যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 07:31am

|   লন্ডন - 01:31am

|   নিউইয়র্ক - 08:31pm

  সর্বশেষ :

  সিরিয়ায় সরকারি বাহিনীর বিমান হামলা, নিহত ৯৪   রাশিয়ার চার্চে বন্দুকধারীর হামলা, নিহত ৫   তৃতীয়বারের মতো বিয়ে করলেন ইমরান খান   পুরুষের অনুমতি ছাড়া ব্যবসা করতে পারবে সৌদি নারীরা   ভারতে ট্রাম্পের নাম ভেঙ্গে ফ্ল্যাট বিক্রি   ইরানে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষের সন্ধান   বিএনপি নির্বাচনে না এলে কিছু করার নেই : সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী   রায়ের কপি পেলেন খালেদার আইনজীবীরা, জামিন আবেদন কাল   কুষ্টিয়া জেলা সমিতি ইউএসএ ইনকের শীত বস্ত্র বিতরণ   ইতালীতে দু’টি শহীদ মিনারেরই বেহাল অবস্থা   ফিল্মফেয়ারে সেরা অভিনেত্রী জয়া আহসান   স্কুলে বন্ধুক হামলার ঘটনায় এফবিআইয়ের কড়া সমালোচনা ট্রাম্পের   ডিসেম্বর নয়, আজকেই অবসরে যান : মুহিতকে বাবলু   নো-ম্যান্স ল্যান্ডে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার প্রস্তুতি মিয়ানমারের!   বাংলাদেশ থেকে কার্গো পরিবহনে বাধা তুলে নিল যুক্তরাজ্য

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

পাকিস্তানে চীনের পরমাণু সাবমেরিন ঘাঁটি, চিন্তায় ভারত

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-১৮ ০০:০৫:২০

নিউজ ডেস্ক: পাকিস্তানের গোয়াদর বন্দরে পরিকাঠামোগত উন্নয়নের কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে চীন৷ চীনের ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড পরিকল্পনার গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর। আর সেই করিডোরের অন্যতম প্রকল্প এই গোদর বন্দর। এই বন্দর দিয়েই ভারত মহাসাগরে দ্রুত চলাচল করা সম্ভব।
এবার এই বন্দরে চীন পরমাণু সাবমেরিন স্টেশন তৈরি করছে বলে ভারতীয় মিডিয়ায় খবর প্রকাশ করেছে।

গদর বন্দর পাকিস্তানের এক গুরুত্বপূর্ণ বন্দর৷ চীন এই বন্দরে দরকারি উন্নয়ন শুরু করেছে৷ ভারত মহাসাগর দিয়ে চীনের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রক্ষা করবে এই বন্দর৷ এমন হলে চীন-পাকিস্তান যোগাযোগের পথ হবে ভারত ঘিরে৷ সেক্ষেত্রে ভারতীয় নেভির অপারেশন ও প্রভাব সম্পর্কে অবগত হতে পারবে চীন৷ফলে চিন্তায় পড়েছে ভারত।

নিউক্লিয়ার সাবমেরিন শুধুমাত্র নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর ক্ষমতা থাকবে, তাই নয়৷ এক্ষেত্রে সেই সাবমেরিনকে নিউক্লিয়ার অস্ত্রও বইতে হবে না৷ দরকার পড়লে সমুদ্রে অতিরিক্ত সময়ের জন্যও থাকতে পারবে নিউক্লিয়ার সাবমেরিন৷ এর জন্য কোথাও ল্যান্ড করা বা জ্বালানি নেয়ার প্রয়োজন নেই৷

সম্প্রতি চীনের উচ্চ পদস্থ কর্তারা ইসলামাবাদ সফরে গিয়েছিলেন৷ পাকিস্তানি নৌবাহিনীর সঙ্গেও তাদের কথা হয়৷ দক্ষিণ পাকিস্তান উপকূলের এই প্রজেক্ট নিয়ে চীন যথেষ্ট উৎসাহী৷ শোনা যাচ্ছিল, ইরানের কাছাকাছি জিওয়ানি বন্দরে এই সেট আপ তৈরি করছে চীন৷ গোয়াদার থাকবে শুধু বাণিজ্যিক বন্দর হিসেবে৷ কিন্তু বেইজিং একথা অস্বীকার করেছে৷

সাবমেরিন কমিউনিকেশনের জন্য VLF স্টেশন তৈরি করছে পাকিস্তান নেভি৷ গভীর সমুদ্রে সাবমেরিনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করতে পারে এই VLF বা ভেরি লো ফ্রিকোয়েন্সি৷ পাকিস্তান নেভির সঙ্গে এই নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছে চীন৷ বসে গেছে ২০৫ ফিট অ্যান্টেনা টাওয়ার৷ আন্ডারগ্রাউন্ড VLF বিল্ডিং ও পাওয়ার স্টেশনের কাজও চলছে৷

ভারতীয় নৌবাহিনী ইতিমধ্যেই জানিয়েছে, ভারতীয় উপকূলের কাছাকাছি চীনের সাবমেরিন দেখা গেছে৷ সম্প্রতি আফ্রিকা উপকূলের মিলিটারি বেস দিজেবৌতিতে হামলা চালিয়েছে চীন৷ ভারতের উপকূলে হামলার আশঙ্কাও তাই উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না৷


এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৭১২ বার

আপনার মন্তব্য