যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 09:32am

|   লন্ডন - 03:32am

|   নিউইয়র্ক - 10:32pm

  সর্বশেষ :

  মুশফিকের অনবদ্য ডাবল সেঞ্চুরি   প্রথম দিনে বিএনপির ১ হাজার ৩২৬টি মনোনয়নপত্র বিক্রি   ৪ হাজার ৩৬৭টি মনোনয়ন বিক্রি করেছে আ.লীগ, আয় ১৩ কোটি টাকা   সিডনিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক নাটক ‘লিভ মি অ্যালন’ মঞ্চায়িত   ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলের ভয়াবহতা বাড়ছেই, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩১   নির্বাচন এক সপ্তাহ পেছাল, ৩০ ডিসেম্বর ভোট   বিশ্বের সবচেয়ে সেক্সি পুরুষ ইদ্রিস এলবা   একটা গোলাপি হিরার দাম ৪১৮ কোটি!   ৩ আসনের জন্য মনোনয়ন ফরম কিনলেন খালেদা জিয়া   ইসরায়েলিদের গুলিতে হামাস কমান্ডারসহ নিহত ৭   প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সমাপ্তির শতবর্ষ পূর্তিতে স্মরণানুষ্ঠান   ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করবে বিএনপিসহ ৮ দল   ঢাবির হলে ছাত্রদের বের করে কক্ষ দখল করল ছাত্রলীগ   ইতালিতে আইয়ুব বাচ্চু’র স্মরনে “রূপালী গিটার”   পেটারসনে ‘বাংলাদেশ বুলেবার্ড’ নামে সড়ক হচ্ছে

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

সরকারি গাড়ি ছেড়ে লোকাল বাসে বাসায় ফিরলেন তারানা

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৯-১২ ০৯:০২:৫১

নিউজ ডেস্ক: প্রতিমন্ত্রী হিসেবে পাওয়া সরকারি গাড়ি ছেড়ে ছয় নম্বর রুটের লোকাল বাসে করে করে গুলশান-১ এর বাসায় ফিরলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

এই যাত্রা কেবল এক দিনের হবে না, সেই ঘোষণাও দিয়ে রেখেছেন তিনি। জানিয়েছেন, গুরুত্বপূর্ণ কাজ ছাড়া বাকি সময় সরকারি গাড়ি বাদ দিয়ে এভাবে লোকাল বাসে করেই যাতায়াত করবেন।

বুধবার দুপুরে গুলিস্তান থেকে বাসে করে গুলশান নেমে সাংবাদিকদেরকে এমন কথাই বলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

সচিবালয়ে নিজ দপ্তরের কাজ শেষে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গুলিস্তান যান তারানা হালিম। পরে জিপিওর সামনে থেকে ৬ নম্বর বাসে চড়েন তিনি। বেলা আড়াইটার দিকে গুলশান পৌঁছান তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

প্রটোকল ছাড়া প্রতিমন্ত্রীকে বাসের পেয়ে পেয়ে অবাক হন সহযাত্রীরা। কেবল প্রতিমন্ত্রী নয়, তারানার পরিচিতি বহু আগে থেকেই। ৯০ দশকে পর্দা মাতানো মিষ্টি হাসির মেয়েটিকে বাসে পেয়ে সেলফি তুলতেও ভুলেননি যাত্রীরা। সাধারণ যাত্রী হয়ে বাসে করে যাওয়ায় সাধুবাদও জানান তারা।

গুলিস্তান থেকে প্রতিমন্ত্রী যখন বাসে ওঠেন তখন বাসটিতে আগে থেকেই বসা একজন শিক্ষার্থী জানলার পাশের আসন ছেড়ে দেন তারানাকে। পরে পাশে বসা যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

যাত্রীদের পাশাপাশি এ সময় চমকে উঠেন বাসের চালক। তিনি প্রতিমন্ত্রীকে চিনতে পেরে চালক বলেন, ‘আপা, পুলিশ ছাড়াই উঠবেন ‘

তারানা জবাব দেন, ‘হ্যাঁ।’

এরপর চালক উচ্ছ্বসিত কণ্ঠে বলেন, ‘আপা আমরাই আপনার প্রটেকশন, ওঠেন।’

যাত্রাপথে বাসের আসনের অপরিস্কার দেখে এ নিয়ে ব্যবস্থা নিতেও পরিবহন শ্রমিকদের নির্দেশ দেন প্রতিমন্ত্রী।

আসন তেল চিটচিটে দেখে তারানা বলেন, ‘এগুলো হাতে এবং নখে থাকলে কোনো খাবার খেলে তো অসুস্থ হয়ে যাবে মানুষ। কাভারগুলো পরিষ্কার বা পরিবর্তন করে দিতে হবে।’

আবার ছাদ কেটে বাতাস যাতায়াতের ব্যবস্থা করায় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে-এই বিষয়েও দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

বাসে করে যাতায়াতের বিষয়ে জানতে চাইলে তারানা হালিম গণমাধ্যমকে বলেন, সাধারণ মানুষের প্রতিক্রিয়া থেকে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

‘প্রতিদিনই সাধারণ মানুষের একটা অভিযোগ থাকে, এমপি-মন্ত্রীরা সড়ক পথের যানজট দেখেন না। তারা আশা করে এমপি-মন্ত্রীরা একবার হলেও তাদের সঙ্গে সাধারণ যাত্রীর মতো গণপরিবহনে চলাচল করবেন। সেখান থেকেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তারানা বলেন, ‘এখন থেকে প্রতিদিনই আমি সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গে গণপরিবহনে চলাচল করব। তবে সরকারি গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলোর সময় আমাকে সরকারি যানবাহন ব্যবহার করতেই হবে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সাধারণ জনগণ যদি প্রতিদিন কষ্ট করে তাদের কর্মক্ষেত্রে পৌঁছাতে পারে, তবে আমরা কেন পারব না? আমরা সবাই-ই মানুষ। আমাদের সকলের আনন্দ আছে, কষ্ট আছে। মানুষের কষ্টগুলো কাছ থেকে দেখতেই আমার এমন সিদ্ধান্ত।’

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১১৭৮ বার

আপনার মন্তব্য