Updates :

        ওয়ানডে থেকে অবসরে বিশ্বকাপে দ্রুততম সেঞ্চুরিয়ান ও’ব্রায়ান

        উড়োজাহাজের মালিক যেসব বলিউড নায়িকা

        ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রায়িসি

        ঢাকায় বাসা থেকে বাবা-মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার

        পেরুতে বাস উল্টে ১৩০০ ফুট খাদে, ২৭ জনের প্রাণহানি

        রেস্টুরেন্টে ‘নির্দিষ্ট ধূমপান এলাকা’ নিষিদ্ধ করতে আইন সংশোধন চান বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি

        নিউসামের উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগে আটক এক ব্যক্তি

        ক্যালিফোর্নিয়ায় তীব্র তাপদাহ: জরুরি অবস্থা জারি

        কী আছে পুতিনের সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার বিমানে?

        নেইমারের রেকর্ড ভাঙার অপেক্ষায় কিংবদন্তি পেলে

        একইদিন মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা ও পর্তুগাল

        প্রথমবার একসঙ্গে তৌসিফ-ইরফান, মধ্যমণি তানহা

        দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

        স্ত্রী হত্যার দায়ে সিলেটের নতুন কারাগারে প্রথম ফাঁসি কার্যকর

        পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত নারীকে ট্রেড কমিশনের চেয়ারপার্সন করলেন বাইডেন

        ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিত করলো ফিলিস্তিনিরা

        পুলিশ হেফাজতেই থাকছেন ত্ব-হা আদনান

        আবু ত্ব-হা আদনানকে পাওয়া গেছে

        অ্যারিজোনায় বন্দুক হামলায় মৃত ১, আহত ১২

        কাজ না খুঁজলে দেওয়া হবে না কর্মহীন ভাতা: নিউসাম

দেড় মাসে আমিরাত থেকে দেশে ফিরেছে শতাধিক প্রবাসীর মৃতদেহ

দেড় মাসে আমিরাত থেকে দেশে ফিরেছে শতাধিক প্রবাসীর মৃতদেহ


গত ৪৫ দিনে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে শতাধিক বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃতদেহ পাঠানো হয়েছে। এরা কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাননি। একই সময় পাঁচ হাজার শ্রমিককে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। বাংলাদেশ দূতাবাসের চার্জ ডি অ্যাফেয়ার্স মোহাম্মদ মিজানুর রেহমান গালফ নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

মিজানুর রেহমান জানান, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কারণে  মৃতদেহগুলো দেশে ফেরত পাঠানো সম্ভব হয়নি। মার্চ থেকে এগুলো মর্গে রাখা ছিল। তবে ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশ মিশন মৃতদেহগুলো দেশে ফেরত পাঠাতে সাহায্য করেছে।

তিনি জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতায় মৃতদেহগুলো দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

মিজানুর রেহমান বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে পাঁচ হাজারের বেশি বাংলাদেশিকে ২০টিরও বেশি বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।’

বাংলাদেশ দূতাবাসের এই কর্মকর্তা জানান, ২০টি মৃতদেহ এখনও দেশে পাঠানো হয়নি। এর মধ্যে ১০টি আবু ধাবিতে ও ১০টি দুবাই থেকে যাবে।

তিনি জানান, চাকরি হারানোর পর যেসব শ্রমিকের দেশে ফিরে যাওয়ার মতো আর্থিক সামর্থ্য নেই তাদেরকে দূতাবাস সহযোগিতা করবে। একই সঙ্গে যেসব প্রতিষ্ঠানে শ্রমিকরা কাজ করতেন সেসব প্রতিষ্ঠানগুলো আর্থিক সহযোগিতা দেবে।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এমই
 

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত

এ বিভাগের আরো খবর