Updates :

        লিবিয়ায় শান্তির সুবাতাস, ৩ মাসের মধ্যে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার

        করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে ইউরোপজুড়ে কড়া পদক্ষেপ

        রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘের আরও জোরালো ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী

        করোনার টিকায় ব্রাজিলে একজনের মৃত্যু

        চরিত্র বদলাচ্ছে সব ঋতু! কেন?

        করোনা: একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার

        সিদ্ধার্থ সিংহের 'পঞ্চাশটি গল্প' বইটিকে ঘিরে গল্প লেখার প্রতিযোগিতা

        করোনাভাইরাস: লস এঞ্জেলেসে শিথিল হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা

        প্রস্তাবনা ১৪: নিজস্ব স্টেম সেল রিসার্চ সেন্টার হবে ক্যালিফোর্নিয়ায়

        দুই মাস পর আবারো যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর রেকর্ড

        শেষ প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কে মুখোমুখি হচ্ছেন ট্রাম্প ও বাইডেন

        আবার করোনা পজিটিভ রোনালদো

        দেশে আরও ২৪ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১ হাজার ৬৯৬ জন

        আফগানিস্তানে মসজিদে বিমান হামলায় নিহত ১২

        আফগানিস্তানে মসজিদে বিমান হামলায় নিহত ১২

        নির্বাচনে ইরান ও রাশিয়ার বাগড়া: তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

        ইমেইলে ডেমোক্র্যাট ‘ভোটারদের ইরানের হুমকি’

        নির্বাচনের আগে পাশ হচ্ছে না দ্বিতীয় নাগরিক প্রণোদনা

        প্রস্তাবনা ১৭, ১৮: ভোটাধিকার বিষয়ে ক্যালিফোর্নিয়াবাসীর জনমত

        যুক্তরাষ্ট্রে করোনা বিপর্যয়: ৩ রাজ্যে সীমিত হলো ভ্রমণ

মধ্যপশ্চিমাঞ্চলে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি: রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত

মধ্যপশ্চিমাঞ্চলে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি: রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত

ছবি: এলএবাংলাটাইমস

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যপশ্চিমাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে ভয়াবহ আকারে বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। উইসকনসিনসহ বেশকিছু রাজ্যে রেকর্ড সংখ্যক বাসিন্দা সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শীতের শুরুতে পুরো দেশের জন্যই এটি একটি অশনি বার্তা।

 


মধ্যপশ্চিমাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ২২ হাজার নতুন সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। এখন পর্যন্ত এই অঞ্চলগুলোতে এটিই সর্বোচ্চ সংখ্যক আক্রান্তের সংখ্যা। এর আগে অক্টোবরের ৯ তারিখ সর্বোচ্চ ২০ হাজার আক্রান্তের রেকর্ড হয়েছিলো।

 


এছাড়াও টানা দশদিন ধরে ওই অঞ্চলের হাসপাতালগুলোতে অব্যাহতভাবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে। উইসকনসিনের হাসপাতালগুলোর ৮২ শতাংশ ইনসেনটিভ কেয়ার করোনা আক্রান্ত রোগী দ্বারা পূর্ণ হয়ে গেছে। এছাড়াও সাধারণ কেবিনগুলোও করোনা রোগী দ্বারা পূর্ণ। হাসপাতালগুলোতে রিসোর্স সংকটও দেখা দিয়েছে।

 


উইসকনসিন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার কমপক্ষে ১০০০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে। গত সাতদিনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ২৫ শতাংশ।

 


এছাড়াও সাউথ ডাকোটা ও নর্থ ডাকোটায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় তিনগুণ। ইউরোপে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এর থেকেও এই আক্রান্তের হার আরো বেশি।

 

 

এলএবাংলাটাইমস /ওএম

শেয়ার করুন