যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ২৪ Jun, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 08:39pm

|   লন্ডন - 03:39pm

|   নিউইয়র্ক - 10:39am

  সর্বশেষ :

  নিউজার্সিরতে বাংলাদেশের নামে সড়ক উদ্বোধন   সড়কের পর সিলেটের সাথে সারাদেশের ট্রেন যোগাযোগও বন্ধ   কুলাউড়ায় ট্রেন খালে: ৪ জনের লাশ উদ্ধার, আহত আড়াই শতাধিক   ‘মুরসির রক্তের প্রতিটি ফোটা আমাদের নতুনভাবে উজ্জীবিত করবে’   সরকারি দলে থাকতে না পেরে সুলতান মনসুরের আফসোস   ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়ার অঙ্গীকার: দলের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে শেখ হাসিনা   মেনন গ্রুপ বঙ্গবন্ধুর বিরোধিতা করত: শেখ সেলিম   জুলাই থেকে ভারতে দেখা যাবে বিটিভি   ইথিওপিয়ার সেনাপ্রধান ও রাজ্যপ্রধানকে গুলি করে হত্যা   ওমরাহ ভিসা স্থগিত করেছে সৌদি আরব   যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে সাবেক কর্মীর ফাঁসি কার্যকর করেছে ইরান   নাসায় ফ্যালকন-নাইন স্পেস শাটলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ   দক্ষিণ ইংল্যান্ডে ঘণ্টায় এক হাজার বজ্রপাত!   সৌদি আরবের কাছে ট্রাম্পের অস্ত্র বিক্রি আটকে দিল মার্কিন সিনেট   ঢাকা-সিলেট সড়ক যোগাযোগ বন্ধ, বিকল্প সড়কে ভাঙন

মূল পাতা   >>   সিলেট

ওসমানী মেডিকেলে রোগীর নাতনিকে ধর্ষণ, ইন্টার্ন চিকিৎসক আটক

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৭-১৬ ১২:৪৮:১৩

নিউজ ডেস্ক: সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন এক রোগীর নাতনিকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রোববার রাতে হাসপাতালের চতুর্থ তলার ৭ নং ওয়ার্ডের ডিউটি চিকিৎসকের কক্ষে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সোমবার হাসপাতাল থেকে ইন্টার্ন চিকিৎসক মাক্কাম আহমদ মাহিনকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি ময়মনসিংহ মুক্তাগাছার মীর মখলিছুর রহমানের ছেলে।

ভুক্তভোগীর বাবা বলেন, ‘গত ৯ জুলাই টনসিলের অস্ত্রোপচারের জন্য আমার শাশুড়িকে হাসপাতালের তৃতীয় তলার ৮নং ওয়ার্ডের ১৪ নং বেডে ভর্তি করি। সেদিন থেকেই নবম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ে তার নানির দেখাশোনার কাজ করছিল।’

তিনি বলেন, ‘রোববার রাতে শাশুড়ির গলায় অস্ত্রোপচার হয়। রাত দুইটার দিকে ডিউটি চিকিৎসক মাহিন কাগজপত্র নিয়ে আমার মেয়েকে তার কক্ষে যেতে বলেন। আমার মেয়ে কক্ষে গেলে তিনি দরজা লাগিয়ে ধর্ষণ করেন।’

ধর্ষিতার বাবার ভাষ্যে, রাতে অনেকবার ফোন করা হলেও মেয়ে ধরেনি। এক পর্যায়ে ডাক্তার মাহিন ফোন রিসিভ করেন। কিন্তু, মেয়ের বিষয়ে সদুত্তর দিতে পারেননি। এ অবস্থায় আমরা হাসপাতালে এসে তার রুমে মেয়েকে অচেতন অবস্থায় পাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে মেডিকেলে দায়িত্বরত পুলিশকে জানালে তারা ডাক্তার মাহিনকে ওই কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখেন। আর আমরা মেয়েকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেলের ওসিসি ওয়ার্ডে ভর্তি করি।’

বিষয়টি জানাজানি হলে সোমবার সকালে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে। পরে বেলা দুইটার দিকে একটি প্রাইভেটকারে করে হাসপাতালের পেছনের গেইট দিয়ে মাহিনকে পুলিশ থানায় নিয়ে যায়।

এ সময় কোতোয়ালি থানার এসি সাদেক কাউসার দস্তগীর, ওসি মোশাররফ হোসেন সেখানে থাকলেও তারা সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলতে চাননি।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোশাররফ হোসেন পরিবর্তন ডটকমের কাছে তিনি ইন্টার্ন চিকিৎসক মাহিনকে আটকের কথা স্বীকার করেন।

তবে তিনি বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। স্কুলছাত্রীর শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। মামলার পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান ওসি।

এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৯৩৯ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর