যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 08:05pm

|   লন্ডন - 02:05pm

|   নিউইয়র্ক - 09:05am

  সর্বশেষ :

  এলএ বাংলা টামইসের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ   সিরিয়ায় রাশিয়ার বিমান হামলা, নিহত ৯   পেঁয়াজ নিয়ে কারসাজি, আড়াই হাজার ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা   ২ ঘন্টা লাইনে দাড়িয়ে এক কেজি পেঁয়াজ কিনলেন সিলেটের মেয়র   ক্যালিফোর্নিয়ায় ফুটবল খেলা দেখার সময় গুলি, নিহত ৪   কাশ্মীরে বিস্ফোরণ, ভারতীয় সেনা নিহত   কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম   শেরপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত   আসাম আমার, পশ্চিমবঙ্গ আমার, ত্রিপুরাও আমার   হংকংয়ে পুলিশকে তীর ছুঁড়ছে বিক্ষোভকারীরা   বায়ু দূষণে আবার শীর্ষে ঢাকা   বাবরী মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড   কিশোরীর সঙ্গে যৌনমিলনের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলেন ব্রিটিশ প্রিন্স   দুবাই এয়ার শো’তে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী   হারাম উপার্জন সন্তানের ওপর প্রভাব ফেলে

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

বুয়েটে রাজনীতি নিষিদ্ধ, আবরার হত্যার ১৯ আসামি বহিষ্কার

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১০-১১ ১১:৩৫:৩৩

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠক করেন ভিসি।

নিউজ ডেস্ক:
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যায়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার এজাহারভুক্ত ১৯ আসামিকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম এ কথা জানিয়েছেন।

শুক্রবার বুয়েট অডিটোরিয়ামে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা কালে বুয়েটের উপাচার্য এ কথা জানান। তিনি বলেন, বুয়েটে সাংগঠনিক ছাত্র রাজনীতি থাকবে না। আবরারের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে এবং মামলার খরচ বুয়েট কর্তৃপক্ষ বহন করবে। বিচারকাজ দ্রুত শেষ করতে সরকারকে চিঠি দেওয়া হবে। বুয়েটে র‌্যাগিং বন্ধ হবে।

উপাচার্য জানান, সরকার আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতে আশ্বস্ত করেছে।

আবরার ফাহাদ হত্যার পর বুয়েটের আন্দোলনকারীরা ১০ দফা দাবি পেশ করে। এ নিয়ে আজ শুক্রবার বিকেলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে উপাচার্য কথা বলেন। সেখানে তিনি এসব দাবি মেনে নেওয়ার ব্যাপারে নিজের অবস্থান জানান।

বৃহস্পতিবার শিক্ষার্থীরা আলটিমেটাম দিয়েছিলেন, উপাচার্য যদি আজ শুক্রবার বেলা ২টার মধ্যে তাঁদের সঙ্গে দেখা না করেন, তাহলে বুয়েটের সব ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেবেন। এমন পরিস্থিতিতে গতকালই উপাচার্যের পক্ষ থেকে আলোচনায় বসার কথা জানানো হয়।

আবরার হত্যার প্রতিবাদে পঞ্চম দিনের মতো সকাল থেকেই বুয়েট ক্যাম্পাসে জড়ো হন শিক্ষার্থীরা। আজও সকালে তাঁরা মিছিল ও পথনাটকসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন।

আবরার ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) ছাত্র ছিলেন। তিনি থাকতেন বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নিচতলায় ১০১১ নম্বর কক্ষে। গত রোববার রাত আটটার দিকে তাঁকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় একই হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে। ওই কক্ষে তাঁকে নির্যাতন করে বুয়েট ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। রাত ৩টার দিকে হল থেকেই তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর পর থেকে শিক্ষার্থীরা আবরার হত্যার ঘটনায় খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি, বুয়েট ক্যাম্পাসে সাংগঠনিক ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করাসহ ১০ দফা দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। শিক্ষার্থীরা বলছেন, তাঁদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৩১৭ বার

আপনার মন্তব্য