যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ০৩ Jul, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 07:53am

|   লন্ডন - 02:53am

|   নিউইয়র্ক - 09:53pm

  সর্বশেষ :

  করোনা উপসর্গ নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এম এ হকের মৃত্যু   সিলেটের গোইয়ানঘাট সীমান্তে ভারতীয় খাসিয়ার গুলিতে আরেক বাংলাদেশি নিহত   এমপির মেয়ে তাই ১০ বছর বিদেশে থেকেও চাকরিতে বহাল   দেশে একদিনে ৪২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩১১৪   ভ্যাকসিন আবিস্কারে কান্না ছুঁয়ে গেছে দেশবাসীকে; কে এই আসিফ মাহমুদ   ‘পিক-আপ’ সেবা চালু করলো লস এঞ্জেলেস পাবলিক লাইব্রেরি   ১১.১ শতাংশ কর্মহীন হওয়ায় নতুন আরও ৪.৮ মিলিয়ন চাকুরির সুযোগ সৃষ্টি   করোনায় মৃত্যু প্রকাশিত সংখ্যার চেয়ে ২৮ শতাংশ বেশি   সান্তা মোনিকায় মাস্ক না পড়লে সর্বোচ্চ ১০০০ ডলার জরিমানা   লস এঞ্জেলেসে জিমনিশিয়ামেও পড়তে হবে মাস্ক ও গ্লাভস   করোনায় একদিনে গেল আরও ৫৫ প্রাণ, আক্রান্ত ১ লাখ ৭ হাজার ৬৬৭   মিয়ানমারে খনিতে ধস, নিহত ১১৩   লস এঞ্জেলেস পুলিশের বাজেট হ্রাস পেলো ১৫০ মিলিয়ন ডলার   দেশে আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়াল, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৮   বন্ধ হয়ে গেল রাষ্ট্রায়ত্ত সব পাটকল

মূল পাতা   >>   নিউইয়র্ক

নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগে স্বেচ্ছায় অবসরের হিড়িক

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৬-২৯ ১০:৩৬:২৯

 আপডেট: ২০২০-০৬-২৯ ১০:৪৪:৩৮

এলএ বাংলা টাইমস

নিজস্ব প্রতিবেদক:
জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুপরবর্তী বিক্ষোভ ও সহিংসতার পর নিউইয়র্ক পুলিশে (এনওয়াইপিডি) স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়ার ঘটনা হঠাৎ বেড়ে গেছে। গত ২৫ মে থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত ২৭২ জন এনওয়াইপিডি কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়ার আবেদন জানিয়েছেন। এ সংখ্যা আগের বছরের চেয়ে ৪৯ শতাংশ বেশি। অবসরে যেতে চেয়ে এমন অনেক আবেদনপত্র এখনো বিভাগীয় বিবেচনার অপেক্ষায় আছে।

নিউইয়র্ক পুলিশের চাকরিবিধি অনুযায়ী কর্মক্ষেত্রে ২০ বছর হলেই আগাম অবসরে যাওয়ার সুযোগ আছে। অনেকেই ২০ বছর বয়সে চাকরিতে যোগ দিয়ে ৪০ বছর বয়সেই সব সুবিধাসহ অবসরে যাওয়ার সুযোগ নিয়ে থাকেন।

গত ২৫ মে মেনিয়াপোলিসে পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড নিহত হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে বিক্ষোভ ও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। নিউইয়র্কে টানা চার সপ্তাহের প্রতিবাদ সমাবেশে কয়েক’শ পুলিশ আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ সংস্কারের জোরালো দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য নতুন আইন জারি করেছে। নগরীর মেয়র বিল ডি ব্লাজিও পুলিশে ব্যাপক পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছেন। এ ছাড়া পুলিশের বাজেট কর্তন করা হয়েছে। এ নিয়ে নিউইয়র্ক পুলিশের মধ্যে অসন্তোষ লক্ষণীয় হয়ে উঠেছে।

‘ডিফান্ড পুলিশ’ স্লোগান আন্দোলনকারীদের কাছে এখন জনপ্রিয়। কেউ কেউ পুলিশি ব্যবস্থা সম্পূর্ণ উঠিয়ে দেওয়ারও দাবি জানাচ্ছেন। সামাজিক ও মানবিক কাজে এ অর্থ ব্যবহার করলে অপরাধ এমনিতেই নিয়ন্ত্রিত হয়ে যাবে বলে তাঁরা মনে করেন।নিউইয়র্কে পুলিশ বেনেভোলেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট প্যাট্রিক লিঞ্চ মনে করেন, জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুপরবর্তী বিক্ষোভ সমাবেশ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ সদস্যদের ভেঙে পড়ার পর্যায়ে যেতে হয়েছে। এমন পরিবেশে পুলিশ কীভাবে দায়িত্ব পালন করবে, এমন প্রশ্ন উঠেছে।

এর আগে ২৫ জুন নিউইয়র্ক পোস্টের পৃথক একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রঙ্কসের এক প্রিসিঙ্কটের দায়িত্বে থাকা ডেপুটি ইন্সপেক্টর রিচার্ড ভেরা কাজে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কোনো সঠিক নির্দেশনা নেই—এমন অভিযোগে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। নগরীর পুলিশে অপরাধ প্রতিরোধ ইউনিট বাতিল করা নিয়েও এ পুলিশ কর্মকর্তা তাঁর অসন্তোষের কথা জানিয়েছেন।

এলএ বাংলা টাইমস/এম/বিএইচ

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২৩২ বার

আপনার মন্তব্য