যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ০৫ Jun, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 06:43am

|   লন্ডন - 01:43am

|   নিউইয়র্ক - 08:43pm

  সর্বশেষ :

  সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হতে চেয়েছিলেন জর্জ ফ্লয়েড   বিক্ষোভে বৃদ্ধকে পুলিশের ধাক্কা, উত্তপ্ত নিউ ইয়র্ক   দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩০, আক্রান্ত ২৮২৮   চার হাসপাতালে ঘুরে বিনা চিকিৎসায় সিলেটে বিশিষ্ট ব্যবসায়ীর মৃত্যু   বিশ্বব্যাপী আক্রান্ত ৬৭ লাখ, মৃত তিন লাখ ৯৩ হাজার   লস এঞ্জেলেসে বন্দুক হামলায় নিহত ১   বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশিরা   কৃষ্ণাঙ্গরা কি মানুষ না!   বর্ণবাদ দূরীকরণে সহায়তা দিচ্ছে ব্যাংক অব আমেরিকা   টেক্সাসের সান অ্যান্তিনিওতে পরিবারের ৬ জনের মৃতদেহ উদ্ধার   রক্তবর্ণ নদী, রাশিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি   করোনায় একদিনে গেল আরও ৪৪ প্রাণ, আক্রান্ত ৫৯ হাজার ৬৫০   দেশে ১০ জেলায় বজ্রপাতে ২২ জনের মৃত্যু   লস এঞ্জেলেস কাউন্টিতে বৃহস্পতিবার কারফিউ থাকছে না: শেরিফ   জর্জ ফ্লয়েড হত্যা: বিক্ষোভে ট্রাম্পের মেয়ের সমর্থন

মূল পাতা   >>   লস এঞ্জেলেস

দাবানলে সর্বহারা মার্কিন মাহিলার পাশে বাফলা

নিজস্ব প্রতিবেদন

 প্রকাশিত: ২০১৮-১২-১১ ১৫:৩২:২৮

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশ-বিদেশে একের পর এক মানবকল্যাণমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে ক্যালিফোর্নিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের সর্ববৃহৎ সামাজিক প্লাটফর্ম ‘বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস (বাফলা)’। এবার দাবানলে সর্বস্ব হারানো এক মার্কিন মহিলার পাশে দাঁড়াল সংগঠনটি। গত ৯ ডিসেম্বর রবিবার বেল ক্যানিয়নের ফ্লিন্টলক লেনে বাফলা চ্যারিটির পক্ষ থেকে ঐ মহিলার হাতে তুলে দেওয়া হয় ১২৫০ মার্কিন ডলার ও বড়দিনের উপহার সামগ্রী।

গত মাসের শুরুর দিকে ক্যালিফোর্নিয়ার অভিজাত এলাকা প্যারাডাইজে ভয়াবহ দাবানল ছড়িয়ে পড়ে। দাবানলে পুরো এলাকা পুড়ে ছারখার হয়ে যায়। মৃত্যু হয় ৪২ জনের। আহত হন অসংখ্য। ঘরবাড়ি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েন অনেকে। প্রতিবছর এখানে দাবানল হলেও এবারের দাবানলকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলের ঘটনা হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন বলেছিল, ক্যালিফোর্নিয়ায় এর আগে কখনো এতো ভয়াবহ দাবানল ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়নি।

ঐ এলাকায় বাস করতেন কারেন উইশার ব্রান্ডি (৫৫) নামে এক শ্বেতাঙ্গ নারী। ভাড়া বাড়িতে থাকা ঐ নারী দাবানলে সব হারান। তার ব্যবহৃত জিনিসপত্র এবং ঘর পুড়ে তিনি এখন সর্বহারা। ঐ নারী জানিয়েছেন, যে বাড়িতে তিনি ভাড়া থাকতেন ঐ বাড়িওয়ালা তার পাশে দাঁড়ায় নি। নিজের কোনো রেন্টাল ইন্স্যুরেন্সও না থাকায় সম্পূর্ণ অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েন তিনি। এমতাবস্থায় তার বন্ধু-বান্ধবরা তাকে সহযোগিতা করছে। একসময় তারা বাফলার কাছে সহযোগিতার জন্য আসে। বাফলা চ্যারিটির পক্ষ থেকে সাধ্য অনুযায়ী তাকে এই সহযোগিতা করা হয়।


বাফলা নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, ঐ মহিলাকে এখন সম্পূর্ণ নতুন করে জীবন শুরু করতে হবে। এই অবস্থায় তার প্রচুর অর্থের প্রয়োজন। বাফলার অনুদানটা আসলে কোনো সাহায্য নয়। এটি হচ্ছে একটি সাপোর্ট মাত্র। তবুও ছোট পরিসরে সাধ্য মতো অসহায় ঐ মহিলার পাশে দাঁড়াতে পেরে বংলাদেশি প্রবাসী সংগঠন হিসেবে আমরা গর্বিত।

বিরাট এই ক্ষয়-ক্ষতির পর তিনি সিটি কর্তৃপক্ষ থেকে কোনো সহযোগিতা পাবে কি না- জানতে চাইলে   কারেন উইশার  বলেন, এ ব্যাপারে আমি কিছুই বলতে পারছি না। মাহিলা জানান, দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে তিনি এই বাড়িতে বাস করছেন। অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে বাড়িটিকে ঘিরে। তবুও বাড়ির মালিক তাকে কোনো সহযোগিতা করছেন না। কথা বলতে বলতে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন মহিলা।


তার দুর্দিনে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য কারেন উইশার  বাফলা কর্তৃপক্ষ ও বাংলাদেশি কমিউনিটিকে ধন্যবাদ জানান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাফলার বর্তমান প্রেসিডেন্ট নজরুল আলম, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ড. মাহবুব খান, সাবেক প্রেসিডেন্ট ও বাফলা চ্যারিটির কো-অর্ডিনেটর শিপার চৌধুরী, বাফলার প্রথম প্রেসিডেন্ট বিশিষ্ট ডেন্টিস্ট ডা. আবুল হাসেম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম, সাবেক প্রেসিডেন্ট জসিম আশরাফী ও পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারি আব্দুস সামাদ।

এলএবাংলাটাইমস/এলএ/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৭৬৪ বার

আপনার মন্তব্য