যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ১৮ Jun, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 01:42pm

|   লন্ডন - 08:42am

|   নিউইয়র্ক - 03:42am

  সর্বশেষ :

  খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে সরকার সময়ক্ষেপন করছে : মির্জা ফখরুল   রেমিট্যান্সে ভ্যাট আরোপ হয়নি : এনবিআর   নিউজিল্যান্ডে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো হিজাবি তরুণী   নাম পরিবর্তন করল মেসিডোনিয়া   ২০২৬ বিশ্বকাপের আয়োজক যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো-কানাডা   ফ্লোরিডায় ৪ সন্তানকে হত্যার পর বাবার আত্মহত্যা   তিন সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি   পাকিস্তানিদের গোলায় জম্মু ও কাশ্মীরে ৪ বিএসএফ নিহত   নাপলি আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত   ইমরানের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শতবর্ষী নারী!   নিয়মিত রোজা রাখেন ১১৮ বছরের বৃদ্ধ   বাংলাদেশে পালিত হচ্ছে শবে কদর   জাতীয় পার্টি মহাজোটে নেই, আর কখনও মহাজোটে থাকবেও না : এরশাদ   কারাগারে জীর্ণশীর্ণ খালেদা জিয়া!   বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নয় ইউনাইটেডে চিকিৎসা নিতে চান খালেদা জিয়া

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

সহনীয় পর্যায়ে ঘুষ খাওয়ার কথা বলায় শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৯ ১১:৩৪:০৪

নিউজ ডেস্ক: সহনীয় পর্যায়ে ঘুষ খাওয়ার কথা বলায় এবং সব মন্ত্রী ঘুষ খায়- এমন মন্তব্য করায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে সব মন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাওয়ার অনুরোধ এবং এ বিষয়ে সংসদে বিবৃতির দাবি জানিয়েছেন ঝিনাইদহ-২ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী।

একইসাথে তিনি এ ধরনের মন্তব্যের জন্য শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগও দাবি করেন। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে এক অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ দাবি জানান।

সম্প্রতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে বিভিন্ন বিষয়ে যারা প্রতিবেদন দেন সেই কর্মকর্তাদের ‘সহনশীল মাত্রা’য় ঘুষ খেতে শিক্ষামন্ত্রীর পরামর্শ দেয়ার খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। পরে সংবাদ সম্মেলন করে এই খবর তার বক্তব্যের ভুল বোঝাবুঝির উপস্থাপন বলে দাবি করেন শিক্ষামন্ত্রী।

তাহজীব আলম বলেন, শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন সহনীয় পর্যায়ে ঘুষ খান। আপনাদের ঘুষ না খাওয়ার নৈতিক সাহস আমার নেই। কারণ আমি ঘুষ খাই। মন্ত্রীরা ঘুষ খান। তিনি বলেন, সব মন্ত্রী বিশেষ করে যারা স্বচ্ছতা ও শততার সঙ্গে সব বিতর্কের ঊর্ধ্বে কাজ করে যাচ্ছেন এই সংসদে দাঁড়িয়ে শিক্ষামন্ত্রীকে তাদের কাছ নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার অনুরোধ করছি, আবেদন করছি, নিবেদন জানাচ্ছি।

তাহজীব বলেন, শিক্ষামন্ত্রীকে তার বক্তব্যের ব্যাপারে সংসদে ব্যাখ্যা দিতে হবে। আর সত্যি সত্যি তিনি যদি আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ হন তাহলে সমগ্র সরকারকে জনগণের কাছে বিতর্কিত না করে তার উচিত নিজ পদ থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে সেয়া। নিশ্চয় একটি সফল সরকারের ভাবমূর্তি তার বক্তব্যে ভুলণ্ঠিত হতে পারে না। যারা নির্বাহী দায়িত্বে আছেন তারা অবশ্যই বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে উপলব্ধি করবেন।

এরপর কুমিল্লার জাতীয় পার্টির এমপি নূরুল ইসলাম মিলন শিক্ষাব্যবস্থার সমালোচনা করে বলেন, আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা এমন একপর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে সেটা অত্যন্ত দুঃখজনক। তিনি প্রাথমিক সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষার নেয়ার বিরোধিতা করে বলেন, এর প্রয়োজন ছিল না। এর ফলে দুর্নীতি বাড়ে। শিক্ষকরা আজকে প্রশ্নপত্র ফাঁস করেন।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৬৭১ বার

আপনার মন্তব্য