Updates :

        ভোট দিলেন ট্রাম্প, বাইডেন বললেন আসন্ন 'ডার্ক উইন্টার'

        আগাম ভোটারদের টানতে প্রচারণায় ট্রাম্প ও বাইডেন

        ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রস্তাবনা ২১ পাশ হলে কমবে উচ্ছেদ শঙ্কা

        চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

        জার্মানিতে বন্দুকধারীর হামলায় ৬ শিশু নিহত

        বিশ্বব্যাপী একদিনে করোনা আক্রান্ত প্রায় ৫ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার

        ক্যাম্পাস ক্লাব সামিটে অংশ নিচ্ছে চবির ২২ টি সংগঠন

        সৌদিসহ পাঁচ দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহী: ট্রাম্প

        `এই সরকার 'অটো পাসের' সরকার'

        আইনের বাতিঘর ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই

        মাস্ক ব্যবহারে রাষ্ট্রীয় আদেশ জারি করতে হবে: ফাউসি

        করোনা বিপর্যয়: একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

        লিবিয়ায় শান্তির সুবাতাস, ৩ মাসের মধ্যে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার

        করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে ইউরোপজুড়ে কড়া পদক্ষেপ

        রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘের আরও জোরালো ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী

        করোনার টিকায় ব্রাজিলে একজনের মৃত্যু

        চরিত্র বদলাচ্ছে সব ঋতু! কেন?

        করোনা: একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার

        সিদ্ধার্থ সিংহের 'পঞ্চাশটি গল্প' বইটিকে ঘিরে গল্প লেখার প্রতিযোগিতা

        করোনাভাইরাস: লস এঞ্জেলেসে শিথিল হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা

চার দশকে বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা কমেছে দুই-তৃতীয়াংশ!

চার দশকে বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা কমেছে দুই-তৃতীয়াংশ!

বণ্যপ্রাণী কমে যাওয়ার পিছনে অনেকাংশে দায়ী মানুষ

গত চার দশকে পৃথিবীজুড়ে বন্যপ্রাণীর সংখ্যা গড়ে ৬৮% হ্রাস পেয়েছে, যা মোট বণ্যপ্রাণীর প্রায় দুই তৃতীয়াংশ। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা কমেছে ল্যাটিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে, যার পরিমাণ প্রায় ৯৪ %। সম্প্রতি 'ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ ফান্ড' এর প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। 

'দ্য লিভিং প্ল্যানেট রিপোর্ট- ২০২০' শিরোনামের এই প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ১৯৭০ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত প্রায় ৪,৩৯২ প্রজাতির প্রাণীর মধ্যে জনসংখ্যা হ্রাস পেয়েছে। এই তালিকায় রয়েছে স্তন্যপায়ী, সরীসৃপ, পাখি, উদ্ভিদ, জলজ মাছ ও উভচর প্রাণী। গত কয়েক মিলিয়ন বছরের মধ্যে বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা কমে যাওয়ার হার এবারই সর্বোচ্চ।  
গবেষণা প্রতিবেদন অনুসারে, মানুষের মাত্রাতিরিক্ত ভোগবাদী আচরণ, তৃণভূমির রূপান্তর এবং বন ও জলজ এলাকার পরিবর্তনের কারণে পৃথিবীতে বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা দ্রুত হ্রাস পাচ্ছে। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষ পৃথিবীর ৭৫ শতাংশ বরফ-মুক্ত অঞ্চলকে ভোগবাদী আচরণের মাধ্যমে বিনষ্ট করে ফেলেছে। ফলে ভবিষ্যৎ শতকগুলোতে পৃথিবী থেকে পাঁচ লাখ প্রাণী ও উদ্ভিদ এবং পাঁচ লাখ কীটপতঙ্গ সম্পূর্ন বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে। তবে মানুষের খাদ্যাভ্যাস ও ভোগবাদী আচরণ পরিবর্তনের মাধ্যমে এই বিলুপ্তি রোধ করা সম্ভব হবে। 

গবেষণা প্রতিবেদনে দেখা গেছে, সবচেয়ে দ্রুত কমছে মিঠাপানির জলজ প্রাণীর সংখ্যা। ১৯৭০ সালের পর থেকে প্রতিবছর মিঠাপানিতে বসবাস করা স্তন্যপায়ী, সরীসৃপ এবং জলজ মাছের সংখ্যা চার শতাংশ করে কমছে। 

ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ ফান্ডের প্রধান বিজ্ঞানী রেবেকা শো জানান, সবচেয়ে দ্রুত হ্রাস পাচ্ছে মিঠাপানির প্রাণীর সংখ্যা। পাশাপাশি জলজ প্রাণীগুলোর ইকোসিস্টমের ব্যাপক পরিবর্তন ঘটেছে। এটি খুবই উদ্বেগের বিষয়। 


'বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা কমে যাওয়ার পিছনে সবচেয়ে বেশি দায়ী মানুষ' উল্লেখ করে রেবেকা শো বলেন, একুশ শতাব্দীর মানুষের খাদ্যাভ্যাস ও ভোগবাদী আচরণের কারণে বণ্যপ্রাণীর সংখ্যা হুমকির মুখে পড়েছে। মানুষ খাদ্যের জন্য রেইনফরেস্ট বিনষ্ট করে কৃষিজমি তৈরি করছে। তাছাড়া মানুষ পৃথিবীর বায়োক্যাপাসিটির ৫৬ শতাংশের বেশি পুনঃব্যবহার করছে। 

তিনি আরো বলেন, সাধারণত যেসব প্রাণী সম্পূর্ণ বিলুপ্তির পথে, সেসব নিয়েই সাধারণত মানুষ উদ্বেগ প্রকাশ করে থাকে। কিন্তু ক্রমাগত  প্রাণীর সংখ্যা কমে যেতে থাকলে ইকোসিস্টেমে মারাত্মক ব্যাঘাত ঘটে। ফলে অদূর ভবিষ্যতে প্রাণী থেকে মানুষে রোগ ছড়িয়ে যাওয়ার শঙ্কা আরো বাড়বে। 



এলএবাংলাটাইমস/ওএম 

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো খবর