যুক্তরাষ্ট্রে আজ রবিবার, ৩১ মে, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 07:33pm

|   লন্ডন - 02:33pm

|   নিউইয়র্ক - 09:33am

  সর্বশেষ :

  কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় আন্দোলন: মেলরোজ ও ফেরারফ্যাক্স স্ট্রিটে সবচেয়ে বেশি লুন্ঠন   করোনায় একদিনে গেল আরও ৪৮ প্রাণ, আক্রান্ত ৫৩ হাজার ৬৫১   নিরাপত্তার জন্য লস এঞ্জেলেসে মোতায়েন ন্যাশনাল গার্ড সেনা   লস এঞ্জেলেসে ব্যাপক সংঘর্ষ-অগ্নিসংযোগ, কারফিউ‌ জারি   লস এঞ্জেলেসে বিক্ষোভ, ভাঙচুর, লুণ্ঠনের ঘটনায় গ্রেফতার ৫ শ   অকল্যান্ডে বন্দুক হামলায় ফেডারেল সিকিউরিটি অফিসার নিহত   লস এঞ্জেলেসের রেস্টুরেন্টগুলোতে বড় পরিসরে ব্যবসার অনুমতি   দেশে করোনায় মৃত্যু ৬০০ ছাড়াল, নতুন শনাক্ত ১৭৬৪   করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশকে ৬২২২ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে আইএমএফ   কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: বিক্ষোভে উত্তাল লস এঞ্জেলেস, হয়েছে ভাঙচুর, ২ পুলিশ আহত   পদ্মা সেতুর সাড়ে ৪ কিলোমিটার দৃশ্যমান   প্রথমবারের মতো একই মাসে চন্দ্র ও সূর্যগ্রহণ   জিয়াউর রহমানের ৩৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ   প্লাজমা থেরাপি ও রেমডেসিভির ব্যবহারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নিষেধাজ্ঞা   বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলো যুক্তরাষ্ট্র

মূল পাতা   >>   লস এঞ্জেলেস

ক্যালিফোর্নিয়ার করোনাকালীন নিয়ম ধর্মীয় স্বাধীনতার ব্যত্যয় ঘটাতে পারে!

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৫-২০ ১৪:৪১:২৫

 আপডেট: ২০২০-০৫-২০ ১৪:৪২:৫১

সংগৃহীত ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:
করোনাকালীন এই সময়ে ক্যালিফোর্নিয়ায় ধর্মীয় স্বাধীনতা বিঘ্নিত হতে পারে বলে আশঙ্কা জানিয়েছে মার্কিন বিচার বিভাগ। মঙ্গলবার গভর্নর গেভিন নিউসামকে লেখা এক চিঠিতে সাংবিধানিক এই অধিকার লঙ্ঘনের কথা জানানো হয়।

তিন পাতার ওই চিঠিতে অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাটর্নি জেনারেল ও বিচার বিভাগের মানবাধিকার শাখার প্রধান এরিক এস ডেরিয়াব্যান্ড অভিযোগ করেন ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলো তাদের ধর্মীয় স্বাধীনতা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ডেরিয়াব্যান্ড এর মতে, মার্কিন সংবিধানে মহামারির কারণ দেখিয়ে ধর্মীয় বিষয় থেকে বিরত রাখান কোনো ব্যতিক্রম নিয়ম নেই।                
      
ডেরিয়াব্যান্ড আরও প্রশ্ন তুলেন ক্যালিফোর্নিয়ার লকডাউন শিথিল করে ধর্ম অনুসারীরা সামাজিক দূরত্ব মেনে  ধর্মালয়ে জড়ো হতে পারছেন  না। অপরদিকে, প্রয়োজনীয় বা অপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন ব্যবসা-শিল্প নানা শর্তে চালু রাখা হচ্ছে। এতে বৈষম্য তৈরি হয়েছে। ধর্ম বিশ্বাসীরা অসাম্যের শিকার হয়েছেন।

এছাড়া লকডাউন শিথিলের প্রথমদিকে রেস্টুরেন্ট, শপিং মল ও অফিস খুলে দিলেও ধর্মীয় প্রার্থনালয়গুলো খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা আরও পরে থাকায় সমালোচনা করেন ডেরিয়াব্যান্ড। ক্যালিফোর্নিয়ার সংবিধানে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর আরও অগ্রাধিকার ও সম্পৃক্ততা থাকা উচিত বলে জানান ডেরিয়াব্যান্ড।

অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ক্যালিফোর্নিয়ার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো লকডাউন পরিস্থিতি মেনে চলছে। তবে বুট্টে কাউন্টিতে মা দিবস উপলক্ষে চার্চের একটি অনুষ্ঠান থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়ার ঘটান ঘটে। সে থেকে এ ধরনের অনুষ্ঠান থেকে বিরত থাকা ও অংশ নেওয়াদের কোয়ারান্টাইনে রাখার চেষ্টা করে কাউন্টি কর্তৃপক্ষ।

মাইক জেকবসন নামের একজন যাজক ফেসবুকে লেখেন, ৭ সপ্তাহ ধরে আমরা চার্চ থেকে দূরে। আমাদের একসাথে হওয়া দরকার যা অনেকেই বুঝতে পারছেন না।

এর আগে বেশ কয়েকটি চার্চ আদালতের দারস্থ হয় যাতে গভর্নর নিউসামের চার্চে ধর্মপালনে নিষেধাজ্ঞা বাতিল করতে পারেন। তবে তারা সফল হননি।


/এলএ বাংলা টাইমস/এন/এইচ



এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৪২৭ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সাম্প্রতিক খবর