যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 06:10pm

|   লন্ডন - 01:10pm

|   নিউইয়র্ক - 08:10am

  সর্বশেষ :

  নিউইয়র্কে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের আলোচনা সভা   লন্ডনে বিক্ষোভের মুখে মোদি   কোটা সংস্কার আন্দোলন: ঢাবি ক্যাম্পাসজুড়ে ভীতি   কোচিং ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে পদত্যাগ করলেন ছাত্রলীগ নেতা রনি   খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে পারলেন না বিএনপি নেতারা   প্রবাসীদের ভোটাধিকার দিতে নির্বাচন কমিশন কাজ করছে: সিইসি   ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, ধসে পড়েছে শতাধিক বাড়িঘর   সৌদিতে সিনেমা হল উদ্বোধন   কিমের সঙ্গে আলোচনা সফল না হলে পদত্যাগ : আবেকে ট্রাম্প   টাইম ম্যাগাজিনের ১০০ প্রভাবশালীর তালিকায় শেখ হাসিনা   বিশ্বের ৯৫ শতাংশ মানুষ দূষিত বায়ু গ্রহণ করছে   বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভারত   আরবদের বিরুদ্ধে আরবেদরই কাজে লাগাতে চাইছেন ট্রাম্প   বিসিবির চুক্তি থেকে বাদ সৌম্য-তাসকিন-সাব্বির   সৌদিতে আবার সিলিন্ডার বিস্ফোরণে সাত বাংলাদেশির মৃত্যু

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

পূর্ব চীন সাগরে দুই জাহাজের সংঘর্ষ, বাংলাদেশিসহ নিখোঁজ ৩২

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৭ ১১:২১:৩০

নিউজ ডেস্ক: পূর্ব চীন সাগরের উপকূলে ইরানের একটি তেলবাহী ট্যাংকারের সঙ্গে চীনের পণ্যবাহী জাহাজের সংঘর্ষের ঘটনায় দুই বাংলাদেশিসহ ৩২ জন নিখোঁজ হয়েছেন।

রোববার চীনা কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সংঘর্ষের পর ইরানের তেলবাহী ট্যাংকারে আগুন লেগে যায় এবং ওই অবস্থায় সেটি পূর্ব চীন সাগরের দিকে এগোতে থাকে।

চীনের পরিবহন মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে জানিয়েছে, সাংহাই উপকূল থেকে ১৬০ নটিক্যাল মাইল দূরে শনিবার সন্ধ্যায় পানামায় নিবন্ধীত ইরানের সানচি ট্যাংকারের সঙ্গে চীনের সিএফ ক্রিস্টাল জাহাজের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় তেলবাহী ট্যাংকারের ৩২ ক্রু নিখোঁজ হয়েছেন।

১০ লাখ ব্যারেলের সমপরিমাণ ১ লাখ ৩৬ হাজার টন হালকা অপরিশোধিত জ্বালানি তেল নিয়ে সানচি ট্যাংকার ইরান থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার উদ্দেশে যাচ্ছিল। বর্তমান বাজারদর অনুযায়ী, এ পরিমাণ তেলের দাম ৬ কোটি ডলার।

চীনের পরিবহন মন্ত্রণালয় তাদের বিবৃতিতে জানিয়েছে, সানচি এখনো ভাসছে এবং পুড়ছে। ট্যাংকার থেকে তেল চুয়ে পানিতে পড়ছে। উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছি আমরা।’ মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে, রোববার সকাল ৯টা নাগাদ ঘটনাস্থলে চারটি উদ্ধারকারী জাহাজ ও তিনটি পরিচ্ছন্নতাকারী জাহাজ পাঠানো হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভিতে প্রচারিত ফুটেজে দেখা গেছে, ট্যাংকারে আগুন জ্বলছে এবং সরু কালো ধোঁয়ার কুণ্ডলী উড়ছে।

রয়টার্সের শিপ ট্র্যাকিং ডাটার তথ্যমতে, সানচি নামের তেলবাহী ট্যাংকারটি ২০০৮ সালে তৈরি করা হয় এবং এর ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে ন্যাশনাল ইরানিয়ান ট্যাংকার করপোরেশন (এনআইটিসি)। তবে এর নিবন্ধিত মালিক ব্রাইট শিপিং লিমিটেড। রয়টার্স আরো জানিয়েছে, ইরানের খার্জ দ্বীপ থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার দায়েশানে পৌঁছানোর কথা ছিল সানচি ট্যাংকারের।

চীন সরকার জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৬৪ হাজার টন শস্য ‍বোঝাই করে গুয়াংডং প্রদেশে ফেরার পথে সিএফ ক্রিস্টাল জাহাজটির সঙ্গে সানচি ট্যাংকারের সংঘর্ষ হয়। সিএফ ক্রিস্টাল হংকংয়ে নিবন্ধিত একটি বাল্ক জাহাজ।

সংঘর্ষের ঘটনায় সানচি ট্যাংকারের ৩২ ক্রু নিখোঁজ হলেও সিএফ ক্রিস্টালের ২১ ক্রুর সবাইকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে চীনা কর্তৃপক্ষ। এই ২১ জন চীনের নাগরিক। রয়টার্স জানিয়েছে, সিএফ ক্রিস্টাল ২০১১ সালে নির্মিত হয়।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইরানের এনআইটিসি-পরিচালিত জাহাজের সংঘর্ষের মুখে পড়ার দ্বিতীয় ঘটনা এটি। ২০১৬ সালের আগস্ট মাসে সিঙ্গাপুর প্রণালিতে ইরানের একটি সুপারট্যাংকারের সঙ্গে একটি কন্টেইনার জাহাজের সংঘর্ষ হয়। তবে ওই ঘটনায় কারো প্রাণ যায়নি এবং পরিবেশও দূষিত হয়নি। এবার ট্যাংকার থেকে তেল চুয়ে পানিতে যাচ্ছে এবং এতে পরিবেশের ক্ষতি হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৬১১ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত