যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 08:00am

|   লন্ডন - 02:00am

|   নিউইয়র্ক - 09:00pm

  সর্বশেষ :

  ইরানের হামলায় আহত ১১ মার্কিন সেনা   ইভিএমেও জাল ভোট দেওয়া সম্ভব: ইসি রফিকুল   সৌদি আরব থেকে ফিরলেন আরও ১০৯ বাংলাদেশি   সুইডেনে হিজাব পরেই অমুসলিমদের প্রতিবাদ   ভোটের তারিখ পরিবর্তনে সরকারের কোনো আপত্তি নেই: কাদের   ৩১ বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত পাঠাল যুক্তরাষ্ট্র   পোশাক খাতকে ছাড়িয়ে যাবে আইটির আয় : জয়   সোলাইমানি হত্যার দায়ে ট্রাম্পের প্রাণদণ্ড হওয়া উচিত : মার্কিন সাংবাদিক   বিমানের সিটের হাতলে ২৪ কেজি সোনা   বিশ্বের সবচেয়ে বড় বরফ উৎসব   মোদির পিতার নাগরিকত্ব সনদ চাইলেন অনুরাগ কেশপ   সোলাইমানি হত্যার পর ইসরাইলে প্রথম রকেট হামলা   মিরপুর সড়কে গার্মেন্ট কর্মীরা, যানচলাচল বন্ধ   ২৪ বছর পর দেশে ফিরে সড়কে প্রাণ গেল আমেরিকা প্রবাসীর   এবার বলিউডে অভিনয় করবেন ব্রিটিশ অভিনেতা কিরণ রায়

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

বিদেশ থেকে উইঘুর মুসলমানদের ধরে আনছে চীন

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১২-০৩ ১১:২৯:১৩

নিউজ ডেস্ক:
বিদেশ থেকেও উইঘুর মুসলমানদের ফিরিয়ে এনে বন্দিশিবিরে আটক রাখছে চীন। মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এ তথ্য জানিয়েছে।

চীনের স্বায়ত্ত্বশাসিত অঞ্চল শিনজিয়াং থেকে ইলিয়াসিজিয়াং রেহমান ও  তার স্ত্রী মারিনিশা আবুদুয়ানি মিশরে পড়াশোনা করতে গিয়েছিলেন। দুই বছর আগে এই দম্পতি তাদের ঘরে দ্বিতীয় সন্তান আসার প্রহর গুনছিলেন।

২০১৭ সালের জুলাইতে মিশরীয় কর্তৃপক্ষ সেদেশে বসবাসরত শত শত উইঘুর মুসলমানদের বিরুদ্ধে ধরপাকড় অভিযান শুরু করে। এদেরকে আটকের পর চীনা কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়। শিনজিয়াংয়ে বন্দিশিবিরে চীন লাখ লাখ উইঘুর মুলসমানকে আটকে রেখে নির্যাতন করছে বলে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো বিভিন্ন সময় অভিযোগ করেছে। চীন অবশ্য দাবি করেছে, বন্দি নয় বরং, সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটনের জন্য এখানে তারা উইঘুরদের ‘পুনঃশিক্ষা’ বা ‘কারিগরি শিক্ষা’ দিচ্ছে।

ইলিয়াসিজিয়াং ও মারিনিশা মিশর থেকে পালানোর চেষ্টা করছিলেন। তবে স্ত্রীকে নিয়ে ইলিয়াসিজিয়াংয়ের আর পালানো হয়নি। এর আগেই নিখোঁজ হন তিনি।

ইলিয়াসিজিয়াং যেদিন নিখোঁজ হন সেদিন প্রায় ২০০ শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে ১৬ জনকে চীনে ফেরত পাঠানো হয়।

ইলিয়াসিজিয়াং নিখোঁজ হওয়ার পরপরই স্ত্রী মারিনিশা একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। প্রায় দুই বছর ধরে স্বামীকে খুঁজছেন মারিনিশা। কোনো সন্ধান মেলেনি ইলিয়াসিজিয়াংয়ের। তবে মারিনিশার আশা একদিন তার স্বামী ফিরে আসবে, মিলন হবে পুরো পরিবারের।

মারিনিশা বলেন, ‘আমাদের সন্তানদের তাদের বাবাকে প্রয়োজন। স্বামীর সঙ্গে পুর্নমিলনের আগ পর্যন্ত আমি কখনোই আশা ছাড়ব না’।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৩৫ বার

আপনার মন্তব্য