যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ০৪ অগাস্ট, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 04:19am

|   লন্ডন - 11:19pm

|   নিউইয়র্ক - 06:19pm

  সর্বশেষ :

  করোনাভাইরাস: সংক্রমণের নতুন ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র   ডিজেলের ফেলে দেয়া কালিই ঘটায় অ্যাপল ফায়ার   মাস্ক নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড ম্যানহাটন বিচে   যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিতীয়ধাপের বেকারভাতা সর্বোচ্চ ১২০০ ডলার   বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, হতাহত শতাধিক   মৃতের সংখ্যা কমলেও অর্থনীতি শিগগিরই চাঙ্গা হচ্ছে না ক্যালিফোর্নিয়ায়   স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করে পানশালায় পুলিশ অফিসারের পার্টি   দেশে বন্যায় এখন পর্যন্ত ১৪৫ জনের মৃত্যু   চীনা ভ্যাকসিন পরীক্ষায় সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশে ট্রায়াল   পুরো কাশ্মীরকে অন্তর্ভুক্ত করে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করল পাকিস্তান   বেভারলি ক্রেস্টে বন্দুক হামলায় নিহত ১, আহত ২   ৩০ বিলিয়ন ডলারে স্প্রিন্ট এবং টি মোবাইল একীভূত   ক্যালিফোর্নিয়ায় করোনা সংক্রমণ হ্রাসেও উদ্বেগ কমছে না   লস এঞ্জেলেসে দু সপ্তাহের মধ্যে খোলছে স্কুল   যুক্তরাষ্ট্রে চীনের সব সফটওয়্যার নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

আজ যা ঘটেছে সব দায় অ্যাটর্নি জেনারেলের : খন্দকার মাহবুব

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১২-০৫ ১০:২৪:০৭

নিউজ ডেস্ক:
বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন আদালত থেকে বেরিয়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি অডিটোরিয়ামে এক ব্রিফিংয়ে বলেন, আজ যে ঘটনা ঘটেছে তার সব দায় অ্যাটর্নি জেনারেলের।

তিনি বলেন, কেন খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য মেডিকেল রিপোর্ট প্রয়োজন হল। ৫ থেতে ৭ বছরের সাজা শত শত মামলায় জামিন হয়ে যাচ্ছে। আর খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাকে জেলে রাখা হয়েছে। তার প্রমাণ আজকের ঘটনা। এই মামলায় জামিন শুনানিতে মেডিকেল রিপার্ট কল করা হয়েছে। আমি হলে এটা মেনে নিতাম না। ৭ বছরের সাজা মামলায় সর্বোচ্চ আদালত জামিন দিবেন না, এর চেয়ে ন্যাক্কার জনক কিছু হতে পারে না।

তিনি বলেন, আজকের (বৃহস্পতিবার) এই ঘটনার জন্য দায় অ্যাটর্নি জেনারেলের। সুপ্রিম কোর্টের ইতিহাসে আজ একটি কলঙ্ক জনক অধ্যায়। সুপ্রিম কোর্ট হল ন্যায় বিচারের শেষ আশ্রয় স্থল। এটা নষ্ট হলে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি হবে। এটা আমরা চাই না।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, সরকারের বিভিন্ন ম্যাকানিজমের কারণে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি হয়নি। তার যে মেডিকেল রিপোর্ট দাখিল করা হয়েছে তার জন্য যেকোনো আদালত তাকে জামিন দেবেন। একটি অজুহাতে সাতদিন জামিন শুনানি পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের রাজনৈতিক প্রভাবের কারণে খালেদা জিয়ার মুক্তি বিলম্বিত হচ্ছে। এটা মানবিক ও স্বাস্থগত কারণে তার জামিন চাওয়া হয়েছে। আজ আইনজীবীরা প্রতিবাদ করেছে। আমরা নিবৃত করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আমরা পারেনি। আমি আমরা পেশার জিবনে এমন দেখিনি। আবারো আমাদের বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

জয়নুল আবেদীন বলেন, রাজনৈতিক মামলা দিয়ে খালেদা জিয়াকে জেলে আটক রাখা হয়েছে। চিকিৎসার অভাবে জেলখানায় তিনি তিলে তিলে মরতে বসেছেন। আমরা সেখানে যেতে পারছি না। তার হাত পা বাঁকা হয়ে যাচ্ছে। তার চিকিৎসা দেশে সম্ভব নয়। তার উন্নত চিকিৎসা দরকার। ডাক্তার তার যে চারটি মেডিসিন দিয়েছেন তার একটি দেশে পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের শেষ আকুতি চিকিৎসার জন্য তাকে জামিন দেয়া হোক। খালেদা জিয়াকে মৃত্যুর হাত থেকে বের করার জন্য আইনজীবীরা শ্লোগান দেন উই ওয়ান্ট জাস্টিস। আশাকরি এ থেকে ভবিষ্যতে সরকার শতর্ক হবে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৩০৬ বার

আপনার মন্তব্য