যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 11:11am

|   লন্ডন - 06:11am

|   নিউইয়র্ক - 01:11am

  সর্বশেষ :

  করোনায় ভেষজ চিকিৎসার প্রটোকল অনুমোদন দিল ডব্লিউএইচও   গিন্সবার্গের পদে কোনো নারীকে নিয়োগ দিতে চান ট্রাম্প   আমেরিকায় করোনায় প্রত্যেকটি মৃত্যুর জন্য ট্রাম্প দায়ী: বাইডেন   টিকটক নিষিদ্ধের ঘোষণা স্থগিত করলো যুক্তরাষ্ট্র   ক্যালিফোর্নিয়ায় করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১৫ হাজার ছাড়ালো   লস এঞ্জেলেসে আবার বেড়েছে করোনা সংক্রমণ   যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকের বাজারমূল্য ৬০ বিলিয়ন!   আগামী সপ্তাহেই নতুন বিচারপতি নিয়োগ দেবেন ট্রাম্প!   উদ্বেগ ও বিষন্নতা বেড়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, নেপথ্যে করোনা   ইতালিতে আবারো করোনার হানা, বাড়তে পারে জরুরী অবস্থার মেয়াদ   মিয়ানমারে সেনা ‘অভিযান’, আবারো বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ঢলের আশঙ্কা   দেশে নতুন করে করোনায় মারা গেলেন ২৬ জন, আক্রান্ত ১৫৪৪   খালেদা জিয়ার ৪ মামলার স্থগিতাদেশ আপিলেও বহাল   ভিসা পাননি ড. বিজন কুমার, ফিরে গেলেন সিঙ্গাপুরে   বর্ণাঢ্য আয়োজনে নিউজার্সি স্টেট আ.লীগের বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে মার্কিন নাগরিকরা হাতে পাবেন ১ হাজার ডলারের চেক

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৩-২১ ০৯:৪৭:১৩

 আপডেট: ২০২০-০৩-২১ ০৯:৫০:১০

নিউজ ডেস্ক:
মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর সর্বাত্মক চেষ্টা করছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। নানা উদ্যোগের উল্লেখযোগ্য একটি উদ্যোগ হচ্ছে প্রত্যেক নাগরিককে ১০০০ ডলার সহায়তা। এটি হবে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সরকারি নাগরিক সহায্য। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহেই সব নাগরিক এক হাজার ডলারের এই চেক হাতে পাবেন। মে মাসের প্রথম সপ্তাহে পাবেন দ্বিতীয় দফা। এর বাইরে নাগরিকদের জন্য আরও চার হাজার ডলারের নগদ অর্থ সাহায্য নিয়ে কাজ করছেন যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা।
ট্রাম্প সরকার মনে করছে, করোনাভাইরাস মহামারির জের ১৮ মাস স্থায়ী হতে পারে। তাই সে হিসেবে প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা। করোনাভাইরাসের জেরে আরও রোগেরও প্রাদুর্ভাবের আশঙ্কা করা হচ্ছে। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য গভর্নরের আশঙ্কা, পরবর্তী ৪৫ দিনে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা চরমে উঠতে পারে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গতকাল সকালে দেওয়া বক্তব্যে আবারও বলেছেন, ‘এ সংকটকে আমরা অতিক্রম করব। ম্যালেরিয়ার জন্য ব্যবহৃত ওষুধ এই ভাইরাসে কিছুটা কার্যকর বলে মার্কিন চিকিৎসকেরা প্রমাণ পেয়েছেন।’

ইতিমধ্যে করোনার থাবায় নিউইয়র্ক, নিউজার্সিসহ বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। বন্ধ ঘোষিত হয়েছে স্কুল, কলেজ, গির্জা, মসজিদ, রেস্তোরাঁ, বার। আক্রান্ত শহরগুলোতে স্বেচ্ছায় গৃহবন্দী লাখ লাখ কর্মজীবী মানুষ। কাজ হারানোর ভয়ে বিপর্যস্ত জনজীবন। নিউইয়র্কের জনবহুল এলাকাগুলো এমনিতেই বন্ধ হয়ে পড়েছে। জ্যাকসন হাইটসে সব দোকানপাট সপ্তাহে তিন দিন খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা। ১০ জনের বেশি মানুষের সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জ্যামাইকা মুসলিম সোসাইটিসহ মসজিদ, মন্দিরের উপাসনা কার্যক্রম বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। নিউইয়র্কে নাগরিকদের যেকোনো মুহূর্তে ‘শেল্টার ইন প্লেস’ নির্দেশনার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।
নিউইয়র্কের নাইটক্লাব, মুভি থিয়েটার ও কনসার্ট ভেন্যু বন্ধ করে দিয়েছে শহর কর্তৃপক্ষ। বলা হয়েছে, সেখানকার রেস্তোরাঁ, বার ও ক্যাফেগুলো থেকে খাবার শুধু ডেলিভারি নেওয়া যাবে, কেউ সেখানে বসে খেতে পারবেন না।
কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের নানা উদ্যোগের পাশাপাশি অর্থনীতির বিপর্যয় রোধে আমেরিকার ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অর্থ সাহায্য নিয়ে কাজ করছে ওয়াশিংটন। কর্মহীন মানুষ, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, ভাড়াটে, বাড়ির মালিক, স্বেচ্ছা কর্মজীবী, প্রবীণ ও শিশুদের ঘরে থাকার জন্য মজুরির দুই তৃতীয়াংশ ঘরে বসে পাওয়াসহ যুগান্তকারী সব সাহায্যের হাত বাড়ানো হয়েছে। ১৮ মার্চ মার্কিন সিনেটে নাগরিকদের সহযোগিতায় ৯০-৮ ভোটে এ সংক্রান্ত বিল পাস হয়েছে। বিলে প্রেসিডেন্ট দ্রুত স্বাক্ষর করায় ‘করোনাভাইরাস রিলিফ প্যাকেজ’ আইনে পরিণত হয়েছে। পূর্ণ বিল প্রকাশিত না হওয়ায় পুরো বিষয়টি জানতে দু-এক দিন লাগবে। নাগরিকদের সরাসরি সুবিধা দিতে তৃতীয় একটা আইন প্রস্তাব আসছে এই সপ্তাহে। এর মধ্যেই ফেমা (ফেডারেশন ইমার্জেন্সিম্যানেজম্যান্ট এজেন্সি) পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নেমেছে।

সিনেটর হোসে হাউলি বলেন, তিনজনের পরিবারের জন্য ১ হাজার ৪০০ ডলার এবং পাঁচজনের পরিবারের জন্য ২ হাজার ২০০ ডলার এককালীন দেওয়ার প্রস্তাব নিয়েও আলোচনা হয়েছে। অবশ্য মিট রমনিসহ একাধিক সিনেটর প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিকের জন্য এক হাজার ডলার নগদ অনুদানের প্রস্তাব নিয়ে কাজ করছেন।
দেশটির মুসলিম নারী কংগ্রেস সদস্য ইলহান ওমর প্রতিটি প্রাপ্তবয়স্ককে ১০০০ ডলার এবং অপ্রাপ্তবয়স্ককে অতিরিক্ত ৫০০ ডলার দেওয়ার জন্য নিজের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৯৩৫ বার

আপনার মন্তব্য