যুক্তরাষ্ট্রে আজ বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 10:09am

|   লন্ডন - 05:09am

|   নিউইয়র্ক - 12:09am

  সর্বশেষ :

  সিনিয়রদের জন্য ডেলিভারি সার্ভিস চালু করল লস এঞ্জেলেস কর্তৃপক্ষ   লস এঞ্জেলেসে করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে মধ্যবয়স্ক ও তরুণেরা   করোনায় লস এঞ্জেলেসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৯৮; আক্রান্ত ৭হাজার ৫৩০   বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু ৮৬ হাজার ছাড়িয়েছে   প্রথমবারের মতো নামাজ সম্প্রচার করবে বিবিসি রেডিও   স্পেনে ফের বেড়েছে মৃত্যুর হার, ২৪ ঘণ্টায় ৭৫৭   ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক   ঢাকার যে ৪৬ এলাকায় করোনা রোগী   করোনা: খুলনা জেলা লকডাউন   করোনা থেকে বাঁচতে মদ পান, ৬০০ জনের বেশি মৃত্যু   যুক্তরাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় ৯৩৮ জনের মৃত্যু   চীনের কাছে কোভিড-১৯ বিশেষজ্ঞ মেডিকেল টিম চেয়েছে বাংলাদেশ   রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইলেন আবদুল মাজেদ   আবারও বিশ্বের শীর্ষ ধনী বেজোস   আবদুল মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

ইতালিতে ২৪ ঘণ্টায় ৭১২ জনের মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৩-২৬ ১৯:৪২:০৪

নিউজ ডেস্ক:
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আঘাতে ইতালিতে ক্রান্তিলগ্ন চলছে। প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হচ্ছে। বাড়ছে সবার মনে আতংক। বন্দী জীবনে প্রায় ৬ কোটি জনগণ। এরমধ্যে বাংলাদেশিরাও হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ২৪ ঘণ্টায় আবারও ৭১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে হাজার ৮ হাজার ১৬৫ জনে। একদিনে নতুন আক্রান্ত ৬ হাজার ১৫৩। দেশটিতে গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৬১২। চিকিৎসা শেষে মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ হাজার ৩৬১।

মোটা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৮০ হাজার ৫৩৯। চিকিৎসাধীন ৬২ হাজার ১৩ জন। অন্যদিকে চীনা ও ইতালির পর মৃত্যুর লাইন লম্বা হচ্ছে স্পেনেও। সেখানে একদিনে করোনায় কেড়ে নেয় ৪ হাজার ৯৮ প্রাণ। এনিয়ে স্পেনে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৪ হাজারেরও বেশি।

আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা মোটা ৫৬ হাজার ১৯৭। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭ হাজার ১৫ জন। বৃহস্পতিবার একদিনে ৬ হাজার ৬৮২ জন। সরকার নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরও মৃত্যু যেন কমছে না। ভাল নেই স্পেনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাংলাদেশিরা।

স্পেনের টেনেরিফ দক্ষিণ দ্বীপে বাস করেন মুহাম্মদ ফরিদ হাসান। তিনি যুগান্তরকে জানান, আমাদের দ্বীপে বাংলাদেশি তেমন একটা নেই বললেই চলে। পর্যটক বেশি আসে। কিন্তু দ্বীপটিতে ইতালিয়ান এক পর্যটক করোনায় পজেটিভ ধরা পরেছে।

এরপর আস্তে আস্তে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকে। তবে সরকারের নানা রকম পদক্ষেপের ফলে দ্বীপে আমরা বাংলাদেশিরা ভাল আছি। এরপরেও একটু আতংক এমনিতেই চলে আসে। সবাই আমরা হোম কোয়ারেন্টিনে আছি।

করোনা মোকাবেলায় জনগণের জন্য বিভিন্ন ভাল পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী কোনতে। চলাফেরা অনেক সীমিত করা হয়েছে। প্রশাসনের নজরও বাড়ছে। সরকারের পক্ষ থেকে জনগণের জীবন রক্ষা করতে একের পর এক পদক্ষেপের কমতি নেই সরকারের।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/আই

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৬০ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত