যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 04:23pm

|   লন্ডন - 11:23am

|   নিউইয়র্ক - 06:23am

  সর্বশেষ :

  চাকরি করেন স্ত্রী, ৩ বছর ধরে অফিস করেন স্বামী   দারিদ্র্য বিমোচনের গবেষণায় অর্থনীতির নোবেল   রাসূলুল্লাহ (সা.) এর ৫ গুরুত্বপূর্ণ উপদেশ   জেরুসালেমের গভর্নরকে ধরে নিয়ে গেছে ইসরাইলি পুলিশ   সীমান্তে স্থলমাইন স্থাপনের তথ্য অস্বীকার করেছে মিয়ানমার   দেশ থেকে ৯ লাখ কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়েছে : মেনন   ভারতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ১২ জন নিহত   প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করল আবরারের পরিবার   ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে পরোয়ানা হাইকোর্টে স্থগিত   রেমিট্যান্স অ্যাওয়ার্ড পেল ন্যাশনাল ও নেক মানি এক্সচেঞ্জ   র‍্যাব পরিচয় দেয়ার পরও নির্যাতন চালায় ভারতীয় বিএসএফ!   আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার অনুমতি দিতে যাচ্ছে ইসরাইল   ভাইরাল আবরারের সেই ফেসবুক স্ট্যাটাস   কারাগারে অনিককে পেঠালো কয়েদিরা   সৌদি-ইরান মধ্যস্থতায় ছুটছেন ইমরান খান

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজনীতিবিদরা মাথা ন্যাড়া করছেন

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৭ ১৫:৫১:৩৩

নিউজ ডেস্ক: দক্ষিণ কোরিয়ার বিরোধী দলীয় নেতা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে জনসম্মুখে মাথার চুল ফেলে ন্যাড়া হয়েছেন। সোমবার প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের বাইরে সমর্থক ও সাংবাদিকদের সামনে দাঁড়িয়ে ন্যাড়া হন হোয়াং কিও-আহন।

এর আগে গত সপ্তাহে দুই নারী এমপিও একই কায়দায় ন্যাড়া হয়েছেন। কিন্তু তারা কেন এমন করছেন?

তাদের এই প্রতিবাদ মূলত দক্ষিণ কোরিয়ার নতুন বিচারমন্ত্রী চো কুকের বিরুদ্ধে। চো এর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ উঠেছে। তাই চো এর পদত্যাগ দাবিতে বিরোধী দলের সদস্যরা মাথা ন্যাড়ার এই কর্মসূচি বেছে নিয়েছেন।

আইনের সাবেক অধ্যাপক চো কুক প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের সহযোগী। গত সপ্তাহে তাকে আইনমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। তবে আগে থেকেই কুকের পরিবারের বিরুদ্ধে শিক্ষাগত জালিয়াতি ও আর্থিক অপরাধে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ ছিল। কুকের স্ত্রীও আইনের শিক্ষক। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, মেয়েকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও তার বৃত্তি নিশ্চিত করতে শিক্ষা সনদ নিয়ে জালিয়াতি করেছিলেন।

মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ জানানো অবশ্য দক্ষিণ কোরিয়ার দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য। প্রাচীন কনুফিশীয় শিক্ষা থেকে এটি এসেছে এবং ঐতিহাসিকভাবে একে প্রতিবাদ জানানোর ভাষা হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। ১৯৬০ও ৭০ এর দশকে সেনা শাসনে থাকার সময় ভিন্ন মতাবলম্বীরা প্রতিরোধের চিহ্ন হিসেবে মাথা ন্যাড়া করে রাখতেন। ২০০৭ সালে ইচিওন শহরে বিতর্কিত এক শিল্প কারখানা স্থাপনের প্রতিবাদে শতাধিক বাসিন্দা মাথা ন্যাড়া করেছিলেন। ২০১৮ সালে নারীদের টয়লেট ও পোশাক পরিবর্তনের কক্ষে লুকিয়ে রাখা ক্যামেরার বিরুদ্ধে মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন অনেক নারী।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৮৩ বার

আপনার মন্তব্য