যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ১৮ অগাস্ট, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 04:48pm

|   লন্ডন - 11:48am

|   নিউইয়র্ক - 06:48am

  সর্বশেষ :

  সবচেয়ে বেশি আয় স্কারলেট জোহানসনের   শিক্ষার্থীদের নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার দাবি ড. কামালের   ছাত্র আন্দোলনে ‘গুজব’ ছড়ানোর অভিযোগে কফিশপের মালিক ফারিয়া রিমান্ডে   এবার ট্রাম্পের পুত্রবধূর বিরুদ্ধে অভিযোগ   যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন!   হ্যান্ডশেক না করা সেই সুইডিশ তরুণী মামলায় জিতলেন   ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে নিহত ৮ শতাধিক   পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, শপথ শনিবার   মিলানে শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন   নিউজিল্যান্ডে বাড়ি কিনতে পারবে না বিদেশিরা   লিবিয়ায় হত্যার দায়ে ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড   কোটা সংস্কার আন্দোলন : ইডেন কলেজছাত্রী ৩ দিনের রিমান্ডে   বঙ্গবন্ধু হত্যায় খালেদাও জড়িত: প্রধানমন্ত্রী   ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ী আর নেই   আমেরিকার বিপক্ষে তুরস্কের সঙ্গে জার্মান

মূল পাতা   >>   লন্ডন

লন্ডন অগ্নিকাণ্ড : পাঁচ দিন পর এক পরিবারকে জীবিত উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৬-২০ ১৬:৫৪:৫১

নিউজ ডেস্ক: লন্ডনের গ্রেনফেল টাওয়ারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিখোঁজদের মধ্যে পাঁচজনকে নিরাপদে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার পাঁচ দিন পরে সিরিয়ান পরিবারের এ পাঁচ সদস্যকে নিরাপদে জীবিত উদ্ধারকে অলৌকিক বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এ খবর প্রকাশ করেছে।

এখন পর্যন্ত এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৭৯ জন নিখোঁজ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে টাওয়ারের ভিতরে আটকে পড়ে তাদের সকলেরই মৃত্যু হয়েছে।

কুদাইরের পরিবার নামে পরিচিত উদ্ধারকৃত পরিবারের মধ্যে তিনজন তরুণীও রয়েছে। পরিবারটি উন্নত জীবনের আশায় যুদ্ধাক্রান্ত সিরিয়া থেকে ব্রিটেনে পালিয়ে এসেছিলেন। পরিবারটি টাওয়ারের প্রায় মধ্যভাগের উপরের অংশে এক ফ্ল্যাটে থাকতেন। তাদের ইংরেজি ভাষা শিক্ষিকা ক্যাথেরিন লিন্ডসে পরিবারটির নিখোঁজের ব্যাপারে জানিয়েছিলেন।

এ ঘটনার তদন্ত কমিটির প্রধান মেট্রোপলিটন পুলিশ কমান্ডার স্টুয়ার্ট কন্ডি এ জীবিত উদ্ধারের ঘোষণা দেন। কিন্তু উদ্ধারকৃত পরিবারের পরিচয় প্রকাশ করেননি তিনি।

গত বুধবার রাত একটার দিকে ল্যাটিমার রোডে অবস্থিতগ্রেনফেল টাওয়ারে দেশটির ইতিহাসে ভয়াবহ এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।


এলএবাংলাটাইমস/এল/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৭০৪ বার

আপনার মন্তব্য