যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 04:25pm

|   লন্ডন - 11:25am

|   নিউইয়র্ক - 06:25am

  সর্বশেষ :

  চাকরি করেন স্ত্রী, ৩ বছর ধরে অফিস করেন স্বামী   দারিদ্র্য বিমোচনের গবেষণায় অর্থনীতির নোবেল   রাসূলুল্লাহ (সা.) এর ৫ গুরুত্বপূর্ণ উপদেশ   জেরুসালেমের গভর্নরকে ধরে নিয়ে গেছে ইসরাইলি পুলিশ   সীমান্তে স্থলমাইন স্থাপনের তথ্য অস্বীকার করেছে মিয়ানমার   দেশ থেকে ৯ লাখ কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়েছে : মেনন   ভারতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ১২ জন নিহত   প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করল আবরারের পরিবার   ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে পরোয়ানা হাইকোর্টে স্থগিত   রেমিট্যান্স অ্যাওয়ার্ড পেল ন্যাশনাল ও নেক মানি এক্সচেঞ্জ   র‍্যাব পরিচয় দেয়ার পরও নির্যাতন চালায় ভারতীয় বিএসএফ!   আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার অনুমতি দিতে যাচ্ছে ইসরাইল   ভাইরাল আবরারের সেই ফেসবুক স্ট্যাটাস   কারাগারে অনিককে পেঠালো কয়েদিরা   সৌদি-ইরান মধ্যস্থতায় ছুটছেন ইমরান খান

মূল পাতা   >>   টুকিটাকি

একটা গোলাপি হিরার দাম ৪১৮ কোটি!

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-১১-১২ ০০:৫৯:৫১

নিউজ ডেস্ক: বড় আকারের একটি গোলাপি হীরা আগামী সপ্তাহে জেনেভায় নিলামে তুলবে ক্রিস্টি’স। দুষ্প্রাপ্য হিরাটির জন্য নিলামে প্রায় ৫ কোটি ডলার বা ৪১৮ কোটি টাকা পাওয়া যেতে পারে আশা করছে বিক্রেতারা।

রত্ন বিশেষজ্ঞ জাঁ-মার্ক লুনেল বার্তা সংস্থা এএফপি জানান, ‘দ্য পিঙ্ক লিগাসি’ নামের ১৯ ক্যারেটের এই হিরাটি অত্যন্ত বিরল।

বেশিরভাগ গোলাপি হিরার ওজন এক ক্যারেটেরও কম হয় এটা বিবেচনা করলে এই হিরাটির বিশেষত্ব বুঝতে পারবেন, বলেন তিনি।

এর আভিজাত্যের কারণে এই হিরার নামকরণ করা হয়েছে ‘দ্য পিঙ্ক লেগাসি’। এর আগে এত দামি ও ঐতিহ্যময় রত্ন নিলামে ওঠেনি বলে দাবি করেন তারা।

সাধারণত বেশিরভাগ গোলাপি হিরাই এক ক্যারেটের কম ওজনের হয়। সেখানে এই হিরার ওজন ও ঔজ্জ্বল্য অত্যন্ত বেশি হওয়ায় একে ‘বিরল’ বলে দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা। রঙের ঘনত্বের দিক থেকেও অন্য সব হিরকখণ্ডকে ছাড়িয়ে যাবে পিঙ্ক লিগাসি।

আগে, ২০১৭-র নভেম্বরে হংকংয়ে ১৫ ক্যারেটের একটি গোলাপি হিরা নিলামে ওঠে। প্রতি ক্যারেটের দামের হিসাবে ইতিহাসে সেটিই সবচেয়ে দামি হিরা হিসাবে পরিচিত ছিল।

২০১৩ সালে ৫৯ ক্যারেট ওজনের একটি গোলাপি হিরা নিলামে ওঠে, যার প্রতি ক্যারেটের দাম উঠেছিল প্রায় ১১.৫ কোটি টাকা।

আপাতত এই মূল্যবান হিরকখণ্ডটি জেনেভার ওপেনহাইমার পরিবারের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। বিগত ১০ বছর ধরে এই পরিবার ডে বিয়ার্স ডায়মন্ড মাইনিং সংস্থার কর্ণধার। তবে, এই হিরকখণ্ডের বর্তমান মালিকের পরিচয় দিতে তারা অস্বীকার করেন।

এই হিরকখণ্ডটি দক্ষিণ আফ্রিকার কোনো এক খনি থেকে প্রায় ১০০ বছর আগে পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করেন রত্ন বিশেষজ্ঞ জিন মার্ক লুনেল। তার মতে, এটিই আপাতত পৃথিবীর সেরা হিরকখণ্ড।

তিনি মনে করেন, ১৯২০ সাল নাগাদ এই হিরকখণ্ডটিকে কেটে ১৯ ক্যারেটের ওজন দেয়া হয়। আগামী ১৩ তারিখ পৃথিবীর সেরা এই হিরের কত দাম ওঠে তা নিয়ে অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় রত্ন ব্যবসায়ী ও বিশেষজ্ঞরা।

এলএবাংলাটাইমস/টি/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১০২৮ বার

আপনার মন্তব্য