যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 07:31am

|   লন্ডন - 01:31am

|   নিউইয়র্ক - 08:31pm

  সর্বশেষ :

  সিরিয়ায় সরকারি বাহিনীর বিমান হামলা, নিহত ৯৪   রাশিয়ার চার্চে বন্দুকধারীর হামলা, নিহত ৫   তৃতীয়বারের মতো বিয়ে করলেন ইমরান খান   পুরুষের অনুমতি ছাড়া ব্যবসা করতে পারবে সৌদি নারীরা   ভারতে ট্রাম্পের নাম ভেঙ্গে ফ্ল্যাট বিক্রি   ইরানে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষের সন্ধান   বিএনপি নির্বাচনে না এলে কিছু করার নেই : সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী   রায়ের কপি পেলেন খালেদার আইনজীবীরা, জামিন আবেদন কাল   কুষ্টিয়া জেলা সমিতি ইউএসএ ইনকের শীত বস্ত্র বিতরণ   ইতালীতে দু’টি শহীদ মিনারেরই বেহাল অবস্থা   ফিল্মফেয়ারে সেরা অভিনেত্রী জয়া আহসান   স্কুলে বন্ধুক হামলার ঘটনায় এফবিআইয়ের কড়া সমালোচনা ট্রাম্পের   ডিসেম্বর নয়, আজকেই অবসরে যান : মুহিতকে বাবলু   নো-ম্যান্স ল্যান্ডে রোহিঙ্গাদের গণহত্যার প্রস্তুতি মিয়ানমারের!   বাংলাদেশ থেকে কার্গো পরিবহনে বাধা তুলে নিল যুক্তরাজ্য

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

ভেরিফিকেশনে গিয়ে ফুল-মিষ্টি দিয়ে পুলিশ সুপারের শুভেচ্ছা!

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-২০ ১২:০১:৪৭

নিউজ ডেস্ক: বিসিএস ক্যাডারে নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া ১২ জনের ভেরিফিকেশন করতে গিয়ে ফুল ও মিষ্টি দিয়ে তাদের শুভেচ্ছা জানিয়ে এসেছে পুলিশ। বুধ থেকে শনিবার (১৭ থেকে ২০ জানুয়ারি) বরিশালের উজিরপুর উপজেলার ৯ জন ও বানারীপাড়া উপজেলার ৩ জনের বাসায় ফুল ও মিষ্টি নিয়ে যান জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (উজিরপুর সার্কেল) মো. আকরামুল হাসান। ব্যতিক্রমী এমন উদ্যোগে মুগ্ধ সুপারিশ পাওয়া ১২ জনের অভিভাবকরাও।

৩৬তম বিসিএসে নিয়োগের সুপারিশ পেয়েছেন উজিরপুরের মইনুল ইমরান রানা, উম্মে সালমা তানিয়া, শাহজালাল নাইম, জাহিদুল ইসলাম, ইমরান হোসেন সোহাগ, সাদিয়া আফরিণ জুলি, মোর্শেদা আক্তার মিমি, সীমা মন্ডল ও এজেডএম খালিদ হাসান সৈকত এবং বানারীপাড়া উপজেলার মো. মিলন মিয়া, সাবিহা মেহবুবা লিয়া ও মাহমুদুল হাসান।

উজিরপুরের দক্ষিণ বড়াকোঠা গ্রামের সীমা মন্ডল বলেন, ‘পুলিশ ভেরিফিকেশনে নানা ধরনের হয়রানির কথা শুনেছি। আমি কিছুটা শঙ্কিত ছিলাম। তবে আমার ক্ষেত্রে ভেরিফিকেশনে এসে পুলিশ ফুল ও মিষ্টি দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে গেছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘শুনেছি, ওই পুলিশ কর্মকর্তা খোঁজ-খবর নেওয়ার পর মিষ্টি নিয়ে বাসায় আসেন এবং ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এ ঘটনায় আমি ও আমার পরিবার মুগ্ধ।’

নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া একই গ্রামের আরও একজন বলেন, ‘আমি ভাবতেও পারিনি, পুলিশ কর্মকর্তা মিষ্টি নিয়ে বাসায় এসে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাবেন। সত্যিই এটি আমার জীবনের স্মরণীয় ঘটনা হয়ে থাকবে।’

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আকরামুল হাসান বলেন, ‘নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া ৯ জনের বাড়ি আমার থানার মধ্যে। সুপারিশপ্রাপ্তদের মধ্যে পুলিশ ভেরিফিকেশন নিয়ে ভীতি ও নেতিবাচক ধারণা থাকে। সে ধারণা ভেঙে দিতে আমি তাদের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়েছিলাম।’ তিনি আরও বলেন, ‘কয়েক লাখ পরীক্ষার্থীর সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে উজিরপুর উপজেলার ৯ জন শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়ে চাকরিতে নিয়োগের সুপারিশ পেয়েছেন। নিঃসন্দেহে তারা অনেক মেধাবী। সেজন্যও তাদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো।’


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১২৫৩ বার

আপনার মন্তব্য