যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ১০ Jul, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 09:43pm

|   লন্ডন - 04:43pm

|   নিউইয়র্ক - 11:43am

  সর্বশেষ :

  ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১, আহত ৩ শেরিফ ডেপুটি   দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৭, শনাক্ত ২৯৪৯   লকডাউনে ভারতে তাবলীগে যোগ দেওয়া ৮২ বাংলাদেশি জামিন পেলেন   এবার নিজ জন্মভূমিতে পোড়ানো হলো মেলানিয়া ট্রাম্পের মূর্তি   করোনার মধ্যে স্কুল খোলার হুমকি দিল ট্রাম্প   এবার ভারমন্টে ‘খাদ্য বর্জ্য নিষিদ্ধ’ নামে নতুন আইন   এবার করবিবরণী নিয়ে ট্রাম্পের নতুন বিপত্তি   বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় প্রতারণা করেছিলেন ট্রাম্প   ৫ অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদেশি ফ্লাইটে ইতালির নিষেধাজ্ঞা   জুতা সেন্ডেলের আঠার নেশায় বুঁদ কিশোররা   সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আর নেই   ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট হলেন ড্রেইক   মার্কিন অভিবাসন ক্র্যাকডাউনে দায়ী করোনা মহামারি   হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যু নিয়ে উদ্বেগ হেলথ ডিরেক্টরের   ভাড়াটিয়াদের আর্থিক সহয়তা কার্যক্রম শুরু হচ্ছে সোমবার

মূল পাতা   >>   লস এঞ্জেলেস

ক্যালিফোর্নিয়ায় চার্চ ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রার্থনালয় খুলতে গাইডলাইন

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৫-২৬ ১৩:৪০:১৪

সংগৃহীত ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চার্চ, মসজিদসহ অন্যান্য ধর্মীয় প্রার্থনালয় খুলতে বেশ চাপে ছিলেন ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গেভিন নিউসাম। সোমবার এ সংক্রান্ত একটি নীতিমালা প্রকাশ পেয়েছে। যেখানে সবাইকে মাস্ক পরা ও সর্ব্বোচ্চ এক শ জনকে একসাথে প্রবেশে সুপারিশ করা হয়েছে।

চার্চ, মসজিদ, সিনাগগ খুলে দেওয়ার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কাউন্টি অনুমতি দিতে পারবে। ঘরে থাকার নির্দেশনা জারির পর গত মার্চ থেকে এসব বন্ধ আছে। বেশ কয়েকটি চার্চ নিজেদের কার্যক্রম শুরুর  জন্য আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল।

কত তাড়াতাড়ি চার্চগুলোর চালু হবে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। যেসব কাউন্টিতে করোনার প্রাদুর্ভাব কম ও ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রয়েছে তারা দ্রুত চার্চ খুলে দিতে পারে। লস এঞ্জেলেস কাউন্টির মতো কিছু কাউন্টি সময় নিবে। কারণ সেখানে করোনা বেশি ছড়িয়েছে।

গাইডলাইনে বলা হয়েছে, ধর্মানুরাগীরা যেন মাস্ক পরেন, একই বই ও খাবার প্লেট ব্যবহার না করেন। এছাড়া বিয়ে, অন্তেষ্টিক্রিয়াসহ জমায়েত এড়িয়ে চলতে অনুরোধ করা হয়েছে। সতর্ক করা হয়েছে, সাবধান না হলে ভাইরাস আবারও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

তবে কিছু কিছু গির্জা জানিয়েছে, তারা দ্রুতই উন্মুক্ত হতে ইচ্ছুক নয়। সান ফ্রান্সিসকো থার্ড ব্যাপটিস্ট চার্চের যাজক আমস ব্রাউন বলেন, আমরা এখনই চার্চে ফিরে যেতে আগ্রহী নই। তিনি রাজ্যের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানান।

এতে সাধারণ মানুষের ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

/এলএ বাংলা টাইমস/এন/এইচ

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৪৩৭ বার

আপনার মন্তব্য