যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ১৫ Jul, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 02:59am

|   লন্ডন - 09:59pm

|   নিউইয়র্ক - 04:59pm

  সর্বশেষ :

  রক্তের বিনিময়ে হলেও এরশাদের লাশ পল্লী নিবাসেই দাফন করা হবে : রংপুর মেয়র   সব মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একই ডিজাইনের কবর হবে   কংগ্রেসের ভিন্ন বর্ণের নারীদের ‘দেশে ফিরতে’বললেন ট্রাম্প   নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত এরশাদ   ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কায় আসামের মুসলমানরা   ঢাবি ক্যাম্পাসকে প্লাস্টিকমুক্ত ঘোষণা   মর্মান্তিক: মাইক্রোবাসে ট্রেনের ধাক্কায় বর-কনেসহ নিহত ৯   কুমিল্লায় আদালতের ভেতর আসামির ছুরিকাঘাতে আসামির মৃত্যু   দক্ষিণ কোরিয়ার সাথে বাংলাদেশের তিন চুক্তি স্বাক্ষর   সুইডেনে বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৯   ইংল্যান্ডের প্রথম বিশ্বকাপ জয়   এরশাদের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া জানাতে সময় লাগবে বিএনপির   এরশাদের সন্তানরা কে কী করেন?   বৃহস্পতিবার সোহেল তাজের ‘আনুষ্ঠানিক ঘোষণা’   আফগানিস্তান সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে যৌন হয়রানির অভিযোগে তোলপাড়

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

প্রবল বর্ষণে বিপর্যস্ত মুম্বাই, নিহত ৩৪

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৭-০২ ০১:২৩:২১

নিউজ ডেস্ক: প্রবল বৃষ্টিপাতের জেরে বিপর্যস্ত ভারতের বাণিজ্য নগরী। বেহাল দশা থানেসহ মহারাষ্ট্রের অন্যান্য জেলাও। ইতিমধ্যে বৃষ্টিজনিত কারণে বন্যায় মুম্বাই, পুনে ও থানের বিভিন্ন এলাকায় মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৩৪ জনের। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে মঙ্গলবার রাজ্যজুড়ে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছে ফড়ণবিস সরকার। সোমবার রাতে মুম্বাই পৌরসভার কমিশনারও সমস্ত স্কুল এবং কলেজ বন্ধ রাখার নির্দেশ জারি করেছেন।

গত পাঁচদিন ধরে চলা বৃষ্টিপাতে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায়। তবে তা আরও খারাপ হয়েছে সোমবার থেকে। গত একদশক এই রকম বৃষ্টি হয়নি বলেও দাবি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর ফলে থমকে গিয়েছে বিমান ও ট্রেন পরিষেবাও।

এপ্রসঙ্গে পুনের ইন্ডিয়ান মেটেরিওলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট(আইএমডি)-র আধিকারিক অনুপম কাশ্যপী জানান, গত পাঁচদিন ধরে চলা বৃষ্টির জেরে মহারাষ্ট্রের পরিস্থিতি খুব ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে রাজ্যের উত্তরাংশের পরিস্থিতি খুব খারাপ। আস্তে আস্তে দক্ষিণ দিকেও বাড়ছে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ। পাঁচদিন বৃষ্টিতে কোঙ্কন, গোয়ার অবস্থাও শোচনীয়।

মহারাষ্ট্র পৌরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে প্রবল বৃষ্টির জেরে মালাড-পূর্বের পিমপ্রিপড়া এলাকায় বেশ কয়েকটি বাড়ি ভেঙে পড়ে। এতে এখনও পর্যন্ত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১৩ জন। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়েছেন আরও অনেকে। তাদের মধ্যে ১০ বছরের একটি মেয়েও রয়েছে বলে সংবাদসংস্থা সূত্রে খবর।

তাদের উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছেন উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা। বৃহন্মুম্বাই পৌরসভার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কুরার গ্রামে কিছু কাঁচা বাড়ির দেওয়াল ভেঙে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করেছেন দমকল ও এনডিআরএফ-এর কর্মীরা। অন্যদিকে সোমবার রাত ১টা ১৫ মিনিট নাগাদ পুনের অম্বেগাঁও এলাকার সিংবাদ কলেজে পাঁচিল ভেঙে কমপক্ষে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ কল্যাণের ন্যাশনাল উর্দু স্কুলের দেওয়াল ভেঙে মারা যান আরো তিনজন। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত ২১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও বিভিন্ন জায়গায় ধ্বংসস্তূপের মধ্যে অনেকে আটকা পড়ে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৯১ বার

আপনার মন্তব্য