যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ১৮ Jul, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 12:33am

|   লন্ডন - 07:33pm

|   নিউইয়র্ক - 02:33pm

  সর্বশেষ :

  জনসম্মুখে এলো থাইল্যান্ডের ক্ষুদে ফুটবলাররা   ফ্লোরিডায় যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা   লাঞ্ছনা-হামলার বিচার না হলে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা   দুর্নীতিবাজদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছেন অর্থমন্ত্রী : মির্জা ফখরুল   আগাম নির্বাচনের হুমকি থেরেসা মে’র সমর্থকদের   উড়ো চিঠিতে ইউজিসি চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকি   বাংলাদেশ ব্যাংকের গাফিলতি পেলে দায় সরকারের : অর্থ প্রতিমন্ত্রী   বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন আর্ল রবার্ট মিলার   বৃহত্তর ঢাকা সমিতি ইতালির বর্ণাঢ্য শিক্ষা সফর অনুষ্ঠিত   নিজের বেতন কমানোর ঘোষণা দিলেন মেক্সিকোর নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট   মুসলিম কিশোরদের ধর্মীয় শিক্ষা নিষিদ্ধ করল চীন   দেশ থেকে বছরে ১ লাখ কোটি টাকা পাচার হচ্ছে : মাহমুদুর রহমান মান্না   খালেদার অসুস্থতা নিয়ে বিএনপি নোংরা রাজনীতি করেছে : কাদের   মক্কায় বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু   পুলিশবাহী মাইক্রো বাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ৩

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

তিন সিটিতে প্রতীক বরাদ্দ, প্রচারণা শুরু

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৭-১০ ০৮:৫৮:৪৮

নিউজ ডেস্ক: প্রতীক প্রাপ্তির পর পরই আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু হয়েছে রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি কর্পেোরেশন নির্বাচনের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। পাড়া-মহল্লায় শুরু হয়েছে নির্বাচনী মিছিল-শোডাউন। তিন সিটিতে এবারই দলীয় প্রতীকে প্রথমবার নির্বাচন হওয়ায় তৈরি হয়েছে আলাদা উৎসাহ উদ্দিপনা। নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হলেও কাউন্সিলর পদে প্রার্থিরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন স্বতন্ত্র প্রতীকে।

তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে মঙ্গলবার (১০ জুলাই) প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়ে এই কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তিন সিটিতে মেয়র পদে ১৮ জন ও কাউন্সিলর পদে মোট ৫৩০ জন প্রার্থী চূড়ান্তভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ইসি সূত্র জানায়, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহার শেষে তিন সিটিতে মেয়র পদে চূড়ান্তভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৮ জন। এছাড়া, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৮১ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৪৯ জনসহ মোট ৫৩০ জন কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। সব মিলিয়ে তিন সিটিতে মোট প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সংখ্যা ৫৪৮ জন।

রাজশাহী
রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে (রাসিক) মেয়র পদে প্রার্থী পাঁচজন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের (নৌকা) এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, বিএনপির (ধানের শীষ) মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (কাঁঠাল) মো. হাবিবুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের (হাতপাখা) মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম ও গণসংহতি আন্দোলনের (হাতি) অ্যাডভোকেট মুরাদ মুর্শেদ।

মঙ্গলবার সকাল ৯টায় থেকে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হয়। প্রতীক নিয়ে ভোটের মাঠে নেমে পড়েন তারা।প্রতীক পাওয়ার পর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করে ভোটের প্রচার শুরু করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।আর শাহমখদুম (রঃ) মাজার জিয়ারত করে প্রচার শুরু করেন বিএনপির প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।

এই সিটিতে সাধারণ ওয়ার্ডে ১৬০ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৫২ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ১৮ হাজার ১৩৮ জন। এই সিটিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন সৈয়দ আমিরুল ইসলাম।

সিলেট
সিলেট সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১২৭ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৬২ জনসহ মোট ১৯৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগের বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান (নৌকা), বিএনপির মো. আরিফুল হক (ধানের শীষ) , স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজামান সেলিম (বাসগাড়ি), স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জামায়াত ইসলামীর এহসানুল মাহবুব জুবায়ের (টেবিল ঘড়ি), সিপিবি-বাসদের আবু জাফর (মই), ইসলামী শাসনতন্ত্রের প্রার্থী ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন (হাতপাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসানুল হক তাহের (হরিণ)।

উৎসব মুখর পরিবেশ প্রতীক নিয়েই হযরত শাহজালাল (র.) মাজার জিয়ারত করে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান এবং বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। প্রধান দুই দলের প্রার্থীই আনুষ্ঠানিক প্রচারণার প্রথম দিন ব্যাপক শোডাউন করেছেন।ইবিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জোবার সমর্থনেও নগরী মিছিল বের হয়।

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মোট ভোটার ৩ লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন। রিটানিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন মো. আলিমুজ্জামন।

বরিশাল
বরিশালে মেয়র পদে ছয় জন এবং সাধারণ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১২৯ জনসহ মোট ১৩৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগের (নৌকা) সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, বিএনপির (ধানের শীষ) মজিবর রহমান সারোয়ার, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের (হাতপাখা) মাওলানা ওবায়দুর রহমান মাহবুব, সিপিবির (কাস্তে) অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, বাসদের ডা. মণীষা চক্রবর্তী ও জাতীয় পার্টির (লাঙল) ইকবাল হোসেন।

মঙ্গলবার সকালে প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর পরই নগরীতে ব্যাপক শোডাউন করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ এবং বিএনপির মজিবর রহমান সারোয়ার। জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইকবাল হোসেন তাপস ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী ওবায়দুর রহমান মাহবু্বের সমর্থনেও নগরীতে মিছিল বের হয়।

প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে বিএনপির প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ার, জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইকবাল হোসেন তাপস ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী ওবায়দুর রহমান মাহবুব নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়া নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছেন। পাশাপাশি তারা সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন সরকারের প্রতি। অন্যদিকে প্রথম দিনের প্রচারণায় বিভিন্ন পথসভায় রাখা বক্তব্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ দাবি করেছেন, নির্বাচন সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ হবে। ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট দিতে পারবেন।

এই সিটিতে ৩০টি সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৯৪ জন এবং ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন মুজিবুর রহমান। বরিশাল সিটিতে মোট ভোটার ২ লাখ ৪১ হাজার ৯৫৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ২১ হাজার ৩৩২ জন, নারী ভোটার ১ লাখ ২০ হাজার ৬২৭ জন।


 এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২২৪ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর