যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 05:35am

|   লন্ডন - 11:35pm

|   নিউইয়র্ক - 06:35pm

  সর্বশেষ :

  বিশ্বে ধর্ষণের রাজধানী ভারত : রাহুল গান্ধী   রুম্পার মৃত্যু, বয়ফ্রেন্ড সৈকত আটক   রোহিঙ্গা সঙ্কটের আশু সমাধান নেই : কানাডিয়ান হাইকমিশনার   ঢাকায় আলাদা স্থানে দুই বাসে আগুন   ৩২ টাকায় কেনা পেঁয়াজ ২৩০ টাকায় বিক্রি   বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন   বঙ্গবন্ধুকে ডক্টরেট ডিগ্রি দেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়   মেয়ের কবরের সামনে পুলিশ কর্মকর্তা বাবার আহাজারি: বিচার দাবিতে বিক্ষোভ   বেশি পেঁয়াজ খায় সিলেট অঞ্চলে, কম বরিশালে   ইউরোপের প্রথম পরিবেশ বান্ধব মসজিদ উদ্বোধন করলেন এরদোগান   স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি ছাত্রী রুম্পার মৃত্যুর রহস্য উদ্ঘাটন হয়নি ৪৫ ঘণ্টায়ও   বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন সৃজিত-মিথিলা   বন্ধুপ্রতীম ভারত বাংলাদেশের জন্য আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রীর   ভারত থেকে বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে কড়াকড়ি   ভারতে ধর্ষণের পর হত্যা, চার ধর্ষকই পুলিশের গুলিতে নিহত

মূল পাতা   >>   টুকিটাকি

৪৫ বছর ধরে বিশাল পাতিলে রান্না হচ্ছে স্যুপ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-০১ ১৬:১১:৫২

নিউজ ডেস্ক: কথায় আছে ওয়াইন যত পুরনো হয়, তার স্বাদও তত বাড়ে। বাড়ে দামও। দামি পুরনো জিনিসের তালিকায় এতদিন মদের একচেটিয়া অধিকার রইলেও এবার সেই তালিকায় যোগ হয়েছে আরেক পানীয়। সেটি হচ্ছে- স্যুপ।

থাইল্যান্ডের ব্যাংককে একটি রেস্তোরাঁয় ৪৫ বছর ধরে রান্না করা হচ্ছে একই স্যুপ। পরিবার পরিচালিত ওই রেস্তোরাঁটি ঘিরে গ্রাহকদের আনাগোনা লেগেই আছে। এই স্যুপ খেতেই দেশ-বিদেশ থেকে বহু পর্যটক গিয়ে হাজির হয় ওই রেস্তোরাঁয়।

৪৫ বছর ধরে একই স্যুপ সরবরাহ করে আসছে রেস্তোরাঁটি। এর নাম ওয়াত্তানা পানিচ। রেস্তোরাঁটি বিশাল পাত্রে স্যুপ রান্না করে। দিনশেষে অবশিষ্ট স্যুপটুকু সংরক্ষণ করে রাখে। পরের দিন একই পাত্রে আবার সেই স্যুপ দিয়েই নতুন স্যুপ বানানো হয়। ৪৫ বছর ধরে একই নিয়মে রান্না হচ্ছে স্যুপ। প্রতিদিন একই স্যুপে টাটকা মাংস, মিটবল এবং অন্যান্য নানা উপাদান জুড়ে নতুন করে রান্না করা হয়। ফলে এই স্যুপের স্বাদই আলাদা। কদরও বেশি।

নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রেস্তোরাঁর মালিক নাট্টাপং কৌওয়েনানতাওয়ং। তিনি তার মা ও স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে এই বিশেষ স্যুপটি রান্না করেন। স্যুপটির স্থানীয় নাম নিউয়া টিউন।

নাট্টাপং জানান, ৪৫ বছর ধরে আমাদের স্যুপের ঝোল কোনো দিন রান্নার পরে ফেলে দেয়া হয়নি। এই ঝোল ৪৫ বছর ধরে সংরক্ষণ করা হয়ে আসছে এবং রান্না করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রাচীন এই রন্ধন পদ্ধতিটি স্যুপে একটি স্বতন্ত্র স্বাদ ও গন্ধ যোগ করেছে।

তবে শুধু ব্যাংকক নয়, নিউয়া টিউন স্যুপটি এখন বিশ্বজুড়ে বিখ্যাত। সোশ্যাল মিডিয়াতে অভিনব এই স্যুপের প্রশংসা করে অনেকেই পোস্ট করেছেন।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২২৪ বার

আপনার মন্তব্য