তার চাকরি থেকে পদচ্যুত করা হয়। চাকরি খোয়ানোর পর হোয়াইট হাউসে অভিজ্ঞতার বর্ণনা করে ওমারোসা একটি খোলামেলা বই লিখেছেন। বইটি এই সপ্তাহেই বাজারে আসছে।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৬২৯ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত