যুক্তরাষ্ট্রে আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 07:49pm

|   লন্ডন - 01:49pm

|   নিউইয়র্ক - 08:49am

  সর্বশেষ :

  বিএনপি ভাঙবে অভ্যন্তরীণ কোন্দলে : কাদের   ফ্লোরিডায় ব্যাংকে বন্দুকধারীর গুলি, নিহত ৫   যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা ভেনেজুয়েলার   বিশ্ব ইজতেমা ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি   বাংলাদেশি হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেবে ভারত: অমিত শাহ   নিউইয়র্কে নববর্ষ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের শুভেচ্ছা বিনিময়   প্যারেডের থ্রিডি প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাফলার ফান্ডরাইজিং অনুষ্ঠিত   নিউ ইয়র্কে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, গ্রেপ্তার ৪   আরব আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীকে আশ্রয় দিলে এক লাখ দিরহাম জরিমানা   টয়লেট টিস্যুতে ‘আল্লাহ’, বিক্ষুব্ধ যুক্তরাজ্যের মুসলিমরা   ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন   বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদের তালিকায় শেখ হাসিনা   শান্তি ও মানবাধিকারের অনন্য আশ্রয়ভূমি ফ্রান্স   কারাগারে ‘মারা গেছেন’ মসজিদে নববীর এক ইমাম   ক্যালিফোর্নিয়ায় বাংলাদেশি খুদে শিক্ষার্থীর চমক, ৯ বছরেই কলেজে

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

জাতীয়করণের দাবিতে এবার আমরণ অনশনে মাদ্রাসা শিক্ষকরা

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৯ ১১:২৩:৫৪

নিউজ ডেস্ক: এবার জাতীয়করণের দাবিতে আমরণ অনশনে যাচ্ছেন নিবন্ধন পাওয়া সকল স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে আমরণ অনশন শুরু করেছেন শিক্ষকরা।

এর আগে জাতীয়করণের দাবিতে ১ জানুয়ারি থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন তারা।

সোমবার (৮ জানুয়ারি) বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির নির্বাহী কমিটির সভায় নতুন এই কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির মহাসচিব কাজী মখলেছুর রহমান জানান, বিগত ৮ দিন ধরে এখানে অবস্থান ধর্মঘট পালন করছি। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শিক্ষামন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছি। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের আশ্বাস পাইনি। তাই আমরা এখন থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি ঘোষণা করলাম। জাতীয়করণের দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবো।

তিনি আরো জানান, এ অনশনে যদি কোনো শিক্ষক মৃত্যুবরণ করেন তাহলে জাতির কাছে সরকারের জবাবদিহিতা করতে হবে। আমাদের ন্যায্য দাবি মেনে নিতে হবে। আমরা সরকারের সমালোচনা করতে আসিনি। এই শীতে শিক্ষকরা আর কত রাস্তায় বসে থাকবে। আমরাও আমাদের স্বজনদের কাছে ফিরে যেতে চাই।

অনশনরত শিক্ষকরা জানান, একই পরিপত্রে ১৯৯৪ সালে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের বেতন নির্ধারণ করা হয় ৫০০ টাকা। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী ৫ম শ্রেণির কার্যক্রম একই হলেও ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে সরকার।

এ সব বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতি মাসে ২২ থেকে ৩০ হাজার টাকা বেতন হলেও ১ হাজার ৫১৯টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা সরকারের থেকে কোনো বেতন পান না।

প্রসঙ্গত, জাতীয়করণের দাবিতে গত পহেলা জানুয়ারি সোমবার থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষকরা। এখন পর্যন্ত অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১০ জন।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৯৩৫ বার

আপনার মন্তব্য