যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 07:24am

|   লন্ডন - 01:24am

|   নিউইয়র্ক - 08:24pm

  সর্বশেষ :

  নিউইয়র্কে নববর্ষ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের শুভেচ্ছা বিনিময়   প্যারেডের থ্রিডি প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাফলার ফান্ডরাইজিং অনুষ্ঠিত   নিউ ইয়র্কে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, গ্রেপ্তার ৪   আরব আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীকে আশ্রয় দিলে এক লাখ দিরহাম জরিমানা   টয়লেট টিস্যুতে ‘আল্লাহ’, বিক্ষুব্ধ যুক্তরাজ্যের মুসলিমরা   ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন   বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদের তালিকায় শেখ হাসিনা   শান্তি ও মানবাধিকারের অনন্য আশ্রয়ভূমি ফ্রান্স   কারাগারে ‘মারা গেছেন’ মসজিদে নববীর এক ইমাম   ক্যালিফোর্নিয়ায় বাংলাদেশি খুদে শিক্ষার্থীর চমক, ৯ বছরেই কলেজে   আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মোস্তাফিজ   সালমান খানকে প্রত্যাখ্যান করেছিলেন তিনি   কৃষ্ণ সাগরে দুই জাহাজে আগুন, নিহত ১০   প্যাটারসন সিটির পাবলিক স্কুলে হালাল ফুড   আর্জেন্টাইন ফুটবলারসহ দুজনকে নিয়ে বিমান নিখোঁজ

মূল পাতা   >>   নিউইয়র্ক

মাহফুজুর রহমানের দাফন সম্পন্ন, জানাজায় শত শত মানুষ

ইউএনএ, নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-১০-৩০ ১৩:৪১:২১

মাহফুজুর রহমানের জানাযা, ইনসেটে মাহফুজুর রহমান

ইউএনএ: দীর্ঘ প্রায় তিন বছরের মতো মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেছেন কমিউনিটির পরিচিত মুখ, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা ও খুলনা সোসাইটি ইউএসএ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইবনে মাহফুজুর রহমান মাহফুজ (৫৩)। চলে গেলে না ফেরার দেশে। গত ২৬ অক্টোবর শুক্রবার রাত সোয়া ১০টার (নিউইয়র্ক সময়) দিকে তিনি ফ্লাশিং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন (ইন্নানিল্লাহি ওয়া ইন্ন ইলাইহে রাজেউন)। ব্রেন হেমারেজের শিকার হয়ে গুরুতর অসুস্থ্য হন মাহফুজ। সেই থেকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালের বেডেই কাটে তার জীবন। মৃত্যুকালে তিনি বৃদ্ধা মা ও একমাত্র পুত্র ছাড়াও ছয় ভাই ও এক বোন সহ অনেক আতœীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব রেখে গেছেন। মাহফুজের মরদেহ শনিবার (২৭ অক্টোবর) ভোর রাতে হাসপাতাল থেকে নিয়ে রিজউডস্থ পাক ফিউনারেল হোমে রাখা হয়। তার বেদনাবিধুর অকাল মৃত্যুতে কমিউনিটির সর্বত্রই শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এদিকে মরহুম মাহফুজুর রহমানের জানাজায় সর্বস্তরের শত শত প্রবাসীর অংশগ্রহণ করেন। জানাজা শেষে তার মরদেহ নিউজার্সীতে দাফন করা হয়। রোববার (২৮ অক্টোবর) বাদ জোহর জ্যামাইকার দারুস উলুম মসজিদ ও মাদ্রাসায় তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, ১৯৬৫ সালে খুলনায় জন্মগ্রহণকারী মাহফুজুর রহমান ২০১৫ সনের ২২ নভেম্বর নিউইয়র্কের বাসায় ব্রেন হেমারেজের শিকার হন। এই ঘটনার পর পরই মাহফুজকে স্থানীয় এলমহার্স্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার পর পরবর্তীতে তাকে ম্যানহাটানস্থ প্রেস বাইটেরিয়ান হসপিটালে স্থানান্তর করা হয়। পরবর্তীতে তাকে ফ্লাশিং হাসপাতাল এবং সেখান থেকে ফ্লাশিং-এর একটি রিহাব সেন্টারে তাকে ভর্তি করা হয়। সর্বশেষ তিনি ফ্লাশিং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ব্রেন হেমারেজের পর থেকেই তিনি সঙ্গাহীন অবস্থান মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছিলেন।
যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র দীর্ঘদিনের সহযোদ্ধা, মিষ্টভাষী ব্যক্তিত্ব খুলনা’র সাবেক ছাত্রনেতা মাহফুজুর রহমান গুরুতর অসুস্থ হওয়ার পর ইতিমধ্যে তার সংসারে ঘটে যায় অনেক বিয়গান্তক ঘটনা। নানা কারণে গত বছর তার স্ত্রী নাদিয়া আফরোজ সুমি (৩৯) নিউইয়র্কেই আতœহত্যা করেন। বাবার অসুস্থতা আর মায়ের আতœহত্যার পর তাদের একমাত্র পুত্র সামিন ফারুকি থাকেন চাচার কাছে।
গত সপ্তাহে মাহফুজুর রহমানের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে পুনরায় ফ্লাশিং হাসপাতালের ইন্টেনসিভ কেয়ারে রাখা হয়। সেখানেই তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। গত ১৮ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু ও যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আহমেদ তাকে দেখতে হাসপাতালে যান।
দাফন: মাহফুজের নামাজে জানাজা শেষে মরহুমের ছোট ভাই ইবনে মাসুদ রহমানের তত্ত্বাবধানে জ্যামাইকা থেকে তার মরদেহ নিউজার্সীতে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর রোববার বিকেলে নিউজার্সীর মুসলিম কবর স্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়। এসময় তার অন্যান্য নিকটাত্বীয় ছাড়াও ঘনিষ্ট বন্ধুজন উপস্থিত থেকে কবর দেন এবং বিশেষ মুনাজাতে অংশ নেন।  
নামাজে জানাজা: রোববার বাদ জোহর জ্যামাইকার দারুস উলুম মসজিদ ও মাদ্রাসায় তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। মাদ্রাসা সংলগ্ন পার্কিং লটে অনুষ্ঠিত জানাজা নামাজে ইমামতি করেন ঢাকাস্থ জাতীয় মসজিদ বাতুল মোকাররম-এর সাবেক ইমাম মুফতি রফিক আহমেদ। জানাজায় কমিউমিটির সর্বস্তরের শত শত মানুষ অংশ নেন। এর আগে জোহরের নামাজের আগে মুরহুম শাহফুজুর রহমানের ছোট ভাই ইবনে মাসুদ রহমান সহ অন্যান্যের মধ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন, দারুস উলুম মসজিদ-এর ইমাম ও মাদ্রাসার প্রিন্সিপ্যাল মওলানা ইয়ামীন, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ স¤্রাট ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু এবং ডা. মাসুদুর রহমান। এসময় তারা মরহুম মাসুদুর রহমানকে একজন ভালো ও সমাজবেসক হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, ব্যক্তিগত জীবনে মাহফুজ হাসি-খুশী, মিষ্টভাষী আর পরপোকারী মানুষ ছিলেন। বক্তারা তার বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেন। 

