যুক্তরাষ্ট্রে আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 09:40pm

|   লন্ডন - 03:40pm

|   নিউইয়র্ক - 10:40am

  সর্বশেষ :

  পাকিস্তানে চীনের পরমাণু সাবমেরিন ঘাঁটি, চিন্তায় ভারত   উড়তে থাকা বার্সার অপরাজেয় যাত্রা থামলো   রাশিয়ায় তাপমাত্রা মাইনাস ৬৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস!   অলিম্পিকে দুই কোরিয়ার ‘অভিন্ন পতাকা’   মৌলভীবাজার ডিষ্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের মতবিনিময়   রাখাইনে বিক্ষোভে পুলিশের গুলি, নিহত ৭   বিশ্বের প্রথম ‘পানিহীন’ শহর!   মুসলিম শিশুদের মসজিদে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা চীনের   ইউএনএইচসিআর ছাড়াই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন উদ্বেগের : জাতিসঙ্ঘ   মুক্তিযোদ্ধা বিবেচনার ন্যূনতম বয়স সাড়ে ১২ বছর পুনঃনির্ধারণ   ডিএনসিসি’র মেয়র পদে উপনির্বাচন স্থগিত   এবার টরন্টোতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে 'বিশ্ব সিলেট সম্মেলন'   জালালাবাদ এসোসিয়েশনের কালচারাল সেক্রেটারি লায়েক আহমেদের বোনের মৃত্যুতে শোক   বাংলাদেশে প্রবাহিত ৫৭টি নদীর বেশির ভাগই নাব্যতাহীন   ভোলার ভেদুরিয়ায় নতুন গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

মহানবীকে নিয়ে ফেসবুক পোস্ট, রংপুরে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে যুবক নিহত, অগ্নিসংযোগ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-১০ ১৩:৫৪:০৩

নিউজ ডেস্ক: রংপুরের সদর উপজেলায় পুলিশ-জনতার সংঘর্ষে এক যুবক নিহত হয়েছে। এতে পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছে।

উপজেলার পাগলাপীর এলাকার এক যুবকের ইসলাম ধর্ম অবমাননাকর একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার প্রতিবাদে শুক্রবার বিকেলে মুসল্লি-জনতা রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় সংঘর্ষ হয়। তখন হিন্দু সম্প্রদায়ের ছয়টি বাড়িতে আগুন দেওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেখানে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কয়েক দিন আগে পাগলাপীর সলেয়াসা এলাকার টিটু রায় নামে এক যুবক তার ফেসবুক আইডি থেকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে অবমাননাকর ছবি পোস্ট দেন। এতে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। তারা ওই যুবকের শাস্তির দাবিতে শুক্রবার বাদ জুম্মা সলেয়াসা বাজার এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয়। জুম্মার নামাজের পর শত শত মানুষ সলেয়াসা বাজার এলাকায় জমায়েত হয় এবং মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে।

এ সময় সড়কে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে অবরোধকারীদের রাস্তা ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানায়। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে অবরোধকারীদের কথাকাটাকাটি, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৩৫ রাউন্ড টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয়।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে আলমি, মাহবুল, জামিলকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে পুলিশের পাঁচ সদস্য রয়েছে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত  হাবিব মিয়াকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি গঙ্গাচড়া উপজেলার বাসিন্দা।

বিক্ষুদ্ধ জনতা ধীরেন চন্দ্র, হিরেন চন্দ্রসহ কমপক্ষে ছয়জনের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে।

এলাকাবাসী শাহ মোহাম্মদ মাসুদ রানা, আলিফ মিয়া ও রায়হান কবির বলেন, ‘‘আমরা নবীজী সম্পর্কে কটূক্তিকারীর শাস্তির দাবিতে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করছিলাম। পুলিশ আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমাদের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।’’

গত রোববার উপজেলার খলেয়া ইউনিয়নের লালচাঁদপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুস সাত্তারের ছেলে ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে টিটু রায়ের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে গঙ্গাচড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মেডিক্যাল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই কিবরিয়া এক যুবকের নিহতের খবর  নিশ্চিত করে জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

কোতোয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) আজিজুল ইসলাম জানান, মহাসড়ক অবরোধ থেকে সরে যাওয়ার আহ্বান জানালে জনতা পুলিশের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

 এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৫৩ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সাম্প্রতিক খবর