যুক্তরাষ্ট্রে আজ রবিবার, ২৬ মে, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 08:06pm

|   লন্ডন - 03:06pm

|   নিউইয়র্ক - 10:06am

ব্রেকিং নিউজ >>   আমি ইফতারে যাব : মমতা

  সর্বশেষ :

  সংবিধান সমুন্নত রাখতে জনগণের ঐক্য প্রয়োজন: ড. কামাল   আমি ইফতারে যাব : মমতা   ইফতারে যোগ দিয়ে চমকে দিলেন নেদারল্যান্ডসের রাজা   শেখ হাসিনার নির্দেশ উপেক্ষা করে দলের বিরুদ্ধে শাজাহান খান   মোদির জয়ের পরই ভারতে নারীসহ ৩ মুসলিমকে নির্যাতন   ইরানকে ঠেকাতে সৌদিকে অস্ত্র দিচ্ছেন ট্রাম্প   প্রথম মুসলিম প্রধানমন্ত্রী পেতে পারে ব্রিটেন!   এবারের বাজেট ৫ লাখ কোটি টাকার ওপরে: প্রধানমন্ত্রী   শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় নিহতদের স্মরণে সিডনিতে শোক   পদত্যাগ করছেন রাহুল গান্ধী   খালেদার মুক্তির সঙ্গে সংসদে যোগ দেয়ার সম্পর্ক নেই : ফখরুল   ভারতের নতুন সরকারের আমলে তিস্তা চুক্তি হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী   পশ্চিমবঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ, বিজেপি নেতা গুলিবিদ্ধ   পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন থেরেসা মে   মোদির গুজরাটে ভয়াবহ আগুন, নিহত ১৮

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

বাংলাদেশের হাইকমিশনারকে বহিষ্কার করতে চায় পাকিস্তান

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-১০-১০ ১৪:৫৫:৩৬

নিউজ ডেস্ক: ইসলামাবাদে বাংলাদেশের হাইকমিশনার তারেক আহসানকে বহিষ্কার করতে পারে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে এ পরামর্শ দিয়েছেন। ইসলামাবাদ থেকে প্রকাশিত ডেইলি টাইমস এ খবর দিয়েছে।

ঢাকায় পাকিস্তানের নতুন হাইকমিশনার হিসেবে একজন কূটনীতিকের নিয়োগ অনুমোদন দিতে বাংলাদেশের গড়িমসির অভিযোগ তুলে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে এ পরামর্শ দিয়েছেন। পাকিস্তানের হাইকমিশনারের পদটি আট মাস ধরে খালি রয়েছে।

ঢাকায় নিযুক্ত পাকিস্তানের সাবেক হাইকমিশনার রফিকুজ্জামান সিদ্দিকী গত ফেব্রুয়ারিতে অবসরে গেছেন। এরপর পেশাদার কূটনীতিক সাকলাইন সাইদাকে বাংলাদেশের পরবর্তী হাইকমিশনার হিসেবে নিয়োগ দেয়ার জন্য অনুরোধপত্র (এগ্রিমো) পাঠায় পাকিস্তান। এরপর নোট ভারবালের (কূটনৈতিক পত্র) মাধ্যমে পাকিস্তান বেশ কয়েক দফায় তাগাদা দিলেও বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে কোনো সাড়া দেয়নি। এগ্রিমো অনুমোদন না করার কোনো কারণও দেখায়নি ঢাকা।

২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার আবারো ক্ষমতা নেয়ার পর পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। বিশেষ করে যুদ্ধাপরাধের বিচারকে কেন্দ্র করে পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়ার কারণে এ সম্পর্কে টানাপড়েন শুরু হয়। একপর্যায়ে দুই দেশের মিশনের কর্মকর্তাদের বহিষ্কার-পাল্টা বহিষ্কার, এমনকি অপহরণ-পাল্টা অপহরণের ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে সাবেক হাইকমিশনার রফিকুজ্জামান সিদ্দিকী ডেইলি টাইমসকে বলেন, এগ্রিমো অনুমোদনের জন্য বড়জোর এক মাস সময় প্রয়োজন হয়। এ ক্ষেত্রে দেরি করার অর্থ হচ্ছে বাংলাদেশ সরকার হাইকমিশনার হিসেবে পাকিস্তানের মনোনীত ব্যক্তিকে গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছে।

তারেক আহসান ২০১৪ সালের অক্টোবর থেকে ইসলামাবাদে বাংলাদেশের হাইকমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৫৩৪ বার

আপনার মন্তব্য