যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ২৪ অগাস্ট, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 08:36pm

|   লন্ডন - 03:36pm

|   নিউইয়র্ক - 10:36am

  সর্বশেষ :

  ২৪ আগস্ট প্রবাসী সাংবাদিক বিশ্বজিৎ দে বাবলুর জন্মদিন   সুনামগঞ্জ জেলা সমাজকল্যাণ সমিতি, যুক্তরাষ্ট্র’-এর ‘বার্ষিক মিলন-উৎসব ও বনভোজন অনুষ্ঠিত   আমাজনে আগুন : ব্রাজিলের ওপর নিষেধাজ্ঞার হুমকি ইউরোপের   ফেসবুকে অপপ্রচারে থানায় জিডি করলেন লন্ডন প্রবাসী লেখক-সাংবাদিক আনোয়ার শাহজাহান   সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশী নিহত   চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে মাদক ব্যবসা, খুন সবই হয়   নিউইয়র্কে মিস নেপাল প্রতিযোগিতার বিচারক হলেন ইঞ্জিনিয়ার হানিপ   কাশ্মীর নিয়ে জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে কথা বললেন ইমরান খান   রাশিদা-ইলহান নিষিদ্ধ: ইসরাইল যাবেন না মার্কিন নারীবাদীরা   প্রবাসে কমিউনিটির চিন্তায় ও মননে সকল বাংলাদেশিরা এক এবং অভিন্ন   রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকার ব্যর্থ: রিজভী   রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে শক্ত অবস্থানে যাবে বাংলাদেশ   আমাজনে আগুন: বাণিজ্য চুক্তি বন্ধের হুমকি ফ্রান্স-আয়ারল্যান্ডের   ধর্ম বা বিশ্বাসের কারণে সহিংসতার শিকার ব্যক্তিদের স্মরণে আন্তর্জাতিক দিবসের বিবৃতি   পেন্সিল অস্ট্রেলিয়া’র আয়োজনে সিডনীতে সাংস্কৃতিক সমাবেশ

মূল পাতা   >>   লন্ডন

ইন্টারনেটে টিউলিপকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছিলো

SM, নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৬-০৬-১২ ০০:৪৬:০২

ব্রিটিশ এমপি টিউলিপ সিদ্দিক

SM: ইন্টারনেটে হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ এমপি টিউলিপ সিদ্দিক ।
সানডে টাইমসকে সম্প্রতি টিউলিপ বলেন, ‘ভয়ঙ্কর সব হুমকি আমাকে দেওয়া হয়েছে। তুমি হিজাব পরো না কেন? ‘পারলে তোমাকে খুন করতাম’- এরকম কথাও শুনতে হয়েছে।’ সানডে টাইমস তার এই বক্তব্য ৫ জুন প্রকাশ করে।
এবারই নয়। এর আগেও অনলাইনে প্রথম তাকে আজেবাজে কথা বলা হয় ২০১৪ সালে, যখন নিউ হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসন থেকে লেবার পার্টির হয়ে তার নির্বাচনের প্রচার চলছিল। সে সময় তাকে কথা শুনতে হয়েছিল বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হওয়ার কারণে।
টিউলিপ সানডে টাইমসকে বলেন, ‘আমাকে বলা হয়েছিল, ‘তোমার মত নামের কাউকে হ্যাম্পস্টেডের তরুণ ভোটাররা কখনোই ভোট দেবে না।’
প্রথমবার পার্লামেন্ট সদস্য হওয়ার পর গত এপ্রিলে প্রথম সন্তানের মা হওয়ার আগে যখন চারদিক থেকে অভিনন্দন বার্তা পাচ্ছেন, তখনও টুইটারে বাজে মন্তব্যের শিকার হতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
এ ধরনের বিদ্বেষ মোকাবিলায় হাউস অব কমন্সে নিজেদের মধ্যে একটি আনঅফিসিয়াল সাপোর্ট গ্রুপ তৈরি করার কথাও জানিয়েছেন টিউলিপ।
প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাগ্নি টিউলিপ সিদ্দিক। তিনি লন্ডনের মিচামে জন্মগ্রহণ করেন। তার শৈশব কেটেছে বাংলাদেশ, ভারত এবং সিঙ্গাপুরে। ১৫ বছর বয়স থেকে তিনি হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্নে বাস করছেন। এই এলাকায় স্কুলে পড়েছেন ও কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। লন্ডনের কিংস কলেজ থেকে পলিটিক্স, পলিসি এন্ড গভর্নমেন্ট বিষয়ে তার স্নাতকোত্তর ডিগ্রি রয়েছে। মাত্র ১৬ বছর বয়সে লেবার পার্টির সদস্য হওয়া টিউলিপ অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল গ্রেটার লন্ডন অথরিটি এবং সেইভ দ্য চিলড্রেনের সঙ্গেও কাজ করেছেন। ২০১০ সালে ক্যামডেন কাউন্সিলে প্রথম বাঙালি নারী কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তিনি।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৯৬৬ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত