যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ১৯ অগাস্ট, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 10:42am

|   লন্ডন - 05:42am

|   নিউইয়র্ক - 12:42am

  সর্বশেষ :

  পুড়ে যাওয়া বস্তি যেন দর্শনীয় স্থান!   ডেঙ্গু: চব্বিশ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১৭০৬   আসামের এনআরসি ও কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল: নেপথ্যে মোদির মুসলিমবিদ্বেষ   কাশ্মীর ইস্যুতে আরব দেশগুলোর নীরবতার নেপথ্য কারণ কী?   কাবুলে বিয়ের অনুষ্ঠানে হামলা, নিহত ৬৩   মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর সোহেল’র ইন্তেকাল   ভারতের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার এখন ফ্যাসিস্ট মোদির হাতে : ইমরান খানের হুঁশিয়ারি   রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের সাথে গুলি বিনিময়ে এক সেনাসদস্য নিহত   বঙ্গবন্ধু ছাড়া বাংলাদেশ কল্পনা করা যায় না: মুক্তিযোদ্বা ডা: সিরাজুল ইসলাম   ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২২৪   কাশ্মীরে বিধি-নিষেধ দ্রুত তুলে দেওয়ার আহ্বান ওআইসির   অরল্যানডোতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা   আ.ন.ম শফিকুল হকের মৃত্যুতে আনোয়ার শাহদাতের শোক   মনের সুখই আসল সুখ   পাইলট যেভাবে বিমানটিকে ভুট্টা ক্ষেতে নামালেন

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

বাংলাদেশে শুকরের মাংস-চর্বি দিয়ে সয়াবিন তেল!

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-০৪ ১৫:৩৮:৫০

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর ধামরাইয়ে একটি ভোজ্যতেল তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়ে ১১ কোটি টাকা মূল্যের প্রায় ২ হাজার টন নিষিদ্ধ শুকরের মাংস, হাড়, চর্বি জব্দ করেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ সময় কারখানাটিকে ৭৫ লাখ টাকা জরিমানা করে সিলগালা করা হয়।

শনিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার বাথুলি এলাকায় ভোজ্যতেল ও বিভিন্ন খাবার তৈরির কারখানা কেবিসি এগ্রো লিমিটেডে এ অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাব সদরদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সারওয়ার আলম।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান: কেবিসি এগ্রো (প্রাঃ) লিমিটেড হেলথ কেয়ার নামের প্রতিষ্ঠানটি সয়াবিন তেল তৈরি করার জন্যে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে হংকং থেকে বাংলাদেশে নিষিদ্ধ শুকরের চর্বি আমদানি করে। এছাড়াও একই উপকরণ ব্যবহার করে মাছ ও মুরগির খাদ্যও তৈরি করে বাজারজাত করে আসছিল তারা। খবর পেয়ে আমরা অভিযানে আসি এবং অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পাই।

পরে কেবিসির মহাব্যবস্থাপক তাপস দেবনাথ ও পরিচালক জাহিদুর রহমানের কাছ থেকে ২ লাখ ৯৮ হাজার ২শত ৬০ মেট্রিক টন শুকরের চর্বি, মাংস ও হাড় আমদানির চালান ফরম জব্দ করা হয়। কিন্তু সেখান থেকে আমরা জব্দ করতে পেরেছি মাত্র ২ হাজার টন। ধারণা করা হচ্ছে বাকিগুলো তারা ব্যবহার করেছে ও বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করেছে।

র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে অভিযান চলাকালে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা এমদাদুল হক, ঢাকা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সৈয়দ মোঃ আলমগির।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২৭৫ বার

আপনার মন্তব্য