যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 05:36am

|   লন্ডন - 11:36pm

|   নিউইয়র্ক - 06:36pm

  সর্বশেষ :

  বিশ্বে ধর্ষণের রাজধানী ভারত : রাহুল গান্ধী   রুম্পার মৃত্যু, বয়ফ্রেন্ড সৈকত আটক   রোহিঙ্গা সঙ্কটের আশু সমাধান নেই : কানাডিয়ান হাইকমিশনার   ঢাকায় আলাদা স্থানে দুই বাসে আগুন   ৩২ টাকায় কেনা পেঁয়াজ ২৩০ টাকায় বিক্রি   বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন   বঙ্গবন্ধুকে ডক্টরেট ডিগ্রি দেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়   মেয়ের কবরের সামনে পুলিশ কর্মকর্তা বাবার আহাজারি: বিচার দাবিতে বিক্ষোভ   বেশি পেঁয়াজ খায় সিলেট অঞ্চলে, কম বরিশালে   ইউরোপের প্রথম পরিবেশ বান্ধব মসজিদ উদ্বোধন করলেন এরদোগান   স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি ছাত্রী রুম্পার মৃত্যুর রহস্য উদ্ঘাটন হয়নি ৪৫ ঘণ্টায়ও   বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন সৃজিত-মিথিলা   বন্ধুপ্রতীম ভারত বাংলাদেশের জন্য আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রীর   ভারত থেকে বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে কড়াকড়ি   ভারতে ধর্ষণের পর হত্যা, চার ধর্ষকই পুলিশের গুলিতে নিহত

মূল পাতা   >>   টুকিটাকি

একটা গোলাপি হিরার দাম ৪১৮ কোটি!

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-১১-১২ ০০:৫৯:৫১

নিউজ ডেস্ক: বড় আকারের একটি গোলাপি হীরা আগামী সপ্তাহে জেনেভায় নিলামে তুলবে ক্রিস্টি’স। দুষ্প্রাপ্য হিরাটির জন্য নিলামে প্রায় ৫ কোটি ডলার বা ৪১৮ কোটি টাকা পাওয়া যেতে পারে আশা করছে বিক্রেতারা।

রত্ন বিশেষজ্ঞ জাঁ-মার্ক লুনেল বার্তা সংস্থা এএফপি জানান, ‘দ্য পিঙ্ক লিগাসি’ নামের ১৯ ক্যারেটের এই হিরাটি অত্যন্ত বিরল।

বেশিরভাগ গোলাপি হিরার ওজন এক ক্যারেটেরও কম হয় এটা বিবেচনা করলে এই হিরাটির বিশেষত্ব বুঝতে পারবেন, বলেন তিনি।

এর আভিজাত্যের কারণে এই হিরার নামকরণ করা হয়েছে ‘দ্য পিঙ্ক লেগাসি’। এর আগে এত দামি ও ঐতিহ্যময় রত্ন নিলামে ওঠেনি বলে দাবি করেন তারা।

সাধারণত বেশিরভাগ গোলাপি হিরাই এক ক্যারেটের কম ওজনের হয়। সেখানে এই হিরার ওজন ও ঔজ্জ্বল্য অত্যন্ত বেশি হওয়ায় একে ‘বিরল’ বলে দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা। রঙের ঘনত্বের দিক থেকেও অন্য সব হিরকখণ্ডকে ছাড়িয়ে যাবে পিঙ্ক লিগাসি।

আগে, ২০১৭-র নভেম্বরে হংকংয়ে ১৫ ক্যারেটের একটি গোলাপি হিরা নিলামে ওঠে। প্রতি ক্যারেটের দামের হিসাবে ইতিহাসে সেটিই সবচেয়ে দামি হিরা হিসাবে পরিচিত ছিল।

২০১৩ সালে ৫৯ ক্যারেট ওজনের একটি গোলাপি হিরা নিলামে ওঠে, যার প্রতি ক্যারেটের দাম উঠেছিল প্রায় ১১.৫ কোটি টাকা।

আপাতত এই মূল্যবান হিরকখণ্ডটি জেনেভার ওপেনহাইমার পরিবারের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। বিগত ১০ বছর ধরে এই পরিবার ডে বিয়ার্স ডায়মন্ড মাইনিং সংস্থার কর্ণধার। তবে, এই হিরকখণ্ডের বর্তমান মালিকের পরিচয় দিতে তারা অস্বীকার করেন।

এই হিরকখণ্ডটি দক্ষিণ আফ্রিকার কোনো এক খনি থেকে প্রায় ১০০ বছর আগে পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করেন রত্ন বিশেষজ্ঞ জিন মার্ক লুনেল। তার মতে, এটিই আপাতত পৃথিবীর সেরা হিরকখণ্ড।

তিনি মনে করেন, ১৯২০ সাল নাগাদ এই হিরকখণ্ডটিকে কেটে ১৯ ক্যারেটের ওজন দেয়া হয়। আগামী ১৩ তারিখ পৃথিবীর সেরা এই হিরের কত দাম ওঠে তা নিয়ে অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় রত্ন ব্যবসায়ী ও বিশেষজ্ঞরা।

এলএবাংলাটাইমস/টি/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১০৯৭ বার

আপনার মন্তব্য