জানাজায় কমিউনিটির উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যে সাবেক ছাত্রনেতা ও বিএনপি নেতা গোলাম মওলা মানিক, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ স¤্রাট ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক’র ট্রাষ্টিবোর্ডের সদস্য কাজী আজহারুল মিলন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম ও আতাউর রহমান সেলিম, ডা. মাসুদুর রহমান, বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর আনোয়ার হোসেন, সোসাইটির নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ‘রব-রহুল’ প্যানেলের সভাপতি পদপ্রার্থী আব্দুর রব মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী রুহুল আমীন সিদ্দিকী এবং ‘নয়ন আলী’ প্যানেলের সভাপতি পদপ্রার্থী কাজী আশরাফ হোসেন নয়ন ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী মোহাম্মদ আলী, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট ইসমাইল খান আনসারী, চট্টগ্রাম সমিতি ইউএসএ’র সাবেক সভাপতি কাজী সাখাওয়াত হোসেন আজম, মুন্সিগঞ্জ-বিক্রমপুর এসোসিয়েশন ইউএসএ’র সভাপতি শাহাদৎ হোসেন, বিএনপি নেতা শরীফ আহমেদ লস্কর, আজাদ বাকের, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ আহমদ, যুবদল নেতা ও দেবিদ্ধার কলেজের সাবেক ভিপি জহির মোল্লা, আমানত হোসেন আমান, মহিদুল ইসলাম মুহিত, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি দরুদ মিয়া রনেল, জেবিবিএ নেতা হারুণ ভূঁইয়া, জে মোল্লা সানী, বাংলাদেশ সোসাইটির ক্রিড়া ও আপ্যায়ন সম্পাদক নওশেদ হোসেন সিদ্দিকী, সোসাইটির সাবেক কর্মকর্তা সৈয়দ এনায়েত, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সহ সভাপতি মুক্তার হোসেন, বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক ইয়াকুত হোসেন প্রমুখ। 

শোক প্রকাশ: কমিউনিটির পরিচিত মুখ, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা ও খুলনা সোসাইটি ইউএসএ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইবনে মাহফুজুর রহমান মাহফুজ-এর ইন্তেকালে কমিউটিটির সর্বস্তরের ব্যক্তিবর্গ গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে তার বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেছেন। সাংবাদিকদের মধ্যে শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এবং বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক ও টাইম টেলিভিশন-এর সিইও আবু তাহের, সাপ্তাহিক পরিচয় সম্পাদক নাজমুল আহসান, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ সিরাজুল ইসলাম ও এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ, ভোয়া’র নিউইয়র্ক প্রতিনিধি আকবর হায়দার কিরণ, ফটো সাংবাদিক নিহার সিদ্দিকী প্রমুখ।

শোক ও সমবেদনা প্রকাশকারীদের মধ্যে আরো রয়েছেন: বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক’র সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি গিয়াস আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মিজানুর রহমান ভূইয়া (মিল্টন ভূইয়া), সাবেক সহ সভাপতি সামসুল ইসলাম মজনু, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, বিএনপি নেতা ফারুক চৌধুরী, ডা. জাহিদুন্নবী দেওয়ান, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ আহমদ, নর্থ বেঙ্গল ফাউন্ডেশন ইউএসএ’র-এর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, নিউজার্সী বিএনপি’র সভাপতি সৈয়দ জুবায়ের আলী ও সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি শেখ হায়দার আলী, নিউইয়র্ক ষ্টেট বিএনপি নেতা ইমরান শাহ রন, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট মোহাম্মদ সেলিম (বক্সার), আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন রাজু, সঙ্গীত শিল্প শাহ হামজা প্রমুখ।


এলএবাংলাটাইমস/এনওয়াই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৫৭৪ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর