যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ০৬ Jul, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 02:57pm

|   লন্ডন - 09:57am

|   নিউইয়র্ক - 04:57am

  সর্বশেষ :

  রয়া চৌধুরীর কবিতা   বিশ্বখ্যাতদের এক ডজন বিচিত্র ঘটনা   দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় জুন মাসে ৩৬১ জনের মৃত্যু   আগামী উপনির্বাচনে যাচ্ছে না বিএনপি   দেশে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৩ লাখ মানুষ   করোনার মধ্যেও শত শত মানুষের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন   রক্ত দান ও ফ্লাইওভারে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন নিক্সন লাইব্রেরি   সাউথ লস এঞ্জেলেসে এ্যাম্বুলেন্স চুরির ঘটনায় আটক ১   করোনায় মারা গেলেন লস এঞ্জেলেস পুলিশ কর্মকর্তা   ভিন্নরকম আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস   বর্ষসেরা চিকিৎসক হয়ে যুক্তরাজ্যের বিলবোর্ডে বাংলাদেশি ফারজানা   দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৯, শনাক্ত ৩২৮৮   অরেঞ্জ সিটির আন্তর্জাতিক স্ট্রিট ফেয়ার হচ্ছে না   ক্যালিফোর্নিয়া পালন করবে ব্যতিক্রমী স্বাধীনতা দিবস   ক্যালিফোর্নিয়ার নাগরিকদের করোনা ভীতি কমছে

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

ওজিলের বিয়েতে সাক্ষী হলেন এরদোগান

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৬-০৮ ১০:০০:২৭

বিয়ের মঞ্চে নবদম্পতির সাথে তুর্কি প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্টলেডি

নিউজ ডেস্ক: জার্মানির বিশ্বকাপ জয়ী মিডফিল্ডার মেসুত ওজিলের বিয়েতে সাক্ষী হলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। শুক্রবার তুরস্কের ঐতিহাসিক নগরী ইস্তাম্বুলে বসফরাসের তীরে একটি বিলাসবহুল হোটেলে এই বিয়ের অনুষ্ঠান হয়। তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মান নাগরিক মেসুত ওজিল গত বছর বর্ণবাদের অভিযোগ এনে জার্মানির জাতীয় ফুটবল দল থেকে সরে দাড়িয়েছেন।

৩০ বছর বয়সী ওজিল বিয়ে করেছেন সাবেক মিস তুর্কি আমিন গুলসকে। কয়েক বছরের পরিচয়ের পর ২০১৭ সালে তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়। ওজিল বর্তমানে খেলছেন ইংলিশ ক্লাব আর্সেনাল এফসির হয়ে।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সময় মঞ্চে বর কনের সাথে উপস্থিত রজব তাইয়েব এরদোগান ও তার স্ত্রী আমিনা এরদোগান। বিয়েতে সাক্ষী হয়েছেন এরদোগান। নবদম্পতির সাথে তুর্কি প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্টলেডির হাস্যোজ্বল ছবি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এদিকে বিয়ের আগে মেসুত ওজিল তার আমন্ত্রিত অতিথিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে, বিয়েতে তারা যদি কোন উপহার দিতে চান সেগুলো যেন দরিন্দ্র শিশুদের নিয়ে কাজ করে এমন কোন প্রতিষ্ঠানে দান করেন। ছাড়া বিয়ে উপলক্ষে ওজিল ও আমিনা গুলস দম্পতি তুর্কি রেড ক্রিসেন্টে বড় অঙ্কের অর্থ দান করেন।

গত বছর ফুটবল বিশ্বকাপের আগে লন্ডনে এক অনুষ্ঠানে দেখা হলে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানকে জার্সি উপহার দেন ওজিল। ওই ঘটনার পর জার্মানিতে ব্যাপক সমালোচনা হয় ওজিলের। জার্মানির সাথে অনেকদিন ধরেই এরদোগান সরকারের কূটনৈতিক টানাপোড়েন রয়েছে। যে কারণে জার্মানিতে ওজিলকে নিয়ে শুরু হয় সমালোচনা। এরপর বিশ্বকাপে জার্মানি প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেয়ার পর ওজিলের সাথে বৈষম্যমূলক আচরণ শুরু করেন জার্মান কর্মকর্তারা। যেন বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ার সব দোষ তার! এর প্রতিবাদে জাতীয় দলকে বিদায় বলে দেন ওজিল।

এরদোগানের সাথে সম্পর্কের বিষয়ে ওজিল সব সময়ই বলে আসছেন, আমার পিতৃভূমি তুরস্ক। তাই দেশটির প্রতি আমার বিশেষ দূর্বলতা রয়েছে। সেই থেকেই তুর্কি প্রেসিডেন্টকে জার্সি উপহার দিয়েছিলাম।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৪৮ বার

আপনার মন্তব্য