যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 10:27am

|   লন্ডন - 05:27am

|   নিউইয়র্ক - 12:27am

  সর্বশেষ :

  আইসিসি মিয়ানমারে এলে বন্দুক ধরবো : উইরাথু   ২০ বছর পর পার্লামেন্টে ফিরলেন আনোয়ার ইব্রাহিম   নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে পাল্টা ব্যবস্থার হুমকি সৌদির   চার দিনের সফরে সৌদি আরব যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী   একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য ৭০০ কোটি টাকা অনুমোদন   খাশোগি নিখোঁজের ‘বিশ্বাসযোগ্য তদন্ত’ চায় যুক্তরাজ্য-ফ্রান্স-জার্মানি   গ্রামের একটি তৃণমূল বীরের বাদ্যযন্ত্র নিয়ে কাহিনী   অনুভবে নজরুল: জ্যাকসন হাইটসে শতদলের মনোজ্ঞ অনুষ্ঠান   হলিউডে দুর্গাপূজা আগামী ১৯, ২০ ও ২১ অক্টোবর   প্র‌তিভার সন্ধা‌নে ইতা‌লীতে শুরু হ‌চ্ছে দি রাইজিং স্টার   এবার মুম্বাইয়ে বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক অবস্থান   ড. ইউনুসের কারণে পদ্মা সেতুতে অর্থায়ন করেনি বিশ্বব্যাংক : শেখ হাসিনা   অবশেষে বিএনপিকে নিয়ে ‘জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট’র আত্মপ্রকাশ, বিকল্পধারা আউট   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতেও বিচার চলবে   চট্টগ্রামে পাহাড় ও দেয়াল ধসে ৪ জনের মৃত্যু

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

‘ইহুদি জাতীয় রাষ্ট্র’ বিল পাস করেছে ইসরাইলি পার্লামেন্ট

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৭-১৯ ০২:১৫:৪১

নিউজ ডেস্ক: বিতর্কিত ‘ইহুদি জাতীয় রাষ্ট্র’ বিল পাস করেছে ইসরাইলি পার্লামেন্ট নেসেট। ইসরাইলি আরব সংসদ সদস্যদের বিরোধিতা সত্ত্বেও বুধবার বিলটি পাস করা হয়। অন্যরা সমালোচনা করলেও ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী এটিকে ‘ঐতিহাসিক মুহূর্ত’ বলে উল্লেখ করেছেন। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিতর্কিত এই আইনের ফলে ইসরাইলের জাতীয় স্বার্থেই বসতি স্থাপন আরো বাড়াতে পারবে তেলআবিব। এ ছাড়া দেশটির অফিসিয়াল ভাষা হিসেবে আরবির মর্যাদাও কমে যাবে।

এ ছাড়া নতুন আইন অনুযায়ী ‘পূর্ণাঙ্গ ও সমন্বিত’ জেরুজালেম হবে ইসরাইলের রাজধানী।

প্রসঙ্গত, এর আগেই বিলটিতে অনুমোদন দেয় ইসরাইলি মন্ত্রিসভা। বুধবার নেসেটে পাস হওয়ার মাধ্যমে সেটি আইনে পরিণত হলো।

ইসরাইলি আরব সংসদ সদস্যরা এই আইনের নিন্দা জানিয়েছেন। কিন্তু দেশটির ডানপন্থী সরকার বলছে, হহুদিদের ঐতিহাসিক জন্মস্থান হলো ইসরাইল এবং নিজেদের ব্যাপারে স্বাধীন সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার তাদের রয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, আট ঘণ্টার উত্তপ্ত আলোচনার পর বিলটি সংসদে পাস হয়। বিলটির পক্ষে ভোট দেন ৬২ জন সংসদ সদস্য। আর বিপক্ষে ভোট পড়ে ৫৫টি।

ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট ও অ্যাটর্নি জেনারেলের আপত্তি জানানোর পর বিলটি থেকে কিছু অনুচ্ছেদ বাদ দেওয়া হয়েছে। যেমন- ইহুদিরাই একমাত্র সম্প্রদায় এমন একটি অনুচ্ছেদ বাদ দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৯০ লাখ ইসরাইলি জনসংখ্যার ২০ শতাংশ ইসরাইলি আরব। আইন অনুযায়ী তাদের সমান অধিকারের কথা বলা হলেও তাদের দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক হিসেবে বিবেচনা করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়া শিক্ষা, চাকরি, স্বাস্থ্য ও বাসস্থানসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা বৈষম্যের শিকার বলে অভিযোগ রয়েছে।

ইসরাইলি আরব এমপি আহমেদ তিবি বলেছেন, এই বিল পাসের ফলে ইসরাইলে গণতন্ত্রের মৃত্যু হলো।

আর মানবাধিকার বিষয়ক এনজিও আদালাহ বলেছে, এর ফলে বর্ণবাদী নীতির মাধ্যমে জাতিগত শ্রেষ্ঠত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৮০৩ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সাম্প্রতিক খবর