যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 04:07am

|   লন্ডন - 11:07pm

|   নিউইয়র্ক - 06:07pm

  সর্বশেষ :

  দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্যাপক বিক্ষোভ   প্রিয়তোষ সাহার অপসারণের দাবিতে লস এঞ্জেলেসে মানববন্ধন, প্রতিবাদ   টুইন টাওয়ার হামলার সন্দেহভাজন সিরিয়ায় গ্রেফতার   ঢাবির হল থেকে ছাত্রীদের বের করে দেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ, ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম   খালেদা জিয়ার অবস্থা ‘প্রচণ্ড খারাপ’: ফখরুল   টাইম ম্যাগাজিনের প্রভাবশালী তালিকায় নেই পুতিন-এরদোয়ান-মোদি   ১৪০ দিনে হাতে লিখলেন পুরো কোরআন   কারাগার ছাড়তে চাচ্ছে না কয়েদিরা!   ত্রিভূবনে ফের ১৩৯ যাত্রী নিয়ে ছিটকে পড়ল বিমান   কুইন্স বাংলাদেশী সোসাইটির নতুন কার্যকরি কমিটি ঘোষণা   বড় পরিবর্তনে ইসলামী ব্যাংকে অস্থিরতা   কিশোরগঞ্জ ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের বর্ষবরণ   নিউইয়র্কে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের আলোচনা সভা   লন্ডনে বিক্ষোভের মুখে মোদি   কোটা সংস্কার আন্দোলন: ঢাবি ক্যাম্পাসজুড়ে ভীতি

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

সিনাইয়ে সামরিক অভিযানে ১৬ জন সরকারবিরোধী নিহত

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০২-১২ ০২:০৬:২৯

নিউজ ডেস্ক: মিশরের উত্তরাঞ্চলীয় সিনাই উপদ্বীপে সামরিক অভিযানে সরকারবিরোধী প্রচারে সচেষ্ট ১৬ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া এ অভিযানে আরো ৩০ জনকে বন্দি করেছে মিশরীয় যৌথবাহিনী।

সেনাবাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল তামের রিফাই রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, যানবাহন, অস্ত্রাগার ও যোগাযোগের কেন্দ্রসহ বিদ্রোহীদের কয়েক ডজন আস্তানা ও স্থাপনা বিমান হামলায় গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

এক বিবৃতিতে রিফাই জানান, লুকিয়ে থাকার জন্য সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত ৬৬টি আস্তানা লক্ষ্য করে হামলা চালিয়ে সেগুলো গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বিমান ও গোলাবারুদ হামলা থেকে নিজেদের বাঁচাতে এসব আস্তানা ব্যবহার করতো তারা। তবে হতাহতের যে সংখ্যা সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তা নিরপেক্ষভাবে যাচাই-বাছাই করা যায়নি বলে আলজাজিরা দাবি করেছে।

নিল ডেলটা ও পশ্চিম ডেলটার কিছু অংশ ও সিনাই উপদ্বীপ থেকে সশস্ত্র বিদ্রোহীদের বিতাড়িত করতে দেশটির সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনী শুক্রবার ‘সমন্বিত’ নিরাপত্তা অভিযান চালায়। বেশ কয়েক বছর ধরে অত্যন্ত সংকুচিত ও খুবই কম জনসংখ্যা অধ্যুষিত সিনাই উপদ্বীপে সরকারবিরোধী প্রচারে সচেষ্ট সশস্ত্র বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে মিশরীয় সরকার।

২০১৩ সালের মাঝামাঝিতে মিশরের প্রথম গণতান্ত্রিক প্রেসিডেন্ট মুসলিম ব্রাদারহুডের মোহাম্মদ মুরসিকে সামরিক বাহিনী উৎখাত করার সিনাই উপদ্বীপে শক্তিশালী অবস্থান তৈরি করে বিদ্রোহীরা, যাদের মিশরীয় সরকার সন্ত্রাসী বলে চিহ্নিত করেছে।

২০১৭ সালের নভেম্বরে উত্তরাঞ্চলীয় সিনাই প্রদেশের বির আল আবেদ মসজিদে বোমা হামলা ও বন্দুক হামলায় ২৩৫ জন লোক নিহত হয়। পরে প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি ওই অঞ্চল পুনরুদ্ধারে তিন মাসের সময়সীমা বেঁধে দেন এবং যেকোনোভাবে দমনের আদেশ দেন। সামনের মাসে মিশরে নির্বাচন হতে যাচ্ছে। ক্ষমতাসীন দল ছোট একটি বিরোধী দল সামনে রেখে এ নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে, যাতে সিসি খুব সহজেই জয় লাভ করতে পারেন।


এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৭১২ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত