যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 09:26am

|   লন্ডন - 03:26am

|   নিউইয়র্ক - 10:26pm

  সর্বশেষ :

  নিউইয়র্কে নববর্ষ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের শুভেচ্ছা বিনিময়   প্যারেডের থ্রিডি প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাফলার ফান্ডরাইজিং অনুষ্ঠিত   নিউ ইয়র্কে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, গ্রেপ্তার ৪   আরব আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীকে আশ্রয় দিলে এক লাখ দিরহাম জরিমানা   টয়লেট টিস্যুতে ‘আল্লাহ’, বিক্ষুব্ধ যুক্তরাজ্যের মুসলিমরা   ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন   বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদের তালিকায় শেখ হাসিনা   শান্তি ও মানবাধিকারের অনন্য আশ্রয়ভূমি ফ্রান্স   কারাগারে ‘মারা গেছেন’ মসজিদে নববীর এক ইমাম   ক্যালিফোর্নিয়ায় বাংলাদেশি খুদে শিক্ষার্থীর চমক, ৯ বছরেই কলেজে   আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মোস্তাফিজ   সালমান খানকে প্রত্যাখ্যান করেছিলেন তিনি   কৃষ্ণ সাগরে দুই জাহাজে আগুন, নিহত ১০   প্যাটারসন সিটির পাবলিক স্কুলে হালাল ফুড   আর্জেন্টাইন ফুটবলারসহ দুজনকে নিয়ে বিমান নিখোঁজ

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

পাকিস্তানে চীনের পরমাণু সাবমেরিন ঘাঁটি, চিন্তায় ভারত

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-১৮ ০০:০৫:২০

নিউজ ডেস্ক: পাকিস্তানের গোয়াদর বন্দরে পরিকাঠামোগত উন্নয়নের কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে চীন৷ চীনের ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড পরিকল্পনার গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর। আর সেই করিডোরের অন্যতম প্রকল্প এই গোদর বন্দর। এই বন্দর দিয়েই ভারত মহাসাগরে দ্রুত চলাচল করা সম্ভব।
এবার এই বন্দরে চীন পরমাণু সাবমেরিন স্টেশন তৈরি করছে বলে ভারতীয় মিডিয়ায় খবর প্রকাশ করেছে।

গদর বন্দর পাকিস্তানের এক গুরুত্বপূর্ণ বন্দর৷ চীন এই বন্দরে দরকারি উন্নয়ন শুরু করেছে৷ ভারত মহাসাগর দিয়ে চীনের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রক্ষা করবে এই বন্দর৷ এমন হলে চীন-পাকিস্তান যোগাযোগের পথ হবে ভারত ঘিরে৷ সেক্ষেত্রে ভারতীয় নেভির অপারেশন ও প্রভাব সম্পর্কে অবগত হতে পারবে চীন৷ফলে চিন্তায় পড়েছে ভারত।

নিউক্লিয়ার সাবমেরিন শুধুমাত্র নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর ক্ষমতা থাকবে, তাই নয়৷ এক্ষেত্রে সেই সাবমেরিনকে নিউক্লিয়ার অস্ত্রও বইতে হবে না৷ দরকার পড়লে সমুদ্রে অতিরিক্ত সময়ের জন্যও থাকতে পারবে নিউক্লিয়ার সাবমেরিন৷ এর জন্য কোথাও ল্যান্ড করা বা জ্বালানি নেয়ার প্রয়োজন নেই৷

সম্প্রতি চীনের উচ্চ পদস্থ কর্তারা ইসলামাবাদ সফরে গিয়েছিলেন৷ পাকিস্তানি নৌবাহিনীর সঙ্গেও তাদের কথা হয়৷ দক্ষিণ পাকিস্তান উপকূলের এই প্রজেক্ট নিয়ে চীন যথেষ্ট উৎসাহী৷ শোনা যাচ্ছিল, ইরানের কাছাকাছি জিওয়ানি বন্দরে এই সেট আপ তৈরি করছে চীন৷ গোয়াদার থাকবে শুধু বাণিজ্যিক বন্দর হিসেবে৷ কিন্তু বেইজিং একথা অস্বীকার করেছে৷

সাবমেরিন কমিউনিকেশনের জন্য VLF স্টেশন তৈরি করছে পাকিস্তান নেভি৷ গভীর সমুদ্রে সাবমেরিনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করতে পারে এই VLF বা ভেরি লো ফ্রিকোয়েন্সি৷ পাকিস্তান নেভির সঙ্গে এই নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছে চীন৷ বসে গেছে ২০৫ ফিট অ্যান্টেনা টাওয়ার৷ আন্ডারগ্রাউন্ড VLF বিল্ডিং ও পাওয়ার স্টেশনের কাজও চলছে৷

ভারতীয় নৌবাহিনী ইতিমধ্যেই জানিয়েছে, ভারতীয় উপকূলের কাছাকাছি চীনের সাবমেরিন দেখা গেছে৷ সম্প্রতি আফ্রিকা উপকূলের মিলিটারি বেস দিজেবৌতিতে হামলা চালিয়েছে চীন৷ ভারতের উপকূলে হামলার আশঙ্কাও তাই উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না৷


এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৮৯২ বার

আপনার মন্তব্য