যুক্তরাষ্ট্রে আজ রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 03:25pm

|   লন্ডন - 09:25am

|   নিউইয়র্ক - 04:25am

  সর্বশেষ :

  কক্সবাজারে বিএনপি প্রার্থীর গাড়িতে গুলি, শতাধিক আহত   বিএনপি নেতা মাহবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ   ১০ মিনিটেই ক্যান্সার শনাক্তের প্রযুক্তি আবিস্কার বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর   নির্বাচনে ভোট কক্ষ থেকে সরাসরি সম্প্রচার নয়: সিইসি   যুক্তরাষ্ট্রে কলেজে হিজাব পরায় মুসলিম ছাত্রী বহিষ্কার   ড. কামালের গাড়িতে হামলার তদন্ত হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   সার্কের সভা থেকে ভারতীয় কূটনীতিকের ওয়াকআউট   হোয়াইট হাউজের ভারপ্রাপ্ত চিফ অব স্টাফ মুলভানে   ১৭ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চেয়ে ঐক্যফ্রন্টের চিঠি   জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি অস্ট্রেলিয়ার   স্বপ্নের সিনেমায় বাংলাদেশকে দেখবে   রোমে সিলেটী নাগরী বর্ণমালার আনুষ্ঠানিক মোড়ক উন্মোচন   সুষ্ঠু ভোটের জন্য সরকারকে চাপ দেওয়া উচিত : এইচআরডাব্লিউ   বেআইনি আদেশ মানবেন না: পুলিশকে ড. কামাল   জীবননগরে বিএনপির থানা কার্যালয়সহ ২০টি নির্বাচনী অফিসে অগ্নিসংযোগ!

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

এরদোগানের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৯-২২ ১১:৫১:৩১

নিউজ ডেস্ক: সিরিয়ার ইদলিবে সামরিক অভিযান বন্ধ করতে পারায় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের প্রশংসা করেছেন জাতিসংঘের মহাসচিব এন্টনিও গুতেরেস।

জাতিসংঘের মহাসচিব ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ছাড়াও ইদলিবের সাধারণ মানুষ এখন এরদোগানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

জাতিসংঘ মহাসচিব এরদোগানের প্রশংসা করে বলেছেন, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সোচিতে যে সমঝোতায় পৌঁছেছেন তাতে সিরিয়ার ৩০ লাখ মানুষের জীবন রক্ষা হবে।

সিরিয়ায় আসাদবিরোধীরা বর্তমানে ইদলিবে অবস্থান করছে, সেখানে প্রায় ৩০ লাখ সাধারণ মানুষের বসবাস। সম্প্রতি আসাদ সরকার ও মিত্র রাশিয়া এবং ইরান সেখানে অভিযানে অগ্রসর হয়।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান অভিযানের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে বক্তব্য রাখেন এবং ইদলিবের কাছাকাছি সেনা সমাবেশ ঘটান। এ নিয়ে রাশিয়া ও ইরানের সঙ্গে তুর্কি সরকার দফায় দফায় আলোচনায় বসে।

তুরস্কের বক্তব্য- ইদলিবে অভিযান চালালে সেখানে অবস্থানরত প্রায় ৩০ লাখ মানুষের মধ্যে ভয়াবহ বিপর্যয় ঘটবে। হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হবে এবং তুরস্ক ও ইউরো শরণার্থীর ঢল নামবে। সে কারণে তুরস্ক এই অভিযানের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়।

সর্বশেষ সোচিতে এরদোগান ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মধ্যে সমঝোতা হয়। ইদলিবে হামলা না চালিয়ে সেখানে একটি নিরাপদ অঞ্চল গড়ার জন্য দুই নেতা সম্মত হয়। এরদোগানের এ প্রচেষ্টার ফলে ভয়াবহ বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেয়েছে ইদলিব।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৫১৭ বার

আপনার মন্তব্য