যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 10:28am

|   লন্ডন - 05:28am

|   নিউইয়র্ক - 12:28am

  সর্বশেষ :

  আইসিসি মিয়ানমারে এলে বন্দুক ধরবো : উইরাথু   ২০ বছর পর পার্লামেন্টে ফিরলেন আনোয়ার ইব্রাহিম   নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে পাল্টা ব্যবস্থার হুমকি সৌদির   চার দিনের সফরে সৌদি আরব যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী   একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য ৭০০ কোটি টাকা অনুমোদন   খাশোগি নিখোঁজের ‘বিশ্বাসযোগ্য তদন্ত’ চায় যুক্তরাজ্য-ফ্রান্স-জার্মানি   গ্রামের একটি তৃণমূল বীরের বাদ্যযন্ত্র নিয়ে কাহিনী   অনুভবে নজরুল: জ্যাকসন হাইটসে শতদলের মনোজ্ঞ অনুষ্ঠান   হলিউডে দুর্গাপূজা আগামী ১৯, ২০ ও ২১ অক্টোবর   প্র‌তিভার সন্ধা‌নে ইতা‌লীতে শুরু হ‌চ্ছে দি রাইজিং স্টার   এবার মুম্বাইয়ে বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক অবস্থান   ড. ইউনুসের কারণে পদ্মা সেতুতে অর্থায়ন করেনি বিশ্বব্যাংক : শেখ হাসিনা   অবশেষে বিএনপিকে নিয়ে ‘জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট’র আত্মপ্রকাশ, বিকল্পধারা আউট   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতেও বিচার চলবে   চট্টগ্রামে পাহাড় ও দেয়াল ধসে ৪ জনের মৃত্যু

মূল পাতা   >>   টুকিটাকি

যে রেস্টুরেন্টে বৈধভাবে মানুষের মাংস বিক্রি হয়!

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৭-১২-০১ ১৪:৫২:৩৩

নিউজ ডেস্ক: এই আজব পৃথিবীতে কত যে অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটছে তার কোনো হদিস নেই। আবার মহাজাগতিক বিশ্বে সর্বশ্রেষ্ঠ জীবের পক্ষেই যে সর্ব নিকৃষ্ট জীব হওয়া সম্ভব, তার চাক্ষুস নিদর্শন হচ্ছে বিস্ময়কর এই মানবজাতি। সম্প্রতি জাপানের রাজধানী টোকিওতে একটি খাবার রেস্টুরেন্ট চালু করা হয়েছে। আর সেই রেস্টুরেন্টে প্রকাশ্যেই বিক্রি করা হচ্ছে মানুষের মাংস দিয়ে তৈরি করা নানা রকম খাবার। আপনি হয়তো ভাবছেন, এটা একটি কাল্পনিক কিংবা সম্পূর্ণ অবৈধ রেস্তোরাঁর কথা বলছি। কিন্তু না ব্যাপারটি আসলে তা নয়। জানা যায় ঐ রেস্টুরেন্টটির রয়েছে মানুষের মাংস বিক্রি করার বৈধতাও। টোকিওতে অবস্থিত ঐ রেস্টুরেন্টির নাম ‘The Resoto ototo no shoku ryohin’, নামটি জাপানি ভাষায় রাখা হয়েছে। এই নামের বাংলা অর্থ দাঁড়ায় ‘ খাবারের যোগ্য ভাই’। ইতোমধ্যে জাপানসহ আন্তর্জাতিক বেশ কিছু গণমাধ্যমে ঐ রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়। রেস্টুরেন্টটির প্রতিটি খাবার বেশ উচ্চ দামে বিক্রি করা হচ্ছে বলে জানা যায় মেক্সিকান সংবাদমাধ্যম মেলিনিও থেকে। ঐ রেস্তোরাঁর কর্তৃপক্ষয়ের দাবি এটি বিশ্বের প্রথম রেস্টুরেন্ট, যেখানে বৈধভাবে মানুষের মাংস বিক্রি হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় ঐ রেস্টুরেন্টটি, মৃত মানুষের লাশ কিনে নেয়। এমনকি, জাপানের অনেক মানুষই আছে যারা মৃত্যুর পূর্বে তাদের সেই দেহ ঐ রেস্টুরেন্টটিতে বিক্রয়ের জন্য পরিবারকে জানিয়ে রাখে। রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ প্রত্যেকটি লাশের জন্য ঐ মৃত ব্যক্তির পরিবারকে সর্বনিম্ন £২৭,000 পরিমাণ অর্থ প্রদান করে, যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় তিরিশ লক্ষ তিন হাজার টাকা।

সম্প্রতি আর্জেন্টিনায় বসবাসকারী এক জনৈক পর্যটক জাপানের ঐ মানুষের মাংস বিক্রি করা রেস্টুরেন্টটিতে খেতে গিয়ে তার অভিজ্ঞতার কথা জানায় একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে। তখন তিনি বলেন ‘রেস্টুরেন্টিতে বিক্রি করা মাংসের স্বাদ অনেকটা শূকরের মাংসের মতো, তবে সাধারণ মাংসের তুলনায় ঐ মাংস অনেকটাই শক্ত এবং টাইট।’

তবে মানুষের মাংস বিক্রি করা এই পৃথিবীতে মোটেও বিরল ঘটনা নয়। যুক্তরাজ্যের খ্যাতিমান সংবাদ মাধ্যম দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট থেকে জানা যায়, ২০১৪ সালে রেস্টুরেন্টে মানুষের মাংস বিক্রি করার অপরাধে নাইজেরিয়ার আনাম্ব্রা প্রদেশের একটি রেস্তরাঁ থেকে দেশটির পুলিশ এগারো জনকে গ্রেফতার করেছে।

এলএবাংলাটাইমস/টি/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৫২১ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত