যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 11:20pm

|   লন্ডন - 06:20pm

|   নিউইয়র্ক - 01:20pm

  সর্বশেষ :

  জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন   আমেরিকারপ্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের প্রমাণ মিলেছে   খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া শপথ নেয়ার প্রশ্নই আসে না: মওদুদ   তারেক-জোবাইদার ব্রিটেনের ৩ ব্যাংক হিসাব জব্দের নির্দেশ দিল ঢাকার আদালত   ভারতের নির্বাচনে বাংলাদেশে যে প্রভাব পড়তে পারে   নুসরাত হত্যা : আ.লীগ নেতা রুহুল আমিন আটক   দেশের গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করছে : তথ্যমন্ত্রী   গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ   আল্লাহর রহমতে আ.লীগের জনপ্রিয়তা আরও বেড়েছে : প্রধানমন্ত্রী   নতুন চমক নিয়ে আসছেন এআর রহমান   ইতালিতে বারবিকিউয়ের আগুন থেকে দাবানল, দুই শিক্ষার্থীকে ২৭ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা   দেশেই উৎপাদন হবে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ গাড়ি   বিমানবন্দরে অস্ত্র গুলিসহ উপজেলা চেয়ারম্যান আটক   নুসরাতকে নিয়ে ছোট ভাই রায়হানের আবেগঘন স্ট্যাটাস   কৌশলগত ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া

মূল পাতা   >>   খেলাধুলা

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশে করল বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-১২-০২ ১২:১৯:৫৩

নিউজ ডেস্ক: টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের পদচারণা ১৮ বছর হয়ে গেল। এ যাত্রায় সাফল্য-ব্যর্থতায় অনেক কিছুরই স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এবারের ঢাকা টেস্টকে রাখতে হবে ভিন্ন জায়গায়, অনেক সাফল্যের ওপরে। চাইলে সবার ওপরেও রাখা যায়।

প্রথমবারের মতো কোনো পেসার ছাড়া টেস্ট ম্যাচ খেলল বাংলাদেশ। একাদশে দ্বিতীয়বারের মতো চার স্পিনার নিয়ে ভারতকে পেছনে ফেলল। বছরের আটজনের টেস্ট অভিষেক। কতকিছুই না হলো মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বধে কঠিন পরিকল্পনা।

টেবিলের কঠিন পরিকল্পনা মাঠে বাস্তবায়ন করলেন খেলোয়াড়রা। ফলাফলও আসল বাংলাদেশের পক্ষে। অনেক প্রথমের সঙ্গে যুক্ত হলো আরো দুটি। প্রথমবারের মতো প্রতিপক্ষকে ফলোঅন করাল বাংলাদেশ। পাশাপাশি প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়েছে প্রতিপক্ষকে। তাইতো এ জয় বাংলাদেশের সবচেয়ে বড়, সবচেয়ে স্মরণীয়।

চট্টগ্রাম টেস্টের পর ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশ জিতেছে ইনিংস ও ১৮৪ রানের বিশাল ব্যবধানে। নিজেরা ৩৮ বার ইনিংস ব্যবধানে হারের লজ্জা পাওয়ার পর প্রথমবার প্রতিপক্ষকে এ লজ্জা দিল। বাংলাদেশের চতুর্থ সিরিজ জয় এবং তৃতীয় হোয়াইটওয়াশের স্বাদ।

ইতিহাসের পাতায় অক্ষয় কালিতে নিজের নাম লিখিয়ে রাখলেন সাকিব আল হাসান। তার নেতৃত্বেই দেশ ও দেশের বাইরে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করল বাংলাদেশ। প্রথমবার ২০০৯ সালে ওদের মাটিতে, নয় বছর পর নিজেদের মাটিতে।

সাকিবের হাতে ওঠা রূপালি রঙের ট্রফি জয়ের নায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ। টেস্টে দ্বিতীয়বারের মতো ১২ উইকেট পেলেন মিরাজ। প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে তার পকেটে ঢুকল ৫ উইকেট। ১২ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সেরা টেস্ট বোলিং ফিগার তারই দখলে। এর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৫৯ রানে নিয়েছিল ১২ উইকেট। এবার ১১৭ রানে শিকার ১২টি।

ক্যারিবীয়দের জন্য পাতা হয়েছিল স্পিন ফাঁদ। ওই ফাঁদেই আটকে পড়ল সফরকারীরা। ইনিংস ব্যবধানে জয়ের জন্য রোববার তৃতীয় দিন ১৫ উইকেট দরকার ছিল বাংলাদেশের। কাজটা শুধু কঠিনই না, দুরূহ। তবুও অসাধ্য সাধন করে দেখাল বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামের মতো ঢাকাতেও আড়াই দিনে শেষ টেস্ট। রোববার প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটে ৭৫ রানে দিন শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ ৫ উইকেট তুলে নিতে সকালে বাংলাদেশের সময় লাগে মাত্র ৫১ মিনিট। বাংলাদেশের করা ৫০৮ রানের জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস শেষ ১১১ রানে।

আগের দিনের ৩ উইকেটের সঙ্গে আজ আরো ৪ উইকেট নিয়েছেন মিরাজ। সব মিলিয়ে মিরাজের পকেটে গেছে ৭ উইকেট। ৫৮ রানে ৭ উইকেট নিয়ে মিরাজ ক্যারিয়ার সেরা বোলিং উপহার দিয়েছেন। 

ফলোঅন এড়াতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দরকার ছিল ৩০৯! বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় সাহস পেলেন সাকিব। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ প্রতিপক্ষকে ফলোঅন করাল। ৩৯৭ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাটিংয়ে নেমে আবারো ব্যাটিং বিপর্যয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এবারও স্পিন বিষে নীল ক্যারিবীয়রা। প্রথম সেশনেই নেই ৪ উইকেট। দ্বিতীয় সেশনে হারাল শেষ ৬টি।

প্রথম ইনিংসের বিপর্যয়ের পর দ্বিতীয় ইনিংসে সফরকারীদের সংগ্রহ ২১৩। ওই শিমরন হেটমায়ারই যা করে দেখাল, ৯২ বলে ১ চার ও ৯ ছক্কায় করলেন ৯৩। ৯ ছক্কা হাঁকিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ডও গড়েছেন। কুমার সাঙ্গাকারা ৩১৯ করার পথে হাঁকিয়েছিলেন ৮ ছক্কা।

আহ! কী দারুণ। স্পিন চতুষ্টয় সাকিব, মিরাজ, তাইজুল ও নাঈম প্রত্যেকেই পেলেন উইকেট। মিরপুরে উড়ল বাংলাদেশের পতাকা। ১২ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা মিরাজ। আর ব্যাট হাতে ১১৫ রান ও বল হাতে ৯ উইকেট নিয়ে সাকিব হলেন সিরিজসেরা।

দ্বিতীয় দফায় অধিনায়ক হওয়ার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর দিয়ে শুরু করেছিলেন সাকিব। পেয়েছিলেন তিক্ত অভিজ্ঞতা। দুই টেস্টই বাংলাদেশ হেরেছিল ইনিংস ও বিশাল রান ব্যবধানে। ঘরের মাঠে আবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ দিয়ে শুরু সাকিবের। এবার সাকিবের হাত ধরে উড়ল বিজয়ের পতাকা।

জুলাইয়ে নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এবার ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করেই বদলা নিল বাংলাদেশ। এ যেন, হোয়াইটওয়াশের বদলা হোয়াইটওয়াশে।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৬১৫ বার

আপনার মন্তব্য