যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 04:42pm

|   লন্ডন - 10:42am

|   নিউইয়র্ক - 05:42am

  সর্বশেষ :

  ‘সম্রাট-পাপিয়ারা চতুর্থ সারির নেতা, তা হলে প্রথম সারির নেতারা কী করছে ভাবুন’   করোনাভাইরাস আরো ভয়ংকর : ২৬১৯ জনের মৃত্যু   অবর্ণনীয় বর্বরতা: ফিলিস্তিনিকে হত্যার পর বুলডোজার দিয়ে পিষে দিল ইসরাইলি সেনারা   সালমান শাহ আত্মহত্যা করেছিলেন : পিবিআই   হিন্দিতে ট্রাম্পের টুইট   মাহাথির মোহাম্মদের পদত্যাগ   মাতৃভাষায় ভাব প্রকাশ আল্লাহর অন্যতম নেয়ামত   ঢাকায় আবারও ডেঙ্গুর আশংকা, ১১ এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ   কাদের-ফখরুলের সেই আলোচিত ফোনালাপ ফাঁস   অ্যান্ড্রয়েড ১১ সংস্করণে ওয়ান-টাইম লোকেশন অ্যাকসেস   পুতিন, ম্যার্কেল ও ম্যাক্রোঁর সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান   ‘বাহুবলি ২’ সিনেমায় ডোনাল্ড ট্রাম্প!   ওজন কমাতে স্বাস্থ্যকর বাঁধাকপির স্যুপ   বয়সে নয়, মানসিক চাপেও চুল পাকে   খালেদা জিয়ার পরবর্তী জামিন শুনানি বৃহস্পতিবার

মূল পাতা   >>   খেলাধুলা

বিশ্বকাপের ফটোসেশনে ছিলেন না সাকিব, অসন্তুষ্ট বোর্ড সভাপতি

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৪-২৯ ১৫:৫৪:৩৯

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন হয়েছে। সে উপলক্ষ্যে ফটোসেশন করেছে বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সদস্যরা। তবে সেখানে ছিলেন না দলের অন্যতম সদস্য সাকিব আল হাসান। সাকিব না থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

আগেই জানা গিয়েছিল, বিশ্বকাপ জার্সির উন্মোচন হবে সোমবার। তার আগে দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করেছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। আয়ারল্যান্ড সফরের আগে সংবাদ সম্মেলন হলেও আলোচনা হয় মূলত বিশ্বকাপের বিষয় নিয়েই।

সংবাদ সম্মেলন শেষে খেলোয়াড়দের নিয়ে বসেছেন বোর্ড প্রধান। তারপর সবাইকে নিয়ে মধ্যাহ্ণভোজে বসেন তিনি। ফলে ফটোসেশন শুরু হতে হতে বিকেল চারটা। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি পরেই ফটোসেশন বলেই এত কৌতুহল ছিল।

ফটোসেশনে কৌতুহল তো মিটল, কিন্তু জন্ম নিল নতুন এক প্রশ্ন! ফটোসেশনে বিশ্বকাপ দলের অন্যসব সদস্য থাকলেও ছিলেন না সাকিব। বিশ্বকাপে যিনি বাংলাদেশের অন্যতম প্রাণভোমরা। অথচ আইপিএলল শেষে গতকালই দেশে ফিরেছেন তিনি।

স্বভাবতই বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। আজ দলের অনুশীলণেও ছিলেন তিনি। কিন্তু তারপরই কাউকে কিছু না জানিয়ে চলে যান এই অল রাউন্ডার। এমতন অনুষ্ঠানে কেন নেই সাকিব- এই প্রশ্নের জবাবে অনেকটা অসন্তোষের স্বরে বোর্ড সভাপতি বলেছেন, “দুঃখজনক। আর কি বলব। এটা দলের ফটোসেশন ছিল। আমি এসেই যখন ঢুকছি তখন ফোন করেছিলাম সাকিবকে। কোথায় তুমি, বলল ‘আমি তো চলে এসেছি। আপনার বাসায় আসব রাত্রে। আমি বললাম ‘এখনি তো দেখা হওয়ার কথা’। সে বলল ‘আমি তো বেরিয়ে গিয়েছি’। আমি এসে জিজ্ঞেস করে জানলাম যে ওকে আগেই জানানো হয়েছিল যে আজ ফটোসেশন। জাতীয় দল যাচ্ছে, একসঙ্গে ফটোসেশন। সবাই থাকবে। আশা করেছিলাম সে থাকবে, কিন্তু সে নাই।”

সাকিবের এমন অনুপস্থিতি দলের ইউনিটিতে কোন প্রভাব ফেলবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে পাপন জানালেন, সাকিবের এমন আচরণে দলের অন্যরা অভ্যস্ত হয়ে গেছে। বিষয়টাকে তিনি সাকিবের জন্যই দুর্ভাগ্য মনে করছেন, ‘আমি মনে করে এটা ওর জন্যই দুর্ভাগ্য। ও যে আমাদের বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে থাকতে পারল না ফটোসেশনে, আমি মনে করি ওরই কপাল খারাপ।’

তবে যেহেতু বুধবারই দল দেশ ছাড়ছে তাই বিষয়টা নিয়ে আপাতত চুপ থাকছে বোর্ড। সেই সাথে এই বার্তাও দিয়ে রাখলেন বিষয়টা মেনে নেবে না বোর্ড, ‘ ‘প্রশ্নই উঠে না। (সাকিবের মেজাজ বুঝে চলা)। যেহেতু পরশু দিন দল চলে যাচ্ছে এটা নিয়ে তাই বেশি কিছু বলতে চাইছি না। তবে আমি মনে করি এটা দুঃখজনক।’

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২৯৯ বার

আপনার মন্তব্য