যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 01:39am

|   লন্ডন - 07:39pm

|   নিউইয়র্ক - 02:39pm

  সর্বশেষ :

  ভক্তদের ভালবাসা জানালেন শাহানা কাজী   বাংলাদেশ ক্লাবের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে মাল্টা যাচ্ছে ইতালির রত্না-অর্পিতা   মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত হতে পারেন সু চি   শরীরের ভেতরের যেসব অঙ্গ ছাড়াও আপনি বাঁচতে পারবেন   দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী   আরো আবেদনময়ী হতে চান আনুশকা   পাকিস্তানে শিশু ধর্ষণ ও হত্যাকারীর মৃত্যুদণ্ড   ডিসেম্বরে অবসরে যাওয়ার ঘোষণা দিলেন অর্থমন্ত্রী   মিয়ানমার জেনারেলের ওপর কানাডার নিষেধাজ্ঞা, রোহিঙ্গারা এখনও নৃশংসতার ঝুঁকিতে : ইউরোপীয় পার্লামেন্ট   মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ, ১৩ রুশ অভিযুক্ত   নাইজেরিয়ায় তিন আত্মঘাতীর হামলায় নিহত ১৮   ইতালীস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সংবাদ সংগ্রহে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত স্থানীয় সাংবাদিকদের   পারিশ্রমিক না পেয়ে চটেছেন প্রিয়াঙ্কা   ভারতকে সাবধান করে দিলো চীন   দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ওপর নিষেধাজ্ঞা চান মার্কিন সিনেটররা

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-০৩ ১২:২০:৫৯

নিউজ ডেস্ক: মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্বিচারে গণহত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধে যুক্ত থাকায় দেশটির জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটররা। অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞারও প্রস্তাব করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রস্তাব জমা দেন রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটিক দলের কয়েকজন শীর্ষ সিনেটর।
এ প্রস্তাবে সমর্থন জানান যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের আর্মড সার্ভিস কমিটির চেয়ারম্যান, রিপাবলিকান সিনেটর জন ম্যাককেইন, ডেমোক্র্যাট সিনেটর বেন কার্ডিন, ডিক দুরবিন, রিপাবলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও ও টড ইয়ং।
এ ছাড়া প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেন সিনেটর এড মার্কে, জেফ মার্কলে, ডিয়ানে ফেইন স্ট্রেইন, ব্রায়ান স্টার্টস, টিম কেইন, ক্রিস ভেন হলেন, টাম্ফি বল্ডউইন, কোরি বুকার ও জিয়ানি শাহিন। প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সের সদস্য ইলয়ট অ্যাঙ্গেল, স্টিভ চাবোটও সমর্থন জানান।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এশিয়া সফর শুরুর আগে দেশটির সরকারি ও বিরোধী দলের সিনেটররা এই প্রস্তাব জমা দিলেন। এ ছাড়া আগামী ১৫ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন মিয়ানমার সফর করবেন বলে জানা গেছে।
সিনেটরদের দেওয়া প্রস্তাবে মিয়ানমারের অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা খাতের সংস্কারের বিষয়ে সমর্থন জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে সিনেটর ম্যাককেইন বলেন, 'মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর সুস্পষ্টভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে ঘটনা ঘটেছে তা অবশ্যই যুক্তরাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছ থেকে শক্ত প্রতিক্রিয়া দাবি করে। অসহায় নারী-পুরুষ-শিশুদের হত্যা ও বাস্তুচ্যুত করার পেছনে মিয়ানমারের যেসব সেনা কর্মকর্তা জড়িত পরিষ্কারভাবে জানা উচিত, তাদের পাশে যুক্তরাষ্ট্র দাঁড়াবে না।'
গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে ৩০টি সেনা-পুলিশ চৌকিতে হামলার পর 'রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞ' শুরু করে বর্মি সেনাবাহিনী। এরপর হত্যা ও ধর্ষণ থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে ৬ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা, যা এখনও অব্যাহত রয়েছে। জাতিসংঘ বলেছে, রাখাইনে সেনাবাহিনীর এই হত্যাযজ্ঞ অব্যাহত থাকলে খুব শিগগির বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে। মিয়ানমারের এই হত্যাযজ্ঞকে পাঠ্যবইয়ে উল্লেখ করার মতো 'জাতিগত নিধনের উৎকৃষ্ট উদাহরণ' হিসেবেও অভিহিত করেছে সংস্থাটি।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৮৯ বার

আপনার মন্তব্য