যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ২১ Jul, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 11:39am

|   লন্ডন - 06:39am

|   নিউইয়র্ক - 01:39am

  সর্বশেষ :

  বিশ্ব সিলেট সম্মেলন ২০১৮-এর পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী পরিষদ ঘোষণা   মিতালী মুখার্জী গাইবেন সিডনীতে   বরিশাল বিভাগ সমিতির আয়োজনে বনভোজন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত   বিশ্বের ৪ কোটি মানুষ ‘আধুনিক দাসত্বে’র কবলে, যুক্তরাষ্ট্রে ৪ লক্ষাধিক   গাড়িতে চড়েন গৃহকর্মী, পরেন ২৫ লাখের গয়না!   দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্টের সাজা বেড়ে ৩২ বছর   এইচএসসিতে ফেল করায় ৩ ছাত্রীর আত্মহত্যা   বিএনপির বিশাল সমাবেশ : নির্বাচনে যেতে তিন শর্ত   ‘সরকার বিএনপি-জামায়াতের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি সৃষ্টি করছে’   সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত   ‘সালাম’ ভালোবাসার নির্মল সেতুবন্ধন   ‘ইহুদি জাতীয় রাষ্ট্র’ বিল পাস করেছে ইসরাইলি পার্লামেন্ট   সাইপ্রাসে নৌকাডুবিতে ১৯ অভিবাসীর মৃত্যু   কক্সবাজারে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ২ জন নিহত   দুই বছর জারি থাকা জরুরি অবস্থা তুলে নিল তুরস্ক

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

সরকারি চাকরি থেকে স্বাধীনতা বিরোধীদের বরখাস্ত করতে হবে : নৌ-পরিবহনমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৫-১৬ ১৩:৩০:০৯

নিউজ ডেস্ক: নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, সরকার বিরোধী নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত জামায়াত-শিবির ও স্বাধীনতা বিরোধীদের সরকারি চাকরি থেকে বরখাস্ত করতে হবে।
তিনি বলেন, স্বাধীনতা বিরোধীরা সরকারি চাকরিতে বহাল থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে ও সরকার বিরোধী নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে- তাদের চিহ্নিত করতে হবে।
স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী রাজাকারের সন্তানরা যাতে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ না পায় তা নিশ্চিত করার দাবি জানান তিনি।
শাজাহান খান আজ রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা রক্ষা এবং ৬-দফা দাবি সংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ, আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন এবং মুত্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের যৌথ উদ্যোগে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম-সচিব রোকেয়া প্রাচীরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সংসদ সদস্য শিরীন আক্তার, অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি শামসুদ্দিন আহমেদ মানিক, নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুর রশিদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপচার্য অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন, সেক্টরস কমান্ডার্স ফোরামের মহাসচিব হারুন হাবিব, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এম এ আরাফাত, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মালেক মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমত কাদির গামা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সুলতান আহমেদ বক্তব্য রাখেন ।
নৌ-পরিবহনমন্ত্রী বলেন, আমরা কোটা সংস্কার আন্দোলনের বিরোধী নই, মেধাবী শিক্ষার্থীদের সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ব্যাপারেও আমাদের কোন দ্বিমত নেই, কিন্তু স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী রাজাকারের সন্তানরা যাতে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ না পায় তা নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেপেথ্যে স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত শিবিরের সক্রিয় কর্মীরা জড়িত রয়েছে। কোটা সংস্কারের নামে হত্যার গুজব ছড়িয়ে উস্কানী দিয়ে যারা নাশকতা, নৈরাজ্য ও সন্ত্রাস সৃষ্টি করেছে তাদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।
শাজাহান খান বলেন, একাত্তরে পাকিস্তানের হানাদার বাহিনী ও রাজাকারারা যেভাবে মুখোশ পড়ে নিরস্ত্র মা-বোনদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল, ঠিক একই কায়দায় সম্প্রতি রাতের অন্ধকারে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা মুখোশ পড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাস ভবনে হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে। তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।
স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে নির্মূল করার আহ্বান জানিয়ে নৌ-পরিবহনমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার চেতনা রক্ষায় সব অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে।
তিনি বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি একের পর এক যড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে, তারা রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাট করে বিদেশে পাচার করেছে, তারা কিন্তু এখনো বসে নেই, আগামী জাতীয় নির্বাচনেও তারা ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে পরাজিত করতে সর্বশক্তি ব্যয় করবে। তাদের বিরুদ্ধে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
স্বাধীনতা বিরোধীদের লুটপাটের অর্থ বর্তমানে জঙ্গি তৎপরতায় ব্যয় হচ্ছে, তাদের অর্থ এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বাজেয়াপ্ত করে রাষ্ট্রীয় অনুকূলে ন্যাস্ত করার দাবি জানান তিনি ।
মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে কটাক্ষকারী বেগম খালেদা জিয়া, তার পুত্র তারেক রহমানসহ স্বাধীনতা বিরোধীদের পশ্চাত্যের জেনোসাইড ডিনায়েল আইনের আদলে আইন প্রণয়ন করে দেশদ্রোহী হিসেবে বিচার করতে হবে।
সভায় শিরিন আক্তার বলেন, আন্দোলনের নামে যারা ২০১৩ থেকে ১৬ সাল পর্যন্ত আগুনে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করেছে, যাদের নেতৃত্বে যানবাহনে অগ্নিসংযোগ হয়েছে, সেই খালেদা-তারেক রহমানকে যারা নির্বাচিত করতে চায় তারাই স্বাধীনতা বিরোধী, তাদের বিরুদ্ধে সর্বস্তরে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৫৮২ বার

আপনার মন্তব্য