যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ০৫ অগাস্ট, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 01:29pm

|   লন্ডন - 08:29am

|   নিউইয়র্ক - 03:29am

  সর্বশেষ :

  গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড় ইসাইয়াসে ব্রুকলিনে বিল্ডিং ধস   এবার ওমরাহর প্রস্তুতি নিচ্ছে সৌদি   ট্রপোক্যাল ঝড়ে কমপক্ষে নিহত ৪   এবার জালিয়াতির অভিযোগে ট্রাম্প ও তাঁর কোম্পানির বিরুদ্ধে তদন্ত   মিশিগানে প্রাইমারি নির্বাচনে লড়ছেন চার বাংলাদেশি   ক্যালিফোর্নিয়ায় করোনা হ্রাসের তথ্য ভুয়া হতে পারে, বললেন সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য কর্মকর্তা   করোনাভাইরাস: সংক্রমণের নতুন ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র   ডিজেলের ফেলে দেয়া কালিই ঘটায় অ্যাপল ফায়ার   মাস্ক নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড ম্যানহাটন বিচে   যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিতীয়ধাপের বেকারভাতা সর্বোচ্চ ১২০০ ডলার   বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, হতাহত শতাধিক   মৃতের সংখ্যা কমলেও অর্থনীতি শিগগিরই চাঙ্গা হচ্ছে না ক্যালিফোর্নিয়ায়   স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করে পানশালায় পুলিশ অফিসারের পার্টি   দেশে বন্যায় এখন পর্যন্ত ১৪৫ জনের মৃত্যু   চীনা ভ্যাকসিন পরীক্ষায় সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশে ট্রায়াল

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের দৃষ্টান্ত নেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১২-১১ ০০:৫৮:৪১

নিউজ ডেস্ক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশে সংখ্যালঘুরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে না; বরং তারা শান্তি ও সম্প্রীতির সঙ্গে বসবাস করছে। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) বিবিসি বাংলাকে এসব কথা বলেন।

সোমবার ভারতের পার্লামেন্টে দাবি করা হয়, বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন না থামাটাই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আনার অন্যতম কারণ। এর প্রতিক্রিয়ায় আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আমরা বলতেই পারি যে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের অবস্থা এখন খুব ভালো। আগে যারা বিদেশে চলে গিয়েছিলেন, তারাও এখন ফিরে আসছেন।’ ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যদি সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ তুলে বক্তব্য দিয়ে থাকেন, তাহলে তা ঠিক নয় বলেও মনে করেন তিনি।

নাগরিকত্ব বিল সম্পর্কে মোমেন বলেন, ভারত কী করল, সেটা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তবে বাংলাদেশের সংখ্যালঘুরা খুব শান্তি ও সম্প্রীতিতে আছে। সোমবার লোকসভায় এ বিল পেশ করতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাংলাদেশসহ তিনটি প্রতিবেশী দেশের সংবিধানকে উদ্ধৃত করে বলেন, এই দেশগুলোর রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বলেই সেখানে অন্য ধর্মের মানুষ নিপীড়িত হচ্ছে।

লোকসভায় বিলটি সোমবারই পাশ হয়। এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম হওয়ার কারণে সংখ্যালঘু নির্যাতনের অভিযোগ সঠিক নয়। এখানে সব ধর্মের মানুষই তাদের ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান বিনা বাধায় উদ্যাপন করে থাকে। এদেশের নিয়ম হচ্ছে, ধর্ম যার যার, কিন্তু উৎসব সকলের। আমরা এই নীতিতেই বিশ্বাস করি। আমাদের দেশে নির্যাতনের কোনো দৃষ্টান্ত নেই। বরং ভারতে সংখ্যালঘুরা নির্যাতনের শিকার হয় বলে বিভিন্ন গণমাধ্যম থেকে জানা যায়।’

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২০১ বার

আপনার মন্তব্য