যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ২১ অগাস্ট, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 01:08am

|   লন্ডন - 08:08pm

|   নিউইয়র্ক - 03:08pm

  সর্বশেষ :

  ‘মৃত’ চিতাবাঘের ছবি তুলতে গিয়ে!   সিটি করপোরেশনের ওষুধ মশা সন্তান উৎপাদন করছে: রিজভী   গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না : তথ্যমন্ত্রী   ইহুদিরা অত্যন্ত আনুগত্যহীন: ট্রাম্প   কাশ্মীরে খুলে দেওয়া হয়েছে স্কুল, শিক্ষার্থী নেই   ঢাকায় ডেঙ্গু রোগী কমেছে ২ শতাংশ   মর্মে মর্ম ধ্বনি’-নিয়ে সুজিত মোস্তফা আসছেন সিডনীতে   মিয়ানমারে প্রচণ্ড সংঘর্ষ, নিহত ১৯ জন   বাংলাদেশ বুদ্ধিষ্ট সোসাইটি অফ ক্যালিফোর্নিয়ার নতুন কমিটি গঠিত   ওষুধে লাভ হয় না, আল্লাহ আমাদের বাঁচাচ্ছে: হাইকোর্ট   প্রধানমন্ত্রীকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ মোদির   বুধবার ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার ১৫তম বার্ষির্কী   হিন্দুদের নিয়ে মন্তব্য করে মালয়েশিয়ায় তোপের মুখে জাকির নায়েক   আমি একজন ভারতীয় হিসেবে গর্বিত নই, সাক্ষাৎকারে অমর্ত্য সেন   ইটালির প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

নারী সহকর্মীদের ধর্ষণ করতে তালিকা তৈরি যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর নাবিকদের

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-২০ ১৭:৩০:৫১

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর একটি সাবমেরিনের নাবিকেরা তাদের ৩২ নারী ক্রু সহকর্মীকে নিয়ে একটি ‘ধর্ষণ তালিকা’ তৈরি করেছিল।

সোমবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম ডেইলি মেইল জানায়, দেশটির সেনাবাহিনী সম্পর্কিত ওয়েবসাইট মিলিটারি.কমে প্রকাশিত একটি তদন্ত প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে।

একটি ওহিও-ক্লাস ক্রুজ মিসাইল সাবমেরিন ইএসএস ফ্লোরিডার গোল্ড ক্রুর কিছু নাবিক এই ‘ধর্ষণ তালিকা’ শেয়ার করে বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।

এই ৭৪ পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তালিকাটি গোল্ড ক্রুর পুরুষদের মাঝে বিতরণ করা হয়। এই তালিকার দুটি ভার্সন পাওয়া গেছে।

একটি ভার্সনে স্টার সিস্টেমের নারী ক্রু সদস্যদের তালিকা করা হয়েছে। আরেকটিতে এসব নারীদের নামের পাশে তাদের সম্পর্কে যৌন বিষয়ক মন্তব্য করা হয়েছে।

এই গোল্ড ক্রুর ১৭৩ নাবিকের মধ্যে ৩২ জন নারীর প্রত্যেকের নাম অন্তর্ভুক্ত ছিল তালিকাটিতে। এই গোল্ড ক্রুকে সরিয়ে পরে সাবমেরিনটিতে একটি ব্লু ক্রু মোতায়েন করা হয়েছে।

মিলিটারি.কমে প্রকাশিত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, এক নাবিক এই ‘ধর্ষণ তালিক’র দুটি ভার্সনের মুদ্রিত প্রতিলিপি ২০১৮ সালের জুন মাসে ১০ দিনের ব্যবধানে একজন নিম্নপদস্থ নারী কর্মকর্তাকে দেন।

এই নাবিক, পুরুষ নাকি নারী ছিলেন তা স্পষ্ট নয়। তিনি এই নারী কর্মকর্তাকে বলেন যে তালিকাটি সাবমেরিনটির কম্পিউটার নেটওয়ার্কে ছিল।

এই নারী কর্মকর্তা এবং আরেক নিম্নপদস্থ নারী কর্মকর্তা মুদ্রিত তালিকা দুটি এক পুরুষ প্রধানকে দেন। এই পুরুষ প্রধান সাবমেরিনটিতে যৌন নির্যাতনের বিষয়টি তদন্ত করতে যান।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৪৪ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত