যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 09:26am

|   লন্ডন - 03:26am

|   নিউইয়র্ক - 10:26pm

  সর্বশেষ :

  নিউইয়র্কে নববর্ষ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের শুভেচ্ছা বিনিময়   প্যারেডের থ্রিডি প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাফলার ফান্ডরাইজিং অনুষ্ঠিত   নিউ ইয়র্কে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, গ্রেপ্তার ৪   আরব আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীকে আশ্রয় দিলে এক লাখ দিরহাম জরিমানা   টয়লেট টিস্যুতে ‘আল্লাহ’, বিক্ষুব্ধ যুক্তরাজ্যের মুসলিমরা   ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন   বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদের তালিকায় শেখ হাসিনা   শান্তি ও মানবাধিকারের অনন্য আশ্রয়ভূমি ফ্রান্স   কারাগারে ‘মারা গেছেন’ মসজিদে নববীর এক ইমাম   ক্যালিফোর্নিয়ায় বাংলাদেশি খুদে শিক্ষার্থীর চমক, ৯ বছরেই কলেজে   আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মোস্তাফিজ   সালমান খানকে প্রত্যাখ্যান করেছিলেন তিনি   কৃষ্ণ সাগরে দুই জাহাজে আগুন, নিহত ১০   প্যাটারসন সিটির পাবলিক স্কুলে হালাল ফুড   আর্জেন্টাইন ফুটবলারসহ দুজনকে নিয়ে বিমান নিখোঁজ

মূল পাতা   >>   মধ্যপ্রাচ্য

আল আকসা ইস্যুতে ফিলিস্তিনিদের পাশে পশ্চিমতীরের খ্রিস্টান সম্প্রদায়

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৭-২৪ ১১:০৮:৫৩

নিউজ ডেস্ক: জেরুজালেমে আল আকসা মসজিদ খুলে দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভরত ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়িয়েছেন পশ্চিমতীরের খ্রিস্টান ধর্মালম্বীরা। রবিবার পশ্চিমতীরের দক্ষিণে অবস্থিত বেথেলহেমের স্থানীয় গির্জায় মুসলিম ও খ্রিস্টান ধর্মালম্বীরা বিক্ষোভ করেন।

বিক্ষোভের অংশগ্রহণকারীরা আল আকসা মসজিদে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রত্যাহারের দাবি সম্বলিত ব্যানার নিয়ে হাজির হন।
আরব অর্থোডক্স ইয়ুথ ককাসের মুখপাত্র জালাল বারহাম জানান, স্থানীয় গির্জায় মোমবাতি হাতে আমরা দাঁড়িয়েছি। আমরা বলতে চাই, আল আকসা মসজিদ ও পবিত্র সেপালচার গির্জার মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। আল আকসার প্রবেশ পথ ও সেপালচার গির্জার প্রবেশ পথে কোনও পার্থক্য নেই।
মুখপাত্র আরও বলেন, বলতে চাই যে আমরা একই মানুষ, আমাদের ইতিহাসও এক। মুসলিম ও খ্রিস্টান; আমাদের মানুষেরা এটা মেনে নেবে না। আমরা ইসলাম ও খ্রিস্টান ধর্মের পবিত্র স্থাপনার স্বাধীনতা ও মর্যাদার জন্য লড়াই চালিয়ে যাব।
উল্লেখ্য, ইসরায়েল আল আকসা মসজিদের প্রবেশ পথে মেটাল ডিটেক্টর বসালে শুক্রবার থেকেই বিক্ষোভ করেন ফিলিস্তিনিরা। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে বেশ কয়েক দফা হামলা চালায় ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনী। টানা কয়েকদিনের সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। রবিবার ইসরায়েল ঘোষণা দিয়েছে, মেটাল ডিটেক্টরের পাশাপাশি আল আকসার প্রবেশ পথে ক্যামেরা বসিয়েছে। এছাড়া গত কয়েক বছরের মধ্যে শুক্রবার জুমার নামাজে ফিলিস্তিনি তরুণদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ইসরায়েল।
এদিকে, আল-আকসা মসজিদকে ঘিরে ইসরায়েল-ফিলিস্তিনি সংকট নিরসনের উপায় খুঁজতে বৈঠকে বসছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। সোমবার এই বৈঠকের জন্য সুইডেন, মিসর ও ফ্রান্সকে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের সুইডেনের উপ-রাষ্ট্রদূত কার্ল সাকু। সূত্র: মিডল ইস্ট মনিটর।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৪৪২ বার

আপনার মন্তব্য